নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

সাধারণ একজন মানুষ। বলার মতো বিশেষ কিছু নেই। মনের ভাবনাগুলো তুলে ধরতে চাই। ভালো লাগে কবিতা, লিখা-লিখি আর ছবি তোলা, এইতো! https://prokashoni.net

ইফতেখার ভূইয়া

গণতন্ত্র মুক্তি পাক, পরিবারতন্ত্র নিপাত যাক

ইফতেখার ভূইয়া › বিস্তারিত পোস্টঃ

আজও ভারতীয় বি.এস.এফ. বাংলাদেশের সীমান্তে ঢুকে গুলি চালিয়েছে

০৮ ই জুন, ২০২৪ সন্ধ্যা ৭:১৯


ছোটখাটো ইস্যু হলেই ক'দিন পরপরই বাংলাদেশের সীমান্তে নির্বিচারে মানুষকে গুলি করছে ভারতের সীমান্তরক্ষী বাহিনী বি.এস.এফ.। এই বিষয়গুলো বারবার ঘটার পরেও সরকার প্রয়োজনীয় কার্যকরী পদক্ষেপ কেন নিচ্ছে না তা আমার বোধগম্য নয়। পতাকা বৈঠক, সরকারি বৈঠক নানা ধরনের গাল-গপ্প জনগণকে বোঝানো হলেও কাজের কাজ কিছুই হচ্ছে না, ওপার থেকে গুলি চলছেই। তথাকথিত প্রতিবেশী রাষ্ট্রের যদি আচরণ এমন হয় তবে বোঝা যায় তারা কেমন প্রতিবেশী।

সংবাদপত্র তথা মিডিয়ার লোকজনদের কাছে অনুরোধ থাকবে বিষয়টি জোর দিয়ে রাষ্ট্রপ্রধান ও বর্ডার গার্ড বাহিনীর উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের আপনারা জিজ্ঞেস করুন তারা আসলে এ ব্যাপারে কি করছেন ও তাদের প্রচেষ্টার রেজাল্ট কি? দেশের জনগণকে বাইরের আক্রমণ থেকে রক্ষা করা তাদের দায়িত্ব আর এ দায়িত্ব কেন তারা ঠিক মতো পালন করতে পারছেন না।

বাংলাদেশ স্বাধীন হলেও আপাত: দৃষ্টিতে পুরোপুরি স্বাধীন নয় বলেই আমার ধারনা। এ দেশ পাকিস্তান থেকে মুক্তি পেলেও ভারত থেকে মুক্তি মেলে নি। স্বাধীন দেশের মাটিতে অন্য দেশের কোন সামরিক বাহিনীর লোকের উপস্থিতি সেটাই প্রমাণ করে।

আজও বাংলাদেশের সীমান্তের ভেতরে ঢুকে বি.এস.এফ. গুলি চালিয়েছে।

মন্তব্য ৪০ টি রেটিং +৩/-০

মন্তব্য (৪০) মন্তব্য লিখুন

১| ০৮ ই জুন, ২০২৪ সন্ধ্যা ৭:৩৫

নতুন বলেছেন: দেশের ভেতরে ঢুকে গুলি করার সাহস কিভাবে পায়?

পাকিস্তান বা চীনের সিমানাতে তো জনগনের কেউ মারা যায় না?

০৯ ই জুন, ২০২৪ সকাল ৮:১২

ইফতেখার ভূইয়া বলেছেন: এ ব্যাপারে বাংলাদেশ সরকার যথাযথ রেসপন্স তথা কার্যকরী পদক্ষেপ কখনোই নিতে পারে নি। বিষয়টি নিয়ে প্রয়োজনে আর্ন্তজাতিক আদালতে যাওয়া উচিত বলে আমার মনে হয়।

পাকিস্তান বা চীনের সাথে এমন হলে বি.এস.এফের-র কতগুলো মারা পড়বে, সেটা ভারত ভালোই জানে। ধন্যবাদ।

