somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

আমার পরিচয়

এক দেশে ছিলো এক রাজকন্যা....তার নাম ছিলো কঙ্কাবতী.....

আমার পরিসংখ্যান

আমার সকল পোস্ট (ক্রমানুসারে)

আমার দীপুদা- ৪

লিখেছেন কঙ্কাবতী রাজকন্যা, ১৩ ই জানুয়ারি, ২০১৮ রাত ৯:৪৮


কানাঘুষায় শুনতে পাই, বিয়ের পর থেকেই নাকি দীপুদাদের সংসারে অশান্তি লেগেই আছে। মা চাচী ফুফুরা প্রায়ই তাদেরকে নিয়ে মুখরোচক গল্প তোলে। বউ নাকি রাগ করে প্রায়ই তার বাবার বাড়ি চলে যায়। গন্ডগোলটা মূলত মেজো ফুপুর সাথেই। দীপুদা মায়ের অন্ধ সমর্থক তাই এত সমস্যা। এমনিতেই মেজ ফুপুর মাঝে চরম... বাকিটুকু পড়ুন

৫০ টি মন্তব্য      ৫৫৬ বার পঠিত     ১২ like!

আমার দীপুদা-৩

লিখেছেন কঙ্কাবতী রাজকন্যা, ০১ লা জানুয়ারি, ২০১৮ সকাল ১০:৫৯

হঠাৎ একদিন খবর পাই, দীপুদার বিয়ে। এই খবর মেজো ফুপু নাকি ফোনে জানিয়েছেন মাকে। এই মাসেই তার এনগেজমেন্টও হবে। খবরটাতে আমি কিছুক্ষনের জন্য স্তব্ধ হয়ে যাই। ভেতরে ভেতরে একটু আধটু না চরম বিস্মিত হই! তবে খুব চুপচাপ শান্ত মাথায় শুনে যাই। বুকের ভেতর হতে উদগত দীর্ঘশ্বাস গিলে ফেলি। তারপর... বাকিটুকু পড়ুন

৫৯ টি মন্তব্য      ৫৪২ বার পঠিত     ১১ like!

আমার দীপুদা- ২

লিখেছেন কঙ্কাবতী রাজকন্যা, ৩০ শে ডিসেম্বর, ২০১৭ দুপুর ২:১৯


আমার দীপুদা - ১
পরদিন খুব ভোরে তুমি ফিরে গেলে। আর আমার দিন কাঁটেনা। সারাদিনমান কি এক ঘোরের মাঝে আমি। বিহ্বল হয়ে ঘুরে বেড়াই। অকারনে কান্না আসে আমার। নিজের মনে হাসি। লুকিয়ে আয়না দেখি। মনে হয় আয়নার মাঝে চেয়ে আছো তুমি। নিজের দুই গালে দেখি আরক্তিম আভা।... বাকিটুকু পড়ুন

৭৯ টি মন্তব্য      ৫১৪ বার পঠিত     ১৪ like!

আমার দীপুদা - ১

লিখেছেন কঙ্কাবতী রাজকন্যা, ২৭ শে ডিসেম্বর, ২০১৭ রাত ৯:৫১


মনে পড়ে দীপুদা, সেই যেবার তুমি মির্জাপুর ক্যাডেট থেকে এস এস সি তে সারা বোর্ডে প্রথম হয়ে বাড়ি এলে, তোমাকে নিয়ে বাড়ির সবার সে কি উচ্ছাস! এমনিতেই পুরো বাড়িতে তুমি ছিলে আমাদের আইডল। কেউ পড়ালেখা না করলেই বা অন্য কোনো দুষ্টুমী বা বড়দের চোখে মহাভারত অশুদ্ধ... বাকিটুকু পড়ুন

৮২ টি মন্তব্য      ৬৯৪ বার পঠিত     ১৬ like!

একি খেলা আপন সনে - ২১ (শেষ-পর্ব)

লিখেছেন কঙ্কাবতী রাজকন্যা, ১৮ ই ডিসেম্বর, ২০১৭ রাত ৯:১৮


মায়ের ডায়েরীটি শুধুমাত্র প্রতিদিনের ব্যাক্তিগত দিনলিপিই নয়। এই ডায়েরীতে মা লিপিবদ্ধ করে রেখে গিয়েছেন তার নানা রকম প্রিয় এবং অপ্রিয় জাগতিক ও অজাগতিক বিষয়গুলিও। যেমন ছেলে শিশু ও মেয়ে শিশুদের নাম। কয়েক পাতা জুড়ে মা শুধু নাম কালেকশনই করেছেন। যেমন আরও কয়েক... বাকিটুকু পড়ুন

১৪৬ টি মন্তব্য      ১০০৮ বার পঠিত     ১৫ like!

