somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

পোস্টটি যিনি লিখেছেন

রুহুলআমিন চৌধুরি
স্বাধিনতার শত সহস্র, লক্ষ কোটি সুফল - কিন্তু একটি মাত্র “কুফল” - দেশের নিতি নির্ধারণে অযোগ্য লোকেরা সব উচ্চাশনে - রাজনিতিতে ও প্রশাসনে - ফলে দেশটি যথাযথভাবে উন্নতিতে আগাতে পারছে না। তারপরেও যে টুকু এগিয়েছে সব টুকু ব্যাক্তি উদ্যোগে - সরকারের ভূ

ভুক্তভোগী মাত্রই জানেন গুলিস্তানের ‘গোলাপ শাহের মাজার কতটা ট্রাফিক বিড়ম্বনার সৃষ্টি করে অথবা মিরপুর রোডে সোহবানবাগ মাসজিদ ? কর্তৃপক্ষ কি পারবেন ওগুলো স্থানান্তর করতে ? নাকি বীরত্ব সব হিন্দুদের ওপর ?

১৯ শে মে, ২০১৭ রাত ১০:১৯
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :

পটুয়াখালীর দশমিনার আলিপুরে বিধবা কানন বালার ওপর সদ্য (১১ মে, ২০১৭ খৃঃ) ঘটে যাওয়া অত্যাচারের ভিডিও ঢাকায় একটি টিভি দেখিয়েছে। সম্পত্তি দখলের জন্যে কানন বালাকে হাত-পা বেঁধে অত্যাচার করা হয়। কানন বালা বলেছেন, ‘ওগো পাও ধইরা মাফ চাইছি। বাড়িঘর ছাইড়া ভারত চইল্যা যামু কইছি। তাও ওরা আমারে পাড়াইয়া মাটিতে ফালাইয়া রাখে’। প্রশ্ন হলো, বাংলাদেশে জন্মই কি কানন বালাদের আজন্ম পাপ? বর্তমান বাংলাদেশে বা তদানীন্তন পূর্ব পাকিস্তানে হিন্দুর জমি দখলের মহোৎসব শুরু সেই ভারত বিভাগের পর থেকেই। আজো তা সমানভাবে চলছে। বলার কেউ নেই। দেখার কেউ নেই। কারণ প্রায় সবাই অল্প-বিস্তর এই সুবিধা ভোগ করছেন। এমনকি রাষ্ট্রযন্ত্র এ সুবিধাভুগী। কেউ যদি ১৯৪৭-এর আগে বা এমনকি ১৯৭২-এর আগে এবং ২০১৭-তে হিন্দু সম্পত্তির পরিমাণ যাচাই করেন, তাহলে অবাক হয়ে যাবেন বৈকি? হিন্দুরা রাজত্ব, রাজকন্যা দুটোই হারাচ্ছে। রাষ্ট্রযন্ত্র এ যাবৎ প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে এ বিষয়ে সহায়তা করেছে।

১৯৫০ সালে পূর্ব-পাকিস্তানে জমিদারি প্রথা বাতিল হয় (পূর্ববঙ্গ জমিদারি অধিগ্রহণ ও প্রজাস্বত্ব আইন, ১৯৫০)। পশ্চিম পাকিস্তানে তা হয়নি, কারণ সেখানকার জমিদাররা ছিলেন প্রায় সবাই মুসলমান। পূর্ব পাকিস্তানে হয়েছে, কারণ প্রায় সকল জমিদার ছিলেন হিন্দু। যদিও তখন বলা হয়েছিল, জমিদারদের থেকে জমি নিয়ে গরিবদের দেয়া হবে, বা অনেকে সমাজতান্ত্রিক শ্লোগগানে অভিভূত হয়েছিলেন,
মূলত: সেটি ছিল ‘হিন্দুর থেকে জমি নিয়ে মুসলমানকে দেয়া’।
তারপর এলো ১৯৬৫ সালে ‘শত্রু সম্পত্তি আইন’।
এই আইন সাধারণ হিন্দুদের সর্বস্বান্ত করে দেয় এবং এটি করে রাষ্ট্রযন্ত্র।
রাজার হস্ত করে সমস্ত হিন্দুদের ধন চুরি’।
এ জ্বালা এখনো শেষ হয়নি। এজন্যে দায়ী এ যাবৎকালের প্রতিটি সরকার।
কারণ পাকিস্তানি এই কালো আইন সবার হাত ঘুরে রয়ে গেছে।
কদিন আগে মন্ত্রীসভার এক বৈঠকে ‘স্থাবর সম্পত্তি অধিগ্রহণ ও হুকুমদখল আইন ২০১৭’-এর চূড়ান্ত অনুমোদন দেয়া হয়েছে।
এর ফলে জনস্বার্থে মন্দির, মসজিদ বা অন্য ধর্মীয় উপাসনালয়, কবর, শ্মশানের জমি বা সম্পত্তি অধিগ্রহণ করা যাবে।
এরই মধ্যে এই আইনের সফল প্রয়োগ হয়েছে মিরপুরের কাফরুলে।
সেখানে জনস্বার্থে রাস্তা প্রশস্ত করতে সার্বজনীন দুর্গা মন্দির গুঁড়িয়ে দেয়া হয়েছে।
কর্তৃপক্ষ হিন্দুদের আপত্তি শুনেননি, কারণ জনস্বার্থ বলে কথা ?
ভুক্তভোগী মাত্রই জানেন গুলিস্তানের ‘গোলাপ শাহের মাজার কতটা ট্রাফিক বিড়ম্বনার সৃষ্টি করে অথবা মিরপুর রোডে সোহবানবাগ মাসজিদ ? কর্তৃপক্ষ কি পারবেন ওগুলো স্থানান্তর করতে ? নাকি বীরত্ব সব হিন্দুদের ওপর ?
রমনা কালীবাড়ির কথা তুললাম না, রাষ্ট্রযন্ত্র এর পুরোটাই গিলে খেয়ে ফেলেছে।
ঢাকেশ্বরী মন্দির প্রতিষ্ঠিত ২০ একর জমির ওপর, দখলে আছে মাত্র ৬.১০ একর,
বাকি ১৩.৯০ একর বেদখল, এমন কি বিশ্ববিদ্যালয় পর্যন্ত হিন্দুর জমি মেরে খেয়েছে ?
সর্বশেষ এডিট : ১৯ শে মে, ২০১৭ রাত ১০:১৯
৩টি মন্তব্য ০টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