২| ০৮ ই জুন, ২০২৪ সন্ধ্যা ৭:৪১

ভুয়া মফিজ বলেছেন: ছোটখাটো ইস্যু হলেই ক'দিন পরপরই বাংলাদেশের সীমান্তে নির্বিচারে মানুষকে গুলি করছে ভারতের সীমান্তরক্ষী বাহিনী বি.এস.এফ.। এই বিষয়গুলো বারবার ঘটার পরেও সরকার প্রয়োজনীয় কার্যকরী পদক্ষেপ কেন নিচ্ছে না তা আমার বোধগম্য নয়। যাহ, কি বলেন!! আপনার অবশ্যই বোধগম্য হয়। দাড়ান, আপনার কথা দিয়েই প্রমাণ দিচ্ছি।

বাংলাদেশ স্বাধীন হলেও আপাত: দৃষ্টিতে পুরোপুরি স্বাধীন নয় বলেই আমার ধারনা। এ দেশ পাকিস্তান থেকে মুক্তি পেলেও ভারত থেকে মুক্তি মেলে নি। এই যে, বুঝতে পারছেন। এইটাই হলো আসল কাহিনী!!! ;)

সংবাদপত্র তথা মিডিয়ার লোকজনদের কাছে অনুরোধ থাকবে বিষয়টি জোর দিয়ে রাষ্ট্রপ্রধান ও বর্ডার গার্ড বাহিনীর উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের আপনারা জিজ্ঞেস করুন তারা আসলে এ ব্যাপারে কি করছেন ও তাদের প্রচেষ্টার রেজাল্ট কি? দেশের জনগণকে বাইরের আক্রমণ থেকে রক্ষা করা তাদের দায়িত্ব আর এ দায়িত্ব কেন তারা ঠিক মতো করতে পারছেন না। মাসীর কাছে মায়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ!!! আবারও অবুঝের মতো কথা বললেন। দেশের মিডিয়া, সরকার, প্রশাসন, বাহিনী..........সব কবেই বিক্রি হয়ে গিয়েছে।

আচ্ছা বলেন তো, আপনি সিকিমের লেন্দুপ দর্জির কাহিনী জানেন? :-B

০৯ ই জুন, ২০২৪ সকাল ৮:১২

ইফতেখার ভূইয়া বলেছেন: হুম।

৩| ০৮ ই জুন, ২০২৪ সন্ধ্যা ৭:৪৬

ভুয়া মফিজ বলেছেন: আমার মন্তব্যে ছোট্ট একটা ভুল হয়ে গিয়েছে। সংশোধনীর জন্য আবার আসলাম।

মাসীর কাছে মায়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ এর স্থলে স্ত্রীর কাছে স্বামীর বিরুদ্ধে অভিযোগ পড়ার সবিনয় অনুরোধ রইলো। :P

০৯ ই জুন, ২০২৪ সকাল ৮:১২

ইফতেখার ভূইয়া বলেছেন: ঠিক আছে।

৪| ০৮ ই জুন, ২০২৪ রাত ৮:০৫

ভুয়া মফিজ বলেছেন: নতুন বলেছেন: দেশের ভেতরে ঢুকে গুলি করার সাহস কিভাবে পায়? পাকিস্তান বা চীনের সিমানাতে তো জনগনের কেউ মারা যায় না? কারন ওইদুটো ভারতের শত্রুরাষ্ট্র, আর বাংলাদেশ বন্ধুরাষ্ট্র!!!!! =p~

পাকিস্তান বা চীন বাদ দেন। ওই দুটো পারমানবিক শক্তিধর দেশ। ওদের কথা ভাবলেও বিএসএফ অন্তর্বাস নষ্ট করে ফেলে। আপনি নেপালের উদাহরন দিলে যুৎসই হতো। নাকি এই বিষয়ে কিছু শোনেন নাই!!! B:-)

