somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

ই-বাইক বিড়ম্বনাঃ ওয়ারেন্টি কার্ড ও ভোক্তা আইনের এপিঠ-ওপিঠ (সচেতন হউন)

১৩ ই জানুয়ারি, ২০১৮ বিকাল ৩:২৯
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :

আমি গত ৯.৭.২০১৭ইং তারিখে BIR MOTORS CORPORATION থেকে SUNRA EM-10 মডেলের একটি ই-বাইক কিনি। আমাকে বলে দেয়া হয়েছিল এক বার ফুল চার্জে ৭০ কি.মি যায়। আমি ১ম ২-৩ মাস ৫০ কি.মি করে পাই। ৪র্থ মাসে ৪০ কি.মি মাইলেজ যার মধ্যে ১ম ২৫ কি.মি ভাল স্পীডে যায়, বাকিটা ১৫-২০ কি.মি বেগে যেত। আমি একাই রাইড করি এবং আমার ওজন ৫০ কে.জি। ৫ম মাসে আমি ৩০-৩২ কি.মি মাইলেজ পাই ! ১৫-২০ কি.মি ভালভাবে যায়, বাকি পথ এতো কম স্পীডে যায় মনে হয় হেঁটে যাচ্ছি। আমি গত ৫.১২.২০১৭ইং তারিখে সব ডকুমেন্ট সহ তাদের শো রুমে যাই এবং সেখানে হেড অফিস থেকে একজন মেকানিক আসেন যিনি পরীক্ষা করে বলেন ব্যাটারী ঠিক আছে। তাঁকে জিজ্ঞেস করলাম, চার্জ কমে যায় এমনিতেই, ব্যাটারির প্রব্লেম বুঝতেই পারছেন। তিনি আমাকে জানান, কেন আগের মত মাইলেজ পাচ্ছে না সে জন্য ব্যাটারির কি যেন টেস্ট/ চার্জ উঠাতে হবে এমন কিছু বলে জানান, এজন্য অন্য দোকানে নিতে হবে, আর টাকা লাগবে যেটা আমাকে দিতে হবে। আমি দিতে রাজি হই না, কারণ সব আমার ওয়ারেন্টির ভিতর। সেলস ম্যান তাঁদের কেয়ারে ফোন দেন এবং সেই ভদ্র মহিলা নাকি বলেছেন এটার সমস্ত খরচ আমাকে দিতে হবে। তারা অনেক আলোচনার পর আমার ব্যাটারি খুলে অন্য কোথাও নিয়ে যান এবং আমাকে ২ ঘণ্টা অপেক্ষা করতে বলেন। আমার কাছ থেকে ১০০ টাকা নেন সার্ভিস বাবদ রিক্সা ভাড়া এবং সেলস ম্যান বলেন,আমাদের কোম্পানি খুব খারাপ আপা, কোন টাকা দেয় না। ২ ঘণ্টা পর অন্য কোথাও থেকে আমাকে আমার ব্যাটারি এনে সেট করে দেয়া হয়। কিন্তু কথা ছিল ব্যাটারীর প্রব্লেম হলে পুরো সেট পাল্টে নতুন সেট দেয়া হবে। পরের দিনও বাইক সেই ৩০ কি.মি ই যায়। গত ১০.১২.২০১৭ ইং তারিখ থেকে বাইক ৩০ কি.মি মাইলেজ পাচ্ছে। ৯.০১.২০১৮ ইং তারিখে ফুল চার্জ দেয়ার পরও মাত্র ২১ কি.মি যাওয়ার পর আমার স্পীড ১ম+২য় গিয়ার দিলেও ১৫-২০ স্পীডের বেশি যায় না। এবং আমি গত ১০.১২.২০১৭ ইং তারিখের মত অদ্য ৯.০১.২০১৮ ইং তারিখেও বাকি ২/৩ কি.মি পথ বাইক প্রায় ঠেলে নিয়ে আসি বাসায় যখন ৪-৫ কি.মি এর বেশি স্পীডই পাচ্ছিল না, আমি নারী, একাই ছিলাম রাস্তায় রাত বাজে ১০.৩০ মি। পরে তাঁদের ফোন দিলে তারা রিসিভ করেন না। গত ১০.০১.২০১৭ ইং তারিখে আমি একজন সাংবাদিকের মাধ্যমে তাঁদের সাথে যোগাযোগ করি। কোম্পানির সেলস ম্যান দোষ স্বীকার করেন এবং আমাকে নতুন ব্যাটারি দেয়ার অঙ্গীকার দেন। শো রুম থেকে আমাকে ফোন দেয়া হয় এবং আমাকে ওই দিন বিকেলেই যেতে বলা হয় সব ঠিক করে দিবে বলে। আমি অফিস ফেলে তাঁদের শো রুমে যাই। সেখানে যাওয়ার পর মেকানিক নামে মাত্র আমার বাইক খুলেন, কিছুই দেখেন না, বলে সব ঠিক আছে। পরে সেলস ম্যান কাস্টমার কেয়ারে ফোন দিয়ে ওই মহিলাকে বলেন আমার সাথে কথা বলতে। উনি আমাকে জানান, "আপু আজ ৬ মাস ১ দিন। ওয়ারেন্টি শেষ। আপনি কোন সার্ভিস পাবেন না। আমি বললাম, আমি রাতে ফোন দিয়েছিলাম যেটা সেলস ম্যান রিসিভ করেন নি। তখন ৬ মাস ই ছিল। আরো বললাম, তাহলে আমাকে ৫.১২.২০১৭ইং তারিখে আমার টাকা নিয়ে কেন ব্যাটারি চার্জ করে ছেড়ে দিলেন? পাল্টে দেয়ার কথা ছিল।" বলা বাহুল্য, আমাকে ৫.১২.২০১৭ইং তারিখে সেলস ম্যান বলেছিল, আপা এর পর প্রব্লেম হলে আমি আছি, চেঞ্জ করে দিব, ওয়ারেন্টি কার্ড লাগবে না। সেলস ম্যান এতো ভাল ব্যবহার করে যে কেউ বুঝবে না উনি আসলে সব কোম্পানির স্বার্থ দেখেন কিভাবে কাস্টমারের টাকা যায়। ফেসবুকে এই অভিযোগ আরও ২ জন রাইডার আমার সাথে শেয়ার করেছেন সেলস ম্যানের নামে। যাই হোক, তারপর মহিলা আপনাকে বলেছেন, কে আপনার থেকে টাকা নিয়েছে ওই দিন? কোন টাকা নেয় নি। বললাম, সেলস ম্যান সার্ভিস চার্জ বাবদ নিয়েছে। তারপর তিনি সেলস ম্যানের সাথে কি কি যেন বলেন এবং সাথে সাথে সেলস ম্যান আমাকে ১০০ টাকা দিয়ে দেন। আমি তাঁদের কথা বলার সময় ভিডিও করেছি যেখানে স্পষ্ট স্বীকার করেছেন ঐ দিন সার্ভিস চার্জ এর জন্যই টাকা নিয়েছিলেন। আমি মামলার কথা বলেছি বলে হয়তো ফেরত দিয়েছে। আমি ফেসবুকে একটি পোস্ট করে জানতে চাই কি করা যায় এই মুহূর্তে, সবাই আমাকে মামলা দেয়ার সাজেশন দেন। ঐ পোষ্টে অনেক কে খুঁজে পাই যারা আমার মত সমস্যায় পড়েছিলেন একই বাইক এই জায়গা থেকে কিনে এবং পরে বাইক বিক্রি করে দিয়েছেন অনেক কম দামে। এমন হয়রায়নির মানে আমি খুঁজে পাচ্ছি না। কোন রাস্তা না দেখে আমি ভোক্তা আইনের আশ্রয় নিয়েছি বিচারের জন্য। ৬২,৫০০ টাকা দিয়ে কিনে ওয়ারেন্টির ভিতরে যদি এমন সমস্যায় পড়তে হয় তাহলে এমন প্রতারণার বন্ধ করার কি কোন উপায় নেই ?

