somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

আল কুরআনের ভাষা আরবী কেন?

২০ শে মার্চ, ২০১০ বিকাল ৪:১২
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :

পৃথিবীর আদিতম একটি ভাষা হল সংস্কৃত এবং নাসার এক বিজ্ঞানী মনে করেন গাণিতিক সূত্র ও কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা প্রকাশের জন্য সংস্কৃত প্রযোজ্য হতে পারে এবং বেদিক সংস্কৃত ভাষায় হিন্দু ধর্মের ধর্মগ্রন্থ – স্রুতি রচিত যা সংস্কৃত এর পূর্ব রূপ থেকে পাওয়া। তবে সংস্কৃত ও আরবী এক মূল থেকে আসা ভাষা নয়। সংস্কৃত ইন্দো-আরিয়ান ও ইন্দো-ইওরোপিয়ান ভাষা পরিবার থেকে উদ্ভব একটি ভাষা।

হঠাৎ মনের মাঝে একটি প্রশ্ন এলোঃ
-আল কুরআনের ভাষা আরবী কেন?

এবার আরবী সম্পর্কে আরও একটু জানা চেষ্টা করলামঃ
-কুরআন যে আরবী ভাষায় লেখা হয়েছে তাকে বলা হয় ক্লাসিক্যাল আরবী (সূত্রঃ বা কুরআনিক আরবী ) এটির উৎপত্তি হয় এভাবেঃ
সেমিটিক (খৃঃপূর্ব ৪০০০ বছর পুরোনো ভাষা) > কেন্দ্রীয় সেমিটিক > পশ্চিম সেমিটিক > ক্লসিক্যাল আরবী (কুরআনিক)
বর্তমানে যে আরবী ভাষাটি চলছে তা কুরআনের ভাষা দুই ধাপ পরের বির্বতনের ভাষা। একে বলা হয়- আধুনিক স্ট্যানডার্ড আরবী। উল্লেখ্য, কেন্দ্রীয় সেমিটিক থেকে হিব্রু ভাষার উৎপত্তি হয়েছিল এবং যেটি বাইবেলের ভাষা।

প্রশ্ন জাগলো মনেঃ
-প্রাচীন এই ভাষাটিতে কুরআন কেন এলো?
কুরআনে যুক্তি হলোঃ এটি একটি ব্যপ্ত ও বিস্তৃত ভাষা এবং অল্প কথায় এতে অনেক কিছু বোঝানো সম্ভব।


প্রাচীন এই ভাষাটি ব্যকারণের ব্যবহার ছিল। বলা হয়ে থাকে, আরবী ভাষা খুবই দক্ষ যে অল্প কথায় যেকোন আইন/নিয়ম ব্যাখ্যার জন্য।

কুরআনে আরও বলা হয়েছেঃ অন্য ভাষায় নাজিল হলে বিভাষীরা প্রশ্ন করতো যে, এর ব্যাখ্যা কই? অথার্ৎ ততকালীন সময়ের ভাষাগুলোর চেয়ে কুরআনিক আরবী অনেক শক্তিশালী ছিল ভাব প্রকাশের দিক থেকে। ভাষাবিদ নই বলে এর পেছনের যুক্তি দিতে পারলাম না অথবা আরও একটু জানতে হবে এ বিষয়ে কিছু বলার আগে। তবে পড়তে পারেন, কুরআনের 41:44 আয়াত

“If we made it a non-Arabic Quran they would have said, “Why did it come down in that language?” Whether it is Arabic or non-Arabic, say, “For those who believe, it is a guide and healing. As for those who disbelieve, they will be deaf and blind to it, as if they are being addressed from faraway.”

সবশেষে, বলা হয়েছে কুরআনের ভাষা বিশ্বাসীদের জন্য। যারা বিশ্বাসী নয় তাদের অন্ধ ও বধির বলে বলে বলা হয় যে, তারা আরবী ভাষী হলেও কুরআনের অর্থ অনুধাবন করতে পারবেনা। অর্থাৎ মোদ্দা কথায় কুরআন বিশ্বাসীদের জন্য।

ভাষার বির্বতন, উন্নয়ন, আরও ব্যপক ব্যকরণের চেয়ে ভাব প্রকাশই মূখ্য।

আবার সম্পুরক আরো একটি প্রশ্ন মনে এলোঃ -লওহে মাহফুজে পবিত্র কুরআনের মূল যে কপিটি রাখা আছে তাও কি কুরআনিক আরবীতে?


