somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

কম্পিউটারের গতি বাড়ানোর ৫ উপায় !!!!!!

২৮ শে জানুয়ারি, ২০১৩ সকাল ১০:৩৪
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :

কম্পিউটারটির কাজের গতি কমে গেলে সেটি মাথা ব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়ায়। কিন্তু সহজেই এড়ানো যায় এই সমস্যা।

গতি বাড়িয়ে নিন স্টার্টআপের
বেশিরভাগ সময় কম্পিউটারের গতি কমে আসার কারণ, কম্পিউটারটি চালু হবার সঙ্গে সঙ্গে একাধিক সফটওয়্যার বা টাস্ক চালু হয়ে যাওয়া। Autoruns-এর মতো টুল ডাউনলোড করে সফটওয়্যারগুলো স্টার্টআপের সময় চালু হয়ে যায়। তবে সবসময় প্রয়োজন পড়েনা এমন সফটওয়্যারগুলো ডিসএবল করে রাখতে পারেন। অথবা ব্যবহার করা যেতে পারে উইন্ডোজের বিল্ট ইন ইউটিলিটি MSConfig। স্টার্টআপ ট্যাবে গিয়ে সার্চ বা রানে টাইপ করুন MSConfig। এরপর আইটিউনস, অব্যবহৃত মেসেঞ্জার বা প্রিন্টারের মতো যে সফটওয়্যারগুলো পিসি চালু হবার সঙ্গে সঙ্গেই প্রয়োজন হয়না, টিক চিহ্ন উঠিয়ে দিন সেগুলোর ওপর থেকে। এরপর পিসি রিস্টার্ট করলে সেগুলো নিজে নিজে চালু হবে না। ফলে কিছুটা বাড়বে এর গতি।

বেছে নিন প্রয়োজনীয় সফটওয়্যার
ইন্টারনেট সার্ফিং যদি খুব ধীরগতির হয়, কয়েকটি সহজ পরিবর্তন এ সমস্যার সমাধান করতে পারে। ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার ব্যবহার করলে তার বদলে গুগল ক্রোম ব্যবহার করুন। দ্রুত গতির সার্ফিং সুবিধার কারণে জনপ্রিয়তা পেয়েছে গুগলের ব্রাউজারটি। ক্রোম সেটিংস থেকে ‘ক্লিয়ার ব্রাউজিং ডেটা’য় যান এবং কুকি, ক্যাশ, ব্রাউজিং হিস্ট্রি এবং ডাউনলোড হিস্ট্রির মতো টেম্পোরারি ইন্টারনেট ফাইলগুলোর ওপর টিক দিন।

এছাড়াও ব্যবহার করতে পারেন পিরিফর্মের সফটওয়্যার CCleaner। সফটওয়্যারটি ব্রাউজার, উইন্ডোজ এবং রেজিস্ট্রির সব টেম্পোরারি ফাইল মুছে ফেলে গতি বাড়িয়ে দেবে আপনার কম্পিউটারের।

আনইনস্টল করুন অপ্রয়োজনীয় সফটওয়্যার
অব্যবহৃত সফটওয়্যারগুলো আনইনস্টল করলে চাপ কমবে আপনার পিসির ওপর। উইন্ডোজ মিডিয়া প্লেয়ারের মতো সফটওয়্যারগুলো চালাতে প্রয়োজন হয় অনেক বেশি কম্পিউটিং ক্ষমতার। এ ধরনের সফটওয়্যারগুলো ব্যবহার না করলে আনইনস্টল করে দিতে পারেন। বিকল্প হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন বিভিন্ন ওপেন সোর্স ফ্রি অ্যাপ্লিকেশন, যা কম্পিউটারের র্যাামের ওপর কম চাপ সৃষ্টি করে।

ব্যবহার করা যেতে পারে ভিএলসি মিডিয়া প্লেয়ার। ওপেন সোর্স মিডিয়া প্লেয়ারটি ডিভিডি রিপ করে এবং প্রায় সব ফরম্যাটের মিডিয়া ফাইল চালাতে পারে। অ্যাডোবি রিডারের বদলে ব্যবহার করতে পারেন FoxIt Reader যা অ্যাডোবি রিডারের তুলনায় কম র্যা ম ব্যবহার করে। মাইক্রোসফট অফিসের বিকল্প হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন ওপর সোর্স ওয়ার্ড প্রসেসর AbiWord এবং অ্যাপাচির Open Office।

চালু করে দিন অটোম্যাটিক আপডেট
সফটওয়্যার আপডেট নোটিফিকেশন সামনে আসলেই আলসেমি করে ‘রিমাইন্ড মি লেটার’ ক্লিক করা যেনো একরকম অভ্যাসেই পরিণত হয়েছে আমাদের। রিমাইন্ড মি লেটারে চাপতে চাপতে কম্পিউটারের গতি এতোটাই কমে আসে যে, শেষ পর্যন্ত পুরো একটি দিনই পার করতে হয় সফটওয়্যার আপডেট করতে গিয়ে। পুরো একদিন সফটওয়্যার আপডেট করে কাটানো এড়াবার সহজ উপায় হচ্ছে সফটওয়্যার আপডেটগুলো অটোম্যাটিক করে দেয়া।

মাই কম্পিউটারের প্রপার্টিজ থেকে চলে যান অটোম্যাটিক আপডেট অপশনে। নিশ্চিত করুন প্রয়োজনীয় সফটওয়্যারের আপডেটগুলো যেনো অটোম্যাটিক ডাউনলোড হয়ে ইনস্টল হয়ে যায়। কোনো সফটওয়্যার ম্যানুয়ালি আপডেট করার প্রয়োজন আছে কিনা তা জানতে FileHippo.com থেকে Update Checker সফটওয়্যারটি ডাউনলোড করে ব্যবহার করতে পারেন। সফটওয়্যারটি আপনার কম্পিউটার স্ক্যান করে কোনো সফটওয়্যারের আপডেট অনলাইনে আছে কিনা তা জানিয়ে দেবে মুহ‚র্তের মধ্যে।

