somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

আমার পরিচয়

অযথা এক্সপেরিমেন্ট করতে গিয়ে জগাখিচুড়ি পাকিয়ে ফেলায় আমি সিদ্বহস্ত। ব্যাপারটা লেখার ক্ষেত্রে যতটুকু সত্য রান্নার ক্ষেত্রেও তাই।

আমার পরিসংখ্যান

জোলারোভিচপইজোলারোভিচ
quote icon
অদ্ভুত দুনিয়ার অদ্ভুত মানুষ! কি বিভৎস আবার কি সুন্দর! আমি তিন নম্বর টাইপের লোক যার কাজ তামাশা দেখতে থাকা মানুষগুলোকে দেখা, বাকি দু টাইপ তো তামাশা করা আর তামাশা দেখায় ব্যস্ত।
আমার সকল পোস্ট (ক্রমানুসারে)

তোর সিঁদুর

লিখেছেন জোলারোভিচপইজোলারোভিচ, ০১ লা ডিসেম্বর, ২০১৭ সন্ধ্যা ৭:৫৯

একটা রুদ্ধ দ্বার,
তার পেছনে লুকিয়ে থাকে রুদ্র অনুভূতি,
আকাশ পাপী তাকিয়ে দেখে নেই কিছু নেই।
আবার, আরো একবার ডাক দেয়,
পেছন থেকে দেয় উকি,
নষ্টের ফেরিওয়ালা করে কষ্টের সওদাগিরি।
উন্মুক্ত বক্ষা ভূমিতে ফুটছে রজনীগন্ধা,
হাওয়ায় ভাসে এ কিসের সুবাস,
বদ্ধ আখি তাতে দেখে সুখের স্বপন।
বদলায় নাই কিছু,
সেই পুরনো কোমরে এখন নতুন স্পর্শ শুধু,
কপালের বর্ষীয়ান সিঁদুর আবাছা... বাকিটুকু পড়ুন

৮ টি মন্তব্য      ৩৩ বার পঠিত     like!

ফেরেশ্তার শবযাত্রা

লিখেছেন জোলারোভিচপইজোলারোভিচ, ২৫ শে অক্টোবর, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:৫০

আমি জনম মরা, মরে গেছি অনেক আগে,
আমি মাতাল ছোঁড়া, শুরার পেয়ালায় চুমু দিয়ে।
আন্ধার রাতে দেখি ঝলমলে উল্কা,
তাতে যেন কার দেহ পুড়ে।
বাতাসে রুদ্রাক্ষের গন্ধ,
মেরা ফেলা মিষ্টি সবুজ ঘাসে শিশির জমতে থাকে।
ক্লান্ত মানুষের দল,
এগিয়ে যায় কাধে সস্তা দামের সাদা কফিন নিয়ে।
শেষকৃর্ত্যের শেষ দৃশ্য,
সাদা ঘুঘু জানান দেয় চিৎকার করে।
ফেরেশ্তার এই শবযাত্রায়,
কোন চৌরাষিয়ার বাশি... বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ১৩ বার পঠিত     like!

দোলনের গান

লিখেছেন জোলারোভিচপইজোলারোভিচ, ২০ শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ রাত ৮:১২

চলনে বলনে,
কি নিদারুণ দোলনে;
কোমরটা নাচিয়ে,
নিতম্ব দুলিয়ে।

কপালে সাদা টিপ,
টুকটুকে লিপস্টিক;
আঁচলের ফোকরে,
কিছু নাই আড়ালে।

খোলামেলা কোমরে,
বাসন্তী বাতাসে;
এলোমেলো খোলা কেশ,
আরো চাই বেশ বেশ। বাকিটুকু পড়ুন

১২ টি মন্তব্য      ৭১ বার পঠিত     like!

