somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

চির বসন্তের শহরে চিকিৎসা হয় বিনামূল্যে সেবা।

১৩ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ সকাল ১১:৪৮
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :


না শীত না গরম। বলতে পারেন ব্যাপক আরামের এক ঋতুর নাম বসন্ত। পথিক নাকি ক্লান্ত হয় না এই ঋতুতে। তাই বসন্তে পথিক একটু বেশি হাঁটেন আনন্দ নিয়ে ক্লান্তি ভুলে।

আর একটা শহর যদি হয় ১২ মাস বসন্তের অবয়ে ঘেরা তবে?

হ্যাঁ। শহরটার নাম ব্যাঙ্গালোর।

শহরে পা রেখেই মন ভাল হয়ে যাওয়ার মত শহর ব্যাঙ্গালোর। তবে আমার বেশি প্রিয় ব্যাঙ্গালোর থেকে ছোট শহর মহীশূর। মহীশূর আমার সেই ছোটবেলায় টিপু সুলতান দেখেই প্রিয় শহরের তালিকাভুক্ত।

কনাটকের রাজধানী নিয়ে আমার প্রথম ও শেষ অভিযোগ শুধুই খাবার। এখানের খাবার আমি খেতে পারি না। খরচ বাঁচাতে আমি বিভিন্ন বিনামূল্যের স্থানে থাকায় স্থানীয় খাবার মিলে। যা প্রায়ই সময় গলা দিয়ে নামে না।

আর চলাচলের খরচ কমাতে বেশির ভাগ সময় স্কুটি নিয়ে চলি। বড় রাস্তায় গেলে স্কুটি চালাই না।

তবে বড় রাস্তায় চলি একটা ভিন্ন উপায়ে। একটা হেলমেট কিনে নেই। আমি হেলমেট পড়ে রাস্তায় হাটি। রাস্তায় সুযোগ পেলে এর ওর কাছে সাহায্য প্রার্থনা করি। অনেকেই আমাকে বিনামূল্যে এখানে ওখানে নামিয়ে দেয়। আমি ধন্যবাদ দেই।

আমার এক বন্ধু সে আমাকে এক হাসপাতাল দেখাবে। ফ্রি’র হাসপাতাল, যে হাসপাতালে সবকিছু ফ্রি। বসন্তের শহরে এতো বসন্ত সংবাদ।

হ্যাঁ সত্যি। একটা কিনলে একটা ফ্রি এমন নয়। এই সুপার স্পেশালাইস্ট হাসপাতালে এক কথায় সকল অপারেশন ফ্রি/বিনামূল্যে প্রদান করা হয়। নাম সত্য সাই বাবা হাসপাতাল। হাসপাতাল প্রবেশ পথে লেখা এখানে বিনামূল্যে চিকিৎসা করা হয়।

আমি কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলছি কত মানুষের চিকিৎসা ফ্রি/বিনামূল্যে হয় প্রতিদিন ১০০,২০০,৩০০,১০০০? না তাও না।

১০০০ মানুষ হলে তো কম হয়ে যায়? হৃদরোগ বিভাগে আমার সিরিয়াল ৪৫। আমার হৃদযন্ত্র ভাল। এত ভাল যন্ত্র নিয়ে কেউ হাসপাতালে যায় না। আমি গেলাম। চির বসন্তের শহর ব্যাঙ্গালোলের আমার হৃদযন্ত্র কেমন জানি আচরণ করছে এই আচরণ আমার অপরিচিত নয়। আমি অতি খুশিতে হৃদযন্ত্রে ব্যাথা অনুভব করি, আবার অতি দুঃখে সেই এক আচরণ।

ফ্রি চিকিৎসা নিতে কাদের পাঠানো যায় এখানে বলতো বন্ধু? যার দরকার তাকে পাঠাও। যারা সামর্থ্য আছে তার আসার দরকার কি? আমাদের প্রচারনার দরকার নেই। প্রচুর রোগি আসে আমাদের এখানে। শুধু মনে রেখে যাদের অর্থিক সামর্থ্য নেই চিকিৎসার। তাদের কাছে সংবাদটা পৌছে দিও বাঁচার অধিকার তাদেরও আছে। আমার তাদের সেবায় নিয়োজিত।

আমি চির বসন্তের শহর থেকে বিদায় নিয়ে যাচ্ছি বন্ধুর বাড়ি। আপনিও খুজতে থাকুন কোথায় কোথায় ফ্রি চিকিৎসা হয় এবং যাদের দরকার আছে বিনামূল্যে চিকিৎসার তাদের কাছে খবরটি পৌছে দিন। ব্যাঙ্গালোলের সাই বাবা হাসপাতাল
এবং তাদের সংগঠন সম্পর্কে জানতে পারবেন । এখানে :

১. Click This Link
২.Sri Sathya Sai Institute of Higher Medicial Sciences, Bangalore
http://www.sathyasai.org/saihealth/bnglrhosp.htm
৩. http://saiuniverse.sathyasai.org
৪. http://www.sathyasai.org

কোন প্রকার মাধ্যম ছাড়াই এখানে চিকিৎসা মিলবে।সহযোগিতার জন্য কোন লোকের দরকার নেই। শত শত সেচ্ছাসেবক এখানে রোগীর সেবায় নিয়োজিত। প্রতিবছর সারা ভারত থেকে লক্ষ সেচ্ছাসেবক এখানে নিবন্ধন করে শুধুই রোগীর সেবার করার স্বার্থে। তার বিশ্বাস করে রোগীর সেবাই মানে ঈশ্বরের সেবা।

