somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

বিশ্ব রাজনীতিতে শান্তির মডেল হতে চলেছেন শেখ হাসিনা

১৪ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ভোর ৪:৩২
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :


শান্তিতে নোবেল বিজয়ী অং সান সুচির নেতৃত্বাধীন মিয়ানমার সেনাবাহিনী যখন হাজার হাজার রোহিঙ্গা মুসলিম হত্যা করছে; তখন পাশের দেশের নেতা হয়ে সেই নির্যাতিতদের পাশে দাঁড়িয়েছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। রোহিঙ্গা মুসলিম শরণার্থীদের প্রতি এই দরদী মনোভাবের পরিচয় দেয়ায় আবার আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলে আলোচিত হচ্ছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নাম। ১৯ বছর আগে তিনি পার্বত্য চট্টগ্রামে শান্তিচুক্তি করে ইতিহাস রচনা করেছেন; ছিটমহল বিনিময় চুক্তি বাস্তবায়ন করে নিজেকে অন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছেন; এখন রোহিঙ্গাদের ব্যাপারে সময়োপযোগী সিদ্ধান্ত নিয়ে নিজেকে বিশ্বের মানবতাবাদী রাষ্ট্রনায়কের কাতারে নিয়ে গেলেন। রোহিঙ্গা মুসলিম শরণার্থীদের প্রতি সহানুভতিশীল আচরণ তাঁকে বিশ্ব রাজনীতিতে অন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছে।

বিশ্বের অবহেলিত যাদের দেখার কেউ নেই তাদের জন্য যেন রয়েছেন শেখ হাসিনা। মানবদরদী এই নেত্রী নিজেকে ধীরে ধীরে এমন পর্যায়ে নিয়ে যাচ্ছেন যা ছোঁয়া অন্য নেতাদের পক্ষে প্রায় অসম্ভব। সীমিত সাধ্যের মধ্যেও শেখ হাসিনা মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যের রোহিঙ্গা মুসলিম শরণার্থীদের বাংলাদেশে আশ্রয় দিয়েছেন। তাদের থাকা, নিরাপত্তা ও খাবার নিশ্চিত করেছেন। অথচ রোহিঙ্গাদের চাপ বহন করা বাংলাদেশের জন্য সত্যিই চ্যালেঞ্জ। তারপর রোহিঙ্গা সমস্যাকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মানবিক দৃষ্টিতে দেখছেন; এ বার্তা বিশ্ব বিবেককে নাড়া দিয়েছে। তাঁর শান্তিবাদের দর্শন, চেতনার মানবতাবাদী পদক্ষেপ সারা বিশ্বে নতুন দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে।

রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনে গিয়ে শেখ হাসিনা বলেছেন বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের খাদ্য-আশ্রয় দেয়া হচ্ছে। তিনি রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে মিয়ানমারের ওপর চাপ সৃষ্টি করতে আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোকে আহ্বান জানিয়েছেন । তিনি বিশ্ব সম্প্রদায়ের প্রতি এই আহ্বান জানিয়েছেন যেন তারা মিয়ানমারের নেতা সুচির ওপর চাপ দিয়ে রোহিঙ্গা মুসলিমদের তাদের নিজ দেশে নিতে বাধ্য হয়। জাতিসংঘের অধিবেশনে তিনি এ ইস্যুকে প্রাধান্য দেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন।