সিগারেট

লিখেছেন জোলারোভিচপইজোলারোভিচ, ১৪ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৭ রাত ১১:৪৭

হ্যালোজেন ল্যাম্পপোষ্ট আমার সস্তা দামের জোছনা,
প্রতিরাতে মাখি সে স্নিগ্ধতা।
কৃত্রিম মেঘ বানাই ভলকে ভলকে ছাড়া সিগারেটের ধোয়ায়,
ধোয়াশা ধোয়াশা আবহে,
গাড়ির হেডলাইট যেন স্বপ্নের জোনাকি।
ছাই ফেলি টোকা দিয়ে,
অবাঞ্চিত ছাই, উড়ে এসে পড়ে আমারি গায়ে।
আগুন জ্বলে জ্বলে তামাক পোড়ায়,
শেষ টানের কাছাকাছি প্রহর।
আমি প্রস্তুত সিগারেট নিভবে, ধোয়া কমবে।
তখন স্নায়বিক চাপ দেবে আবেগের বেগ,
বাচার জন্য তাই,... বাকিটুকু পড়ুন

৫ টি মন্তব্য      ৫৮ বার পঠিত     like!

আলবেট্রস

লিখেছেন জোলারোভিচপইজোলারোভিচ, ০২ রা সেপ্টেম্বর, ২০১৭ রাত ১২:২১

গালে হাত দিয়ে জানালায় বসে আছে মাধবী
অনেক দিনের অপেক্ষা তার,
পেজা মেঘে ভর করে বহুদূর পাড়ি দিয়ে আসা আলবেট্রসের অপেক্ষা।
আমি দূরে প্রশান্ত মহাসাগরে অশান্ত ঢেউয়ের সাথে ঝগড়া করি,
আর কতদিন?
আমার কামরার খোলা পোর্টহোলে বসা আলবেট্রসের পায়ে বেধে দেই চিঠি
"নিয়ে যা পাখি নিয়ে যা, আমার মুনিয়া মাধবীর কাছে যা"।
বিশাল পাখা মেলে উড়ে যায়... বাকিটুকু পড়ুন

২ টি মন্তব্য      ৩৭ বার পঠিত     like!

আমার লাল টমেটো এখন কার?

লিখেছেন জোলারোভিচপইজোলারোভিচ, ০১ লা আগস্ট, ২০১৭ সন্ধ্যা ৭:৫৯

সন্ধ্যা বেলা চা পানরত অবস্থায় পুরনো স্মৃতিচারনের শৌখিনতা আমার নতুন। সেই নতুন শখের দাস হয়ে আজ স্মৃতি রোমন্থনকালে মনে পড়লো সাবিতা ভাবীর কথা।

ভরা দেহ, কালো কোমর অবধি কেশ, কাঠালের কোয়ার মতো আখি আর পুষ্ট অধর সাবিতা ভাবীর শারীরিক সৌন্দর্যের বর্নণা। যৌবনকালে আমাকে আকৃষ্ট করার জন্য অতটুকুই যথেষ্ট ছিলো, কিন্তু তিনি... বাকিটুকু পড়ুন

৮ টি মন্তব্য      ১৫৪ বার পঠিত     like!

মাধবীর এপিটাফ

লিখেছেন জোলারোভিচপইজোলারোভিচ, ১৩ ই মে, ২০১৭ রাত ১:১৮

শোন না মাধবী, স্বপ্ন দেখবে? চল দেখি।
মাধবী নাটাই ধরবে, ঘুড়ি ওড়াবো একসাথে।
এই মাধবী, মাধবী; এই মাধবী শোন না।
আচ্ছা জেগে আছো তুমি?
মেঘডানায় ভর করে পেজা পেজা কালো মেঘ দেখ কেমন করে পূর্ণিমা ঢেকে দিচ্ছে।
চল না দুজন হাত তুলে সেই অনাগত বৃষ্টিতে ঝাপিয়ে পড়ি।
চল না; আজ ভেজবো, প্রাণ উজাড় করে।
আজকে পান করবে... বাকিটুকু পড়ুন

৩ টি মন্তব্য      ৫২ বার পঠিত     like!

