somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

আমার পরিচয়

ছোট বেলা থেকেই গল্প, উপন্যাস পড়ার প্রতি প্রবল ঝোঁক ছিল,
বড় হয়ে কবিতা লিখা শুরু করলাম। কোন নিয়মকানুন জানি না, যা মনে আসে তাই লিখি। আমিই নিয়ম ভাঙ্গি, আমিই নিয়ম তৈরি করি।

আমার পরিসংখ্যান

স্বপ্না ইসলাম ছোঁয়া
quote icon
একজন বেখেয়ালী মনের মানুষ।
আমার সকল পোস্ট (ক্রমানুসারে)

শেষ বার্তা।

লিখেছেন স্বপ্না ইসলাম ছোঁয়া, ১১ ই জানুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৫:৪২



শেষ বার্তাটা এমনই ছিল,
'রোদবতী- তুমি চলে যাবার পরই
এই শহরটা ভীষণ এলোমেলো হতে লাগলো,
অধরে নেমে এলো সান্ধ্য আঁধার- পাঁজর ফুঁড়ে
উঠতে লাগলো শূন্যতার নীল ধোঁয়া-
অনল স্ফুলিঙ্গে নিভে গেল সফেদ জ্যোৎস্না,
গ্রহণ লেগে গেল সোনা ঝরা রোদে'
বুঝতে পারিনি, তুমি এতোটা ছুঁয়ে ছিলে।'

রোদ্দুর- আমি কথা দিয়ে এসেছিলাম তোমায়
একজোড়া চোখ রেখে গেলাম প্রতীক্ষায়,
হৃদয়ের... বাকিটুকু পড়ুন

৩ টি মন্তব্য      ৩৭ বার পঠিত     like!

কেউ কেউ কথা রাখে।

লিখেছেন স্বপ্না ইসলাম ছোঁয়া, ০৮ ই জানুয়ারি, ২০১৭ দুপুর ১:১২



পৌষের উত্তাপহীন রোদের নরম ওম
গোধূলি বেলায় পরিযায়ী পাখির কানেকানে
গোপনে বলেছিল,
আর ক'টা দিন থেকে গেলেই পারতে,
এখানে সন্ধ্যে হলেই পুঁইয়ের মাচায়
শিশিরের মেলা বসে;
রাত দ্বিপ্রহরে নিশাচরের ধ্যান ভাঙে,
হিম হিম জ্যোৎস্নাকেলি' তে।
তোমাদের পাথুরে শহরের অট্টালিকায়
দোয়েলের সংসার নেই,
বনসাই শিমুলে বসন্তের আনাগোনা নেই।
আর ক'টা দিন থেকে যেতে- ধানশালিকের এই গাঁয়ে,
এইখানে ভোর হলেই কুয়াশার স্তর সরিয়ে,
মটরশুঁটির... বাকিটুকু পড়ুন

৭ টি মন্তব্য      ৩৯ বার পঠিত     like!

রোদেলা অসুখ।

লিখেছেন স্বপ্না ইসলাম ছোঁয়া, ৩০ শে ডিসেম্বর, ২০১৬ দুপুর ২:৫৯



আটপৌরে শাড়ির ভাঁজে ভাঁজে,
লুকিয়ে রেখেছি আদিম ভালোবাসার উষ্ণতা;
কতোটা শীতকাতুরে তোমার নরম ওষ্ঠ, কিংবা
কতোটা খরায় চৌচির হয়েছে বুকের জমিন?
সেই আদ্যপ্রান্ত সিক্তকরণের দায়টা শুধুই আমার;
সেই কবেই তোমার নিঃশ্বাসের ঘ্রাণে,
রোদ্দুর খুঁজে পেয়েছি;
কামাতুর নেশার সরোদ বাজিয়ে তোমার ওই
শান্ত চোখ দুটো থেকে শুষে নিয়েছি
বেঁচে থাকার সমস্ত অনুপান।
আজন্ম ঋণী করে রেখে গ্যাছো আমায়,
আশ্রয় নাও কবোষ্ণ... বাকিটুকু পড়ুন

২ টি মন্তব্য      ১৯ বার পঠিত     like!

