somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

আমার পরিচয়

আমার ব্লগ আমার বাসার ড্রয়িং রুমের মত, আমি এখানে যেকোনো কিছু দিয়ে সাজাতে পারি আপনার পছন্দ না হলে বলতে পারেন আমার কোন আসবাবটির অবস্থান বা ডিজাইন আপনার পছন্দ হয় নি এবং কেন হয় নি। তবে তা অবশ্যই ভদ্র ভাষাতে। ভাষার ব্যবহার করতে জানা অনেক বড় একটি গুন

আমার পরিসংখ্যান

শেখ এম উদ্‌দীন
quote icon
আমি বাংলাদেশি ....আমি বাঙালী....আমি মুসলিম....আমি বাংলার জন্য জীবন দিতে সর্বদা প্রস্তুত ।
আমার সকল পোস্ট (ক্রমানুসারে)

আসুন স্বপ্ন দেখি এবং বাস্তবায়ন করি এক সাম্যের সমৃদ্ধ বাংলাদেশ

লিখেছেন শেখ এম উদ্‌দীন, ১২ ই আগস্ট, ২০১৮ সকাল ৮:৫৬

বাবা একজন সামান্য ব্যাংক ম্যানেজার ছিলেন, ব্যাংকের এমডিও রিকোয়েস্ট করে কোন খারাপ ব্যক্তিকে লোন দেয়াতে পারেনি! একে বলে মুক্তি যুদ্ধের চেতনা! এই জন্য তাঁকে যে খুব সুখে থাকতে দিয়েছে তা নয়, ২৬ বছর একই পোষ্টে চাকুরি করেছেন কোন প্রোমোশন ছাড়াই! হুম ঠিকই পড়েছেন, দুই যুগেরও বেশী একই পোষ্টে, সেই সাথে... বাকিটুকু পড়ুন

৮ টি মন্তব্য      ৯৪ বার পঠিত     like!

ফিরে দেখা অতীত এবং কৃতজ্ঞতা!

লিখেছেন শেখ এম উদ্‌দীন, ১০ ই আগস্ট, ২০১৮ সকাল ৭:৫১

ক্লাস নাইন থেকে স্কুলে পদার্থ বিজ্ঞান, উচ্চতর গণিত এবং সাধারণ গণিত বিষয়ের কোন ক্লাস হয় নাই।

ভালো কোন শিক্ষক প্রাইভেটও পড়ায় নাই, অপরাধ যদি আমি ফেল করি তাহলে ঐ শিক্ষকের বাজারে ধ্বস নামবে! কারন আমার এইট পর্যন্ত পড়াশুনা অন্য থানাতে, সুতরাং ওনারা জানেন না আমি কেমন ছাত্র!

এলাকার একজন শিক্ষকের... বাকিটুকু পড়ুন

১৪ টি মন্তব্য      ১৭৯ বার পঠিত     like!

নিজে বদলাই দেশ এমনিতেই বদলে যাবে

লিখেছেন শেখ এম উদ্‌দীন, ১৫ ই জুলাই, ২০১৮ সকাল ৯:৫৮

আপনি বা তুমিই বাংলাদেশ

২০১৬ সালের ডিসেম্বর মাসের শেষের দিকের কথা। ল্যাবে বসে লাঞ্চ করছিলাম। আমাদের ল্যাবে সাধারণত সবাই একত্রে লাঞ্চ করতাম। সেই ২০১৩ সাল থেকে একটি বিষয় নিয়ে ভাবতাম, আর তা হল জাপানের রেল ষ্টেশনে কিছু মানুষের ছবি এবং প্রত্যেকের নামের পাশে একটি বড় অঙ্কের টাকা দেয়া। বুঝতে অসুবিধা হয়... বাকিটুকু পড়ুন

১৪ টি মন্তব্য      ২৮১ বার পঠিত     like!

উচ্চ শিক্ষা এবং একটি দীর্ঘশ্বাস

লিখেছেন শেখ এম উদ্‌দীন, ০৭ ই জুলাই, ২০১৮ রাত ১০:১৯

জনাব আলম (ছদ্মনাম) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়াশুনার পাট চুকিয়ে, জাপান সরকারের মনবশু বৃত্তির অর্থায়নে পি এইচ ডি ডিগ্রীর জন্য প্রয়োজনীয় গবেষণা করেন। জাপানের বিশ্ববিদ্যালয়ে তার অর্জন খুব ভালো হওয়াতে ওখানেই শিক্ষকতার প্রস্তাব পান। কিন্তু আলম সাহেবের ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা তাঁকে এই লোভনীয় প্রস্তাবকে পায়ে ঠেলতে এক মুহূর্তও দেরী করতে দেয় নি। তিনি... বাকিটুকু পড়ুন

১৩ টি মন্তব্য      ২৮০ বার পঠিত     like!

