অনুসন্ধান:
cannot see bangla? সাধারণ প্রশ্ন উত্তর বাংলা লেখা শিখুন আপনার সমস্যা জানান ব্লগ ব্যাবহারের শর্তাবলী transparency report
সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। আমার লিখিত অনুমতি ব্যতিত এই ব্লগের লেখা অন্য কোথাও প্রকাশ করা যাবে না। www.muradulislam.me
আর এস এস ফিড

পোস্ট আর্কাইভ

আমার লিঙ্কস

আমার বিভাগ

    কোন বিভাগ নেই

জনপ্রিয় মন্তব্যসমূহ

আমার প্রিয় পোস্ট

ফেসবুক স্ট্যাটাস নিয়া একটা তত্ত্বপূর্ন গবেষনা--দুনিয়া বড়ই বিচিত্র

০৯ ই নভেম্বর, ২০১০ সকাল ১০:১৪ |

শেয়ারঃ
0 1

সাধারনভাবে আমরা জানি পদার্থের স্ট্যাটাস বা অবস্থা তিন প্রকার।কঠিন তরল এবং বায়বীয়।কিন্তু মানুষের স্ট্যাটাসের সংখ্যা অসংখ্য।এই বিচিত্র দুনিয়ায় বিচিত্র স্ট্যাটাসের উৎপত্তি হচ্ছে প্রতিদিন।ফেসবুকের কল্যানে সেই স্ট্যটাসগুলো মনের কৃষ্ণগহবর থেকে বেরিয়েআসছে নির্দ্বিধায়।এই ফেসবুক স্ট্যটাস নিয়ে একটি গবেষনা করা যাক।কথায় আছে যার স্ট্যাটাস নাই তার কিছুই নাই।।আবার বাংলা ছবির ডায়লগের মত ডায়লগ আছে, চৌধুরী সাহেব আমার ঘর নাই,বাড়ি নাই, কিন্তু স্ট্যাটাস আছে।এখন আপনার মেয়ে বিয়ে দিবেন কি না বলেন?

যাই হোক ইদানীং চৌধুরী সাহেব টাকা দিয়ে ভালবাসা কেনা যায় না পেইজের স্ট্যাটাসগুলোর মাধ্যমে বাংলা ছবির ডায়লগগুলোর মোহনীয় রুপ রস প্রত্যক্ষ করার ফলে কথায় কথায় ঢলিউডের ফিল্মের কথা আসল।তবে আজকে আমাদের আলোচনার বিষয় স্ট্যাটাস।শুধুই স্ট্যাটাস।

প্রথমেই স্ট্যটাসকে বিভিন্ন ভাবে ভাগ কপরে আলোচনা স্টার্ট দেয়া যাক,

১।।ইংরেজি স্ট্যাটাস গোষ্ঠীঃ ফেসবুকে কিছু ব্যক্তিদের স্ট্যটাস দেখা যায় সবসময়েই ইংরেজিতে।এরা বাংলাদেশী বাংলাভাষী।তবে কী জন্য এবং কী উদ্দেশ্যে ফেব্রুয়ারির একুশ তারিখ ও তারা স্ট্যটাস দেয়, বাংলা ইজ মাই মাদার টাংক,আই”ম রিয়েলি প্রাউড অফ দ্যাট! তা বোঝার মত ক্ষমতা আমার মত আপামর জনসাধারনের নেই বলেই আমি মনে করি।আমি কিছুদিন আগ হতেই এই ইংলিশ ভাবাধর্মী ব্যক্তিদিগের স্ট্যাটাস সতর্কতার সাথে নিরীক্ষন করলাম।কিন্তু তাহাদের এ হেন কার্যকলাপের হেতু বুঝিতে পারি নাই।চিন্তা করতেছি একদিন জিজ্ঞাসা করিব, ভ্রাতা/ভগিনি আপনার বাংলা বলতে কি লজ্জা হয়?সালাম বরকত রফিক জব্বারের কারনে আপনার এই লজ্জা পাইতে হচ্ছে! ওদের ইংরেজিতে অভিশাপ দিয়া একটা স্ট্যাটাস দেন!

২।সাহিত্য প্রেমী স্ট্যাটাসঃএই স্ট্যাটাস গুলো সাহিত্যকৃষ্ট ব্যাক্তিদিগের স্ট্যাটাস।যেমন একটা উদাহরন,
“কাদম্বিনী মরিয়া প্রমান করিল সে মরে নাই”

“শরত বাবু তুমি একবার দেখে যাও কেমন আছে তোমার এই দেবদাস??”