নিঃস্ব আমি - ভীষণ একলাতে।

লিখেছেন স্বপ্না ইসলাম ছোঁয়া, ২৮ শে ডিসেম্বর, ২০১৬ সন্ধ্যা ৭:১১



হাতের স্পর্শ গুটিয়ে নাও,
কিছুটা আড়াল, কিছুটা বোধের দেয়াল থাকুক,
তোমার প্রণয় প্রশ্রয়ে ডুবে যেতে যেতে
য্যানো আঁকড়ে ধরতে পারি,সেই অদৃশ্য বাঁধ;
সবুজ শ্যাওলা সরিয়ে- নিতে পারি
য্যানো, এক বুক ফিনফিনে বাতাস।
তুমি জানতো? এতটা উল্লাস আমার জন্যে নয়,
তোমাকে বলি, খুচরো আলাপন শেষে
তোমাকে, হ্যাঁ তোমাকেই বলতে চাই-
ভালোবেসে অতোটা উদার হতে নেই।
এই শহরের কোনও এক নিষিদ্ধ... বাকিটুকু পড়ুন

৬ টি মন্তব্য      ৩৮ বার পঠিত     like!

বারোমাস্যা কড়চা।

লিখেছেন স্বপ্না ইসলাম ছোঁয়া, ২৫ শে ডিসেম্বর, ২০১৬ রাত ৮:১৮

ঢুলুঢুলু চোখ দুটো মেলতেই, জীর্ণ দীনতা
সরিয়ে এক থালা ধোঁয়া ওঠা ভাত য্যানো সখ্যতা
গড়তেই তাকিয়ে ছিল আট বছর বয়সী,
সজলের দিকে- মুহূর্তেই সব তন্দ্রা টুঁটে গেল।
তাঁর কাছে ভাতের ঘ্রাণের চাইতেও বেশী
কাঙ্ক্ষিত ছিল মায়ের সুস্থতা। আহা!
তবে কমেছে কি মায়ের বাতের ব্যথা?
না হলে মা সকাল সকাল রান্না ঘরে কেমনে?
চোখ... বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ৪ বার পঠিত     like!

শোক বিবরে।

লিখেছেন স্বপ্না ইসলাম ছোঁয়া, ০৫ ই নভেম্বর, ২০১৬ রাত ৮:১৭


বেশ তো ছিলাম ভালো, এই একলা বিকেলে,
নরম আঙুলের ফাঁকে খুনসুটিতে ব্যস্ত ছিল,
প্রিয় কফি কাপের হাতল; হঠাৎ বাতাস ফুঁড়ে
এলো, দুঃখভেজা মেঘের তীব্র দীর্ঘশ্বাস।
অনড় আমি, এই মুহূর্তে ছাতিমফুলের ঘ্রাণ
ছাড়া আর কিছুই যেন খুঁজে পাচ্ছি না;
বুকে বইছে, হিম হিম সবুজ স্নেহ,
তারস্বরে ডেকে যাচ্ছে খয়েরী শালিখ,
কোন্ এক ইন্দ্রজালে বন্দী জলজ সন্ধ্যা!
খুব বেশী দূর... বাকিটুকু পড়ুন

২ টি মন্তব্য      ২৭ বার পঠিত     like!

বেদনার পেন্ডুলাম।।

লিখেছেন স্বপ্না ইসলাম ছোঁয়া, ২৯ শে আগস্ট, ২০১৬ দুপুর ১২:১১



বিক্ষিপ্ত ক্ষত নিয়ে স্তব্ধ হয়ে বসে আছি,
ইদানীং প্রেমের গুণগানে কলমও অতিষ্ঠ,
অথচ— কবিতার শরীর ছুঁয়ে আমি নির্বিঘ্নে
মুছে ফেলতে পারতাম, সমস্ত দিনের ক্লান্তি।
আর ভালো লাগে না, তুমিময় অনুপ্রাসে,
এইখানে বারুদফুলের ঘ্রাণে মৃত্যুরা আসে,
শাদা সকাল বিলুপ্ত, বিগত লাশের সারি'তে।
এখন আমার বড্ড দুঃসময়,
কেঁদে কেঁদে নিঃশেষ হচ্ছে, ক্ষীণ আয়ুষ্কাল,
পাথুরে রাত আটকে আছে, বেদনার পেন্ডুলামে।
ভালো লাগে... বাকিটুকু পড়ুন

১ টি মন্তব্য      ২৯ বার পঠিত     like!

