somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

আমার পরিচয়

কি যে লিখি ছাই মাথা ও মুণ্ডু আমিই কি বুঝি তার কিছু?/হাত উঁচু আর হ'ল না ত ভাই, তাই লিখি ক'রে ঘাড় নীচু!

আমার পরিসংখ্যান

স্নিগ্দ্ধ মুগ্দ্ধতা
quote icon
আমার আসল নাম —‘আহমদ মুসা’। হ্যাঁ, সাইমুম সিরিজের সাথে যাদের পরিচয় আছে, তারা আগেই নামটা শুনে থাকবেন, এমনকি হয়তো নামটার প্রেমেও পড়ে থাকবেন। আমার এক বইখোর চাচাতো ভাই আমার জন্মের সময় তাঁর স্বপ্নের নায়কের নামে আমার এই নামটা রেখেছিলেন। অবশ্য তাঁর এই স্বপ্নের নায়ক এখন দুঃস্বপ্নের খলনায়কে পরিণত হয়েছে কি না বলা শক্ত! আগে লেখালেখি করতাম,এখন টেপাটেপি করি। বা, আরও ভালোভাবে বলতে গেলে ‘টাচাটাচি’ করি। মানে, কবিতা(?), গল্প—এগুলো সব টাইপ করি টাচস্ক্রিন বা স্পর্শকাতর মোবাইলে। ‘মুখবুক’ বা ফেসবুকেও আমার একখানা একাউন্ট আছে। সেটা আক্ষরিক অর্থেই ‘একা’উন্ট। মানে, একা-একাই ফাঁকা মাঠে গোল করার চেষ্টা করি!তাতে শোরগোল খুব একটা ওঠে না। তবে আমার ‘গোল’ বা লক্ষ্যের দিকে এগিয়ে যাওয়ার চেষ্টাটা অক্ষত আছে।তালগোল না পাকালে, বা গণ্ডগোলে না পড়লে হয়তো লক্ষ্যে এক সময় পৌঁছাব।তবে, এতে লক্ষ বছর পার হয়ে যাওয়াও বিচিত্র নয়! ফেসবুকের লিংক— https://www.facebook.com/ahamad.musa.50
আমার সকল পোস্ট (ক্রমানুসারে)

দুটি পরমাণুগল্প

লিখেছেন স্নিগ্দ্ধ মুগ্দ্ধতা, ২২ শে নভেম্বর, ২০১৭ রাত ১১:৪২

লেখালেখি হচ্ছে ছুরির মতো। অব্যবহারে জং ধরতে দেরি হয় না। সামনে পরীক্ষা। লেখালেখির সময় নেই। ভাবলাম,দশ মিনিটে কী লেখা যায়? বের হলো পরমাণুগল্প!


পরমাণুগল্প-১:

—২০ টাকা দিন না স্যার। সারাদিন কিছু খাই নি।

—যা ভাগ, টাকা নেই।

বাচ্চাটাকে গলাধাক্কা দিতে গিয়ে আমার চেকনাই শরীর ঘামে ভিজে গেল। ওহ! প্রচণ্ড রোদ... বাকিটুকু পড়ুন

২১ টি মন্তব্য      ১৭৭ বার পঠিত     like!

এলিয়ে-পড়া এলিয়েন(কল্পবিজ্ঞানের গল্প)

লিখেছেন স্নিগ্দ্ধ মুগ্দ্ধতা, ২০ শে নভেম্বর, ২০১৭ রাত ৯:১০



এলিয়েন তো এলিয়ে পড়ল, কিন্তু আমরা কী করব বুঝতে পারছিলাম না। সবাই আবার খেলার মাঠে ফিরতে শুরু করেছে। পাঁচিলের আড়ালে থাকায় আমাদেরকে অবশ্য কেউ এখনই দেখবে না, কিন্তু একটু পরে যে-কেউ খেলতে-খেলতে নির্ঘাত এদিকে এসে যাবে।

আমার হঠাত্ মনে হলো—যে করেই হোক, এলিয়েনকে আমার রক্ষা করতেই হবে। কিন্তু... বাকিটুকু পড়ুন

১৪ টি মন্তব্য      ১০৯ বার পঠিত     like!

