somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

###এভাবে বাক স্বাধীনতা কেড়ে নেয়া মানতে পারি না ###

২৫ শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ রাত ৯:২৭
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :



শ্রদ্ধেয় ব্লগার ও ব্লগিং কতৃপক্ষ,
সম্প্রতি আইসিটি মন্ত্রী মহোদয় আমাদের প্রিয় সামহোয়্যারইন ব্লগকে পর্ণসাইটের তালিকায় রেখে বন্ধের ঘোষণা দিয়েছেন এবং শিশুদের জন্য স্বচ্ছ ইন্টারনেট বানানোর সংকল্প গ্রহণ করেছেন। শিশু বলতে ০ থেকে ১২ বছর বয়সীদের বোঝানো হয়। এখন এই বয়সী কত ভাগ শিশু পড়ালেখা, খেলাধুলা রেখে ইন্টারনেট তথা ব্লগে বসে থাকে তা আমার জানা নেই। আর যেসকল শিশুরা ইন্টারনেটে বসে থাকে তাদের মা বাবাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি। কারণ এই সময় ইন্টারনেটে না কাটিয়ে পাঠ্যপুস্তক পড়ে , খেলাধুলা করে ও বিভিন্ন দর্শনীয় স্থানগুলোতে ঘুরে বেড়ানো দরকার। রাস্তাঘাটে অলিগলিতে বিভিন্ন অশ্লীল পোস্টার লাগানো থাকে সেগুলো সহজেই শিশুদের দৃষ্টিতে পড়ে, মন্ত্রী মহোদয়ের সেদিকে নজর দেয়া দরকার। ইন্টারনেট তথা ব্লগ শিশুদের ব্যবহারের জিনিস নয়।

এটা প্রথম নয় যে , সামু কোন উপাধি পেয়েছে। এর আগেও সামুকে নানা বিতর্কিত নামে ডাকা হয়েছে। যেমন থাবা বাবা ওরফে ব্লগার রাজীব হত্যার সময় সামুকে নাস্তিকদের ব্লগ বলা হয়েছে। কয়েক বছর পর ঠিক বিপরীত একটা উপাধি দেয়া হয়। শাহবাগের গণজাগরণ মঞ্চের সময় সামুকে বলা হয়েছে জামাত শিবিরের নিরাপদ ব্লগ। এটা একটা পাবলিক প্লাটফর্ম, এখানে হরেক রকম মানুষ হরেক রকম বিষয়ে লিখে। অযাচিত কথা বার্তা লিখে কেউ টিকে থাকতে পারে না। অশালীন লেখা তো দুরের কথা অযৌক্তিক লেখা লিখেও কেউ সহজে পাড় পায় না। একটা বিশ্লেষণাত্মক পোস্ট দিতে গেলে সে বিষয়ে খুব ধারণা থাকতে হয়, অনেক সময় পোস্টের সাথে সংশ্লিষ্ট লিংক যোগ করে দিতে হয়। অনেক সময় কবিতা গল্প লিখতে গেলে হাতটা খুলে লিখতে হয় এবং অনেক সময় পোস্টের সাথে দেয়া ছবি একটু দৃষ্টিকটু হয়ে যায়। এ বিষয়ে ব্লগারদের আরও সচেতন হওয়া চাই। তাই বলে একটা ব্লগকে পর্ণসাইটের তালিকায় দাঁড় করানো কতটা যৌক্তিক?

সংশ্লিষ্ট মন্ত্রী মহোদয়ের একটি কথা হাইলাইট করতে চাই।
সামহোয়্যারইন ব্লগ একসময় খুবই বিতর্কিত ব্লগ
ছিল৷ এদের কনটেন্টগুলো শুধুমাত্র
সরকারবিরোধী না, আরো জঘন্য ছিল৷ যে
কোনো বিষয়ে যাকে তাকে যেখানে
সেখানে আক্রমণ করত তারা৷ নাস্তিকতার জন্যও
দায়ী ছিল তারা৷ সুতরাং এরকম কোনো
কনটেন্টের জন্য এটা হতে পারে৷


সরকার বিরোধী বলতে উনি কি বুঝিয়েছেন? বর্তমান সরকার যে হারে উন্নতি করছে আমরা কি তার গুণকীর্তন করতে পারবো না। যেমন

আমাদের সময় সারাবছর লেখাপড়া করেও এ প্লাসের গা ঘেঁষেই সন্তুষ্ট থাকতে হতো। এখন এ প্লাসের ছড়াছড়ি। সারা বছর পড়তে হয় না। পরীক্ষার আগের দিন প্রশ্ন হাতে পাওয়া যায়। ডিজিটাল বাংলাদেশ বেশ উন্নতি করেছে।