০৯ ই জুন, ২০২৪ সকাল ৮:১৩

ইফতেখার ভূইয়া বলেছেন: খারাপ বলেন নি। ধন্যবাদ।

৫| ০৮ ই জুন, ২০২৪ রাত ৮:০৮

নাহল তরকারি বলেছেন: আমিও ভারতীয় সীমান্ত হত্যা নিয়ে ব্লগ লিখেছিলাম। সমস্যা হচ্ছে কমেন্ট পড়ে যা মনে হলো বাংলাদেশী ব্লগার ভারতের পক্ষে উকালতি করছে। এই যে সেই ব্লগ। এখনে কামাল১৮, অনিকেত বৈরাগী তূর্য্য, অহরহ এদের কমেন্ট দেখে মনে হয় তারা ভারতের দালাল। তাদের বাপ কে যদি বিএসএফ গুলি করে মেরে ফেলে তারপরেও তারা বলবে “এতে বিএসএফ এর কোন দোষ নাই”

০৯ ই জুন, ২০২৪ সকাল ৮:১৪

ইফতেখার ভূইয়া বলেছেন: আমরা বাঙালী তথা বাংলাদেশী বলে কথা। নিজের কিছু না হওয়া পর্যন্ত আমরা সম্ভবত নাকে তেল দিয়ে ঘুমুতে পছন্দ করি। ধন্যবাদ।

৬| ০৮ ই জুন, ২০২৪ রাত ৮:১৪

মিরোরডডল বলেছেন:




ব্রুটাল!!!!
বরাবরের মতো নিরীহ মানুষ ভিকটিম।


০৯ ই জুন, ২০২৪ সকাল ৮:১৬

ইফতেখার ভূইয়া বলেছেন: ওদেরকে জানোয়ারের চেয়েও নিকৃষ্ট বলে মনে করি। বর্ডারে বিজিবির পাশাপাশি প্রয়োজনে সেনা বাহিনী মোতায়েন করা উচিত। ওদের দু'চারটা পড়লেই কেবল ওরা সেটা সিরিয়াসলি নেবে, তার আগে না।

৭| ০৮ ই জুন, ২০২৪ রাত ৮:১৫

ভুয়া মফিজ বলেছেন: তরকারী সাহেবকে সাদাসিধা মনে হলেও আসলে কিন্তু ভীষণ দুষ্ট প্রকৃতির ব্লগার!!! =p~

০৯ ই জুন, ২০২৪ সকাল ৮:১৬

ইফতেখার ভূইয়া বলেছেন: অবশ্য উনাকে আমার কাছে নিরীহ প্রকৃতির সহজ-সরল মানুষ বলেই মনে হয়েছে।

৮| ০৮ ই জুন, ২০২৪ রাত ৮:৩৬

নাহল তরকারি বলেছেন: ভারতে বিপক্ষে কথা বলাতেই আমি দুষ্ট হয়ে গেছি। ভালো কথা।

০৯ ই জুন, ২০২৪ সকাল ৮:১৭

ইফতেখার ভূইয়া বলেছেন: উনি হয়তো মজা করে বলেছেন। আশা করছি আপনি মনে কষ্ট নেন নি। ধন্যবাদ।

৯| ০৮ ই জুন, ২০২৪ রাত ৯:২২

মেঠোপথ২৩ বলেছেন: তিন তিনবার একটা দলকে বিনা নির্বাচনে ক্ষমতায় বসিয়েছে কি এমনি এমনি?শুধু সীমান্তে কিছু বিএসএফ এর অনুপ্রবেশ নয়, বাংলাদেশের অভ্যন্তরে হাজার হাজার ভারতীয়র অনুপ্রবেশ ঘটেছে । ভারতে সব চেয়ে বেশি রেমিটেন্স যায় বাংলাদেশ থেকে।

