somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

নিশ্চয়ই গোটা মানবজাতি ভীষণ ক্ষতির মধ্যে নিমজ্জিত।

০৭ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ রাত ৯:৪৩
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :



পড়ন্ত বেলার শপথ অর্থাৎ এমন এক সময় যখন সূর্যের আলো মলিন হয়ে যাচ্ছে, অন্ধকার সন্নিকটে,নির্ধারিত কাজ শেষ করার ব্যস্ত প্রহর, কাজ শেষে সব গুছিয়ে বাড়ি ফেরার জন্য প্রস্তুতির সময়। এমন সময় যখন কোন নতুন কাজে হাত দেয়া যায় না বরং বরাদ্দ কাজটাই পরিপাটি করতে হয় কারণ নতুন করে কাজ শুরু করার কোন সময় নেই। দিনের আলো নিভে আসছে আর রাত্রি নেমে আসার পালা। তদ্রূপ পৃথিবীরও সময় শেষ হয়ে আসছে, আর এই সময়ে অবশ্যই পৃথিবীকে ভুলগুল শুধরে নিতে হবে, নতুন করে আর যৌবন আসবে না। বর্তমান পরিস্থিতি সাক্ষী প্রতিটা মানুষ ক্ষতির মধ্যে ডুবে আছে। চারপাশের পরিস্থিতি বারংবার তা ই স্মরণ করিয়ে দেয় মানবজাতি কতটা বিরূপ পরিস্থিতির সম্মুখীন। গৃহে অশান্তি, বাহিরে অশান্তি, শরীরে অশান্তি, মনে অশান্তি সব এক্কেবারে উন্মুক্ত ক্ষতের মতন। আত্মহত্যা , পরকিয়া, ধর্ষণ, অরাজকতা, মাদকাসক্তি, অযাচার, সমকামিতা, লিঙ্গান্তর, লুণ্ঠন, ঈর্ষা, পরশ্রীকাতরতা, হত্যা, ক্ষমতার অপব্যবহার, বিনা অপরাধে দণ্ডভোগ, অশিক্ষা, কুশিক্ষা, অপসংস্কৃতি ইত্যাদি সবকিছুই এসব অশান্তির বহিঃপ্রকাশ। বৃত্তের মত এসব বিপদ, ক্ষতি, ঝুঁকি আমাদের প্রতি মুহূর্তকে ঘিরে আছে। আমরা যতই এড়িয়ে চলি, গায়ে এসব অশান্তির ছিটেফোটা লেগেই যায়। পৃথিবীকে নতুন করে সাজাবার আর ফুরসত নেই বরং এসব ক্ষতি থেকে কি করে মুক্তি পাওয়া যায় তা ই মূখ্য বিষয়। এহেন পরিস্থিতি থেকে নিস্তার লাভ করতে হলে চারটি কাজ করতে হবে, শুধু মাত্র চারটি কাজ যার কোনটাই বাদ দেয়া যাবে না। একটি আরেকটির সম্পুরক। একটি খাট দাঁড় করাতে যেমন চারটি স্তম্ভ লাগে তেমনি বর্তমান প্রতিকূল ধ্বংসাত্মক পরিস্থিতি মোকাবেলা করার জন্য চারটি কাজ করা অপরিহার্য।



১. বিশ্বাস স্থাপন
অবশ্যই আপনাকে সৃষ্টিকর্তার উপর বিশ্বাস স্থাপন করতে হবে, সেই অদৃশ্য সত্তাকে সব জায়গায় বিরাজমান ভাবতে হবে যাতে আপনি সকলের দৃষ্টির অগোচরেও কোন অপরাধ করতে না পারেন। অদৃষ্টের ভালোমন্দ মেনে নিতে হবে। জীবনের সংকট মুহূর্তে হায় হুতাশ না করে প্রেরিত পুরুষদের জীবনাদর্শ অনুসরণ করতে হবে। ঐশী বাণীগুলো হৃদয়ে গেঁথে সেই মোতাবেক জীবন চলার চেষ্টা করতে হবে। কোনক্রমেই মানবমনের কুপ্রবৃত্তির অনুসরণ করা যাবে না। মনে রাখতে হবে কোন মানুষ বা মেশিন সাক্ষী না থাকলেও সৃষ্টিকর্তার কাছে অবশ্যই একদিন আপনার কৃতকর্মের জন্য জবাবদিহি করতে হবে। নিজেকে সকল মিথ্যাচার ও অপরাধ থেকে দুরে রাখার জন্য সর্বশক্তিমান বিচারকের উপর বিশ্বাস করা অপরিহার্য।



