somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

আমার পরিচয়

আমিত্ব কে আবিষ্কার করা...

আমার পরিসংখ্যান

তাওিহদ অিদ্র
quote icon
জীবন অর্থবহ...
আমার সকল পোস্ট (ক্রমানুসারে)

টুল-টেবিল সিরিজ : (ষোলতম) পর্ব

লিখেছেন তাওিহদ অিদ্র, ১৯ শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ সকাল ১০:১৯


দ্য আর্থ..//
দূর্নীতি আর ধর্ম হলো প্রেম।বাকি সব পাপ।

নিরক্ষর//
সেই ব্যক্তি যিনি কিনা শিক্ষিত,জ্ঞানী ও বুদ্ধিমানদের সাথে রাখতে পারে।

জামালখান//
একটা ফোয়ারা।জায়ান্ট স্ক্রীণ।বায়ুদূষাণাক্রান্ত ফুটপাতের লাগোয়া সিমেন্টের বেঞ্চি।বিদ্যালয়ের দেয়ালে আধখানা ম্যুরাল।
আড়ালে রক্তের দাগ নিয়ে স্বাস্থ্যবার্তা দিয়ে যাচ্ছে।

ধার্মিক//
প্যান্টে আগে চেইন লাগানো থাকত।এখন বোতাম।এইটুকুন পরিবর্তন যারা এখনো মেনে নিতে পারেনি তারা ধার্মিক।

পার্থক্য//
তসবিহ হলো আঙুলের একদিক ব্যবহার।
নামতা বহুমুখী... বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ৩৬ বার পঠিত     like!

বড়োভাই

লিখেছেন তাওিহদ অিদ্র, ১৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ সকাল ১০:৪৯


লোকে যারে বড় বলে বড় সে নয়,বয়সে বড়ো হলে বড়ো ভাই হয়।পাড়া বা মহল্লা বা পরিবার বা সমাজ বা রাষ্ট্র কার কথা কারে বলি ভাই?ইশারায় চলে ভাইদের ভাষা।বোবাভাষার প্রতিষ্ঠান। ছোটদের তারা এই ভাবে দলে ভিড়ায়।নেশা হয় মাদকের নেশা নয়,গভীরতরো নেশা।দলের জন্য দশের লাঠি একের বোঝা হয়।বোঝা?বোঝাভার।কাঁধে বইতে পারে মন্ত্রণা তারে... বাকিটুকু পড়ুন

৪ টি মন্তব্য      ৪৫ বার পঠিত     like!

উইন্টার সিরিজ (শেষপর্ব)

লিখেছেন তাওিহদ অিদ্র, ০৫ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ বিকাল ৪:৫৫




ট্র্যাজেডিগুহ//
মাত্র একসপ্তাহ।এরপর এতো জড়াইধরতে চায় তবু পারতেছি না।ছাইড়া ছাইড়া চইলা আয়।আবহাওয়া অধিদপ্তর যদি ও মাঝে মাঝে হুমকি ধামকি দিছে কিন্তু কোন কাম হয় নাই।চার ডিগ্রী তাপমাত্রা নেমে আসাতে যারা স্নো বিভোর হইতেগেছিলেন তাদের সপ্ন,দোষাক্রান্ত হইগেছে।সব উমের কাপড় ধুইতে হবে বইল্যা সকাল সকাল রক্ত গরম হয়ে উঠে।যদি রংপুরে তেইশমানুষ আগুনপোহাতে গিয়ে... বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ২৪ বার পঠিত     like!

পরিবেশ বিজ্ঞান : (আধুনিক)

লিখেছেন তাওিহদ অিদ্র, ০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ দুপুর ১২:৫৫


একটুকরা কাগজে লোকটা সাধনা করছে আঙুলফলা চালিয়ে
মাথা দেখলেই যে কারো মনে হতে পারে
কারখানার চিমনি দিয়ে লোকটা পৃথিবীতে এসেছে।
যে প্রাণী একদিন পাথরতোলার শব্দে পালিয়ে গেছিল
সেপ্রাণীটাই একই কারণে ইঞ্জিনের শব্দে পালিয়ে বেড়ায়।
জন্ম-মৃত্যুঅব্দি মানুষ পলাতকা।
পৃথিবী একটা শব্দ।
বাড়ির পাশের খাল
রঙিন বেদনা নিয়ে ঘুরেফেরে।
মানুষও তোমারমতোন রঙিনবেদনা নিয়ে ঘুরে:ভরপেট খালিপেট।
মানুষ খোলস।
মানুষ বাহিরমনা।
বাহির প্রাণ তার অনন্ত সুখাবয়ব।
ইতিহাসের... বাকিটুকু পড়ুন

২ টি মন্তব্য      ২৫ বার পঠিত     like!

