somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

Amélie : যে মুভিটি না দেখে থাকলে আপনার মুভিদর্শন ক্যারিয়ার অসম্পূর্ণ

১৯ শে নভেম্বর, ২০১০ সকাল ১১:২৩
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :

Le Fabuleux destin d'Amélie Poulain (The Fabulous Destiny of Amélie Poulain) সংক্ষেপে "Amélie" আজ অব্দি আমার দেখা শ্রেষ্ঠ মুভিগুলোর একটি।মুভিটিকে বিশেষায়িত করতে আমার একটি বিশেষণই মাথায় উঁকি দেয়,"মনোমুগ্ধকর"।ছবিটিতে পিক্সার বা ডিজনির মত এনিমেশন নেই,জেমস ক্যামেরনের মত স্পেশাল ইফেক্ট নেই,ওয়েস্টার্নের মত ঢিসুম-ঢিসুম নেই,স্পিলবার্গের মত দুর্দান্ত কাহিনী নেই,ক্লাসিক-হরর-থ্রিলার কোনটায় পর্যায়েই পড়বে না এটি।তাহলে কি আছে এই মুভিতে।ট্রেইলারটা দেখে নিন।

Amélie trailer

ফ্রেঞ্চ ভাষায় ২০০১ সালে নির্মিত এই মুভির পরিচালক Jean-Pierre Jeunet।নাম ভূমিকায় অভিনয় করেছেন Audrey Tautou(অদ্রে ততু),যাকে অনেকেই দে ভিঞ্চি কোড মুভির সফি নেভু ক্যারেকটারের জন্য চিনে থাকবেন।আমার মতে,এই অভিনেত্রী তার ক্যারিয়ারের শ্রেষ্ঠ
অভিনয়টা করেছেন অ্যামেলি পাওলিন চরিত্রে।


ছবির সংক্ষিপ্ত প্লট মোটামুটি এরকম- ছোটবেলা থেকেই অ্যামেলিকে একা একা বড় হতে হয়,কারণ তার বাবা(প্রাক্তন আর্মির ডাক্তার) মনে করতেন যে অ্যামেলি হৃদরোগে আক্রান্ত।এর মাঝে চার্চ থেকে লাফিয়ে পড়ে সুইসাইড করতে যাওয়া এক মহিলা অ্যামেলির মা'র উপর পড়লে তার নিউরোটিক মা মারা যায়।এর পর থেকে নিজেকে আনন্দ দেয়ার জন্য অ্যামেলি বিভিন্ন আনইউজুয়াল ইমাজিনেশন করতে শুরু করে।


অ্যামেলি বড় হয়ে একটা ছোট ক্যাফের উয়েট্রেস হিসেবে কাজ শুরু করে।প্রচলিত প্রেম-রোমান্টিসিজম-সেক্সে কোন আগ্রহ খুঁজে না পেয়ে বিচিত্র কিছু ব্যাপারে আনন্দ পাবার চেস্টা করে।জেমন,চামচ দিয়ে মাখনের সর ভাঙ্গা,সেইন্ট মার্টিন ক্যানেলে পাথর ছোড়া,সিনেমা হলে গিয়ে অন্য মানুষদের মুখভঙ্গী খেয়াল করা এমন কি কোন একটা সময়ে প্যারিসে কতজন কাপল অর্গাজমে লিপ্ত তা মনে মনে আন্দাজ করা।;)


অ্যামেলির জীবনে একটি বড় ধরণের পরিবর্তন ঘটে যেদিন প্রিন্সেস ডায়ানা মারা যায়।সে তার ঘরে একটি পুরাতন মেটাল বক্স খুঁজে পায়।নানা ভাবে খোঁজ সে জানতে পারে বক্সটির মালিক বরদোতু নামে কেউ,যে পঞ্চাশ দশকে ওখানে থাকত।অ্যামেলি নতুন খেলা খুঁজে পায়,বরদোতুকে খুঁজে বের করার চেস্টা করে।


এরমাঝে তার সাথে এক প্রতিবেশী বৃদ্ধের পরিচয় হয়,যে বিচিত্র এক অস্থিরোগে আক্রান্ত।সবাই তাকে ক্রিস্টাল ম্যান বলে ডাকে,অ্যামেলি জানতে পারে যে ক্রিস্টাল ম্যান ২০ বছর ধরে একই ছবি এঁকে যাচ্ছে,অথচ ছবির এক্সপ্রেশন বছর বছর পরিবর্তিত হচ্ছে।ক্রিস্টাল ম্যানের সহযোগিতায় অ্যামেলি বরদোতুকে খুঁজে পায়।


ইতোমধ্যে অ্যামেলি তার ক্যাফেতে কর্মরত জিনা এবং জর্জেটকে নিয়ে মজার খেলায় লিপ্ত হয়।জিনার এক্স-হাজব্যান্ডকে অ্যামেলি জানায় যে জর্জেট ওর জন্য পাগল,ও বুঝতে পারছে না কেন।আবার জর্জেটকে গিয়ে বলে জিনার এক্স-হাজব্যান্ড আসলে জর্জেটের জন্যই এখানে বসে থাকে।শুরু হয় নতুন এক কাহিনী।:D