সূর্যের গান

লিখেছেন জোলারোভিচপইজোলারোভিচ, ২১ শে এপ্রিল, ২০১৭ বিকাল ৪:২৩

আর্দ্র অনুভূতি বলছে ভিজছে নগরী
সূর্যের অগ্নি ঘাম ঝরে ঝর ঝর,
মেঘের নৃত্যে ভরতনট্যমের ছোয়া।
আলোয় আলোয় স্ট্রাউসের সুর-লহমা কে করছে মাহেন্দ্রক্ষণ।

কে চায় অন্ধকার নিশীথির শুরু কিংবা রুক্ষ স্নিগ্ধতার শেষ?
উর্ধ্ব পানে তাকিয়ে জমিন দেখার পর কে বলে আমরা মিথ্যে?
কুয়োর ভেতর পড়ে আছে দুটো ব্যাঙ, মুখ থুবড়ে পড়ে থাকা দুটো শরীর;
সে শরীরের উপর জন্ম... বাকিটুকু পড়ুন

১ টি মন্তব্য      ৩০ বার পঠিত     like!

পিলু ক্যাফে

লিখেছেন জোলারোভিচপইজোলারোভিচ, ২৪ শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১১:৩২

পিলু ক্যাফে। বিক্রিত পণ্য: চা, বিস্কুট, সিংগারা, পেয়াজু এবং জিলাপী। টেবিল সংখ্যা পাচটে, প্রত্যেক টেবিলের সাথে তিনটে করে চেয়ার। টেবিল চেয়ার সবই প্ল্যাস্টিকের। কাউন্টারে একটে নব্বই দশকের টেপরেকর্ডার আছে তাতে এখনো আশির দশকের বাংলা এবং হিন্দি সিনেমার গানের ক্যাসেট বাজে। চায়ের কাস্টমারের অভাব হয় না, আর বিকেলে মৌমাছির সাথে সাথে... বাকিটুকু পড়ুন

৪ টি মন্তব্য      ১০৪ বার পঠিত     like!

কৈফিয়ত এবং un প্রসঙ্গ

লিখেছেন জোলারোভিচপইজোলারোভিচ, ১১ ই ডিসেম্বর, ২০১৬ দুপুর ২:২৩

অনেকদিন কাগজের সাথে কলমের সঙ্গমের খসখস আওয়াজ শোনা যায়নি। যাওয়ার কথাও না। চারদিকে যেসব সিরিয়াস বিষয় নিয়ে মানুষ চিন্তিত, টেনশিত তাতে আমার কাগজ কলমের মিলনের ফলাফল ইংরেজিতে যাকে বলে offspring, তা কতটুকু মানুষকে নাড়িয়ে চাড়িয়ে বসাবে সেটা নিয়ে বেজায় শংকিত হয়ে কিঞ্চিৎ বিষাদগ্রস্ততায় পড়ে গিয়েছিলাম।একটু পেছন ঘুরে দেখে নেই, কি... বাকিটুকু পড়ুন

২ টি মন্তব্য      ৪০ বার পঠিত     like!

হাসনেহেনা হাউজ - ৪

লিখেছেন জোলারোভিচপইজোলারোভিচ, ২৯ শে অক্টোবর, ২০১৬ রাত ১২:২৫

দুর্গোপুজোর মৌসুম, শাখারী পট্টিতে রঙয়ের ছড়াছড়ি। অসাধারণ চোখে গলিটিকে দেখলে মনে হবে আসমান থেকে কেউ রংধনুর বিশাল কৌটা উপুড় করে দিয়েছে। হলুদ, সবুজ, গোলাপী হরেক রকম রঙ চারপাশে। ঢোলক ঢোল বাজাচ্ছে এমন দৃশ্য কোনো এক যুগে চোখে পড়তো হয়তো, এখন পড়েনা; এখন বড় বড় সাউন্ড বক্সে শরীর গরম করা গান... বাকিটুকু পড়ুন

৩ টি মন্তব্য      ৪৭ বার পঠিত     like!