ঘুম ও জলপাই

লিখেছেন তাওিহদ অিদ্র, ৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৮ সকাল ১১:৪৪




ঘুম//

নিষেধ উৎপাদন করি।
এখানে দেয়াল লিখন নিষেধ।
এখানে প্রস্রাব করা নিষেধ।
এখানে কথা বলা নিষেধ।
এখানে মোমবাতি জ্বালানো নিষেধ।
এখানে দাঁড়ানো নিষেধ।
এখানে প্রবেশ নিষেধ।
এখানে চুমু খাওয়া নিষেধ।
এইখানে থামুন।
আপনারা
কুম্ভকর্ণ চেনেন?
ব্যাঙ?
ওদের দীর্ঘ নিদ্রা বেশচমকপ্রদ!
”ঘুমাও তুমি ঘুমাও গো জান ঘুমাও আমার কোলে”-খালেদ গায়।
অথচ জেগে থাকা,
জেগে থাকার নাম অপরাধ।
সবাইরে ঘুমানোর ডাক দিতেছি।
আসুন
ঘুমাই।
চব্বিশ ঘন্টা ঘুমাই।
বছর বছর টানা ঘুমাই।
আসুন
ঘুমাই।
মৃত্যুর সমান... বাকিটুকু পড়ুন

২ টি মন্তব্য      ৩৪ বার পঠিত     like!

কেমন বদল হয়ে গেলো মানুষগুলা

লিখেছেন তাওিহদ অিদ্র, ২৯ শে জানুয়ারি, ২০১৮ বিকাল ৪:৪১




ইস কি যে হয়েছে দেশের,মানুষগুলো কেমন কেমন হয়ে গেছে
এমনটাভাবা আরেকমানুষদের রোজকার নামতা পড়ার মতোন হয়েগেছে।
এখানে ওখানে নানান মাঠে বিকালে নানান জায়গায় মানুষের ছোটাছুটি দেখলেই প্রশ্নটা ধুম করে বারি মেরে যায়।
দেখেন তো মানুষগুলারে কি দারুণ খেলছে হাসছে রসিকতা করছে
কতো ফুর্তি।অথচ সেই ম্লানমুখগুলারে যদি এখানে আনতে পারতাম
যারা সকাল থেকে গভীর রাতঅব্দি দস্যুতা... বাকিটুকু পড়ুন

৪ টি মন্তব্য      ৪৮ বার পঠিত     like!

একটা হাওয়া ধাক্কা মেরে যায়

লিখেছেন তাওিহদ অিদ্র, ২৪ শে জানুয়ারি, ২০১৮ বিকাল ৪:১১





(”একটা পাতা নরম নরম
ঝরছে ফোঁটায় রোদ্দুর”)
মাজারে এক জোড়া পাখি
মাজারের আকাশে আছে।
আবহাওয়া কর্মকার- মাপছে
মিটার নিয়ে শীত
আগুন পোহায় অঙ্গার হয়
নিশীথ মানুষ
বসন্ত বসন্ত আলাপে।
একটা মাত্র পাতা
ঝরার আগে করছে প্যারেড
ক্যালান্ডারের পাতায়
আঁকছে এ্যামবুশ
হলুদ দাগ লাল দাগ
কতো কতো ছোট ছোট আর্ট করা মানুষ
আসছে উড়ে
বিলাপ করে উত্তরেরই পাঠ।
কে যায়
কে যায়
কে আসে কে আসে... বাকিটুকু পড়ুন

২ টি মন্তব্য      ১৪ বার পঠিত     like!

চট্টগ্রামে কিশোর খুনের ব্যাপারে আঞ্চলিক সমাজবিজ্ঞানীরা,তথাকথিত মিডিয়া দুষছেন-পরিবারকে?!!

লিখেছেন তাওিহদ অিদ্র, ২৩ শে জানুয়ারি, ২০১৮ সকাল ১১:০৭




চট্টগ্রামে কিশোর খুনের ব্যাপারে আঞ্চলিক সমাজবিজ্ঞানীরা,তথাকথিত মিডিয়া দুষছেন-পরিবারকে?!!
পরিবারের অনুশাসনই নাকি কিশোরদের দমায় রাখতে সাহায্যকরে।অর্থাৎ তাদের কথা অনুযায়ী তারা সবরকম ইনস্টিটিউশনের মধ্যে পরিবারকে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছেন।সববিপদের ত্রাতা পরিবার!সব ভালর কৃতিত্বও পরিবার!সব খারাপের ভাগিদারও পরিবারের।

এরা সত্যিকারের ”আঞ্চলিক” সমাজবিজ্ঞানী এরা কোনদিন জাতীয় বা আর্ন্তজাতিক মাপের সমাজবিজ্ঞানী হতে পারবেন না।যে সমাজে রাষ্ট্রে... বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ৫৫ বার পঠিত     like!