দেবদাস কহিল, “পার্বতি, অতটা রুপ থাকা ভাল নয়,অহংকার বড় বেড়ে যায়,দেখতে পাওনা,চান্দের অত রুপ হলেও কলঙ্কের কালো দাগ ,পদ্ম সাদা বলেই কাল ভ্রমর বসে থাকে”

এরুপ অনেক সুন্দর এবং পাঠমধুর অমর সাহিত্যের এক বা দু লাইন ভেসে উঠে এই সব স্ট্যাটাসে।এসব স্ট্যাটাস জ্ঞানের উৎস হিসেবেও কাজ করে।

৩।প্রেমিক স্ট্যাটাসঃ স্ট্যাটাসগুলোর মধ্যে সবচেয়ে ভাল স্থান যে কয়টা স্ট্যাটাস দখল করে রেখেছে এর মধ্যে একটি প্রেমিক স্ট্যাটাস।এই স্ট্যাটাসগুলো প্রেম প্রীতি এবং ভালবাসায় কানায় কানায় পূর্ন থাকে।কিছু উদাহারনঃ

“তুমি না থাকলে সকালটা এত মিষ্টি হত না...তুমি না থাকলে এই ভালবাসা সৃষ্টি হত না...জান আই লাভ ইউ”

“চাইনা মেয়ে তুমি অন্য কারো হও,আই ওয়ান্ট ইউ”

আমি ওরে ছাড়া বাচুম না, আমারে ওর কাছে লইয়া যাও টাইপের আরো কিছু স্ট্যাটাস আছে এই ক্যাটাগরির।।

৪।ছ্যাকা স্ট্যাটাসঃ এই স্ট্যাটাসগুলোর প্রেম বিদ্বেসী স্ট্যাটাস নামেও পরিচিত।যুকারবার্গ ছ্যাকা খাইয়া ফেসবুক বানাইলো কিন্তু আমাদের দেশের মানুষ ছ্যাকা খাইয়া সেই ফেসবুকেই স্ট্যাটাস দেয়।।এসব প্রতিটি লাইনে লাইনে এমনকি শব্দে শব্দে ফুটে উঠে প্রেমের প্রতি নিরব অথবা সরব বিদ্রোহ। এসব কিছু উদাহরন,

চলে গেছ তাতে কি,নতুন একটা পেয়েছি,তোমার চেয়ে অনেক সুন্দরী............

প্রেমের মূলধন হল ভালবাসা আর ভালবাসার মূলধন হল কষ্ঠ............

কিছু কিছু মানুষের জীবনে, ভালবাসা চাওয়াটাই ভূল...:D...............।

মেয়েরা এত খারাপ কেন??.....:)..........।।

ছেলেদের জন্যই আমাদের মত মেয়েরা এত খারাপ হয়ে যায়......:)......।

সময় স্রোত আর মেয়ে মানুষ কারো জন্য অপেক্ষা করে না...............:-*......।


৫।হুমায়ুন আহমেদিয় স্ট্যাটাস অথবা আমি হিমু হইতে চাই স্ট্যাটাসঃ এই স্ট্যাটাসের মালিকরা হুমায়ুন আহমেদের দারুন ভক্ত। এরা হিমু হইতে চায়।কয়েকজন নিজেরে হিমু মনে করে এবং হুমায়ুন আহমেদের মত লেখ তারে নিয়া লেখছে ভেবে পুলকিত হয়।এই ধরনের স্ট্যাটাসঃ
"প্রশ্ন : পৃথিবীর কোনো প্রজাতি কি নিজ প্রজাতির কাউকে হত্যা করতে পারে ?উত্তর : পারে । মানুষ !প্রশ্ন : পৃথিবীর কোনো প্রজাতি কি নিজ প্রজাতির কাউকে রক্ষা করার জন্য জীবন দান করতে পারে
?উত্তর : মানুষ ! !........"

আইজ খালি পায়ে তিন মাইল হাটলাম,মুই হিমু হইতে চাই...
আমি এখন হুমায়ুন আহমেদ স্যারের "চলে যায় বসন্তের দিন "পড়ছি।এত সুন্দর মানুষ লেখে ক্যামনে!!
হুমায়ুন স্যারের কবি বই পড়লাম।এমন অসাধারন লেখা সহস্র বছরে সৃষ্টি হয় কিনা সন্দেহ!!
“আমি হিমু হইতে চাই,কিরন হৈমিক যোগ্যতার দিক দিয়া আমি হিমু অনেক অনেক উপরে!!”

“প্রকৃতি প্রার্থনার বস নয়,প্রার্থনার বস হলে দুনিয়ার চেহারাই পাল্টহে যেত—হুমায়ুন আহমেদ।।

মেয়ে--- আমি হিমু হইতে চাই।
পোলা--- আপনি হিমু হইতে পারবেন না।মহিলাদের হিমু হইতে নাই।
মেয়ে---- আপনারে কে বলছে?
-----হুমায়ুন স্যার।আপনে রুপা হয়ে যান।
----মেয়ে তাইলে কি আপনি হিমু হইবেন?
-----পোলা ঠিক আছে।।( এই প্রেম হইয়া গেল!! এইরকম প্রেম ও হয় ফেসবুক স্ট্যাটাসের মাধ্যমে।এই স্ট্যাটাস গুলোকে লাকি স্ট্যাটাস বলেন কেউ কেউ)

৬।সমালোচক স্ট্যাটাসঃ এরা দুনিয়ার সবকিছু নিয়াই সমালোচনা করে।যেমন ধরেন, হুমায়ুন আহমেদের একটা বই পড়লাম,পুরাই ফালতু,জোকসের বই এর থেইক্যা ভাল।
নোবেল পুরস্কার য়োসা রে দেয়া ঠিক হয় নাই।
এন্টার্ক্টিকা মহাদেশের পানি খারাপ।খাইলে নির্ঘাত ডায়রিয়া হইব!
ইত্যাদি...