০৯ ই জুন, ২০২৪ সকাল ৮:২৩

ইফতেখার ভূইয়া বলেছেন: আপনার ধারনা নিতান্তই অমূলক নয়। বিষয়গুলো সিরিয়াসলি ভাববার মতো লোক বাংলাদেশে আছে বলে আমার মনে হয় না। বর্তমানে রবি এক্সিআটা-র সি.ই.ও. একজন ভারতীয়। প্রশ্ন হলো, ঐ পদের জন্য ১৭/১৮ কোটি মানুষের মাঝে একজন যোগ্য বাংলাদেশী লোক কেন পাওয়া যায় নি?! রূপপুর পারমাণবিক কেন্দ্র চালু হলে সেখানেও সম্ভবত ভারতীয়রা কাজ করবে। অন্যান্য সেক্টর নিয়েও ভাবনার প্রয়োজন রয়েছে। ধন্যবাদ।

১০| ০৮ ই জুন, ২০২৪ রাত ১০:৩৩

এস.এম.সাগর বলেছেন: স্বামি-স্ত্রীর বিষয় এখানে কারোর কোন কথা চলবেনা!

০৯ ই জুন, ২০২৪ সকাল ৮:২৩

ইফতেখার ভূইয়া বলেছেন: হুম।

১১| ০৮ ই জুন, ২০২৪ রাত ১০:৪৯

সাড়ে চুয়াত্তর বলেছেন: ২০০১ সালে রউমারিতে বিডিআর যা করেছিল সেটা করা দরকার এখন। বিএসএফ অবৈধ ভাবে বাংলাদেশের ভিতরে চলে এসেছিল। ১৬ জন বিএসএফ জওয়ান বিডিআরের হাতে প্রাণ হারিয়েছিল। বিডিআরের ২ জনের প্রাণ গিয়েছিল। পরে কূটনৈতিক সমাধানের পথে বাধ্য হয় ভারত। তৎকালীন বিডিআর প্রধান মেজর জেনারেল ফজলুর রহমানের সাহসিকতার কারণেই সেটা সম্ভব হয়েছিল। তখনও আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় ছিল।

০৯ ই জুন, ২০২৪ সকাল ৮:২৪

ইফতেখার ভূইয়া বলেছেন: ঘটনাটি আমার মনে আছে। তখন আমি যথেষ্ট বড় ছিলাম। তবে সহিংসতা পরিহার করাই শ্রেয় বলে মনে করি। ধন্যবাদ।

১২| ০৮ ই জুন, ২০২৪ রাত ১১:৪৪

ডার্ক ম্যান বলেছেন: @ সাচু ভাই। ২০০১ সালে বিডিআর বিএসএফ যুদ্ধ বাংলাদেশের জন্য মঙ্গলজনক হয় নি। কথিত আছে বিএসএফ এর পোশাক পরে ভারতীয় বিচ্ছিন্নতাবাদীরা বাংলাদেশে ঢুকে হামলা করে। কারণ তারা বিডিআরের কারণে সুবিধা করতে পারছিলো না।
২০০১ সালের ইলেকশনে আওয়ামী লীগের হারার প্রধান কারণ ছিল এটা।
আরেকটা শোনা কথা কিন্তু এটার কোন সূত্র এখনো আমি পায় নি। ভারতের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী বাজপেয়ী নাকি বলেছিলেন, বিডিআরের অস্তিত্ব রাখবেন না।

০৯ ই জুন, ২০২৪ সকাল ৮:২৫

ইফতেখার ভূইয়া বলেছেন: এরকম কিছু আমিও শুনেছি। ধারনা করা হয়, পিলখানার ঘটনার পেছনেও ভারতের ইন্ধন রয়েছে যদিও এ ব্যাপারে অকাট্য কোন দলিল বা প্রমাণ আমার হাতে নেই। ধন্যবাদ।

১৩| ০৮ ই জুন, ২০২৪ রাত ১১:৪৫

ঋণাত্মক শূণ্য বলেছেন: ল্যাঞ্জা ইজ ইম্পসিবল টু হাইড.................... এই কমেন্ট এখনও পড়ে নাই? :-/