প্রয়োজনে আপগ্রেড করুন হার্ডওয়্যার
কম্পিউটারের গতি বাড়ানোর কার্যকর উপায়গুলোর একটি হচ্ছে গ্রাফিক্স কার্ড ব্যবহার। আলাদা গ্রাফিক্স কার্ড কিনে মাদারবোর্ডে ব্যবহার একটু জটিল হলেও গতি বাড়ানোর উপায়গুলোর একটি এটি। কম্পিউটারের গতি বাড়ানোর আরেকটি কার্যকর উপায় হচ্ছে র্যা ম বাড়িয়ে নেয়া। র্যালন্ডম অ্যাকসেস মেমোরি বা র্যািমের ক্ষমতা বাড়ালে গতি বাড়বে আপনার কম্পিউটারের।

সফটওয়্যার ডাউনলোডের জন্য সবসময় ডাউনলোড ডটকমhttp://download.cnet.com/ বা এ ধরনের নির্ভরযোগ্য সাইট ব্যবহার করুন।

তবে, যারা সফটওয়্যার ইনস্টলসহ কম্পিউটারের বিভিন্ন অপশন নিয়ে কাজ করেছেন তেমন অভিজ্ঞতা থাকলেই কেবল আলোচিত পদ্ধতিগুলো ব্যবহার করে দেখতে পারেন। নইলে যে কোনো ভুল আপনার ঝামেলাই কেবল বাড়াবে।
৩টি মন্তব্য ২টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

বিদ্রোহী নজরুল

লিখেছেন প্রামািনক, ২৬ শে মে, ২০১৫ সকাল ১০:৩৪


শহীদুল ইসলাম প্রামানিক

ডানপিটে এক তরুণ যুবক
ঝাঁকড়া মাথার চুল
কবিতা কণ্ঠে ক্ষুরধার বানী
বিদ্রোহী নজরুল।

জেল জুলুমের ছিলনাকো ভয়
ভীম ভাসমান মাইন
ব্রিটিশ রাজের তোয়াক্কা করেনি
মানেনিকো কোন আইন।

জেল জুলুমে দিন কেটেছে
নোয়ায়নি মাথা কভু
অত্যাচারেও লেখনি লিখেছে
কলম... ...বাকিটুকু পড়ুন

স্মৃতির এলবাম থেকে ----- ৩ (ফটোব্লগ)

লিখেছেন কামরুন নাহার বীথি, ২৬ শে মে, ২০১৫ সকাল ১১:২৭

ভালবাসি সবুজ বনানী, নদি পাহাড়, সাগর, জনপদের ছবি তুলতে। সে দেশেরই হোক, বা বিদেশের। বিষয় পেলে মনের আনন্দে ছবি তুলে যাই। আমি ফটোগ্রাফী জানি না। যা চোখে ভাল লাগে, সেগুলোকে... ...বাকিটুকু পড়ুন

মধ্যপ্রাচ্য প্রবাসীদের বিয়ে বিড়ম্বনা !

লিখেছেন ইছমাইল, ২৬ শে মে, ২০১৫ দুপুর ১২:০৮


ছেলের শিক্ষাগত যোগ্যতা কি? কি করে? মেয়ের বাবার ছুড়ে দেয়া প্রশ্নে ছেলে পক্ষের জবাব ছিলো বিএ পাস, দুবাইতে প্রাইভেট কোম্পানিতে জব করে। মেয়ের বাবার এক কথা আর যা হোক এমন... ...বাকিটুকু পড়ুন

"বৈচিত্রময় জোনাকি পোকার সাত কাহন"

লিখেছেন সাহসী সন্তান, ২৬ শে মে, ২০১৫ দুপুর ১২:৪৫

এই লেখাটি এর আগেও একবার আমি পোস্ট করেছিলাম, কিন্তু তখন আমি ব্লগ পর্যবেক্ষনে থাকার কারনে আমার এই পোস্টটি প্রথম পাতাতে স্থান পায়নি। তাই আমার ব্লগের বন্ধুদেরকে একটা সম্পূর্ন নতুন... ...বাকিটুকু পড়ুন

আমার দুই বার সাক্ষাত মৃত্যু থেকে ফিরে আসার কাহিনী !

লিখেছেন আবদুর রব শরীফ, ২৬ শে মে, ২০১৫ দুপুর ১২:৪৭

জোঁকের উপর লবন ছিটালে কোন পয়দা নেই, সে উল্টো যা খেয়েছে সাথে তার বদ রক্তগুলো আপনার শরীলে বমি করে দিবে, নিজেও মরবে আপনাকেও অসুস্থ করে ছাড়বে, সব চেয়ে ভালো উপায়... ...বাকিটুকু পড়ুন

অবহেলিত এক আইনের ফোঁকরে ক্ষতিকারক প্লাস্টিক ব্যাগ

লিখেছেন কান্ডারি অথর্ব, ২৬ শে মে, ২০১৫ দুপুর ১:০৬




১৮৫২ সালে আলেকজান্দার পার্ক নামের এক উদ্ভাবক নাইট্রো-সেলুলোজ, প্লাস্টিসাইজার ও অন্য দ্রাবক পদার্থের মিশ্রণে প্লাস্টিক তৈরি করার পর থেকে আজ অবধি তৈরিকৃত কোনো প্লাস্টিকই পঁচে বা নষ্ট হয়ে যায়নি।... ...বাকিটুকু পড়ুন