somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

যে জীবন ফড়িংয়ের দোয়েলের / মানুষের সাথে দেখা হয়নাকো তার

০৭ ই আগস্ট, ২০০৮ রাত ২:৪৫
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :

দিনকাল চলে যাচ্ছে । যেভাবে চলে যায় আরো আট-দশটা দিন । কোন ছন্দ নেই, নেই ছন্দ পতনও, কেন যেন রোবটিক ভাবে কিংবা বলা যায় রোবকপের মতন যান্ত্রিক ভাবেই কেটে যাচ্ছে । কিন্তু নিজেকে যন্ত্র মনে করতে কার ভালো লাগে ?? আমরা লাগে না । একটা সময় , সেই সময় যে সময়টা সব মানুষের জীবনেই খুব প্রানবন্ত থাকে , থাকে উচ্ছলতা, সেই সময় গুলোতে একটা লাইন খুব ব্যবহার করতাম ।
" আর দিও না যন্ত্রণা
মানুষ আমি যন্ত্র না । "
কিন্তু আজ সেই লাইন শোনার জন্যও কিংবা শোনানোর জন্যে কোন সময় নেই । এই সব আবেগ- উচ্ছ্বাস এখন অপ্রয়োজনীয়, প্রয়োজন জীবন যাপনের জন্য যথাযথ রসদের সংস্থান করা । আমাদের দিবানিশি এই ছুটে চলার পিছনে স্রেফ একটা উদ্দেশ্য বেঁচে থাকা, কষ্ট করে হলেও বেঁচে থাকা, বেঁচে থেকে স্বপ্নভংগের কষ্ট পাওয়া !! হায় জীবন !!

সেই একজীবনে আমরা কতকিছুই না চাই .... কিন্তু কতটুকুই বা পাই ?? সেই পাওয়া-না পাওয়ার সমীকরণ মিলাতে মিলাতেই হঠাৎই ফুরিয়ে যায় শলতের তেল, নিভে যায় দীপশিখা, শেষ হয়ে যায় একটা জীবন; আরো দশটা জীবনের অতৃপ্তি নিয়ে । অথচ, সেই অপূর্ণতাকে স্পর্শ করতে, স্বপ্নভংগের দুঃখ নিতে , অতৃপ্তির স্বাদ পেতেই আমরা মরিয়া । এতো আমাদের ভয়াবহ দুঃখ বিলাস !?। তবে কি আমরা খুব দুঃখবিলাসী, সবাই নিপূণ করে সাজিয়ে যাই অতৃপ্তির সাম্পান ?? হায়রে জীবন , হায়রে মানুষ !!! আচ্ছা মানুষ কি জানে, মানুষের চোখে এতো কিসের বিষাদ ??

হ্যা, বিষাদ ছুঁয়েছে আজ, মন ভালো নেই । ঘর-মন-জানালায় বৃষ্টির নোনতা স্বাদ । নোনা জলে ভেসে যাক, ধুয়ে যাক জীবনের উত্তাপ । আমি ক্রমে ক্রমে ভুলে যাচ্ছি বেঁচে থাকার উচ্ছ্বাস । বয়সের সাথে সাথে নিস্তরঙ্গ হতে থাকি, জীবন-মৃত্যৃ আমাকে আর আন্দোলিত করে না । যেন বয়সই শিখিয়েছে থিতু হও । একটু একটু করে স্থবির হতে হয় ....... এই স্থবরিতা শিকড়ে আটকে যায় বোধ । নিজেকে বোধহীন একটা যন্ত্রের মতন মনেহয় ।
আর আট-দশাটা দিনের মতনই সেই গতানুগতিক একট, প্রতিটি দিন কেটে যায় , জীবনও ছুটে চলে সেই অতৃপ্তির স্বাদ নিতে । আমি চাই না, মন চায় না !! কেউ না চায় আমি তো চাই দোয়েলের মতোই একটা চঞ্চল জীবন, ফড়িং এর মতোন বর্ণিল পাখা । যে জীবন ফড়িংয়ের দোয়েলের
মানুষের সাথে দেখা হয়নাকো তার