ধর্ম যার যার, উৎসব সবার

লিখেছেন rezaul827, ২৪ শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ বিকাল ৫:২৩

- দাদা, পুজো দেখতে যাবেন না?
- না ভাই, সেটাতে আমার ধর্মে মানা আছে।
- কেন?
আমরা যখন গরু কুরবানি করি, সেই জায়গায় আপনাদের যাওয়া নিষেধ না?
হ্যাঁ নিষেধ। ভগবানের অভিশাপ পরে।
- ঠিক... ...বাকিটুকু পড়ুন

রহিঙ্গাঃ বাংলাদেশেই আরেকটি ইসরাইল হতে যাচ্ছে হয়তো।

লিখেছেন এম আর এফ সোহান, ২৪ শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ রাত ৯:০২

আবেগে জড়িয়ে সবসময় মানবতা দেখাতে নেই। রহিঙ্গারা এদেশে আরেকটি ইসরাইলও সৃষ্টি করতে পারে। একটা সত্য হলো, মানবতা কখনো কখনো চরম বিপদ ডেকে আনতে পারে। আবার কখনো কখনো একটি জাতিকে করতে... ...বাকিটুকু পড়ুন

''বদি-মোদি কাব্য'

লিখেছেন কি করি আজ ভেবে না পাই, ২৪ শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ রাত ১০:০১




মোদি আর বদিজীরে
বশে মোরা ব্যর্থ;
সুচীর ঐ বর্মায়
খুঁজে ওরা স্বার্থ।

মোদি চায় কাজ তার
জিয়াবাও'র নকলে;
বদি চায় রাজ তার
ইয়াবার দখলে।

বদি-মোদি চলে রাজ
টেকনাফ-দিল্লী;
ক্যান জানি দুনো-তরে
বুবু ভিজে বিল্লি।

কারো পুঁজি... ...বাকিটুকু পড়ুন

আমার চোখের জল

লিখেছেন ওমেরা, ২৫ শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ রাত ১:২৩




অপেক্ষার কষ্টকর প্রহর গুলো পার করেছি, গুনে গুনে ৩২ টা দিন ।
প্রতিদিন একটা- একটা ফুল জমা রেখেছি তোমার নামে।
কত কথার স্তর সাজিয়েছি,তোমায় একটু একটু শোনাব বলে ।

অবশেষে তুমি... ...বাকিটুকু পড়ুন

বিশ্বের সেরা ৫০ ওয়েস্টার্ন সিনেমা

লিখেছেন এম এম করিম, ২৫ শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ সকাল ৯:১৭



আমেরিকান ফিল্ম ইন্সটিটিউটের সংজ্ঞানুযায়ী ওয়েস্টার্ন হচ্ছে আমেরিকান পশ্চিমের প্রেক্ষাপটে নির্মিত সেসব সিনেমা যেগুলো নিউ ফ্রন্টিয়ার এর স্পিরিট, সংগ্রাম ও প্রস্থানকে ধারণ করে। জুলাই ১৯১২ তে মোশন পিকচার ওয়ার্ল্ড ম্যাগাজিনের... ...বাকিটুকু পড়ুন

×