বিশ্বের যে ক’জন নেতাকে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় গুরুত্ব দেয় শেখ হাসিনা তাদের মধ্যে অন্যতম। যুক্তরাষ্ট্রের ফরেন অ্যাফেয়ার্স সাময়িকীতে মানবজাতির উন্নয়ন ও কল্যাণের বিভিন্ন ক্ষেত্রে মৌলিক চিন্তা, গবেষণা, উদ্ভাবন, সৃষ্টি এবং দৃষ্টি আকর্ষণমূলক কাজের জন্য সারাবিশ্ব থেকে যে একশ’ শীর্ষ ব্যক্তির তালিকা করা হয় সেখানে শেখ হাসিনার অবস্থান ১৩তম। যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক নিউ ইয়র্ক টাইমস সাময়িকীর জরিপে বিশ্বের সেরা প্রভাবশালী ও ক্ষমতাধর নারী নেতৃত্বের ১২ জনের তালিকা করা হয়েছিল ২০১১ সালে। ওই তালিকায় তার অবস্থান হলো সপ্তম। আবার ২০১০ সালে নিউ ইয়র্ক টাইমস সাময়িকীর অনলাইন জরিপে তিনি বিশ্বের সেরা ১০ ক্ষমতাধর নারীর মধ্যে ষষ্ঠ স্থানে ছিলেন শেখ হাসিনা। ২০১৫ সালে বিশ্বের ক্ষমতাধর নারীদের তালিকায় শেখ হাসিনার অবস্থান ৫৯তম। ২০১০ সালে সিএনএন বিশ্বের ক্ষমতাধর ৮ এশীয় নারীর তালিকা প্রকাশ করে। ওই তালিকায় ষষ্ঠ অবস্থানে ছিলেন শেখ হাসিনা। যোগ্য নেতৃত্বের জন্যই অনেকগুলো আন্তর্জাতিক পুরস্কারও তিনি অর্জন করেন। ১৯৯৭ সাল থেকে এ পর্যন্ত আন্তর্জাতিক পর্যায়ে প্রায় ৩০টি পুরস্কার ও পদক অর্জন করেছেন।

বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে দেখা যায় রোহিঙ্গা ইস্যুতে মানবিকতা এবং শান্তির অনন্য নজির স্থাপনের জন্য শেখ হাসিনাকে নোবেল শান্তি পুরস্কারে ভূষিত করার প্রস্তাব করছেন বিশ্বের খ্যাতিমান চিন্তাবিদরা। অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটির রাজনীতি এবং আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের অধীনে পরিচালিত হয় অক্সফোর্ড নেটওয়ার্ক অব পিস স্টাডিজ (অক্সপিস)। অক্সপিসের দু’জন শিক্ষাবিদ ড. লিজ কারমাইকেল এবং ড. অ্যান্ড্রু গোসলার মনে করেন, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী যেভাবে নির্যাতিত রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়েছেন, তা সারাবিশ্বের জন্য এক অনুকরণীয় বার্তা। তাদের মতে, ইউরোপ ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মতো দেশগুলো যখন শরণার্থী নিয়ে নানা সমস্যায় জর্জরিত; তখন বাংলাদেশ দেখালো কিভাবে এই সমস্যার মোকাবেলা করতে হয়। তারা দু’জনই শেখ হাসিনাকে ‘মানবিক বিশ্বের প্রধান নেতা’ হিসেবে চিহ্নিত করেছেন।

কলাম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের পিস স্টাডিজ বিভাগের তিন অধ্যাপক যৌথভাবে শেখ হাসিনাকে বিশ্ব শান্তির দূত হিসেবে চিহ্নিত করেছেন। ড. অলডো সিভিকো, ড. দীপালী মুখোপাধ্যায় এবং ড. জুডিথ ম্যাটলফ যৌথভাবে বলেছেন, নোবেল শান্তি জয়ী অং সান সুচি আর বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কার্যক্রম পাশপাশি মূল্যায়ন করলেই বোঝা যায় বিশ্ব শান্তির নেতা কে। তাদের মতে, সুচি মানবতার চরম সীমা লঙ্ঘনকারী বার্মার সামরিক জান্তাদের রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর চালানো পৈশাচিকতাকে প্রশ্রয় দিচ্ছেন। অন্যদিকে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের অর্থনীতি এবং নিরাপত্তার চরম ঝুঁকির মধ্যেও রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিচ্ছেন। তাদের মতে, শেখ হাসিনা শান্তির নতুন বার্তা দিয়েছেন গোটা বিশ্বকে।

হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের হার্ভার্ড ডিভাইনিটি স্কুলের ডিন ডেভিড এন হেম্পটন মনে করেন, রোহিঙ্গা ইস্যুতে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ শান্তির নতুন মাত্রা দিয়েছে। কেবল শান্তির স্বার্থে দেশটি চরম অর্থনৈতিক ঝুঁকি নিয়েছে। এতগুলো শরণার্থীকে আশ্রয় দেয়ার জন্য মানবিক হৃদয় লাগে। জার্মানি যা করতে পারেনি; শেখ হাসিনা তা করে দেখিয়েছেন। অস্ট্রেলিয়ান ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি ইন ক্যানবেরার অধীনে পরিচালিত ‘পিস অ্যান্ড রিসার্চ ইনস্টিটিউট’। এই ইনস্টিটিউটের প্রধান ড. হেনরিক উরডাল মনে করেন, বিশ্বশান্তি প্রতিষ্ঠায় অবদানের জন্য শেখ হাসিনাকেই বিশ্ব শান্তির নেতার মর্যাদা দেয়া উচিত।



সর্বশেষ এডিট : ১৪ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৭ বিকাল ৪:০৬
২২টি মন্তব্য ২১টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

তোমার বাড়ির ঠিকানা খুঁজছি

লিখেছেন অর্ক, ১৮ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৭ রাত ৮:৪৫




রৌদ্রত্রপা ঘুমিয়ে পড়েছ কি
আর্দ্র রাত্রির বিষণ্ণতার চাদরে ঢাকা ঘুমে
হয়তো আচম্বিত নীল স্বপ্নের মাঝে
আমি এসে ছুঁয়েছি তোমার চিবুক
অবগুণ্ঠন সরিয়ে লজ্জানত চোখে
তাকিয়ে আছ তুমি আমার চোখের 'পরে।
রৌদ্রত্রপা স্বপ্নের নায়কেরা... ...বাকিটুকু পড়ুন

প্রিয়জন প্রতিশ্রুতি রেখে চলে গেলে!

লিখেছেন বিজন রয়, ১৮ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৭ রাত ৯:১০




প্রিয়জন স্বপ্ন রেখে চলে গেলে
হৃদ্যতায় কতটুকু উষ্ণতা হয়?
"আলো ও উত্তাপ
কিংবা
ফুল ও ফসল"
হৃদয়ের এইসব শুদ্ধতম দ্রোহ
সংগ্রাম ও সখ্যে স্মৃতিময় হয়।

প্রিয়জন প্রতিশ্রুতি রেখে চলে গেলে
ভালবাসার কতটুকু অগ্নিপরীক্ষা হয়?
"সূর্য ও জীবন
অথবা
প্রেম ও... ...বাকিটুকু পড়ুন

বাংলাদেশে এখন থেকে আতপ চালের ভাত খাওয়ার দিন শুরু

লিখেছেন :):):)(:(:(:হাসু মামা, ১৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ রাত ২:১৯


দিনকাদিন যেভাবে বাজারে চাঊলে দাম বেড়ে চলছে তাতে দেখা যাবে সাধারন মানুষকে এক সময় ভাত না খেয়ে মরতে হবে ।
এখন বাজারে চাউলের দাম সাধারন মানুষের নাগালের বাহিরে চলে... ...বাকিটুকু পড়ুন

** হ-য-ব-র-ল **

লিখেছেন মোস্তফা সোহেল, ১৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ সকাল ১১:২০



এখন সব চেয়ে বড় ইস্যু রোহিঙ্গা

বর্তমানে বাংলাদেশের সবচেয়ে আলোচিত ইস্যু রোহিঙ্গা। এই ইস্যুতে আর সব ইস্যু চাপা পড়ে গেছে। রোহিঙ্গারা ঘর-বাড়ি নিজের বাসস্থান হারিয়ে সত্যি অনেক মানবেতর জীবন যাপন... ...বাকিটুকু পড়ুন

শেখ হাসিনা নোবেলের সংক্ষিপ্ত ১০ এ,নিউজ কতটা সত্য??

লিখেছেন ইঞ্জিনিয়ার কবির আহমেদ মাধব, ১৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ সকাল ১১:৫০

শেখ হাসিনা নোবেলের সংক্ষিপ্ত ১০ এ,নিউজ কতটা সত্য??

আমার কাছে এই নিউজটা প্রথম আসে ভোরে, তিনটা বা সাড়ে তিনটার দিকে। দ্যা এশিয়ান এজ নামক এক ইংলিশ পোর্টালের মাধ্যমে। এর পরে দেখলাম... ...বাকিটুকু পড়ুন

×