টুল-টেবিল সিরিজ : পার্ট ফিফটিন

লিখেছেন তাওিহদ অিদ্র, ২০ শে জানুয়ারি, ২০১৮ সকাল ১০:২৮



দাঁত*
চকোলেট খেয়ে নায়িকারা খিদে নিবারণ করে।আম ও খেতে হয় বয়ান করে।খাওয়ার জন্য দাঁত যথেষ্ট না।পড়ুন,দাঁত সাফ করার ইতিহাস।মাটি-ছাই-কাঠকয়লা-পেস্ট।

শীতকালীন..*
হাতে দুইটা ফুলকপি নিয়ে খেলছি।শীতকালীন খেলা।সম-ভোগ্য।সাম্য-বাদী।সন্ধ্যা নামলেই পাড়ার ছেলেরা ব্যাডমিন্টন খেলে।খেলে আলোর খেলা।অথচ কেউ দেখছে না ডানপাশের বাজারে সারাদিন ধরে চুরি হচ্ছে সঞ্চয়ের আয়োজন।নারীটা কেবল ফুলকপি দেখে চেঁচাল।

জ্বালানি সংক্রান্ত*
আলোর জ্বালানিতে ভাসছে পৃথিবী।ইতিহাস জ্বালানি।মানুষ... বাকিটুকু পড়ুন

২ টি মন্তব্য      ৪২ বার পঠিত     like!

এক শিক্ষকের শিশুসুলভ শিক্ষাধারণা দেখে…………>>

লিখেছেন তাওিহদ অিদ্র, ১৮ ই জানুয়ারি, ২০১৮ দুপুর ১২:১২




আমাদের তথাকথিত শিল্পীরা যে আর্টরে নিয়া ব্যবসা করতে চান মানে দু-চারটাকা রোজগার করতে চান মূলত তারাই আর্টকে শ্রেণীতে পাঠমুখী করার অন্তর্ভূক্তকরণের জন্য উঠেপড়ে লাগছেন এবং সফল হয়েছেন। তারা মনে করছেন এইরকম করলে একটা বিশাল শিক্ষিত শ্রেণী,মানসম্পন্ন সাংস্কৃতিক শ্রেণীর একটা কর্মঠ জাতি পাওয়া যাবে।দেশে জঙ্গিবাদ,ঘুষখোর এর মতোন শ্রেণী কমে আসবে! কিন্তু... বাকিটুকু পড়ুন

৮ টি মন্তব্য      ৯২ বার পঠিত     like!

প্রেম: আমি আমার না পাওয়া

লিখেছেন তাওিহদ অিদ্র, ১৭ ই জানুয়ারি, ২০১৮ বিকাল ৪:৫০





প্রেম আমাকে ছুঁতে পাইনি
জন্মাইনি বুকে
বাদামের দানা সেরকম না
ফুল-জমির আইল-মেঘপত্র-ঠোঙা সিরিজ
প্রিয় রঙ কি
প্রিয় ফুল কি
প্রিয় বই
প্রিয় স্থান
কুইজ প্র্রেম তাও না,
না
এবং
না।
কোন প্রাচীন ঘাট
মন্দিরের পেছনে ঘিরেধরা শ্রীমতি ঘাস
অথবা
সাপের লেজে পা
ধ্যান
কোন কিছুই না।
প্রেম আমাকে তাড়িয়েছে
না প্রকৃতি না নারী
দুটোরই উপেক্ষায় উপেক্ষিত
দুটোই হারিয়েছি
জ্বরের ঘোরে কমলালেবুর খোসা ছড়ানো
পরিত্যক্ত স্বপ্ন থেকে;
কার্ণিশ ছুঁয়ে যে হাওয়া বেরিয়ে... বাকিটুকু পড়ুন

১০ টি মন্তব্য      ৫৯ বার পঠিত     like!