২, ভালো কাজ করা

আপনি কোন খারাপ কাজ করেন না ভালো কথা। সেই সাথে আপনাকে ভালো কাজও করতে হবে। আপনার উপর অর্পিত দায়িত্ব নিষ্ঠার সাথে পালন করতে হবে। অন্যায় থেকে নিজেকে দুরে রাখতে হবে এবং অন্যায়ের প্রতিবাদ জানাতে হবে। অন্যথায় অন্যায়ের মাত্রা দিনদিন বেড়ে যাবে। কুপ্রবৃত্তি দমন করতে হবে । অপরের কল্যাণ সাধিত হয় এমন কাজে যুক্ত হতেই হবে। এদেশের প্রতিটি মানুষ, জীব ও জড়বস্তুর ক্ষতি হয় এমন কাজ করা থেকে বিরত থাকুন। সুস্থ জীবন ও সুস্থ সমাজ গড়ে তোলার জন্য সাধ্যমত চেষ্টা করুন। মনে রাখবেন , ছোট ছোট বালুকণা, বিন্দু বিন্দু জল , গড়ে তোলে মহাদেশ, সাগর অতল।



৩. অপরকে ভালো কাজের উপদেশ দেয়া

প্রথম দুটি কাজ কেবল নিজের মধ্যে সীমাবদ্ধ রাখলে হবে না। আপনার ভাইকেও একই পথে চলার জন্য উপদেশ দিতে থাকুন। যে পর্যন্ত আপনার পাশের মানুষটি নিজেকে না বদলায় সেই পর্যন্ত আপনি অশান্তি থেকে মুক্তি পাবেন না। জীবাণুর সংক্রমণন থেকে রক্ষায় জন্য অবশ্যই আপনাকে পাশের অসুস্থ মানুষটির রোগ নিরাময়ের ব্যবস্থা করতে হবে। সবাইকে যার যার স্থান থেকে সাধ্যমত চেষ্টা করতে হবে। কলম কীবোর্ড হাতে তুলে অপরকে জাগরনী চেতনায় উজ্জীবিত করতে হবে। অন্যায়কে প্রশ্রয় দেয়া যাবে না। কোন প্রকার ছাড় না দিয়ে সমস্বরে প্রতিবাদ করতে হবে। মনে রাখবেন অন্যায় যে করে এবং যে সহে, উভয়েই সম অপরাধী। পরিবেশ দুষন থেকে অপরকেও দুরে রাখুন। ভূমিকম্প এলে সে আপনাকেও আঘাত হানবে। এজন্য নিজে বাঁচতে হলে আপনার কাছের মানুষটিকেও অপরাধ থেকে দুরে রাখুন এবং ভালো কাজের জন্য অনুপ্রেরণা দিতে থাকুন।



৪. পরস্পর ধৈর্য ধারণ করা

প্রতিকূল পরিবেশে লড়াই করতে গেলে অবশ্যই ধৈর্য ধারণ করতে হবে। কোনমতেই হাল ছেড়ে দেয়া যাবে না। আরোগ্য লাভের জন্য ঔষধ সেবনের পাশাপাশি ধৈর্য ধরতে হয়। ধৈর্যচ্যুত হয়ে ঔষধ সেবন বাদ দিলে হিতে বিপরীত হবে। ছোট ক্ষতও মরনব্যাধি ক্যানসারের আকার ধারণ করতে পারে। উপরের তিনটি কাজের কোনটাই ধৈর্য ধারণ ছাড়া সম্ভব নয়। সমাজের ক্ষতগুলো নিরাময়ের জন্য ধৈর্য সহকারে পরস্পর সংঘবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে । প্রতিকূল পরিবেশে কাজ করতে গেলে নিশ্চয়ই বিভিন্ন বাধা বিপত্তির সম্মুখীন হতে হয় কিন্তু তাই বলে থেমে থাকলে কোন কাজে সফলতা আসবে না। ধৈর্য সহকারে সকল বাধা মোকাবেলা করতে হবে। তবেই কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছানো সম্ভব হবে।

