somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

আপনি যে পোস্টটি খুঁজছেন, এই পোস্টটি পাওয়া যায়নি...

আলোচিত ব্লগ

আমাকে যেভাবে বরখাস্ত করা হয়েছিল : ব্রিগেডিয়ার আমান আল আযামী( আ লীগের গায়ের জোরের নমুনা)

লিখেছেন ফাহাদ ইবনে মুরতাযা, ০৪ ঠা জুলাই, ২০১৫ বিকাল ৪:৩৯





গত ২৪শে জুন ছিল আমার চাকুরীচ্যুতির ৬ বছর পুর্তি। দিনটি আমার জীবনের সবচেয়ে কস্টকর দিনগুলোর একটি। আমার লেখা সেই স্মৃতিচারণমূলক লেখার মধ্যে আমার “বরখাস্ত” নিয়ে একটি অধ্যায়... ...বাকিটুকু পড়ুন

কেমন আছি?

লিখেছেন শহুরে আগন্তুক, ০৪ ঠা জুলাই, ২০১৫ রাত ১২:৩৬

মধ্যবয়সী ডাক্তার সাহেব হাসি মুখে প্রশ্ন করলেন - " কেমন আছেন? "

অতি স্বাভাবিক এ প্রশ্নে আমি একটু থমকে যাই । ডাক্তাররা সাধারণত কোষ্ঠকাঠিন্যে ভোগা চেহারায় জিজ্ঞাস করেন - " কি... ...বাকিটুকু পড়ুন

রিক্সাওয়ালার বেটা

লিখেছেন প্রামািনক, ০৪ ঠা জুলাই, ২০১৫ রাত ১:৩৭


শহীদুল ইসলাম প্রামানিক

রিক্সাওয়ালার বেটা নাকি
পাশ করেছে এম এ
চাকরির জন্য ঘুরতে ঘুরতে
উঠছে নাকি ঘেমে!

পাশ করাটা যতই সহজ
চাকরী কি আর সোজা?
এখন নাকি ওই ছেলেটা
রিক্সাওয়ালার বোঝা!

অফিসারের চাকরির জন্য... ...বাকিটুকু পড়ুন

ধন্যবাদ, আবার আসবেন

লিখেছেন হাসান মাহবুব, ০৪ ঠা জুলাই, ২০১৫ ভোর ৬:২৭



(০)
ডিং ডং! কলিংবেলটা বেজে উঠলো। ববি তখন দুপুরের খাবার শেষ করে বিছানায় একটু গড়িয়ে নিচ্ছে কেবল। বাসায় কেউ নেই। কে আসতে পারে এই ভরদুপুরে? বিরক্তিতে ভ্রু কুঁচকিয়ে বিছানা... ...বাকিটুকু পড়ুন

কত কিছু জানি নারে ? পাঠক নিজ দায়িত্বে হজম করিবেন-৭

লিখেছেন প্লাবন২০০৩, ০৪ ঠা জুলাই, ২০১৫ সকাল ১১:৪২

এবারের পোস্টটি আমাদের দৈনন্দিন জীবনের নোংরামি নিয়ে, মানে নোংরা স্থান আর নোংরা জিনিসপত্র নিয়ে ।


পাঠককে যদি বলা হয় যে আমাদের দৈনন্দিন জীবনে সবচেয়ে বেশী জীবাণূপূর্ণ নোংরা স্থান আর নোংরা... ...বাকিটুকু পড়ুন

কবিতা: নির্বোধের দল।

লিখেছেন সুমন কর, ০৪ ঠা জুলাই, ২০১৫ দুপুর ১২:৪৫



তুমি ছুটি নিয়ে গেছো, ওপারে
আর আমি, ভেসে যাচ্ছি মিথ্যের সংসারে।
প্রতিদিন সকাল হয়, বিকেল ও আসে নিয়ম করে
ন'টা-পাঁচ'টার অফিস সেরে, ফিরে আসি শূন্য ঘরে।

আলমারি ঘেটে পুরোনো স্মৃতি নিয়ে বসি
ধূসর অ্যালবামগুলো... ...বাকিটুকু পড়ুন

নির্বাচিত ব্লগ

প্রসঙ্গ শিক্ষার উপর ভ্যাট ও প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় Vs পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়

লিখেছেন দ্বীন মুহাম্মদ সুমন, ০৪ ঠা জুলাই, ২০১৫ রাত ৯:০২

সবার আগে আসি যে, বিশ্ববিদ্যালয় আসলে কি ... প্রাচীনকালে যখন বিশ্ববিদ্যালয়ের মত কোন ইন্সটিটিউট সমাজে ছিল না ... সেই হাজার বছর আগে সক্রেটিস, এরিস্টটল বা ডারউইনদের যুগে, উনাদের মত পণ্ডিত ব্যক্তিদের লোকে সম্মান করত ... অনেকেই তাদের শিষ্যত্ব গ্রহণ করত ... উনারা দিনের কিছু সময় শিষ্যদের জ্ঞান বিতরণ করতেন বা শিক্ষা দিতেন ... আর বাকি সময়টা নিজ নিজ গবেষণায় ব্যস্ত থাকতেন ...

.

