somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

এই পোস্টটি লেখক নিজে সরিয়ে ফেলেছেন, বিস্তারিত জানতে পোস্টটির লেখকের সাথে যোগাযোগ করুন।

আলোচিত ব্লগ

শেখ হাসিনার নতুন ব্যর্থ প্রজেক্ট, তারেক জিয়াকে দেশে ফেরত আনা

লিখেছেন চাঁদগাজী, ২২ শে এপ্রিল, ২০১৮ সন্ধ্যা ৬:৫৪


News on Tareq Zia

তারেক জিয়াকে কি দেশে আনা সম্ভব? না, পুরোপুরিই অসম্ভব: বেগম জিয়া জেলে আছেন, লন্ডনে তারেকের পরিবার আছে, অপরিণত বয়স্ক মেয়ে আছে, জামাতের বিশাল শিকড় আছে,... ...বাকিটুকু পড়ুন

ব্লগাররা ফিরে আসুন

লিখেছেন সম্রাট ইজ বেস্ট, ২২ শে এপ্রিল, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:০৮



খুব দুঃখ নিয়ে লিখছি। ব্লগে যোগ দেয়ার পর থেকে জানামতে কারো সাথে মনোমালিন্য হয়নি। একআধটু ঠোকাঠুকি হয়ত হয়ে থাকতে পারে তবে সেটা... ...বাকিটুকু পড়ুন

এই হলো অবস্থা

লিখেছেন রাজীব নুর, ২২ শে এপ্রিল, ২০১৮ রাত ৮:৫৮



১। প্রতিদিন অফিস থেকে ফিরে মার সাথে কিছুক্ষন গল্পগুজব করি। একদিন মার সাথে গল্পগুজব না করলে মা গাল ফুলিয়ে থাকে।
সেদিন মাকে বললাম, সুরভি খুব বিপদে পড়েছে। বুয়া... ...বাকিটুকু পড়ুন

হতে চাই তোরই সঙ্গিনী

লিখেছেন নীলপরি, ২২ শে এপ্রিল, ২০১৮ রাত ৯:১৪





ছবির শিল্পী - Eszra Tanner



মেঘ, একটু ধীরে চল
পিপাসার্ত চাতকের মতো প্রতীক্ষমণা
তোর ছায়া ধরবো হাতে
তুই একটুখানি গল্প শোনা
ঘুম ভাঙা এই প্রভাতে!


টলটলে দীঘি-জলে কেনো ফেললি
তোর... ...বাকিটুকু পড়ুন

প্রেমিক হতে হলে

লিখেছেন শিখা রহমান, ২৩ শে এপ্রিল, ২০১৮ দুপুর ১:৪৭



জানি প্রেমিক হতে হলে দামাল হতে হয়,
ঝড়োয়া হাওয়ার মতো দমকা, বৃষ্টির মতো তুমুল।
মনের বাঁ দিকে থাকতে হয় আরেকটা কল্পতরু মন;
ঝাকড়া চুলে স্বর্ণ চাপার গন্ধ,
বুকে নীল আকাশের... ...বাকিটুকু পড়ুন

নির্বাচিত ব্লগ

কৃষ্ণচূড়া, রাধাচূড়া ও কনকচূড়া বিতর্ক

লিখেছেন পগলা জগাই, ২৩ শে এপ্রিল, ২০১৮ দুপুর ১:৫৮

আমাদের অনেকেই কৃষ্ণচূড়া ও রাধাচূড়া ফুল দুটিকে গুলিয়ে ফেলেন। আবার কেউ কেউ মনে করেন -
“যে কৃষ্ণচূড়া ফুলের রং লাল সেটির নাম কৃষ্ণচূড়া”, আর
“যে কৃষ্ণচূড়া ফুলের রং হলুদ সেটির নাম রাধাচূড়া”।
আবার অনেকে কনকচূড়াকে মনে করেন রাধাচূড়া।


যদিও কনকচূড়া দেখতে রাধাচূড়া বা কৃষ্ণচূড়া কোনটার মতই নয়। আসলে তিনটি ফুলই আলাদা আলাদা ফুল।


কৃষ্ণচূড়ার বৈজ্ঞানিক নাম - Delonix regia
রাধাচূড়ার বৈজ্ঞানিক নাম - Caesalpinia pulcherrima
কনকচূড়ার বৈজ্ঞানিক নাম - Peltophorum pterocarpum



কৃষ্ণচূড়া চেনার উপায় :


কৃষ্ণচূড়া গাছ সবাই চেনে, নতুন করে চেনানোর কিছু নেই। শুধু যেখানে ভুল হয় সেটা হচ্ছে ফুলের রং দেখে তাকে কৃষ্ণচূড়া থেকে রাধাচূড়ায় ঠেলে দিয়ে। এখানে মনে রাখতে হবে ফুলের... ...বাকিটুকু পড়ুন

মন মগজে যখন পারভারসন

লিখেছেন বেচারা, ২৩ শে এপ্রিল, ২০১৮ দুপুর ১:৪৮

ছদ্মনামে ৬টি সত্যি ঘটনা আগে বলি।
এক;
স্থান-ইডেন কলেজের গেট। একটা পাগল ছিল। সে প্রতিদিন ইডেনের গেটে দাড়িয়ে থাকত। তার টার্গেট থাকত নরম সরম দেখতে মেয়েরা। এমন কাউকে বের হতে দেখলেই সে দৌড়ে যেত। কাছে গিয়েই লুঙ্গীর খুট ধরে বলত, “আপা, একটা জিনিস দেখবেন?” অমনি মেয়েরা লজ্জায়/আতঙ্কে দৌড়ে পালিয়ে যেত। এটাই ছিল পাগলের আনন্দ। গল্পের একটা দ্বিতীয় অংশ আছে। সেটা শেষে বলব।