১. যে কাস্টমার কেয়ার কাস্টমারের কোন কাজে আসে না সেটা চালু রাখার মানে কি আছে?
২.. অফিসে ওয়ারেন্টি কার্ডের কপি পর্যন্ত থাকে না, কারণ বিক্রেতা সবাইকে চিনে রাখে, উনি বললেই কল সেন্টারে তাই বিশ্বাস করেন। তো ওয়ারেন্টি থাকার পরও After Sales Service পেতে একজন ক্রেতাকে ওয়ারেন্টি কার্ড ছাড়া আর কি কি দিলে সঠিক সেবা পাওয়া যাবে?.বলে রাখা ভাল, উনারা পুলিশ কেয়ার করেন না বলেছেন। যা ইচ্ছে করতে বলেছেন বিক্রেতা।
৩. ৬২,৫০০ টাকা দিয়ে বাইক কিনে যদি ৪ মাস পরেই ফেলে রাখতে হয় তাহলে ওয়ারেন্টি কার্ডের গায়ে ওই সব মিথ্যা+লোক দেখানো কথা কেন লেখা থাকে? বললেই হত, শাটার গ্যারান্টি বাইক। তাহলে এতো অভিযোগ আসতো না।
৪. এই সব ব্যাটারি ৫-৬ মাস ই যায় আমি শুনেছি। এটা জেনেও উনারা কিভাবে পারলেন আমাকে ৫ মাস থাকা অবস্থায় আমাকে ব্যাটারি চেঞ্জ করে না দিয়ে গোঁজামিল দিয়ে আমার টাকায় চার্জ করে আমাকে ফেরত পাঠাতে? এটা সম্পূর্ণই পরিকল্পিত বলে আমার মনে হচ্ছে। তারা ওয়েট করছিলেন কখন ৬ মাস শেষ হবে, কিন্তু দুর্ভাগ্য বসত আমি ৬ মাসের দিন ই তাদের জানাই যেটা অস্বীকার করে ঐ মহিলা বলেন কেন এর আগে জানালাম না।
আজ মামলা করেছি, সুফল কতটুকু হবে জানা নেই। কিন্তু কেউ ভবিষ্যতে কিনে ঠকবেন না। কোন পরামর্শ থাকলে শেয়ার করবেন প্লিজ। ধন্যবাদ। অভিযুক্ত কোম্পানির নাম ও ঠিকানাঃ
Corporate office:
1. BIR GROUP HOLDINGS
Navana Osman @Link (6th Floor) 214/D, Tejgaon Link Road, Tejgaon I/A, Dhaka-1208.
2. Ideal Trade Centre -5th Floor, 102 Shahid Tajuddin Ahmed Sarani, Tejgaon I/A, Dhaka- 1208.
Show Room: পশ্চিম রামপুরা, পলাশ বাগের গলি, ঢাকা।
সেলস ম্যানের ফোন নম্বরঃ 01955579158, 01984646675

