somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

অবশেষে র‌্যাংকিং পেলো ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়!

১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:২৩
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :

এক নিউজ পোর্টালে উপড়ের শিরোনামটা দেখতে পেয়ে খুশি হয়ে ভাবলাম যে যাক শেষ পর্যন্ত সেরা বিশ্ববিদ্যালয়ের কাতারে আবার সামিল হতে পেরেছে।কিন্ত ভেতরের খবরে গিয়ে দেখি র‌্যাংকিং ১০০০+ তাও আবার সেটা ঠিক কত নাম্বারে তা জানানো হয়নিএই তালিকায় তিনশ থেকে শুরু করে এক হাজারের মধ্যে রয়েছে ভারতের ৩৬টি বিশ্ববিদ্যালয় , পাকিস্তানের ৭টি বিশ্ববিদ্যালয়।

অথচ ২০১৬ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অবস্থান ছিলো ৬শ থেকে আটশর মধ্যে। তবে এর বছর দুই পরেই এটির অবস্থান হঠাৎই নেমে যায়। কেন এই অধঃপতন তার কারন কি অনুসন্ধান করেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকবৃন্দ? না করেননি। উলটো ঢাবি অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াত অভিযোগ করেন, ' র‌্যাংকিং প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানের ৪৫ হাজার ডলারের আর্থিক দাবি মেটাতে না পারায় র‌্যাংকিং এ যুক্ত হতে পারেনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। অথচ টাইমস হায়ার এডুকেশন কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলে জানা গেলো, সংস্থাটি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কাছে কোন আর্থিক দাবি করেনি, বরং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের কাছে ৯ বার ইমেইলে তাগাদা দিয়েও সাড়া পায়নি টাইমস হায়ার এডুকেশন কর্তৃপক্ষ। (সুত্র প্রিয় ডট কম )

তারপরেও বিদেশে অবস্থানরত প্রাক্তন কিছু শিক্ষার্থীর অদম্য প্রচেষ্টায় এটলিস্ট ১০০০+ র‌্যাংকিং এ নাম ঢোকাতে সমর্থ হয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। অথচ ৫০০ র মাঝে যাওয়ার মত ক্ষমতা আছে এই বিশ্ববিদ্যালয়ের। বিদেশের নামকরা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পিএইচডি করা প্রচুর শিক্ষক এখনো এই বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যাপনা করছে।প্রথমালোয় এসেছে যে '' আগের বছরগুলোর তুলনায় গবেষণা, উদ্ধৃতি এবং আয়- এই তিনটি খাতে উন্নতি হলেও ২০১৬ সালের পর থেকে ব্যাপকহারে নেমে গেছে শিক্ষার পরিবেশের গ্রাফ চিত্র।


এক ডাকসু নির্বাচনই অবস্য যথেষ্ঠ ঢাবির শিক্ষার পরিবেশ এর গ্রাফ এক ধাক্কায় নীচে নামানোর জন্য। শিক্ষকদের হাতে নাতে ভোট ডাকাতির যে সব চিত্র সোস্যাল মিডিয়ায় এসেছে ,তাতো শুধু আমরা নই, বিদেশীরাও দেখেছে। দলীয় রাজনীতি বিশ্ববিদ্যালয়ে আগেও ছিল কিন্ত এখনকার মত নোংরা ও কদর্য কখনই ছিল না। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার পরিবেশের গ্রাফ এর অধঃপতনের দায় এককভাবে এর কিছু নীতিহীন, বিবেকশূন্য শিক্ষকমন্ডলীর।
সর্বশেষ এডিট : ১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ রাত ৯:৩০
১১টি মন্তব্য ৯টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

চলো দাদু আরেকবার সমুদ্দুরে যাই

লিখেছেন জুন, ০১ লা এপ্রিল, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:৩৪



এলাকাটি মধ্যবিত্তদের পাড়া বলে চিন্হিত হলেও বিশাল চারতলা বাড়ীটি অত্যাধুনিক ডিজাইনেই তৈরী।তারই এক ঘরে বিধবা আমিনা বেগম শুয়ে আছেন একাকী। সাদা সফেদ শাড়ী পড়া উনাকে দেখলে মনে... ...বাকিটুকু পড়ুন

করোনায় তিন টোকা !! (রম্য্)

লিখেছেন নূর মোহাম্মদ নূরু, ০১ লা এপ্রিল, ২০২০ রাত ১০:১৯

করোনায় তিন টোকা !! (রম্য্)
নূর মোহাম্মদ নূরু



পূজ্যপাদ বা্বাইদা, সৎসঙ্গের শিরোমনি
করোনাতে টোটকা একখান ঘোষণা দেন যিনি।
তিন টোকা দিলে নাকি নিজের টেস্টিক্যালে
করোনা ভাইরাস ধরবেনা তাকে কোন কালে।

হাজার হাজার ডাক্তার আর... ...বাকিটুকু পড়ুন

আজকের ডায়েরী - ৫০

লিখেছেন রাজীব নুর, ০১ লা এপ্রিল, ২০২০ রাত ১০:২৫



আজ বাইরে গিয়েছিলাম।
অদরকারে না। দরকারেই বাইরে গিয়েছিলাম। যদিও সারাদিন বাসায় শুয়ে বসে থাকা আমার জন্য মোটেও আনন্দময় কিছু না। ঘরে বাজার সদাই কিছুই নেই। অল্প কিছু বাজার... ...বাকিটুকু পড়ুন

এসব প্রশ্নের উত্তর কি হতে পারে?

লিখেছেন চাঁদগাজী, ০১ লা এপ্রিল, ২০২০ রাত ১০:৩২



১) আমেরিকা সবচেয়ে ধনী দেশ হওয়ার পরও, তাদের কাছে দরকারী পরিমাণ 'ভেনটিলেটর'এর (শ্বাসযন্ত্র) ৩৩% মতো আছে মাত্র; বেশীরভাগ হাসপাতালে ১ সপ্তাহের কম পিপিই ছিলো, যার বেশীরভাগই করোনার মত... ...বাকিটুকু পড়ুন

এখনই খাদ্য উৎপাদন শুরু না করলে বিপদ হতে পারে

লিখেছেন অনল চৌধুরী, ০২ রা এপ্রিল, ২০২০ রাত ২:৫১



করোনাজণিত অনিবার্য খাদ্যসংকটের বিপদ থেকে মুক্ত হওয়ার জন্য বাংলাদেশে আমিই প্রথম দেশের প্রতি ইঞ্চি জায়গায় ফসল ও শাকসব্জি উৎপাদনের উপদেশ দিয়েছিলাম,যা ১৯ ই মার্চ এই ব্লগে এবং ২০ মার্চ... ...বাকিটুকু পড়ুন

×