পরকালের ভাষা আরবী কিনা তা নিয়ে বিতর্ক আছে হাদিস বেত্তাদের। কখনও বলা হয় মহানবী (সঃ) বলেছেন কুরআনের ভাষা ও পরকালের ভাষা আরবী কিন্তু অপর ইসলামিক স্কলাররা মনে করেন এটি একটি প্রকৃত হাদিস নয় । তারা মনে করেন, একমাত্র আল্লাহ্ তায়ালা জানেন এর উত্তর এবং এই বিষয় নিয়ে ভাবার চেয়ে অন্যান্য বিষয়গুলো জানা ও মান্য করা জরূরী।

সবশেষে, উপসংহারে, নিচের লাইনটি পোষ্ট মন্তব্য (ওরাকল ও রাগিব ভাই) হতে তুলে দিলাম (খুবই যুক্তিপূর্ণ মনে হয়েছে বলেই)-
মহানবী (সাঃ) এর ভাষা আরবি ছিল বলেই কুরআন শরীফ আরবিতে । অন্য সকল নবী রাসুলদের ক্ষেত্রেও একই নীতি অনুসৃত হয়েছে।
সর্বশেষ এডিট : ২১ শে মার্চ, ২০১০ ভোর ৪:৪২
১৭টি মন্তব্য ৯টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

কানাডার স্কুলে একেকটি দিন (পর্ব ৫) - ঈদ মোবারক সবাইকে! কিছু পাঠকের প্রশ্নের উত্তরে আজকের পর্ব : কেমন কাটে প্রবাসে ঈদ?

লিখেছেন সামু পাগলা০০৭, ২৪ শে জুন, ২০১৭ সকাল ৮:৪১

পোস্টের শুরুতে সকল ব্লগারকে ঈদের অগ্রীম শুভেচ্ছা জানাচ্ছি। দোয়া করছি, আপনাদের সকলের ঈদ আপনজনদের সাথে নিরাপদে, নির্বিঘ্নে, আনন্দে কাটুক।

আগের পর্বগুলো:
আগের সিরিজ: কানাডার স্কুলে একদিন (এক থেকে বাইশ): [link|http://www.somewhereinblog.net/blog/samupagla007/30173473|পর্ব... ...বাকিটুকু পড়ুন

অভিমানী বুবু...... যেয়ো না চলে

লিখেছেন কাজী ফাতেমা ছবি, ২৪ শে জুন, ২০১৭ দুপুর ২:৩২



বুবু আমার অভিমানী-মুছে দিলো সুখের ছন্দ
আচম্বিতে মনে লাগল-জানি নাকো কিসের দ্বন্দ্ব।
কত কথা লিখা ছিলো- সামু ব্লগের পাতায় পাতায়
পাতাগুলো শূন্য দেখে-মন’টা কষ্টে বড্ড ছাতায়।
গল্প স্বল্প আড্ডাবাজি-কাব্য ছড়া ইসলাম কথন
ছিলো সবই... ...বাকিটুকু পড়ুন

রোমান্টিক, বেরোমান্টিক

লিখেছেন মাহফুজ, ২৪ শে জুন, ২০১৭ বিকাল ৪:১০

-এই চলো বৃষ্টিতে ভিজি।
-আমার এসব বৃষ্টি ফিষ্টি ভাল্লাগেনা।
-ধুর তুমি যে কি না!
-আমি কি?
-রোমান্স নাই একটুও, বেরোমান্টিক।
-বৃষ্টিতে ভিজা না ভিজাতেই বুঝি রোমান্স নির্ভর করে?
-করেতো।
-তাহলে আমার আসলেই রোমান্স নাই,... ...বাকিটুকু পড়ুন

সামু ব্লগারগণ কোথায়?কারো কাছ থেকে ঈদের দাওয়াত পাইলাম না /#) (হতাশায় হতাশিত হইয়া পোষ্ট)

লিখেছেন দ্যা ফয়েজ ভাই, ২৪ শে জুন, ২০১৭ সন্ধ্যা ৭:৫২


আজ ২৮রোজা।এবার ২৯ রোজার শেষেই ঈদ হতে পারে।তার :-B মানে কাল বাদে পরশুই ঈদ হবার সম্ভাবনা।আমি তো সেই কবে থেকে প্ল্যান করে রাখলাম,কখন কোন ব্লগারের বাসায় গিয়ে পেট পুরে... ...বাকিটুকু পড়ুন

মিসকলের গ্যাঁড়াকলে...

লিখেছেন নাদিম আহসান তুহিন, ২৪ শে জুন, ২০১৭ রাত ১০:৪৮

চাঁদপুরের একটা মেয়ে আমারে খুব ডিস্টার্ব করতেছে। এই মেয়ের হাত থেকে বাঁচার একটা উপায় বলেন তো আমারে। আমারে এর কবল থেকে রক্ষা করেন।
::
ঘটনাটা তাহলে খুলেই বলিঃ
::
বেশ কিছুদিন আগে (প্রায় দু'তিন... ...বাকিটুকু পড়ুন

×