সম্প্রতি চকবাজার অগ্নিকাণ্ডে ফায়ার সার্ভিসের ৩২ টি ইউনিট ১২ ঘন্টা ব্যাপি কাজ করে আগুন নিয়ন্ত্রনে এনেছে। কত ঘণ্টা তা মূখ্য নয় মোট ৩২ টি ইউনিট সক্রিয় ছিল। এটা কি কম কথা।


সড়ক দূর্ঘটনায় মানুষ অহরহ মরছে তা কোন বড় ব্যাপার না কিন্তু দেশে কত ফ্লাইওভার ব্রীজ হচ্ছে, ঢাকাকে উপর থেকে দেখলে লস অ্যাঞ্জেলস এর মত মনে হয়, এতো সব অর্জন কি মুখের কথা।

সামহোয়্যারইন ব্লগ প্রথম বাংলায় লেখা ব্লগে। দীর্ঘ তের বছর ধরে চলে আসছে। এভাবে একটা নোংরা উপাধি দিয়ে আমাদের বাক স্বাধীনতা কেড়ে নেয়া কোন গণতান্ত্রিক ব্যবস্থার কাজ নয়। মন্ত্রী মহোদয় যথোচিত বিবেচনা করে নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়ে বাক স্বাধীনতা বহাল রাখার সিদ্ধান্ত নিয়ে দায়িত্বশীলতার পরিচয় দিবে এটাই কাম্য।


পরিশেষে বলতে চাই, মন্ত্রী মহোদয় যদি তার প্রাক্তন সিদ্ধান্তে অটল থাকে তবে আমি তথাকথিত পর্ণসাইট সামহোয়্যারইন ব্লগ এর একজন গর্বিত পর্ণ তারকা। সেই সাথে সামুর সকল পর্ণতারকাদের এমন উপাধি অর্জন করার জন্য অভিনন্দন জানাই।

সর্বশেষ এডিট : ২৫ শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ রাত ৯:৫১
১৭টি মন্তব্য ১৭টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

টুকরো টুকরো সাদা মিথ্যা- ১২৬

লিখেছেন রাজীব নুর, ১৯ শে জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ১০:২৩



১/ প্রশ্ন এক: আপনাকে একটি রেফ্রিজারেটরের ভেতর একটা জিরাফ রাখতে বলা হল। কিভাবে রাখবেন?

২/ প্রশ্ন দুই: সিংহরাজ বনের সকল পশুপাখিদের একটা জরুরী সভা আহ্বান করেছেন। সব পশুপাখি যথাসময়ে... ...বাকিটুকু পড়ুন

সবার উপর কুত্তা সত্য, তাহার উপ্রে নাই...

লিখেছেন পদ্ম পুকুর, ১৯ শে জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ১১:৩২


ঢাকার রাস্তায় বাইক চালানোর বহুত প্যারা আছে। যেমন মাঝেমধ্যেই কুত্তার পাল্লায় পড়া লাগে। বেরসিক কুত্তাগুলান আতকা বাইকের সামনে আইসা পড়ে। খুবই খতরনাক ব্যাপার হয় তখন। একবার রামপুরা রোডে এরকম দুইডা... ...বাকিটুকু পড়ুন

যে সূর্যটা রানুর জন্য উঠেছিল....

লিখেছেন ফয়সাল রকি, ১৯ শে জানুয়ারি, ২০২০ দুপুর ১:৫৫



অমর একুশে গ্রন্থমেলা ২০২০-এ আমার দ্বিতীয় গল্গ্রন্থ যে সূর্যটা রানুর জন্য উঠেছিল আসছে নৈঋতা ক্যাফে-এর ব্যানারে। নয়টি ছোটগল্প নিয়ে সাজানো হয়েছে এ সংকলনটি। বন্ধুবর জাহিন জামাল বইয়ের ফ্ল্যাপে... ...বাকিটুকু পড়ুন

ঐ দূর পাহাড়ের ধারে.... ০৩

লিখেছেন পগলা জগাই, ১৯ শে জানুয়ারি, ২০২০ বিকাল ৩:২৩

সামান্য ঘুরে বেড়াবার ব্যারাম আছে আমার। বেড়ার সময় সুযোগ মতো স্মৃতি ধরে রাখার জন্য কিছু ছবিও তুলে রাখি আমি। নানান সময় দেশে বা দেশের বাইরে দুই-একটি পাহাড়ি এলাকায় যাবার সুযোগ... ...বাকিটুকু পড়ুন

আমার জানলা দিয়ে আমার পৃথিবী ........

লিখেছেন স্বপ্নবাজ সৌরভ, ১৯ শে জানুয়ারি, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:০৩




দার্জিলিঙের রাস্তায় কখনো হাঁটা হয়নি । রডনস্ট্রিট , গোড়িয়াহাটার মোড়, বউ বাজার, ধর্মতলা কিংবা ছত্রিশ চৌরঙ্গী লেন। না কোন কিছুই দেখিনি , যাওয়া হয়নি। 'ছত্রিশ চৌরঙ্গী লেন' নামে... ...বাকিটুকু পড়ুন

×