০৯ ই জুন, ২০২৪ সকাল ৮:২৬

ইফতেখার ভূইয়া বলেছেন: আপনিতো বলেই দিলেন। ব্যাস হয়ে গেল। B-)

১৪| ০৯ ই জুন, ২০২৪ রাত ১২:১৫

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: প্রথমেই এসব নারকীয় হত্যাকাণ্ডের জন্য তীব্র নিন্দা জ্ঞাপন করছি এবং প্রতিবাদ জানাচ্ছি। শোকাহত পরিবারের জন্যও সমবেদনা।

আমাদের বাংলাদেশীদের মধ্যেও প্রকট সমস্যা আছে। হয়ত আমাদের কোনো সম্মানিত ব্লগার ভাইয়েরা এসেই বলবেন, বিএসএফ বাংলাদেশে আসে নাই, বাংলাদেশীরা ভারতে ঢুকে গরু চুরি করতে গিয়েছিল। কেউবা এসে বলবেন, ঐ হালার পুতেরা ভারতে ঢুকছিল কেন? কেউ এসে বরং আপনাকেই বলে বসতে পারেন, ছিঃ ছিঃ, আপনি এত কুরুচিপূর্ণ পোস্ট লিখতে পারলেন? এ থেকেই আমাদের ব্লগার ভাইয়েদের মানবিকতা কোন স্তরে আছে তা বুঝতে পারবেন। যারা এসব বলেন, তাদের না আছে দেশের প্রতি ভালোবাসা, আর না আছে বর্ডার কমপ্লেক্সিটি সম্পর্কে কোনো ধারণা। বর্ডার কিলিং বন্ধ হোক, এরা কখনোই চায় না।

০৯ ই জুন, ২০২৪ সকাল ৮:২৬

ইফতেখার ভূইয়া বলেছেন: আপনার কথাগুলোর বেশীরভাগই সত্য। ধন্যবাদ।

১৫| ০৯ ই জুন, ২০২৪ সকাল ১০:০৪

রাােসল বলেছেন: সিঙ্গাপুর দুটি বৃহৎ শক্তিশালী রাষ্ট্রের পাশে অবস্থিত, মালয়েশিয়া এবং ইন্দোনেশিয়া। ক্ষুদ্র এই দেশটি আত্মপরিচয় নিয়ে পৃথিবীতে টিকে আছে।বাংলাদেশের মাননীয় রাজনৈতিক নেতাগণ নগ্নভাবে সরকার গঠনে ভারতের আশীর্বাদ নেন। আজ আমরা পদলেহনের ফলাফল দেখতে পাচ্ছি। একটি জাতীয় সমস্যা উপস্থাপনের জন্য ধন্যবাদ।

০৯ ই জুন, ২০২৪ সকাল ১১:১৭

ইফতেখার ভূইয়া বলেছেন: পোস্টে মন্তব্যের জন্য আপনাকেও ধন্যবাদ।

১৬| ০৯ ই জুন, ২০২৪ সকাল ১০:১৫

অপু তানভীর বলেছেন: কামাল সাহেবের মন্তব্য দেখছি না ! কামাল সাহেবের তো স্যাটেলাইট দিয়ে এতোক্ষণে দেখে ফেলার কথা যে ভারতীয় সৈনিক গুলি আসলে উপরের দিকে চালিয়েছিল! অথবা ভারতীয় সৈনিকের কোন দোষ নেই !
আমাদের মোদীর ভাই কামাল সাহেব কোথায়? :D

০৯ ই জুন, ২০২৪ সকাল ১১:২৩

ইফতেখার ভূইয়া বলেছেন: আমার ব্লগে অযাচিত মন্তব্য করে অনেকেই কমেন্ট ব্লকের তালিকায় আছেন। ধন্যবাদ।

১৭| ০৯ ই জুন, ২০২৪ দুপুর ১:৫৩

ভুয়া মফিজ বলেছেন: @অপু........মুল্যবান মন্তব্য এইখানে……

১৮| ১০ ই জুন, ২০২৪ দুপুর ২:১৩

সামিউল ইসলাম বাবু বলেছেন: নতুন বলেছেন: দেশের ভেতরে ঢুকে গুলি করার সাহস কিভাবে পায়?