এই ধারণাই আধুনিক কালে বিশ্ববিদ্যালয় ধারণার জন্ম দেয় ... শুধু ছাত্র পড়ানো যেমন, সেই সব প্রাচীন পণ্ডিতদের প্রধান কাজ ছিল না ... ঠিক সেই রকম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান কাজ কিনতু শুধু ছাত্র-ছাত্রীদের পড়িয়ে গ্রাজুয়েট, আন্ডার গ্র্যাজুয়েট তৈরি করা আর... ...বাকিটুকু পড়ুন

রাষ্ট্র ও আমার লুকোচুরি

লিখেছেন আফসানা যাহিন চৌধুরী, ০৪ ঠা জুলাই, ২০১৫ বিকাল ৫:৪৬

মাধ্যমিকে অর্থনীতি পড়বার সময় “কর” এর প্রকারভেদ পড়েছিলাম- প্রত্যক্ষ আর পরোক্ষ । পরোক্ষ করের সংজ্ঞা পড়ে কিছু বুঝিনাই, উদাহরণ পড়ে বুঝলাম, ভ্যাট নামক জিনিষটা একধরণের পরোক্ষ কর । তারপর আবার সংজ্ঞার সাথে মিলিয়ে দেখলাম, হ্যাঁ, এবার বুঝলাম, যে কর আরোপ করা হয় উৎপাদক বা ব্যাবসায়ীর উপর, কিন্তু মূলত তার দায় বহন করে (অর্থাৎ করটা মূলত পরিশোধ করে ) ভোক্তা!
ব্যাখ্যাটা এরকম যে, ব্যাবসায়ীকে ভ্যাট এর জন্য তার লাভের যে অতিরিক্ত অর্থ রাষ্ট্রকে দিতে হয়, সেটা সে দিতে অনিচ্ছুক থাকে, তাহলে তার লাভ কমে যায় তাই । তখন সে হয় পণ্যের মূল দাম বাড়িয়ে দেয়, নতুবা, ভ্যাট এর অতিরিক্ত অর্থ... ...বাকিটুকু পড়ুন

কালীতলার পেতনি : আহমদ নাদিম কাসমি (অনুবাদ গল্প)

লিখেছেন মনযূরুল হক, ০৪ ঠা জুলাই, ২০১৫ বিকাল ৩:১০


হ্যাঁ, এটা ঠিক যে, ঘটনাটা একেবারেই অশ্রুতপূর্ব বিস্ময়কর । কিন্তু এটাও তো মানতে হবে যে, কখনো কখনো এমন কিছু বিস্ময়কর ঘটনা সত্যও হয়ে থাকে । এ হলো গিয়ে এক নেংটা পেতনির ঘটনা ।

সে দিনভর ঘন বর্ষায় ভিজে ভিজে পানির নালার ভেতর চকমকি পাথর খোঁজে । আর রাতভর সেই পাথর মুঠির মধ্যে নিয়ে নূপুরের মতো ঘুঙুর ঘুঙুর বাজায় । পাথরের ঘর্ষণে যেই না জোনাকির মতো একটু আগুনের ফুলকি ছিটকে বেরিয়ে আসে, অমনি তার সে কি উচ্ছ্বাসের হাসি ! একবার সে হাসি শুরু হলে আর থামে না, কমেও না, একটু একটু করে বাড়তেই থাকে । বিজলির মতো থেকে থেকে আসা সে... ...বাকিটুকু পড়ুন

রেমাক্রি খালের বাকে বাকে : একটি ছবি ব্লগ

লিখেছেন সাইবার অভিযত্রী, ০৪ ঠা জুলাই, ২০১৫ দুপুর ২:৪০

কবিতা: নির্বোধের দল।

লিখেছেন সুমন কর, ০৪ ঠা জুলাই, ২০১৫ দুপুর ১২:৪৫



তুমি ছুটি নিয়ে গেছো, ওপারে
আর আমি, ভেসে যাচ্ছি মিথ্যের সংসারে।
প্রতিদিন সকাল হয়, বিকেল ও আসে নিয়ম করে
ন'টা-পাঁচ'টার অফিস সেরে, ফিরে আসি শূন্য ঘরে।

আলমারি ঘেটে পুরোনো স্মৃতি নিয়ে বসি
ধূসর অ্যালবামগুলো যেন, কথা বলে ওঠে
বেহালায় বেজে যাওয়া বিষাদ সুর, নীরবে শুনি
বোবা আর্তনাদ অনেক জমেছে এ বুকে।

চাইলেই কি, ভুলে থাকা যায় স্মৃতি !
আমি এখনোও যে, একলা তোমায় খুঁজি।

আর কত, যুদ্ধ করা যায় নিজের সাথে
দেয়াল ঘড়ির কাঁটা কি, আজকাল ধীরে চলে ?
রঙিন ক্যালেন্ডারের পাতা উল্টিয়ে বয়সের হিসেব বাড়ে
দাঁড়াও তুমি, আসছি আমি তোমার সাথে চলতে।

ওরা ভাবে, আমি নাকি তোমায় ভুলে গেছি !
বলো, এটা ও কি সম্ভব ?
যত সব নির্বোধের দল।।
...বাকিটুকু পড়ুন