দুনিয়াব্যাপী ভিন্ন স্থানে তাদের কার্যক্রম চলছে। তবে সাই হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য অবশ্যই মেডিকেল ভিসা নিয়ে যাবেন।থাকার জন্য কাছেই আছে স্বল্পমূল্যের বাসস্থান।

ফেবু’র ভাই ব্রাদার, বোন এন্ড আপাদের জানাই। দুনিয়াব্যাপী অনেক স্থানে বিনামূল্যে অসচ্ছল ব্যক্তিদের নানা ধরনের চিকিৎসা করা হয়। তবে তার অর্থ এই নয় সকল চিকিৎসা ফ্রি । যেমন আমি এখনো বিনামূল্যে ক্যান্সার, কিডনী প্রতিস্থাপনের মত চিকিৎসা বিনামূল্যে কোথায় করা হয় তার ঠিকানা সংগ্রহ করতে পারি নি। আপনাদের জানা থাকলে জানাবেন।

পরের দেশের গুন গানের শেষে এদেশের খবর দেই।

১. গণস্বাস্থ হাসপাতালে ফ্রি ডাইলেসিস চালু হয়েছে। প্রতিদিন ২৫জন রোগী ফ্রি এই সেবা পাবেন।

২.স্বাস্থ্য বাতায়ন চালু হয়েছে দেশে ১৬২৬৩ হেল্পলাইন দিনরাত ২৪ ঘন্টা আপনার সেবায় নিয়োজিত।

৩. ক্যান্সার, কিডনী ও লিভার সিরোসিস রোগীদের জন্য সরকার আর্থিক সহায়তা কর্মসূচি চালু করেছে ।

শুভ বসন্ত। বসন্তের রং লাগুক আপনার মনে আপনার শহরে।

সর্বশেষ এডিট : ১৩ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ দুপুর ১২:২৫
১৩টি মন্তব্য ১০টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

মানব জীবনের রহস্য

লিখেছেন রাজীব নুর, ১৩ ই আগস্ট, ২০১৮ বিকাল ৪:০৭



কেউ আমাকে একটু কষ্ট করে বুঝাবেন, জীবনের উদ্দেশ্য কি? সত্যি বলছি, এই ব্যাপারে বিশেষ অজ্ঞ আমি। বিশেষ সন্দিহান।

আদিম সমাজে মানুষ সারাদিন মাইলের পর মাইল চষে বেড়িয়েছে খাবারের সন্ধানে, সারা... ...বাকিটুকু পড়ুন

সনেট (সনেট কবির ৮০০ তম সনেট)

লিখেছেন সনেট কবি, ১৩ ই আগস্ট, ২০১৮ সন্ধ্যা ৬:৩৫





সনোটা থেকে সনেট নির্দিষ্ট মাত্রার
পদাবলি নিয়ে গড়া বর্গাকার রূপে
কবিমনে সঙ্গোপনে আসে চুপে চুপে
এরপর নিরিবিলি গীতি নক্সা আঁকে।
প্রেম প্রীতি অনুযোগে পক্ষের বিস্তার
অতঃপর অন্যসব বিষয়ের স্তুপে
নিজেরে বিলায় সব শব্দের প্রকোপে
আত্মায় বিলিন করে... ...বাকিটুকু পড়ুন

পুলিশ কোন ইয়ের ইয়ে

লিখেছেন চঞ্চল হরিণী, ১৩ ই আগস্ট, ২০১৮ রাত ৮:৩৫



ছাত্র আন্দোলনে ছাত্রছাত্রীরা যখন, ‘পুলিশ কোন ইয়ের ইয়ে ( )’ বলে স্লোগান তুলেছিলো তখন আমার মনে হয়েছিলো এদের অনেকের তো নিজেদেরই ইয়ের ইয়ে ওঠেনি। আর পুলিশকে এসব বলার কি আছে,... ...বাকিটুকু পড়ুন

কবি শাহরিয়ার কবির ফিরে আসুন.......

লিখেছেন ভ্রমরের ডানা, ১৩ ই আগস্ট, ২০১৮ রাত ৯:৩১



এক যে আছে মজার কবি, সব কবিতায় হিট,
রাতদুপুরে কবিতা লেখে, দিনে ঘুমে ফিট !
পদ্য তো তার গদ্যবরণ, ব্লগের পাতায় নীল;
রম্য মাঝে বিবাস বিরাগ, বিরহ কাব্যে(chill) চিল !
শাকবির ভাই লুকিয়ে... ...বাকিটুকু পড়ুন

কী লাভ হইল? সবাইকেই একদিন যেতে হবে, কিন্তু যাওয়াটা যেন সম্মানের হয়

লিখেছেন দপ্তরবিহীন মন্ত্রী, ১৪ ই আগস্ট, ২০১৮ রাত ১২:১১



কিছুদিন আগে এক সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রীকে তেল দিতে গিয়ে এই ব্যক্তি সমালোচিত ও হাসির পাত্র হন।
view this link

মুসলমান হিসেবে এই বয়সে এসে উনার পরকাল নিয়ে ভাবা উচিত ছিল। শেষ... ...বাকিটুকু পড়ুন

×