৭।রাজনৈতিক স্ট্যাটাসঃ এই সব স্ট্যাটাস পুরাই রাজনৈতিক কর্মকান্ড এবং নেতাদের নিয়ে।
যেমন, দেলো ভাইজানের পাজামা এত ঢিলা ক্যা?
খালেদা জিয়ারে ঘর থেইক্যা তাড়ানো উচিত।যত শীগ্র সম্ভব।
হাসিনা দেশ ইন্ডিয়ার কাছে বেইচ্যা দিসে।হাসিনার বিরুদ্ধে আমি যুদ্ধ ঘোষনা করলাম।
সাহারা খাতুনরে একটা বিয়া দেওন দরকার।।

৮।।মন ভাল নেই স্ট্যাটাসঃ ফেসবুকে সর্বাধিক প্রচলিত স্ট্যাটাসের নাম মন ভালো নেই স্ট্যাটাস।
"আজ আমার মন ভাল নেই,"
" চূড়ান্ত মন খারাপ..."
"মন এইরকম খারাপ হয় ক্যান!!আমি কিন্তু কাইন্দা দিমু।।"
"আমি মন ভাল করতে পারি না ক্যান!"

৯।তাৎক্ষনিক স্ট্যাটাসঃ যেমন আমি এখন বাসে আছি............।।
এইমাত্র টয়লেট থেকে বের হলাম,আহা শান্তি।।
আমি টয়লেটে আছি,আপনি কই??
ভাত খাইতেছি...।।
বই পড়তেছি............।।
ঘুমাইতেছি..................।(ঘুমাইয়া ক্যামনে স্ট্যাটাস দেয় এইট্যা গবেষনার বিষয়!:-/)

১০।বিচিত্র স্ট্যাটাসঃ এইসব স্ট্যাটাসের মূলমন্ত্র “দুনিয়া বড়ই বিচিত্র”।বিচিত্র দুনিয়ার বিচিত্র তায় বিচিত্র অনুভুতি যাদের হয় তারা এই বিচিত্র স্ট্যাটাস দেন।।যেমন,
এইট্যা কি দেখলাম,ম্যানহোলে ওমেন পইড়্যা গেল!! দুনিয়া বড়ই বিচিত্র!!!
ক্যালকুলেটরের চেয়ে হাতি বড়!! দুনিয়া বড়ই বিচিত্র!!

আরেক প্রকারের স্ট্যাটাস আছে ওইটারে বলে বুদ্ধিজীবি স্ট্যাটাস।এটা নিয়া লেখতে গেলে কয়েক ঘন্টার কাম।বুদ্ধিজীবিগনের স্ট্যাটাসও বুদ্ধিতে ভরপুর।তাই এগুলো বুজতে মাঝে মাঝে প্রচুর বুদ্ধির প্রয়োজন হয়।বিচিত্র পৃথিবীতে এখন বুদ্ধির সংকট চলতেছে।তাই বুদ্ধিজীবি স্ট্যাটাস নিয়া তাই গবেষনা হইব পরে।আজকের গবেষনা এইখানেই শেষ।ভাল থাকেন আর ভাল ভাল স্ট্যাটাস দেন...........................।


বি দ্রঃ মিইল্যা গেলে কাকতাল।।


 

লেখাটির বিষয়বস্তু(ট্যাগ/কি-ওয়ার্ড): দুনিয়া বড়ই বিচিত্র!! ;
সর্বশেষ এডিট : ০৯ ই নভেম্বর, ২০১০ সকাল ১০:১৫ | বিষয়বস্তুর স্বত্বাধিকার ও সম্পূর্ণ দায় কেবলমাত্র প্রকাশকারীর...

 


মন্তব্য দেখা না গেলে - CTRL+F5 বাট্ন চাপুন। অথবা ক্যাশ পরিষ্কার করুন। ক্যাশ পরিষ্কার করার জন্য এই লিঙ্ক গুলো দেখুন ফায়ারফক্স, ক্রোম, অপেরা, ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার

৫০টি মন্তব্য

 

সকল পোস্ট     উপরে যান

সামহোয়‍্যার ইন...ব্লগ বাঁধ ভাঙার আওয়াজ, মাতৃভাষা বাংলায় একটি উন্মুক্ত ও স্বাধীন মত প্রকাশের সুবিধা প্রদানকারী প্ল‍্যাটফমর্। এখানে প্রকাশিত লেখা, মন্তব‍্য, ছবি, অডিও, ভিডিও বা যাবতীয় কার্যকলাপের সম্পূর্ণ দায় শুধুমাত্র সংশ্লিষ্ট প্রকাশকারীর...

 

© সামহোয়্যার ইন...নেট লিমিটেড | ব্যবহারের শর্তাবলী | গোপনীয়তার নীতি | বিজ্ঞাপন