অভিধান দেখা(খোকা এবং বুড়ো-খোকাদের জন্য লিখিত)

লিখেছেন স্নিগ্দ্ধ মুগ্দ্ধতা, ১৭ ই নভেম্বর, ২০১৭ রাত ১০:১৫


আজকে আমি তোমাদের অভিধান বা ডিকশনারি দেখা শেখাব।



উপকরণ:

১.জুতো। স্পঞ্জের স্যান্ডেল হলে ভালো হয়।অন্য কোনও জুতো হলেও চলবে।

২.পরিষ্কার তোয়ালে বা গামছা: ১টা।

৩.এক বাটি পানি।অভাবে গামলা হলেও চলবে। তবে সেক্ষেত্রে সামলানো একটু কষ্ট হবে।

৪.ধৈর্য।

৫.সময়।

৬.পুরনো ন্যাকড়া: ১টা।

৭.চশমা(পরিমাণ মতো)। অভাবে, খালি চোখেও কাজ চালানো যাবে।... বাকিটুকু পড়ুন

২৪ টি মন্তব্য      ২১১ বার পঠিত     like!

রাস্তা ভুলে পস্তানো

লিখেছেন স্নিগ্দ্ধ মুগ্দ্ধতা, ১৬ ই নভেম্বর, ২০১৭ রাত ৯:২৮


আমরা দুই মামা-ভাগ্নে হাওয়া খেতে বেরিয়েছিলাম বিকেলবেলায়। হাঁটতে-হাঁটতে বেশ দূরেই এসে গেছি। পিচ-রাস্তা পেরিয়ে আমরা সামনের চা-বাগানের মেঠোপথে ঢুকে পড়লাম। রাস্তার একধারে একজন মুরব্বি-গোছের লোক বাদাম বিক্রি করছিল। সেদিকে তাকিয়ে ড়াড্ডিম বলল—মামা, বাদাম খাবো।


আমি বললাম—হাওয়া খেতে বেরিয়েছি, হাওয়া খাবো। বাদাম খাবো ক্যান?


ড়াড্ডিম বলল—তোমাকে খেতে বলছে কে?... বাকিটুকু পড়ুন

২৬ টি মন্তব্য      ১৬৬ বার পঠিত     like!

দানবীর:একটি সাই-ফাই ছড়া(“ছেলেপুলের খেলো ছড়া” সিরিজ)

লিখেছেন স্নিগ্দ্ধ মুগ্দ্ধতা, ১৫ ই নভেম্বর, ২০১৭ রাত ১০:৩২

ওপাড়ার চৌধুরি বড়লোক ভারি!
কোটি-কোটি টাকা তার বড় বড় গাড়ি!
বিল আছে ঝিল আছে, মিল আছে কতো,
দেখো যদি এক্ষুনি খাবে থতমত!
দ্যানে-ধ্যানে সবখানে তারে পাবে খুঁজে,
দান-টান করে যান চোখকান বুঁজে!
দান করে তাঁর কতো নামডাক হলো,
তবু হায়! তাঁর কাছে সব লাগে জোলো!
আরও তাঁর নাম হবে,যশ হবে মেলা—
এইসব... বাকিটুকু পড়ুন

২২ টি মন্তব্য      ১০৪ বার পঠিত     like!

হীরক রাজার দেশে

লিখেছেন স্নিগ্দ্ধ মুগ্দ্ধতা, ১৩ ই নভেম্বর, ২০১৭ দুপুর ২:২৯

জন্ম নিলাম হায়রে এ কোন হীরক রাজার দেশে,
চিপায় পড়ে চ্যাপ্টা হলেও রোজ যেতে হয় হেসে!
একটুখানি বেচাল হলেই নেই তো কোনও মাপ এর,
দেশটা কি আর আমার, তোমার?—দেশটা স্বামীর, বাপের!


মেধার এখন মন্দা চলে, কোটার বাজার গরম;
হাত-পা চাটো নেত্রী-নেতার—মর্গে পাঠাও শরম।
মান-অপমান-বিবেক এখন তেল দিয়ে খাও ভেজে,
নেতার কথায়... বাকিটুকু পড়ুন

৩২ টি মন্তব্য      ৭৬৭ বার পঠিত     like!