পাকিস্তান বা চীনের সিমানাতে তো জনগনের কেউ মারা যায় না?

আমাদের মন্ত্রীগণ আগেই মাথা বেচে বসে আছেন। দেশকে তার গোনে না। আর আমাদের সেনাবাহীনি হয়েছে ভেড়ার মতো।

১৯| ১১ ই জুন, ২০২৪ দুপুর ২:৩০

মেঘনা বলেছেন: ভারত - বাংলাদেশ সীমান্তে বিএসএফ কর্তৃক সীমান্তে বাংলাদেশি হত্যা সত্য ঘটনা। কিন্তু এর কারণ কী ?
ভারত পক্ষীয়রা বলেন গারুপাচার, মাদকপাচর, জাল টাকা, সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড আটকানোর জন্য বিএসএফ কে বাধ্য হয়ে গুলি করতে হয়। তাতে দু- চারজন কখন মাড়া যায়।
বাংলাদেশ পক্ষীয়রা বলেন বিএসএফ নিরীহ মানুষকে গুলি করে মারে। কেনো মারে তার কারন নাই।
মৃত্যু যে হয় সেটা সত্যি। কারণ টা কী?

১২ ই জুন, ২০২৪ রাত ১১:০৫

ইফতেখার ভূইয়া বলেছেন: অপরাধ করলে অপরাধীকে প্রচলিত আইনে বিচার করা উচিত। তাই বলে সরাসরি গুলি চালানো কখনোই গ্রহণযোগ্য হতে পারে না। ধন্যবাদ।

২০| ১৩ ই জুন, ২০২৪ বিকাল ৫:৩৩

আরেফিন৩৩৬ বলেছেন: ওরা ভোট চুরির সময় সক্রিয় হয়। একটা নপুংসক বাহিনী। এ বাহিনী বন্ধ করে দেয়া উচিত।

২৩ শে জুন, ২০২৪ রাত ১০:২২

ইফতেখার ভূইয়া বলেছেন: বি.জি.বি-কে আরো এ্যাকটিভ হতে হবে। প্রশাসন থেকেও সমর্থন আসতে হবে। ধন্যবাদ।

২১| ১৩ ই জুন, ২০২৪ সন্ধ্যা ৭:৩২

অনিকেত বৈরাগী তূর্য্য বলেছেন: চিন সীমান্তে, পাকিস্তান সীমান্তে গরু চোরাচালান, মাদক চোরাচালানের ঘটনা কম। কিন্তু বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তে এগুলো বেশি হয়। এগুলো রোধে বিজিবি কতটুকু তৎপর? বিজিবি যদি তৎপর হতো, বোধকরি এ ধরনের ঘটনা ঘটত না।

২২| ২০ শে জুন, ২০২৪ বিকাল ৫:৫০

এম ডি মুসা বলেছেন: ১৯৭১ সালের ইন্দিরা গান্ধির ভারত বর্তমান ভারতের পার্থক্য আছে। কারণ সেই সময় বাংলাদেশর সাথে ভালো সম্পর্ক ছিল । বর্তমান সরকার তার চিন্তা চেতনার সাথে প্রতিবেশী দেশ বাংলাদেশ সাথে ভালো সম্পর্ক নাই। এদিকে হিন্দু পরিবার এই দেশ থেকে চলেও যাওয়ার কারণেও ভারত েএই দেশের প্রতি সহনশীল আচরণ করতে পারে না বলে আমি মনে করি।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.