Antifreeze proteins এবং এদের কাজের একটি সহজ ব্যখ্যা

লিখেছেন শেখ এম উদ্‌দীন, ২৩ শে জুন, ২০১৮ রাত ৯:১৩



কখনো কি চিন্তা করেছেন এন্টার্কটিকার মত তাপমাত্রাতে একটি মথ বা একটি লার্ভা কিভাবে বেঁচে থাকে? মানুষের মত কাপড় বা অন্য প্রানির মত পুরু পশমের কোনটিই এগুলোর নেই, এর পরেও এরা বেঁচে থাকে বহাল তবিয়তে! এই সকল প্রানির দেহে এক ধরণের বরফ নিরোধক যৌগ তৈরি হয় যা তাদের এমন কঠিন বরফাচ্ছাদিত... বাকিটুকু পড়ুন

৯ টি মন্তব্য      ১৩৫ বার পঠিত     like!

টিউশনির বেতন এবং একটি ঈদের অপমৃত্যু

লিখেছেন শেখ এম উদ্‌দীন, ১৭ ই জুন, ২০১৮ রাত ৯:৪৩

২০০৯ সালের রোজার ঈদ। নিজের খরচ এবং সংসারে বাড়তি খরচের জন্য কোচিং এর ক্লাসের সাথে দুইটি টিউশনি করি। যদিও এজন্য অর্থশালী, ফেলোশিপ হোল্ডার বন্ধুদের উদাহরণ দিয়ে অনেক কটু কথাই শুনতে হত , আর যেহেতু পড়াশুনার পাশাপাশি একটা কিছু না করলে যারা কথা শুনায় তাঁরা এক বেলা খাওয়াবেনা তাই তাঁদের ঐ... বাকিটুকু পড়ুন

১০ টি মন্তব্য      ২৪৪ বার পঠিত     like!

যদি তাঁদের আবার ফিরে পেতাম আমাদের মাঝে!

লিখেছেন শেখ এম উদ্‌দীন, ০৩ রা জুন, ২০১৮ রাত ১:২০

প্রাচিন চীনে সাওলিনদের একধরনের ভক্তি মুলক শক্তি ছিল। সেই শক্তিকে দমন করতে বর্গীরা চীনের লোভী রাজাদের ব্যবহার করেছিল। সাওলিনদের পতনের পরে স্বভাবতই ঐ রাজাদের হাড় দিয়ে ডুগডুগি বাজাতে ভুল করেনি বর্গীরা!

একই ভাবে ভারতীয় উপমহাদেশেও এই ক্ষমতা লোভীদের ব্যাবহার করে একরকম আরামসে তারা ভারতবর্ষ দখল করে শতাব্দির ধরে শাসন করেছে।

প্রতিটি অভাগা... বাকিটুকু পড়ুন

৬ টি মন্তব্য      ৮৯ বার পঠিত     like!

মন্টু মিয়ার স্বপন

লিখেছেন শেখ এম উদ্‌দীন, ২৯ শে মে, ২০১৮ সকাল ৮:৫৭

১৯ রমজান আজ, মন্টু মিয়ার অনেক টাকা দরকার। এই ঈদে ছেলে মেয়ে দুইটির জন্য দুটো নতুন জামা দিতেই হবে। ওরা দুজনেই এস এস সি পরীক্ষাতে নাকি খুব ভালো ফলাফল করেছে। শিক্ষকগণ মন্টু মিয়ার কাছে খুব করে বলে দিয়েছে যেন ওদের পড়াশুনা চালিয়ে যায়। নতুন জামা দিয়ে অন্তত ওদের বুঝাতে হবে... বাকিটুকু পড়ুন

১০ টি মন্তব্য      ১৩১ বার পঠিত     like!

সততাই সর্বোৎকৃষ্ট পন্থা

লিখেছেন শেখ এম উদ্‌দীন, ১৭ ই মে, ২০১৮ সকাল ৮:৩৭

২০১২ সালের জুন মাসের প্রচণ্ড গরমের মধ্যে একদিন বদলী ক্লাস সহ ছয়টি ক্লাস নিতে হল। শেষ ঘণ্টাতে কোন এক ক্লাসে ইংলিশ ভার্সন রসায়ন পড়াতে হবে। যথারীতি ক্লাসে গেলাম, পড়াচ্ছি ইলেকট্রন বিন্যাস। নিজের কষ্ট হলেও ছাত্রদের বুঝতে দিচ্ছিলাম না যে আমি ক্লান্ত, পরিশ্রান্ত। ৪০ মিনিটের ক্লাসে কখনোই চেয়ারে বসতাম না যদি... বাকিটুকু পড়ুন

১৮ টি মন্তব্য      ১৬৯ বার পঠিত     like!

দূরে যাবার গল্প

লিখেছেন শেখ এম উদ্‌দীন, ২১ শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ সকাল ৯:৪৮

২০২৫ সাল

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জনাব রুমনের কৃতিত্বে উপজেলার একমাত্র সরকারী বিদ্যালয় ভবনের বীম এবং পিলারে ৩০% মুলিবাঁশ ব্যাবহারের চক্রান্ত ভেস্তে গেছে!