চোর ধরার ফ্যাসাদ(“ছেলেপুলের খেলো ছড়া” সিরিজ)

লিখেছেন স্নিগ্দ্ধ মুগ্দ্ধতা, ১২ ই নভেম্বর, ২০১৭ রাত ৮:৪২

জৈন্তাপুরের ওসি সাহেব বিষম প্যারায় আছেন।
নিজেই তিনি দ্বিধায় আছেন—মরেন নাকি বাঁচেন!
চতুর্দিকে হঠাত্ করেই ধুম পড়েছে চুরির—
হচ্ছে চুরি বুড়োর জিনিস, হচ্ছে ছোটো ছুঁড়ির!
ওসি সাহেব যখন দেখেন চুকছে নাতো ল্যাঠা!
কনস্টেবল মুকুলকে কন—চোর ধরে আন, ব্যাটা!
আজকে রাতে চোর যদি তুই আনতে না পাস ধরে
লকাপ খুলে ঘাড়টা ধরে তোরেই... বাকিটুকু পড়ুন

২৪ টি মন্তব্য      ১৩০ বার পঠিত     like!

মাজারের মাঝারে

লিখেছেন স্নিগ্দ্ধ মুগ্দ্ধতা, ১০ ই নভেম্বর, ২০১৭ সকাল ১০:৩৯

আয়রে সবে মহোৎসবে বাবার মাজারে।
জানব খোদায় আর বেহুদাই টানব গাঁজা রে!
আয়রে লতিফ,আয় মুনিয়া,
ভুলবরে এই দিন-দুনিয়া;
খোদায় মজে করবো যে আজ নামাজ কাজা রে!

কীটেয় ভরা এই দুনিয়া ইটের পাঁজা রে—
খিটখিটিয়ে হিট করে যায় বুকের মাঝারে!
আর কতো এই গণ্ডগোলে?
আয়রে সবাই,আয়রে চলে;
রাজার হালে আজকে গাঁজার... বাকিটুকু পড়ুন

২৬ টি মন্তব্য      ১৫২ বার পঠিত     like!

কাক না কি কবি? (কবিতা নিয়ে একটি উপদেশবহুল কচকচানি)

লিখেছেন স্নিগ্দ্ধ মুগ্দ্ধতা, ০৯ ই নভেম্বর, ২০১৭ দুপুর ১২:০৯



চায়ের কাপে বড় একটা চুমুক দিয়ে টুটুল বলল—দেশে কবি আর কাকের সংখ্যা যে সমান—এই বিষয়ে অনেকের আপত্তি থাকলেও কারও সন্দেহ নেই। চুম্বকের আশেপাশে থাকলে খানিকক্ষণ পরই লোহাও চুম্বক-চুম্বক আচরণ শুরু করে। আর বাংলাদেশে জন্মালে কয়েক বছর পরই মানুষ কবি-কবি ভাব ধরে।

টুটুল সবসময় এইরকম বড়-বড় বুলি ঝাড়ে। এটা... বাকিটুকু পড়ুন

৩০ টি মন্তব্য      ৩৩১ বার পঠিত     like!

সন্ধ্যার গান (“ছেলেপুলের খেলো ছড়া” সিরিজ)

লিখেছেন স্নিগ্দ্ধ মুগ্দ্ধতা, ০৮ ই নভেম্বর, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:৫০


সন্ধ্যায় যদি তোর মন ধায় আঁধারে
আয় ব্যাটা ঘুরে মরি, আয় বনে-বাদাড়ে।
দ্যাখ কতো পাখিটাখি উড়ে চলে সুদূরে,
মাঠে-ঘাটে লোক নেই—চারদিক ধু-ধু রে!
উড়ে-চলা কাকটাক হাকডাক করে রে;
সব লাগে আপনার—বলবে কে পর এরে?
ঝিঁঝিঁ পোকা বিজি খুব—সুর ভাসে বাতাসে,
ডাল থেকে ফাল দিয়ে ঝরে পড়ে পাতা সে!
আধখানা... বাকিটুকু পড়ুন

৮ টি মন্তব্য      ৪৮ বার পঠিত     like!

শীতের আমেজ(“ছেলেপুলের খেলো ছড়া” সিরিজ)

লিখেছেন স্নিগ্দ্ধ মুগ্দ্ধতা, ০৬ ই নভেম্বর, ২০১৭ রাত ৯:৫৭

শীতটা এলেই ক্যামনে যেন সব হয়ে যায় ভালো,
ভালোর গুঁতোয় লাল হয়ে যায় খোকাখুকির গালও!
এই তো সময় ভালো হবার—সময়টা শীতকালীন;
সবার পোশাক-কাপড়-জামা তাই হয়ে যায় শালীন!
কনুই-হাতা, পায়ের পাতা—সব পড়ে যায় ঢাকা,
ভালোর চোটে যায় না তো আর উদোম গায়ে থাকা!
মন ভালো হয়, বোন ভালো হয়, শোন, ভালো... বাকিটুকু পড়ুন

২৪ টি মন্তব্য      ১২১ বার পঠিত     like!