পরিশেষে এটাই বলবো ,, বর্তমানে মহামারী আকারে যেসব সমস্যায় মানবজাতি ডুবে আছে সেগুলোর ভয়াবহ ক্ষতির কবল থেকে উত্তরণের জন্য উল্লেখিত চারটি কাজ ছাড়া কোন বিকল্প পথ নেই।
সর্বশেষ এডিট : ২৭ শে মার্চ, ২০১৯ বিকাল ৫:৪৭
২০টি মন্তব্য ২০টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

ফেবু ই জীবন, ফেবু ই মরন!!!!!!!!!!!!

লিখেছেন সোহানী, ২১ শে অক্টোবর, ২০১৯ সকাল ৮:৪৯



অফিসে রীতিমত দৈাড়রে উপর আছি এমন সময় মেসেন্জারে ফোন। সাধারনত মেসেন্জারে তার উপর অফিস টাইমে ফোন পেলে একটু টেনশানে ভুগী কারন দেশের সবাই রাতে বা উইকএন্ডে ফোন দেয়, দুপুরে... ...বাকিটুকু পড়ুন

প্রত্যাশা

লিখেছেন সেলিম আনোয়ার, ২১ শে অক্টোবর, ২০১৯ সকাল ১১:০১



আজকের দিনটায় —মন ভালো হোক
রবির আলোয় উদ্ভাসিত হোক— চারিদিক
আজকের দিনটায় কবিতা হোক
তোমার রংতুলিতে রঙধনু সাতরঙ আঁকা হোক
দুঃখ ভোলা খামখেয়ালিতে—উৎফুল্লচিত্তে,
আজকের দিনটা মন ভালো... ...বাকিটুকু পড়ুন

পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের তিনকাল

লিখেছেন ভুয়া মফিজ, ২১ শে অক্টোবর, ২০১৯ সকাল ১১:৩৬



সবাই জানেন, আমাদের দেশে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় আছে বেশ অনেকগুলো। স্বাভাবিকভাবেই তাতে শিক্ষকরাও আছেন; অবশ্যই শিক্ষা দানের জন্য। আর হল আছে ছাত্র ছাত্রীদেরকে আবাসিক সুবিধা দানের জন্য এবং ম্যানার শেখানোর... ...বাকিটুকু পড়ুন

চুপ থাকি আমি চুপ থাকি... হই না প্রতিবাদী

লিখেছেন কাজী ফাতেমা ছবি, ২১ শে অক্টোবর, ২০১৯ দুপুর ১২:৫৩



©কাজী ফাতেমা ছবি
--------------------------
অবাক চোখে দেখে গেলাম
এই দুনিয়ার রঙ্গ
ন্যায়ের প্রতীক মানুষগুলো
নীতি করে ভঙ্গ।

বুকের বামে ন্যায়ের তিলক
মনে পোষে অন্যায়
ভাসে মানুষ ভাসে শুধু
নিজ স্বার্থেরই বন্যায়।

কোথায় আছে ন্যায় আর নীতি
কোথায় শুদ্ধ মানুষ
উড়ায়... ...বাকিটুকু পড়ুন

ভোলায় ৪ জনের মৃত্যু, ৬ দফা দাবী নিয়ে ভাবুন

লিখেছেন চাঁদগাজী, ২১ শে অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৪:৩০



ভোলায়, ফেইসবুকে নবী (স: )'কে গালি দেয়া হয়েছে; এই কাজ কি ফেইবুকের আইডির মালিক নিজে করেছে, নাকি হ্যাকার করেছে, সেটা আগামী ২/৪ দিনের মাঝে পুলিশের বিশেষজ্ঞ টিম ফেইসবুকের... ...বাকিটুকু পড়ুন

×