চারদিকে রুমনের প্রশংসা! অপরদিকে এ কাজের ঠিকাদার ক্ষমতাশীন দলের চ্যালা মানিক এ রুমন কমবখতের এমন অপরিনামদর্শী আচরনে যার পর নাই বিরক্ত! অন্য ঠিকাদাররা যেখানে ৪০-৫০% বাঁশ ব্যাবহার করে সেখানে মানিক... বাকিটুকু পড়ুন

৫ টি মন্তব্য      ১৬৮ বার পঠিত     like!

অল্প পুজি বেশি রুজি!

লিখেছেন শেখ এম উদ্‌দীন, ০৪ ঠা নভেম্বর, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:১০

আপনি কি স্বাধীন দেশে পরাধীন নাগরিক হয়ে বসবাস করতে করতে ত্যাক্ত বিরক্ত? আপনি কি অকাজ, কুকাজ কিংবা গুকাজের স্বীকৃতি চান? তাহলে আর দেরি না করে একটা কালো বা লাল বাদে অন্য যেকোনো কাপড়ের মাঝে “খালেদা জিয়া ভয় নাই রাজপথ ছাড়ি নাই” এই ধরনের লেখা লিখে কিছু ছবি তুলে সযত্নে রেখে... বাকিটুকু পড়ুন

৪ টি মন্তব্য      ১৬২ বার পঠিত     like!

আব্দুল্লাহদের স্বপ্ন ভঙ্গের যাতনা

লিখেছেন শেখ এম উদ্‌দীন, ১২ ই মার্চ, ২০১৭ বিকাল ৩:৪৭

অনেক দিন আগের কথা। এক প্রতন্ত্য অঞ্চলে আবদুল্লাহ নামক এক কৃষক ছিল। জমির আয় দিয়ে তার চার জনের সংসার ভালই চলে যেত। প্রতি বছরের সংসার খরচের পরে উদ্ধৃত টাকা আবদুল্লাহ ছেলে মেয়েদের পড়াশুনার খরচের জন্য জমিয়ে রাখত। তার অনেক দিনের স্বপ্ন সন্তানগুলো বড় হয়ে অনেক শিক্ষিত এবং নামকরা মানুষ হবে।... বাকিটুকু পড়ুন

২ টি মন্তব্য      ১৭৫ বার পঠিত     like!

বাবা

লিখেছেন শেখ এম উদ্‌দীন, ১৪ ই জানুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৩:০২

পথের ক্লান্তিকে ঝেড়ে ফেলে
মনের অসাড়তাকে দূরে ঠেলে
হাসি মুখে, হৃষ্ট চিত্তে
সন্তানকে যে আঁকড়ে ধরে প্রান ভরে।

বসের ঝাড়ি, ক্লায়েন্টের অপমান
মাসের শেষের মলিন চেকের লোভে
হাসি মুখে যে করে বরণ
কে হতে পারে সে, বলার আছে কি কোন প্রয়োজন?

চেকের অর্থে চকোলেটের কড়ি হলেও
নিজের ছেড়া জুতো জোড়া
সেলাই করা হয়ে উঠে না যার কখনও
সে বাবা না হয়ে... বাকিটুকু পড়ুন

১৪ টি মন্তব্য      ১০০ বার পঠিত     like!

NCTB এর বইয়ের ভুল এবং আমাদের সুযোগ সন্ধানীগণ

লিখেছেন শেখ এম উদ্‌দীন, ০৮ ই জানুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৩:০৩

পাঠ্যপুস্তকে ভুল মুদ্রণ বাংলাদেশের অতীত ঐতিহ্য বললে অত্যুক্তি হবে কি?
আমার প্রায় ১০ বছরের শিক্ষকতার অভিজ্ঞতা (৩.৫ বছর এই পেশাটিই ছিল আমার আয়ের উছিলা) বলে সর্ব আমলে এবং সকল কালেই এমন ভুলে ভরা বইই আমরা আমাদের শিক্ষার্থীদের হাতে তুলে দিয়েছি।

তবে ভুলের মাত্রা বা তীব্রতা কিছুটা কম ছিল। জানি না বিশেষজ্ঞগণের কত... বাকিটুকু পড়ুন

১০ টি মন্তব্য      ২২৭ বার পঠিত     like!

বিবাহ যখন সুন্নাতে খাৎনা!

লিখেছেন শেখ এম উদ্‌দীন, ২৯ শে ডিসেম্বর, ২০১৬ ভোর ৪:১৮

করিম মিয়ার গৃহে সাজসাজ রব পরে আছে। এলাকার সকলে ব্যাস্ত এই বিশাল আয়োজনকে সফল করার জন্য। শত হলেও এলাকার মোড়লের অনুষ্ঠান বলে কথা! যে ডাল রান্না করার যোগ্যতা রাখে না সে কোর্মা রান্নার দায়ীত্ব পেয়েছে! কি বিশাল করিম সাহেবের মন!

এভাবে নানা কর্মযজ্ঞ সম্পাদনের পর এলো সেই আকাঙ্খিত দিন। করিম মিয়ার... বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ২০৪ বার পঠিত     like!
আরো পোস্ট লোড করুন
ব্লগটি ২৮৮৯৮ বার দেখা হয়েছে

আমার পোস্টে সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার করা সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার প্রিয় পোস্ট

আমার পোস্ট আর্কাইভ