প্রেমিকের হালচাল

লিখেছেন স্নিগ্দ্ধ মুগ্দ্ধতা, ০৪ ঠা নভেম্বর, ২০১৭ বিকাল ৪:১৬

১.
প্রেম তো বড়ই পবিত্র চীজ এই দুনিয়ার মাঝার!
বিয়ের আগেই প্রেম করি তাই একশো,দুশো,হাজার!
শেষ বয়সে বিয়েয় বসে ভাঙল প্রেমের বাজার।
বউকে এখন ভাল্লাগে না—কল্কে টানি গাঁজার!



২.
তুই যে আমার প্রাণের প্রিয়া,তুই যে আমার হৃদয়!
তোর দেখা পাই যে-দিন আমি, সে-দিন আমার ঈদ হয়!
হুট করে তুই... বাকিটুকু পড়ুন

৬ টি মন্তব্য      ১১৪ বার পঠিত     like!

ইসলামি হালচাল

লিখেছেন স্নিগ্দ্ধ মুগ্দ্ধতা, ০৩ রা নভেম্বর, ২০১৭ সকাল ১০:০২

১.
পড়ছ জানি হাদিস-কোরআন কিতাব-সিরাত প্রচুর;
ওসব কিছু পড়লে কি হয়, মুমিন তুমি কচুর!
ঈমান-আমল-নিয়ত তোমার সবই হবে কাবার!
মুরিদ যদি না হও তুমি ‘অমুক’ খাজা বাবার।



২.
সকল লোকের বাবা আমি, দেশের বড় পীর তো।
আমিই সবার মক্কা-কাবা, আমিই সবার তীর্থ!
সব সময়ে খেয়াল রাখি মুরিদ-কূলের স্বার্থ।
এই কারণেই নামাজ-রোজার... বাকিটুকু পড়ুন

২৫ টি মন্তব্য      ৯৯১ বার পঠিত     like!

আমাদের শহর(বন্দে আলী মিয়ার কাছে কৃত্রিম ক্ষমাপ্রার্থনা-পূর্বক)

লিখেছেন স্নিগ্দ্ধ মুগ্দ্ধতা, ০২ রা নভেম্বর, ২০১৭ রাত ৮:৪০



মূল কবিতা:

আমাদের গ্রাম
‎ —বন্দে আলী মিয়া

আমাদের ছোট গাঁয়ে ছোট ছোট ঘর,
থাকি সেথা সবে মিলে নাহি কেহ পর৷
পাড়ার সকল ছেলে মোরা ভাই ভাই,
এক... বাকিটুকু পড়ুন

১২ টি মন্তব্য      ১২০ বার পঠিত     like!

আধুনিকতার বাঁধুনি(হাল-আমলের বাংলা ভাষা নিয়ে একটি নীরস কচকচি)

লিখেছেন স্নিগ্দ্ধ মুগ্দ্ধতা, ০১ লা নভেম্বর, ২০১৭ বিকাল ৫:১৯


জ্ঞানীরা বলেন ভাষা বয়ে চলে। কিন্তু আমি বলি, যত না বয়ে চলতে হয়—তারচে বেশি তাকে সয়ে চলতে হয়।ভাষা নিয়ে মানুষের জ্ঞান এত ভাসা-ভাসা যে তাকে সর্বংসহা হওয়া ছাড়া উপায় থাকে না।

হাল আমলের ‘হুদাই’ শব্দটার কথা ধরা যাক—“কিছু-কিছু পাবলিক এখন ‘হুদাই’ লাইক মারে।” মানে,‘হুদাই’ বলতে এখন আমরা... বাকিটুকু পড়ুন

৫১ টি মন্তব্য      ৪৯৯ বার পঠিত     ১৩ like!
আরো পোস্ট লোড করুন
ব্লগটি ৮১০৩ বার দেখা হয়েছে

আমার পোস্টে সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার করা সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার প্রিয় পোস্ট

আমার পোস্ট আর্কাইভ