একি খেলা আপন সনে - ২০

লিখেছেন কঙ্কাবতী রাজকন্যা, ১৪ ই ডিসেম্বর, ২০১৭ রাত ৯:৪৫


বেশ কয়েক বছর পর এ বাড়িতে এলাম আমি। আমার ১৩ বছরের জন্মদিনের পরে আরও বছর তিনেক প্রতি জন্মদিনেই দাদু নিয়ম করে আমাকে এ বাড়িতে নিয়ে আসতেন। এরপর কিভাবে কিভাবে যেন একটা সময় এই আসাটা বন্ধ হয়ে গেলো। মা তো ভুলেও কখনও বলতেন না এ বাড়ির কথা। অথচ আমি যতদূর... বাকিটুকু পড়ুন

১১৮ টি মন্তব্য      ৮৩৭ বার পঠিত     ১৫ like!

একি খেলা আপন সনে - ১৯

লিখেছেন কঙ্কাবতী রাজকন্যা, ১০ ই ডিসেম্বর, ২০১৭ রাত ৯:৫৩


পরদিন খুব ভোরে দাদুর বাসায় চলে এলাম আমি। হঠাৎ আমার এভাবে মরিয়া হয়ে দাদুর বাসায় আসতে চাওয়ার আবদার দেখে মা হয়তো অবাকই হয়েছিলেন। কিন্তু কিছু জানতে চাইলেন না। এই দাদুর বাসায় হঠাৎ আসার ব্যাপারটা নিয়ে আমি যখন আকুল হয়ে মায়ের কাছে অনুরোধ করেছিলাম, মা খুব অবাক হয়ে আমার... বাকিটুকু পড়ুন

৮২ টি মন্তব্য      ৭৭৪ বার পঠিত     ১৭ like!

একি খেলা আপন সনে - ১৮

লিখেছেন কঙ্কাবতী রাজকন্যা, ০৮ ই ডিসেম্বর, ২০১৭ রাত ১১:৩১


এরপর ঝুমকী ফুপুর সাথে আমার বেশ কয়েকবার দীর্ঘ কথোপোকথনের পর তার সাথেই পাকাপাকি আবাস গড়ার পরিকল্পনা করি আমি। মাও এই সিদ্ধান্তে আপত্তি করলেন না বরং মনে মনে বোধ হয় খুশিই হলেন। কোনো এক বিশেষ কারণে সেই ছোট থেকেই আমার প্রতি ঝুমকি ফুপুর অস্বাভাবিক এক সুপ্ত ভালোবাসা বোধ করেছি... বাকিটুকু পড়ুন

১১৮ টি মন্তব্য      ৮৬০ বার পঠিত     ১২ like!

একি খেলা আপন সনে - ১৭

লিখেছেন কঙ্কাবতী রাজকন্যা, ০৬ ই ডিসেম্বর, ২০১৭ রাত ৯:৪১

মায়ের কড়া নিষেধ সত্বেও আমি আরবাজ চৌধুরীকে আমার জীবনের সাত আট কিংবা নয় দশ সব কাহনই বলে দিয়েছি। আসলে আরবাজ এমনই এক মানুষ যাকে বিশ্বাস করা যায়। তার ব্যাক্তিত্বের কাছে হার মানবে পৃথিবীর সকল কলুষতা, অসত্যতা। আরবাজের সাথে আমার রোজ কথা হয়। ফোন কিংবা এমএসএন ম্যাসেন্জারে। মাঝে মাঝে দেখাও... বাকিটুকু পড়ুন

৮২ টি মন্তব্য      ৬৫৪ বার পঠিত     ১৩ like!

একি খেলা আপন সনে - ১৬

লিখেছেন কঙ্কাবতী রাজকন্যা, ০৪ ঠা ডিসেম্বর, ২০১৭ রাত ৯:২০


ফেরার পথে আমি ম্যুভেন পিকের আইস্ক্রিম পারলারটাতে থামলাম কিছু সময়ের জন্য। উদ্দেশ্য আইসক্রিম নয় আসলে বাড়ি ফিরে যাবার আগে আমি কিছুটা সময় নিজের মত কাটাতে চাচ্ছিলাম। নিজের মত করে ভাবতে চাচ্ছিলাম। ওদের দোতলার বড় উইন্ডো গ্লাসটার ধারে এক বাটি বাটারস্কচ আইসক্রিম নিয়ে বসলাম আমি, কিছুটা নিজের মত সময় কাটাতেই। নীচে... বাকিটুকু পড়ুন

৮৪ টি মন্তব্য      ৬৬১ বার পঠিত     ১১ like!