দুই;
স্থান-খিলগাও। অনিন্দ্য তার স্ত্রী দীপান্বিতাকে নিয়ে একটি এপার্টমেন্ট বাড়ির এ্যাটিকের ঘরে থাকে। টোনাটুনির সংসার। কোনো এক হেমন্তের বিকেলে অনিন্দ্য বাসার ছাদে দাড়িয়ে কাছেই মাঠে বাচ্চাদের খেলা দেখছে। দীপান্বিতা রান্নাঘরে তার জন্য পাকোড়া ভাজছে। ভাপসা গরমে তার গায়ে হালকা পোষাক।... ...বাকিটুকু পড়ুন

ছুটি নিয়ে কাড়াকাড়ি

লিখেছেন সোহেল চৌধুরী, ২৩ শে এপ্রিল, ২০১৮ দুপুর ১:৩২


আগামী ২৬ এপ্রিল ২০১৮, রোজ বৃহস্পতিবার। সরকারি চাকরিজীবি জন্য বিশেষ অফার। বৃহস্পতিবার ঝড় বৃষ্টি উপেক্ষা করে কোনো ভাবে অফিসে পৌছাতে পারলেই পাবেন বিশেষ ছুটির অফার! অফিসে গিয়ে হাজিরা কার্ড পান্স করলে অফিস হয়ে গেলো। এর গল্প ও চা দুপুরের খাবার তো বেশ বেজে গেলে বেলা তিনটা। এখন শুধু বিভিন্ন জায়গায় বন্ধু বান্ধবদের ফোন কখন বের হচ্ছি অফিস থেকে, আমি তো এই বাসে কিংবা এই ট্রেনে বা লঞ্চে বাড়ি যাবো। তুই বের হবি নাকি?
হবো মানে তোর ভাবি কে সকালে পাঠালাম। আমি একভাবে যেতে পারবো। এভাবে বলতে বলতে অফিসের মাঠ ফাঁকা সন্ধ্যার পরে দেখা যাবে ঢাকার তিন চাকার রাস্তা ফাঁকা।

শুক্র শনি... ...বাকিটুকু পড়ুন

ফুলের কানে গুনগুন

লিখেছেন মিথী_মারজান, ২৩ শে এপ্রিল, ২০১৮ সকাল ১১:৩৭



অভিমানী প্রিয় ফুল,
তোমরা কি ভুলে গেছো আমার ঠিকানা? সেই যে ধুলায় লুটানো এত্তগুলো গোলাপ! হ্যাঁ, তোমাদের সাথেই কথা বলছি। তোমাদের দীর্ঘশ্বাসেই কি অভিশপ্ত আমার বাতাস? আচ্ছা, বলো তো! -
গোধূলীর নিঃস্তব্ধ রাস্তায় আচমকা কোন ছেলে পথ রুখে দাঁড়ালে ভয়ে বুঝি কিশোরীর বুক কাঁপে না!
ধুর ছাই! সেই ভীতুর ডিম কিশোরটাও তো হাতের মুঠোয় তোমাদেরকে গুঁজে দিয়ে একলাফে দৌঁড়ে পালালো!
তো, সে কি সাঁঝ বেলার ভুত নাকি হৃদয়ে প্রেম লুকানো প্রেমিক, এত কম সময়ে কে-ই বা চিনবে বলো?
মুখটাইতো দেখা হয়নি সেদিন। শুধু মনে আছে ছোট্ট একটু আলতো হাতের স্পর্শ আর বুকের ভেতর বিদ্যুৎ চমকের মতো মৃদু একটা কাঁপন!
ওমা! হৃদ কাঁপন থামার... ...বাকিটুকু পড়ুন

আই-ফ্রেন্ড

লিখেছেন সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই, ২৩ শে এপ্রিল, ২০১৮ রাত ১২:১২

কলিংবেল টিপতেই ইমু ভাবী এসে দরজা খুলে দিল। একগাল মিষ্টি হাসি ছড়িয়ে দিয়ে সে বলে উঠলো, শাহিদ ভাইয়া, আপনি এতদিন পরে? ... ইশ, আপনার কথা কদিন ধরে আমার এত মনে পড়ছিল... জানেন, পরশু রাতে আপনাকে স্বপ্নে দেখেই আমার মনটা খুব খারাপ হয়ে গেল।
কী এমন খারাপ স্বপ্ন সে দেখেছিল তা জিজ্ঞাসা করলো না। প্যান্টের পকেট থেকে ক্যান্ডিগুলো বের করে ইমু ভাবীর দিকে হাত বাড়িয়ে দেয়, ভাবী যেন আগেই এটা জানতো, ঠিক সেভাবেই হাত বাড়িয়ে অতি সহজাতভাবে ও-গুলো সে মুঠোয় তুলে নেয়।
বসছেন না কেন? বলেই শাহিদের দিকে একটা চেয়ার এগিয়ে দেয়।
বসবো না। এ কথা বললেও শাহিদ চেয়ারের সামনে গিয়ে অলসভাবে বসে... ...বাকিটুকু পড়ুন