somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

নিঃসঙ্গী বর্ণমালা

০১ লা অক্টোবর, ২০১৩ দুপুর ২:০৬
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :



নিঃসঙ্গী বর্ণমালা
গেলো রাতখানাকে পরের দিনটা চুরি করে নেয়ার আগে, ঠিক মাঝপ্রহরে নিলীমার হৃদয় নামের জমিখানা অনেক ভাগে ভাগ হয়ে গেলে আমার নামটি খারিজ হয়ে যায় ।

কথারা তখোন এগোয়না আর । যেখানে যতি টানা হয়েছে সেখান থেকে আর বর্ণরা শব্দ হয়ে ওঠেনা । এলোমেলো হয়ে আসে গায়ে গতরে । ত্রিশ বছরের নারী-শরীরের মতো দোমড়ানো । খুব কাছে থেকে দেখলে মনে হবে কথাদের কোনও গন্ধ নেই । যে গন্ধ নিলীমার চুলে ভাসে, খেলে যায় ঠোঁটে তা বুঝি বেনোজলে ভেসে যায় কোথাও । গেরস্থ ঘরের মতো তাই আগোছলো পড়ে থাকে কথারা । নিলীমা ফুঁ দিয়ে শব্দগুলো ঝেড়ে ফেলে দিলে এমোনটাই হয় । সেগুলো জড়ো করে ঘরখানা সাজাতে যেতেই গেঁথে তোলা মালা থেকে খসে পড়ে কথাগুলো । পুঁতির মতো ঠুং-ঠাং গড়িয়ে যায় এদিক ওদিক । চুপিচুপি তাদের কাছে না ডাকলে পরে তাদের রাগ বাড়তে থাকে । ছলনায় ভোলানো তখোন বেশ কঠিন হয়ে ওঠে । আসঙ্গলিপ্সায় জোনাকীর মতো তার টিপটিপ জ্বলে ওঠা লেগে থাকে চোখে । মুঠির সে জোর নেই যে তাকে বাঁধি ।

দীর্ঘ দিবস রজনী এই ছিলো যে খন্ডিত শব্দের প্রেতিনী-নাচ । বর্ণশ্রমিকের ফসল তোলার বেভুল গান । সে গানেরও তাল-লয় ছিড়ে গেলে স্বপ্নের বর্ণমালাদের সেই থেকে আর জোড়া বাঁধানো যায়নি । জোড়া লাগানো গেলে তা হতে পারতো বুঝি ডগমগে একফালি পুঁইশাক । হতে পারতো নকশী কাঁথা এক ।

নিলীমার আরণ্যক শরীরভঙ্গী ইশারা দিলে তবেই-না তা হতে পারতো !

আকাশের জলে নাইয়ে কথাদের তাই আবারো সাফসুতেরো করতে হয় । তবুও করমচাগন্ধী হয়ে ওঠেনা । আকাশের কি কোনও গন্ধ থাকে ? টকটক গন্ধ ? ভেজামেঘ থেকে টুপটাপ পড়া জলগন্ধ ? নিলীমাকে নিয়ে যে বর্নমালার ছৌ খেলতে চাই তা স্থির হয়না তাই । দোলে....দোলে....দোলে.... দুলতেই থাকে ।
তাই শব্দেরও হাতবদল করতে হয় , আলো জ্বেলে খুঁজে নিতে হয় ধ্রুপদী বর্ণমালা । শব্দের ভান্ডারে টান লাগার আগেই শব্দচোর হয়ে উঠতে হয় । স্বরস্বতিয়ার ঝাঁপি থেকে টেনে তুলতে হয় আদেখলা চোখের কিছু কিছু ত্যাদোড় শব্দকে ।

ঝা – চকচকে ধারালো বর্ণমালা গেঁথে গেঁথে নিলীমার বর্ণহীন আঁচলে যে চিঠির কারচুপি কাজ ফুঁটিয়ে তুলতে চাই তা যেন লজ্জাবতী লতা হয়ে ওঠে ক্রমে । মুখ লুকোয় নিকোটিন ঝাঁঝরা ফুসফুসে । দম ফেলতে হেচকি ওঠে । তখোনই না স্বপ্নের বর্ণমালা তার পুরো বুকখানা উদোম করে দেয় । হু –হু করে বয়ে যায় বাউরী বাতাস । আর তখোন-ই গমকে গমকে বিষরক্ত মার্চ করে বেরিয়ে যেতে থাকলে পরে, স্বপ্নের বর্ণমালাখানি খাবি খেতে থাকে । বর্ণেরা দলছুট হয় । ডুবসাঁতারে যে ক’টি গাঙপাড়ে হামাগুড়ি দিয়ে আসে তাকে তুলে আনি সুনীল করতলে । পাতাকুড়ুনীর মতো কুড়াই জলটুঙ্গির ফাঁক-ফোকরে কিছু ঝরা বর্নফুল, একে একে । যেটুকু বেঁচেবর্তে থাকে তাতেই সেজে ওঠে চিরকালের আদিম ওঙ্কার ------
ভা...........
....
....
....
লো.........
....
....
....
বা.....
....
....
....
সি...........