ইশথারের বন্দনা

লিখেছেন জোলারোভিচপইজোলারোভিচ, ২৫ শে অক্টোবর, ২০১৬ সন্ধ্যা ৬:১৭

তুমিতো মানবী নও,
তুমি নগ্ন পরী এক;
নিতম্বের দোলায় তোলো উত্তাল ঝড়।

তুমি সমুদ্রের ঢেউ,
হাসনাহেনার সুঘ্রাণে মুগ্ধতার অশ্রু এক;
প্রতিটা কেশের জন্য তোমাকে দেবো একটা করে বেলি ফুল।

তুমি দেবী হও,
মরুভূমির অভিযাত্রীর ইশথার এক;
তার প্রার্থনার সাড়ায় দাও যুদ্ধ কিংবা কামনার আঁচড়।

তুমি সুখ হও,
ক্লান্ত আমি-র জন্য উন্মুক্ত বক্ষ এক;
আমার সাথে কৌতুহলী চোখে দেখো রক্ত-নীলাভ... বাকিটুকু পড়ুন

৮ টি মন্তব্য      ৬২ বার পঠিত     like!

হাসনেহেনা হাউজ - ৩

লিখেছেন জোলারোভিচপইজোলারোভিচ, ২৪ শে অক্টোবর, ২০১৬ বিকাল ৪:৩৪

বেলা দুইটা, ফয়সাল বাবলি কেউ নেই বাসায়। খেতে বসেছেন জাফর সাহেব এবং কাদের হুজুর। মিসেস কেয়া তাদের খাবার বেড়ে দিচ্ছেন, তিনি একটু পর আলেয়ার সাথে খেতে বসবেন।
রুই মাছের মাথাটা বেশ আয়েশ করে চুষে যাচ্ছেন, কাদের হুজুর। তা দেখে জাফর সাহেবের ইচ্ছে করছে ইস এর মাথার খুলিটাও যদি এমনি চুষতে... বাকিটুকু পড়ুন

২ টি মন্তব্য      ৫৯ বার পঠিত     like!

হাসনেহেনা হাউজ - ২

লিখেছেন জোলারোভিচপইজোলারোভিচ, ১৯ শে অক্টোবর, ২০১৬ সন্ধ্যা ৬:২৮

সকালের বাজে আটটা অথচ ফয়সাল বিছানা ছেড়ে উঠেনি, ব্যাপারটা জাফর সাহেব ভালোভাবে নিতে পারছেন না। অসুস্থতা ছাড়া একজন মানুষ সকাল ছয়টার পর বিছানায় থাকবে তা তিনি সহ্য করতে পারেন না। তাই তিনি ভাবছেন, ফয়সাল কি কোন কঠিন রোগে আক্রান্ত। হঠাৎ কলিংবেল বেজে উঠলো। চিন্তায় ছেদ পড়লো। বাবলি দরজা খুলতে এগিয়ে... বাকিটুকু পড়ুন

২ টি মন্তব্য      ৬৩ বার পঠিত     like!

হাসনেহেনা হাউজ - ১

লিখেছেন জোলারোভিচপইজোলারোভিচ, ১৮ ই অক্টোবর, ২০১৬ সকাল ১০:৪৬

জাফর সাহেব, বয়স মধ্য ষাট। তিনি নিজেকে ষাটুয়া জাফর বলে পরিচয় দিতেই পছন্দ করেন। এই যেমন সেদিন এক অপরিচিত নম্বর থেকে কল এলো,

হ্যালো।

হ্যালো।

ফারুক কইরে তুই?

আমি ফারুক না আমি ষাটুয়া জাফর।

কি? কে?

ষাটুয়া জাফর।
মানুষ এমন এক প্রাণী যে কনভেনশনাল পরিস্থিতির বাইরে কিছু ঘটলেই সেটা মেনে নিতে পারে না। যেমনটা পারেন... বাকিটুকু পড়ুন

৫ টি মন্তব্য      ১০০ বার পঠিত     like!
আরো পোস্ট লোড করুন
ব্লগটি ১৩৮৭ বার দেখা হয়েছে

আমার পোস্টে সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার করা সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার প্রিয় পোস্ট

আমার পোস্ট আর্কাইভ