একি খেলা আপন সনে- ১৫

লিখেছেন কঙ্কাবতী রাজকন্যা, ০২ রা ডিসেম্বর, ২০১৭ দুপুর ২:৪৩


আমাকে এ বাড়ি হতে পাকাপাকি বিদায় করবার আয়োজনে মায়ের বেশ তৎপরতা দেখা গেলো। হয়তো উনি এ সুযোগটাকে আর হাত ছাড়া করতে চাচ্ছেন না। আমার থেকে আজীবনের মুক্তির এই মোক্ষম সুযোগ আর পাওয়া যাবেনা বলেই হয়ত সকাল থেকে তার মহা তোড়জোড় শুরু হলো। সকাল আটটা বাঁজতে না বাঁজতেই রুমের দরজায়... বাকিটুকু পড়ুন

৮০ টি মন্তব্য      ৬৮৪ বার পঠিত     ১৪ like!

একি খেলা আপন সনে - ১৪

লিখেছেন কঙ্কাবতী রাজকন্যা, ২৯ শে নভেম্বর, ২০১৭ রাত ৮:০৪


ও বাড়ির গেটে যখন পা দিলাম। তখন দুপুর গড়িয়ে বিকেল নেমেছে। ভেবেছিলাম এতক্ষনে বুঝি সেখানে হুলুস্থুল পড়ে গেছে। মা নিশ্চয় আজও আমাকে দেখা মাত্রই ঝাঁপিয়ে পড়বেন আমার উপরে ঠিক সেদিনের মত। চিৎকার চেঁচামেচিতে পাড়া মাৎ করবেন। কিন্তু অবাক হয়ে দেখলাম সেই মধ্য দুপুর গড়িয়ে বিকেলবেলাতেও মানে দুপুরবেলার ভাত ঘুমের... বাকিটুকু পড়ুন

৮২ টি মন্তব্য      ৮৯৮ বার পঠিত     ১৮ like!

একি খেলা আপন সনে- ১৩

লিখেছেন কঙ্কাবতী রাজকন্যা, ২৪ শে নভেম্বর, ২০১৭ রাত ৯:০৫


কোথায় যাচ্ছি বা কোথায় যাবো জানিনা আমি। শুধু মনে পড়ে সেই মধ্য দুপুরে রৌদ্রতপ্ত রাস্তায় খুব দ্রুত হাঁটছিলাম হন হন। রাস্তা প্রায় জনশূন্যই ছিলো। দু'একজন হকার বা পান বিড়িওয়ালা ঝিমাচ্ছিলো গাছের ছায়ায়। রাস্তায় একটা দুটো গাড়ি দেখা যাচ্ছিলো। সেই উন্মাদনা বা অস্থির সময়ের স্মৃতিটুকু মনে করলেও আজও আমার... বাকিটুকু পড়ুন

৬৪ টি মন্তব্য      ৫২১ বার পঠিত     ১০ like!

একি খেলা আপন সনে- ১২

লিখেছেন কঙ্কাবতী রাজকন্যা, ২০ শে নভেম্বর, ২০১৭ রাত ৯:৪৮


ঢাকার মাটিতে পা দিয়েই অবাক হলাম! আমার সাথে নতুন বাবার যোগাযোগ বা সম্পর্কটা কখনই তেমন গাঢ় ছিলো না। উনি ছিলেন উনার মত আমি আমার মত। উনি আমার ভালো মন্দের ব্যাপারে কখনও মাথা ঘামাননি। আমাকে কখনও ভালোও বাসতে আসেননি, ঘৃনাও করতে আসেননি। আমার থাকা বা না থাকা নিয়ে তার... বাকিটুকু পড়ুন

৬৬ টি মন্তব্য      ৫২৯ বার পঠিত     ১৬ like!

একি খেলা আপন সনে- ১১

লিখেছেন কঙ্কাবতী রাজকন্যা, ১৫ ই নভেম্বর, ২০১৭ রাত ১০:০৯


খুব ভোরে দোলন এলো। ওকে দেখে চমকে উঠলাম আমি! এক রাতের মাঝে বুড়িয়ে গেছে যেন। উস্কোখুস্কো চুল, লাল চোখ আর উদ্ভ্রান্ত দৃষ্টি। আমার এত কষ্ট হচ্ছিলো। তবুও ভেতরের উদ্বেগ চেপে রেখে জানতে চাইলাম কি হয়েছে। ও বললো আমার সাথে জরুরী কথা আছে তার। ও বাইরে অপেক্ষা করছে... বাকিটুকু পড়ুন

৮২ টি মন্তব্য      ৭৬৮ বার পঠিত     ১৬ like!
আরো পোস্ট লোড করুন
ব্লগটি ১৯১৭৫ বার দেখা হয়েছে

আমার পোস্টে সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার করা সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার প্রিয় পোস্ট

আমার পোস্ট আর্কাইভ