নিলীমা ছুঁয়েও দেখেনা । পড়ে থাকে শুধু আমার নিঃসঙ্গী বর্ণমালা, একাকী ......
সর্বশেষ এডিট : ০১ লা অক্টোবর, ২০১৩ দুপুর ২:০৬
১৮টি মন্তব্য ১৮টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

অমিতাভ-রেখার প্রেম ও বাস্তবতা: রূপকথার রাজা-রাণীর মিথ

লিখেছেন নান্দনিক নন্দিনী, ২০ শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ রাত ১০:০৩



দিল্লির ছেলে অমিতাভ বচ্চনের ছোটবেলা কেটেছে এলাহবাদে। বিজ্ঞানের ছাত্র অমিতাভ পড়াশুনার পাট চুকিয়ে চাকরী নেন কলকাতার বার্ড কোম্পানীতে সেলস এক্সিকিউটিভ পদে। মাস মাইনে ৪৮০রূপি।কিন্তু চাকরীতে মনোনিবেশ করতে পারছিলেন... ...বাকিটুকু পড়ুন

ভালোবাসার নির্যাস

লিখেছেন নূর-ই-হাফসা, ২০ শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ রাত ১১:৩৪



প্রতি রাতে ঘুম ভেঙ্গে
ঘুমের ঘোরে দেখি,সে আছে সঙ্গে।
প্রতি বিকেল কেটে যায় আনমনায়,
দূর থেকে দেখি সে ডাকছে ইশারায়;
সন্ধাবেলায় ফুল ছিড়ে জুড়ে দিই খোঁপায়
অবাক হয়ে ভাবি,তার হাসি কেন এত রাঙ্গায়!
রাত্রিতে... ...বাকিটুকু পড়ুন

এ যেন পুরো বাংলার প্রতিধ্বনি !

লিখেছেন কথাকথিকেথিকথন, ২০ শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ রাত ১১:৩৫


খোকার মুখের বুঝতে না পারা প্রথম বুলি
একটি বাংলা শব্দ
খোকা শুনে এসেছে কতকথা জন্মের পূর্বে
মাতৃগর্ভে গুটিসুটি হয়ে বসে ছিলো
তারও বেশ ইচ্ছে হয়েছিলো কিছু বলার
সেই ইচ্ছেটুকু ছিলো বাংলাভাষা।
সে কানপেতে ছিলো-
বৃদ্ধ,... ...বাকিটুকু পড়ুন

''শুভ জন্মদিন'' প্রিয় মনিরা'পু

লিখেছেন কি করি আজ ভেবে না পাই, ২১ শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ রাত ১২:০০



সাদাসিধে,মুখচোরা
ক'বে কথা মেপে;
ফেবুতেও বাড্ডেটা
রেখেছে সে চেপে!

ভাব যেনো তোদের কি
উপভোগি একা তা;
কেক-পার্টি খাওয়ানোর
অত কি হে ঠ্যাকাটা?

তুমি চলো ডালে আপু
মোরা চলি পাতাতে;
খাতাতে টুকেছি আগে
'জিজু'সনে আঁতাতে।

লাগবেনা পার্টিসার্টি
কেমন মিনসে ছাই;
হরষে-পুলকে... ...বাকিটুকু পড়ুন

সেই ফাল্গুনে, এই ফাল্গুনে

লিখেছেন মলাসইলমুইনা, ২১ শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ সকাল ৮:৫৪



সেই ফাল্গুনে, হালকা শীতের সকালে ছিল
ধুলো, ধোঁয়া, কুয়াশা আর গোলা বারুদের গন্ধ |
ছিল পুলিশ, সেনাবাহিনীর গুলি, ধরপাকড়, জেল জুলুম
রাজপথ উত্তাল ছিল তবু ভাষার দাবি, বিক্ষোভে,... ...বাকিটুকু পড়ুন

×