একটা দিন নিরব থাকো //

লিখেছেন তাওিহদ অিদ্র, ১৬ ই জানুয়ারি, ২০১৮ সকাল ১১:০৮






আমি আমারে অস্ফুটস্বরে বললাম তোর আজ নিরব থাকার দিন
কারো সাথে কথা কবিনা
কারো সাথে আড্ডা
চা শেয়ার
কোন কিছুই না।
আমি আমারে বললাম
ঠিকমতোন ঘুম থেকে উঠছি
টাইমলি খাইছি
কাজকাম করছি
কোনকিছুই বাদ দিচ্ছি না
শুধু নিরব থাকবি
পৃথিবী জন্মনেবার আগে যেরকমটা ছিল।
তোর আজ নিরব থাকার দিন
ফুল দেখলে থমকে যাচ্ছিনা
বৃক্ষ দেখলে কথা বলছি না
কোন আর্টফ্রেম দেখে চমকে উঠছি... বাকিটুকু পড়ুন

২ টি মন্তব্য      ২৫ বার পঠিত     like!

টুল-টেবিল : পাট ফোরটিন

লিখেছেন তাওিহদ অিদ্র, ১৪ ই জানুয়ারি, ২০১৮ সকাল ৯:৫২


#সুখ..//
সুখি হাওয়ার জন্য নদীর কাছে গেলাম।আমাদের চোখ বড়ো মিথ্যেবাদী।নদীর ঘোরতর অসুখ।ডানে বায়ে অসুখ।উপরেও অসুখ।
মানুষ মূলতঃঅসুখ।
আমাদের আর সুখ হাওয়া হলো না।

#স্পীচ অব বঙ্গবন্ধু..//
রাগান্বিত স্বরে তিনি বললেন,আমি পেয়েছি একটা চোরের খনি।বঙ্গবন্ধুর মুরীদরা এ বিষয়ে মৃত্যুনীরবতা পালন করছে!

#মাছ..//
মাছের মাথায় ভ্রমণের পঞ্জিকা আঁকা থাকে।মাছ হতে না পারা আমার ব্যর্থতা।

#পিছু হটা..//
উপরে উঠার যতো পাঁয়তারা করছি,দেবে... বাকিটুকু পড়ুন

৪ টি মন্তব্য      ৫২ বার পঠিত     like!

উইন্টার সিরিজ.....(পুরো শীতজুড়ে চলবে)

লিখেছেন তাওিহদ অিদ্র, ১০ ই জানুয়ারি, ২০১৮ দুপুর ২:৫৪



পুরনো শীতের রাত#

একটা দোলনচাঁপা ফুটেছিল রাতজুড়ে
কচুরিপানার নীচথেকে ফনাতুলে আসছে বায়ুপ্রবাহ
জেনেছিলাম,
অপেক্ষার নাম মৃত্যু।

বাসের ছাদ#

বন্ধুরা গাইছিলো
”এমন চাঁদের আলো..”
একজন মাঝির আমাদের সাথে গেলো
যে আলোয় ভেসে গেছে আমাদের যাবতীয় মুখ।


কুয়াশা ও শিয়াল#

তমসার বেড়া ডিঙিয়ে চললাম দূরপথে
বটের ডাল ধরে কুয়াশার নাচন
জিরিয়ে নেয়ার প্রাক্কালে অনুধাবন করলাম
একদিন এখানে শিয়ালের সংসার ছিলো।


আগুন খাওয়া সকাল#

সাদা শার্ট কালোপ্যান্ট জুড়ে... বাকিটুকু পড়ুন

২ টি মন্তব্য      ২৩ বার পঠিত     like!

শীতের কলঙ্ক //

লিখেছেন তাওিহদ অিদ্র, ০৭ ই জানুয়ারি, ২০১৮ বিকাল ৪:২০





মা একা আছেন চৌদ্দবছর
স্বামী নাই;গাছপালার দিকে তাকালেই ঋতু বুঝতে পারেন
নতুন বছর আসলে আগে বাংলা ক্যালান্ডার খোঁজেন।
যতদিন তার স্বামী ছিলেন আমরা পিতা হারা হইনি
সপ্তাতে বা মাসে মাঝিরঘাট থেকে আসতেন স্টিমারে
দু-একদিন তাকে সঙ্গ দিতেন
৩৭সাবান চিনিচা-পাতা সব শুকনো মুদির বাজার সাথে আনতেন;কোন কোন সময় একটু বেশি থাকলে
সপ্তাহের দু-দিনের বাজারে একদিন যেতেন;পিতার একটা অহংকার... বাকিটুকু পড়ুন

১০ টি মন্তব্য      ৭০ বার পঠিত     like!
আরো পোস্ট লোড করুন
ব্লগটি ২৩৮৮১ বার দেখা হয়েছে

আমার পোস্টে সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার করা সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার প্রিয় পোস্ট

আমার পোস্ট আর্কাইভ