সর্বশেষ এডিট : ০৭ ই মে, ২০১০ রাত ২:০৪
১৪টি মন্তব্য ১২টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

স্বাস্থ্য ক্ষেত্রে কমিউনিটি ক্লিনিকের সেবা একটি দৃষ্টান্ত। কমিউনিটি ক্লিনিকে কর্মরত সিএইচসিপির জীবনের কথা।

লিখেছেন উদভ্রন্ত বালক, ২৫ শে সেপ্টেম্বর, ২০১৬ সকাল ৭:১৩

দেশে রয়েছে অনেক বড় বড় সরকারী বেসরকারী স্বাস্থ্য সেবা প্রতিষ্ঠান।সেই সব প্রতিষ্ঠানের মত জাক জমকপূর্ণ না হলেও দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের প্রান্তিক মানুষের স্বাস্থ্য সেবা ও সচেতনতার জন্য বর্তমান সরকার প্রতিষ্ঠা... ...বাকিটুকু পড়ুন

জানা/অজানাঃ- "কল্পনা থেকে বাস্তবে রুপান্তর! রুপকথার অদ্ভুত আর ততধিক রহস্যময় ড্রাগন 'নিনকা-নানকা'র সাতকাহন!"

লিখেছেন সাহসী সন্তান, ২৫ শে সেপ্টেম্বর, ২০১৬ দুপুর ১২:০৪


মহাবিশ্বের অলি গলিতে ঘুরলে এমন কিছু বিরল দৃশ্য সচারচর আমাদের চোখে ধরা পড়ে যেগুলো দেখে অনেক সময় আমরা মুগ্ধ হয়ে যাই, আবার বিস্ময়ে অভিভূত হয়ে অবাক চোখে তাকিয়ে থাকি সেই... ...বাকিটুকু পড়ুন

হাসিমুখ

লিখেছেন নেক্সাস, ২৫ শে সেপ্টেম্বর, ২০১৬ বিকাল ৩:৪৪





কেউ হেসে উঠলে
হলদে আকাশে আমি খুঁজে পাই
শুক্লা দ্বাদশীর চাঁদ ।
বিচ্ছুরিত আলোয় দেশান্তরী হয়
মন ও চিন্তার চৌহদ্দি জুড়ে যত অন্ধকার;
পৃথিবীর সব ফুল একসাথে হেসে উঠেছে,
পৃথিবীর সব তারারাও;
এই বলে আমি... ...বাকিটুকু পড়ুন

কিছু অসাধারণ ও মজার তথ্য

লিখেছেন মার্কো পোলো, ২৫ শে সেপ্টেম্বর, ২০১৬ বিকাল ৪:১৩


১. প্রাচীনকালে চীনারা আত্মহত্যা করার জন্য ৫০০ গ্রাম লবণ খেত।

২. আমেরিকার নিউইয়র্কে কোনো উঁচু বিল্ডিং থেকে লাফিয়ে পড়ার শাস্তি হলো মৃত্যুদণ্ড।
(অর্থাৎ, কেউ লাফিয়ে পড়ে যদি বেঁচে যায় তবে তাকে সুস্থ... ...বাকিটুকু পড়ুন

যখন কেউ আমাকে পাগল বলে ------/ যাপিতানু রম্য ।

লিখেছেন গিয়াস উদ্দিন লিটন, ২৫ শে সেপ্টেম্বর, ২০১৬ রাত ৯:১২





১/
সকালে ঘুম ভাঙ্গার পর বিছানায় আলস্য ত্যাগ করছি । গিন্নিও ।
- ইয়াসমিনটার জন্য একটা ছেলে দেখনা ?
- আমি কি ঘটক পাখী ভাই ?
- না ,... ...বাকিটুকু পড়ুন

×