সর্বশেষ এডিট : ১৩ ই জানুয়ারি, ২০১৮ বিকাল ৩:৫৩
৪টি মন্তব্য ৪টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

তুমিও কি শুনতে পাও?

লিখেছেন শাহরিয়ার কবীর, ১৭ ই জানুয়ারি, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:২১


পরম নারী মূর্তির
অগ্নি-পরীক্ষার আরেক পরীক্ষার প্রতিচ্ছবি
মায়াবীনী তোমার মধ্যে কি এমন পবিত্র মায়া
তা হয়তো আমি জানি না !
কিন্তুু কি যেন এক সুর বাজে
দিশেহারা এ হৃদয়ের মাঝে।
তুমিও কি... ...বাকিটুকু পড়ুন

এক চিলতে আকাশ

লিখেছেন সেলিম আনোয়ার, ১৭ ই জানুয়ারি, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:৩৬


পারবে না কেউ—কেড়ে নিতে তোমায়
এ মায়াবী বাঁধন ছিঁড়ে,
ওগো মায়াবতী!
হৃদয়ের গহীনে থেকে—শব্দ এনে
বেঁধেছি তোমায় কবিতার ফ্রেমে
অক্ষত অবিকৃত
চিরন্তন শাশ্বত বন্ধন সে!

চাইলেই পারবে কি?
... ...বাকিটুকু পড়ুন

বাইতুল্লাহর মুসাফির (পর্ব-৮)

লিখেছেন নতুন নকিব, ১৭ ই জানুয়ারি, ২০১৮ রাত ৮:৩১



কালো পাথরের মায়ার টানে
হজরে আসওয়াদ। কালো পাথর। পবিত্র বাইতুল্লাহর পূর্ব কোনে বসানো জান্নাতি পাথরখন্ড। এই পাথরের প্রতি মানুষের হৃদয়ের ভালবাসা। প্রানপন কসরত এ্ই পাথর ছুঁয়ে দেখার। চুমু খাওয়ার পবিত্র... ...বাকিটুকু পড়ুন

আশঙ্কা

লিখেছেন জাহিদ অনিক, ১৮ ই জানুয়ারি, ২০১৮ রাত ৩:১৫

ভয় হয় বুঝি মেঘ কেটে যায়
এই বুঝি টুপ করে চলে আসে ভালোবাসা
সুখের দমকা হাওয়া এই বুঝি খেলে যায় পালে
অথৈ সাগরে অসুখের ডিঙা যায় এই ডুবে;
ভয় হয় সুখের... ...বাকিটুকু পড়ুন

বুঝলাম না দেশে এত মানুষ থাকতেে শামীম ওসমান আপনাকে বেছে নিল কেন ?

লিখেছেন :):):)(:(:(:হাসু মামা, ১৮ ই জানুয়ারি, ২০১৮ সকাল ৮:৫৭


না না মনের ভিতর এরকম একটা প্রশ্ন জাগাই সম্ভব।আর সেটা শুধু আমারই না বরং আরো সচেতন অনেকে মানুষেরি কাছে
প্রশ্ন জাগতে পারে বা জাগাতাই স্বাভাবিক।দেশে আরো কত গণ্যমাণ্য... ...বাকিটুকু পড়ুন

×