'বৈষম্য' (ছোট গল্প)

লিখেছেন স্বপ্না ইসলাম ছোঁয়া, ০৬ ই জুন, ২০১৬ সন্ধ্যা ৭:৪৫


চৈত্রের শেষ দাবদাহে অতিষ্ঠ
হয়ে হাঁসফাঁস করে হাসুর মা;
'আসমান ফাইট্যা মনে অয় রইদ
পড়ে গো হাসু, বোশেখ মাসেও
দ্যাখবি গরমের কি তেজ!' কথাগুলো
বলে সদ্য স্নান সেরে আসা হাসুর মা
ভেজা কাপড় চিপে পানি ফেলে
ঘরের দাওয়ায়;
হাসুর সামনে মাটির বাসনে
মোটা চালের পান্তাভাত,
একটা ছোট্ট বাটিতে কচুরলতি
দিয়ে নোনা ইলিশ রান্না করা।
রাগে ফুঁসছে হাসু, প্রকৃতির... বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ২৩ বার পঠিত     like!

দরজার আড়ালে।।

লিখেছেন স্বপ্না ইসলাম ছোঁয়া, ০৩ রা জুন, ২০১৬ দুপুর ১:১৯



'বন্ধ ঘরে একা একা কি করছো?'
দরজাটা ভেজানোই ছিল- ইচ্ছে করলেই
অনায়াসে ঢুকে যেতে পারি, আড়ষ্ট হাত;
অনেকক্ষণ পর সেভিং ক্রিমের ভুরভুরে ঘ্রাণ,
আফটার সেভে তোমাকে দেখার লোভ
বহুদিন বন্দী হয়ে পাখা জাপটে চলেছে;
এসময়েই আসব- জেনেছিলে আগেই?
ফিনফিনে আবেগে শূন্যেই প্রশ্ন ছুঁড়ছি;
শাড়ি'তে মোটেও অভ্যস্ত নই- জুয়েলারি
অথবা প্রসাধনীতেও বেশ জবড়জঙ্গ লাগে।
কতগুলো কাক রোদসী দৃষ্টি উপেক্ষা করে,
য্যানো আমায়... বাকিটুকু পড়ুন

৩ টি মন্তব্য      ২৮ বার পঠিত     like!

প্রণয়ের সাত রঙ।।

লিখেছেন স্বপ্না ইসলাম ছোঁয়া, ২৫ শে জানুয়ারি, ২০১৬ সন্ধ্যা ৭:৩০


বাতাস খেলে যায় অবিন্যস্ত চুলে,
গোধূলির রাঙা আবীরে বিমোহিত মন
অ-প্রেমে গা ভাসিয়ে দিয়ে সময় অসময়ে
কাকও কোকিলের কণ্ঠ অনুকরণে ব্যস্ত।
ভালোবাসার ব্যাখ্যা জানতে চেয়োনা কখনো,
ভালোবাসার সঠিক সংজ্ঞা-ও অনাবিষ্কৃত;
প্রেমের বহু রূপ দেখেছি অতীত, বর্তমানে
আড়ালে আবডালে কিছুটা চোখাচোখি ইঙ্গিত,
শুধু সেই বোঝে-যে সাঁঝ বেলাতে কাজল আঁকে।
এইতো সেদিনের ঘটনা দ্যাখনি?
দুই সন্তানের জননী ঘর ছেড়ে পালালো!!
বয়সের তোয়াক্কা... বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ১৪ বার পঠিত     like!

স্ফুলিঙ্গে দাবানল। (কবিতা)

লিখেছেন স্বপ্না ইসলাম ছোঁয়া, ২১ শে জানুয়ারি, ২০১৬ সন্ধ্যা ৭:৪৩


তোমাদের ঘৃণার স্ফুলিঙ্গে পুড়ে মরার সাধ
বহুদিন আমার গিঁট দেয়া আঁচলে বন্দী ছিল,
কচি দূর্বা ঘাসের মতো লকলকে বেড়ে ওঠা
নামহীন ভালোবাসাদের দু'পায়ে মাড়িয়ে চলি;
হিংসা করো আমায়,ঘৃণা করো আমায়-
অভিশাপ দাও ঈশ্বরের বিচারের মানদণ্ড'তে,
অথবা চোখ,কান এমনকি শরীরের প্রত্যেক'টা
অঙ্গ,প্রত্যঙ্গ একে একে বিকল করে দিয়ে
দেহাবশেষটুকু ঘৃণার চিতায় জ্বালিয়ে দাও;
তবুও কেউ ভুল করেও ভালবেসো না আমায়।
তপস্যায়... বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ১৯ বার পঠিত     like!