এরকম আরও অসংখ্য হিউমার,ইমোশন এবং বৈচিত্র্যের স্বাদ পেতে হলে বসে থাকলে চলবে না,দেখতে হবে মুভিটি।সরাসরি ডাউনলোড লিঙ্কটি দিয়ে দিলাম। :-B

Le Fabuleux Destin d'Amélie Poulain

এখন পর্যন্ত মুভিটি সম্পর্কে আমি তেমন কিছুই বলিনি।ছবির বিশেষত্ব এর মেকিংয়ে।ছবির প্রতিটি শট স্পেশাল ভাবে টেক করা।যাদের Good Shot সম্পর্কে ধারনা আছে,তারা মুগ্ধ হতে হতে রীতিমত টায়ার্ড হয়ে যাবেন। :)


Amélie-র Imdb র‍্যাঙ্কিং 8.6।ছবিটি পাঁচটি বিভাগে একাডেমী অ্যাওয়ার্ডস এর জন্য মনোনীত হয়।এছাড়া ইউরোপিয়ান ফিল্ম অ্যাওয়ার্ড,সিজার অ্যাওয়ার্ড এবং পিউপল চয়েস অ্যাওয়ার্ড জয় করে। !:#P

শেষকথা,যারা মেকিং বুঝেন এবং ভালবাসেন,তাদের মুভিটা দেখা রীতিমত বাধ্যতামূলক। =p~


উইকিপিডিয়া লিঙ্ক
আই.এম.ডি.বি লিঙ্ক
সর্বশেষ এডিট : ১৯ শে নভেম্বর, ২০১০ দুপুর ১২:১০
২৬টি মন্তব্য ২৫টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

জনসংখ্যার ভিত্তিতে আসুন দেখা যাক কার ধর্মটি সঠিক।

লিখেছেন জর্জ মিয়া, ২৯ শে আগস্ট, ২০১৫ দুপুর ১২:৫৩





-ধর্মকারীর সৌজন্যে

...বাকিটুকু পড়ুন

সোজা হও বাঙাল

লিখেছেন প্রামানিক, ২৯ শে আগস্ট, ২০১৫ দুপুর ১:০২


শহীদুল ইসলাম প্রামানিক

ভংচং ছেড়ে দিয়ে সোজা হও বাঙ্গাল
দ্বারে দ্বারে হাত পেতে কেন হও কাঙাল?
যত কোটি বাঙালী তত দ্বিগুন আছে হাত
দুই হাতে খেটে খেলে তাতে কি যাবে জাত?

গুন্ডামী-ভন্ডামী এতে কি... ...বাকিটুকু পড়ুন

পাবলিক এত মাথা ব্যাথা কেন রে...... ? এইসব বাদ দেন বুঝলেন?

লিখেছেন ঈপ্সিতা চৌধুরী, ২৯ শে আগস্ট, ২০১৫ দুপুর ২:০৭

< বাপ রে বাপ!!!! শিমু কালো একটা ছেলেকে বিয়ে করছে এই নিয়ে চর্চা করতে করতে কাল থেকে যেন পাব্লিকের মুখে ফেনা উঠে গেছে।। লিখতে লিখতে লিখতে হাতে রক্ত উইঠা গেল... ...বাকিটুকু পড়ুন

( কল্প-গল্প ) –প্রজেক্ট প্রজেক্টাইল - (৩য় পর্ব)

লিখেছেন শান্তির দেবদূত, ২৯ শে আগস্ট, ২০১৫ দুপুর ২:৩৪

( কল্প-গল্প ) –প্রজেক্ট প্রজেক্টাইল - (১ম পর্ব)
( কল্প-গল্প ) –প্রজেক্ট প্রজেক্টাইল - (২য় পর্ব)



নবম অধ্যায়.
আকাশটা আজ আশ্চর্য রকমের পরিষ্কার, হাজার হাজার তারা ঝলমল করছে পুরো আকাশজুড়ে, কিন্তু অনেক চেষ্টা... ...বাকিটুকু পড়ুন

৬৫’র যুদ্ধে ‘অযোদ্ধা জাতির’ কলঙ্ক ঘোচায় বাঙ্গালিরা

লিখেছেন রাশেদ আহমেদ শাওন, ২৯ শে আগস্ট, ২০১৫ বিকাল ৩:১৮

১৯৬৫ সালের পাক-ভারত যুদ্ধ মূলত আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয়েছিল ৬ সেপ্টেম্বর থেকে। এ যুদ্ধে বাঙ্গালি সেনাদের অসাধারণ ভূমিকা বারবার চেপে যেতে চেয়েছে পাকিস্তান



৬ সেপ্টেম্বর মার্কিন পরামর্শে ভারত হঠাৎ করেই করাচি... ...বাকিটুকু পড়ুন

সুমাইয়া শিমুর বিয়ে! বর কালো! আর আমাদের চুলকানি...

লিখেছেন রাজু নূরুল, ২৯ শে আগস্ট, ২০১৫ বিকাল ৪:২৪


সুমাইয়া শিমু বিয়ে করেছেন। সেই বিয়ে নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়া তোলপাড়। ঘটনা এরকম না যে, বহু যুবক তাদের হৃদয় ভাঙ্গার অপরাধে তোলপাড় শুরু করেছেন। তোলাপাড়ের বিষয় হলো, ‍শিমুর বর দেখতে ভালোনা।... ...বাকিটুকু পড়ুন