"ভালোবেসে সখা নিভৃত যতনে,তোমার নামটি লিখেছি মনের মন্দিরে" (গল্প)

লিখেছেন স্বপ্না ইসলাম ছোঁয়া, ১৯ শে জানুয়ারি, ২০১৬ সন্ধ্যা ৬:২২

By-- স্বপ্না ইসলাম ছোঁয়া।।
-এক্সকিউজ মি, কি এমন লিখছ ডায়েরী'তে,
এতবার ডাকলাম শুনতে পাওনি?
বলেই ছোঁ মেরে ডায়েরী'টা নিয়ে নিল রাতুল।
মুহূর্তে ঘটে যাওয়া ঘটনায় পুরো হতভম্ব হয়ে গেল নীরা।
সে হাত বাড়িয়ে ক্ষীণ কণ্ঠে শুধু এইটুকু বলল,
-প্লিজ, আমার ডায়েরী'টা পড়ো না। তাছাড়া একজনের ডায়েরী
অন্যজনে বিনা অনুমতিতে পড়া নিষেধ এইটুকুও জানো না?
নীরার... বাকিটুকু পড়ুন

৪ টি মন্তব্য      ২৫ বার পঠিত     like!

জীবন্মৃত।।

লিখেছেন স্বপ্না ইসলাম ছোঁয়া, ১৪ ই আগস্ট, ২০১৫ বিকাল ৫:৩৯

পায়ে পায়ে নিঃশব্দে নির্ভারে প্রতিক্ষণ
হেঁটে চলা দোসরের আরেক নাম মৃত্যু।
ততদিনই ভয়ে আড়ষ্ট ছিলাম-যতদিন
কালো মুখোশের অন্তরালে একজোড়া চোখ,
আমায় নজরে রেখে সুনিপুণ হাতে
নির্দ্বিধায় আঁকত মৃত্যুর ছক।
আজ আর ভয় নেই, বেঁচে থাকায় সুখ নেই,
পালিয়ে বেড়ানোর অদম্য ইচ্ছেটুকুও
প্রিয় সুখ সমাধিতে সমাধিস্থ;
নিশুতি রাতে সঁপে দেই নিকষ... বাকিটুকু পড়ুন

৪ টি মন্তব্য      ২১ বার পঠিত     like!

বাবা'কে লিখা চিরকুট।।

লিখেছেন স্বপ্না ইসলাম ছোঁয়া, ২০ শে জুন, ২০১৫ রাত ৮:৫৬


একটু একটু করে মুছে গেল সব,
নিথর দেহে নেই কোন প্রাণের স্পন্দন;
বাবা ডাকার শেষ ধ্বনি টুকুও চিরতরে
সাদা কাফনের কফিনে নিশ্চিহ্ন হয়ে গেল।
ফ্যালফ্যাল করে তাকিয়ে বুঝে নিলাম,
হৃদয়ের কোণে জন্ম নিল আরেকটা ক্ষত;
লাল দগদগে ক্ষতে সন্তর্পণে অহর্নিশ
জপে চলে- স্ফটিকের মত স্বচ্ছ শুভ্র
মেঘে মেঘে বয়ে চলা বাবা নাম'টি।
বাবা- এই বর্ষা'তেই জলে ভিজে... বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ২৩ বার পঠিত     like!

ছোট গল্প।।

লিখেছেন স্বপ্না ইসলাম ছোঁয়া, ১২ ই জুন, ২০১৫ বিকাল ৩:০৭

একগুচ্ছ গোলাপের আর্তনাদ।।
_____ ছোঁয়া///

ঘড়ির কাটা প্রায় পাঁচ এর ঘর ছুঁই ছুঁই করছে।
ছোট্ট একটা আয়না মুখের সামনে মেলে ধরে চোখে
হালকা কাজলের প্রলেপ দিচ্ছে ছোঁয়া।বিকেলের নরম
আলো ছোঁয়ার মুখে লাগায় মুখটাতে আলাদা একটা আভা
ফুটে উঠেছে। এতক্ষনে বেশ ফ্রেস মনে হচ্ছে নিজেকে।
সারাদিন বোটানিক্যাল গার্ডেনে বন্ধু-বান্ধবদের সাথে
ছুটোছুটি করে এখন ছবি তোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সে।
ওর বন্ধুরা... বাকিটুকু পড়ুন

১ টি মন্তব্য      ২৯ বার পঠিত     like!
আরো পোস্ট লোড করুন
ব্লগটি ৬৬৫ বার দেখা হয়েছে

আমার পোস্টে সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার করা সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার প্রিয় পোস্ট

আমার পোস্ট আর্কাইভ