somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

মুরতাদ ও তার শাস্তি

০২ রা অক্টোবর, ২০১৪ রাত ১২:১৬
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :

মুরতাদ : যে ব্যক্তি ইসলামকে মেনে নেয়ার পর তা পরিত্যাগ করে কিংবা ঈমানের কোন নীতিকে মৌখিকভাবে অস্বীকার করে অথবা ঈমানের পরিপন্থী এমন কোন কার্য করে যাতে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিকে মুসলমান বলে বিশ্বাস করা যায় না। যেমন, ইসলামের কোন মূল বিষয়কে নিয়ে কটাক্ষ করা, আল্লাহ ও মহানবী (সা.)-কে গালি প্রদানকারী, তাঁর বিরুদ্ধে অপবাদ রটনাকারী, হারামকে হালাল জ্ঞানকারী, নবুওয়াতের দাবীদার বা দাবীদারের সমর্থনকারী সকলেই মুরতাদ।
শাস্তি : মুরতাদ ব্যক্তিকে সন্দেহ সংশয় দূর করে সংশোধনের জন্য তিনদিনের সময় দেয়া হবে। যদি সে এ সময়ের মধ্যে তওবা করে খাঁটি মুসলিম হবার প্রতিশ্র“তি ব্যক্ত করে তাহলে তার প্রতিশ্র“তি গ্রহণ করে তাকে মুক্তি দিতে হবে। আর যদি সে তার সিদ্ধান্তে অটল থাকে তাহলে তার শাস্তি মৃত্যুদণ্ড। মুরতাদ পুরুষ কিংবা মহিলা যেই হোক না কেন সবার জন্যই মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করতে হবে। এ ব্যাপারে অধিকাংশ আলেম একমত। তবে ইমাম আবূ হানীফা (র.) মুরতাদ মহিলার মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করার চেয়ে তাকে বন্দী করে রাখার পক্ষে মত দিয়েছেন। মুরতাদ ব্যক্তি সংশোধনের জন্য দেয়া তিনদিন সময়ের মধ্যে মারা গেলে চির জাহান্নামী হবে।
মৃত্যুদণ্ডের ব্যাপারে কুরআনে বলা হয়েছে, “যারা আল্লাহ ও তদীয় রাসূলের বিরুদ্ধে লড়াই করে এবং দেশে বিশৃংখলা ও নৈরাজ্য সৃষ্টিতে তৎপর হয়, তাদের শাস্তি এই যে, তাদেরকে হত্যা করা হবে অথবা শূলে চড়ানো হবে অথবা বিপরীত দিক হতে তাদের হাত ও পা (ডান হাত,বাম পা) কর্তন করা হবে অথবা তাদেরকে দেশ হতে নির্বাসিত করা হবে। পার্থিব জীবনে এটা তাদের জন্য অবমাননা আর আখিরাতে তাদের জন্য রয়েছে মহাশাস্তি। অবশ্য যারা তাদের উপর কাবু হবার পূর্বেই তওবা করবে তাদের কথা স্বতন্ত্র। জেনে রাখ, নিশ্চয় আল্লাহ পরম ক্ষমাশীল ও পরম দয়ালু” (মায়িদা : ৩৩-৩৪)।
মুরতাদের উপর এমন কিছু বিধানও প্রযোজ্য হয় যা হতে তার প্রাণদণ্ডও তাকে রক্ষা করতে পারে না। যেমন : তার জানাযার নামায পড়া হবে না, তার যাবতীয় ইবাদাত বিনষ্ট হয়ে যাবে এবং আখিরাতে তার কোন ইবাদাতের প্রতিদান পাবে না। আল্লাহ বলেন, “ঈমান আনয়ন ও রাসূলকে সত্য বলে সাক্ষ্য দেয়ার পর এবং তাদের নিকট স্পষ্ট নিদর্শন আসার পর যে স¤প্রদায় সত্য প্রত্যাখ্যান করে, তাকে আল্লাহ কিভাবে সৎ পথে পরিচালিত করবেন? আল্লাহ যালিম স¤প্রদায়কে সৎ পথে পরিচালিত করেন না। তাদের কর্মফল এই যে, তাদের উপর আল্লাহ, ফেরেশতাগণ ও মানুষ সকলেরই অভিসম্পাত। তারা জাহান্নামে স্থায়ী হবে। তাদের শাস্তি লঘু করা হবে না এবং তাদেরকে বিরামও দেয়া হবে না। তবে যারা এর পর তওবা করে এবং নিজেদেরকে সংশোধন করে লয় তারা ব্যতিরেকে। আল্লাহ ক্ষমাশীল পরম দয়ালু" (অলে ইমরান : ৮৬-৮৯)।
০টি মন্তব্য ০টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

বন্যায় প্লাবিত কুড়িগ্রাম; জনজীবনে দুর্ভোগ

লিখেছেন আরাফাত আবীর, ১৮ ই জুলাই, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:০২

কুড়িগ্রাম; যে জেলাকে দেশের সবচেয়ে দরিদ্র জেলা বলা হয়। দেশের আর কোথাও এখন 'মঙ্গা' কার্যক্রম দেখা না গেলেও, এখানে 'মঙ্গা' কার্যক্রম প্রতিবছর চালু থাকে। এখানকার মানুষদের এখনো শুনতে হয়, 'আরে!... ...বাকিটুকু পড়ুন

রাস্তায় পাওয়া ডায়েরী থেকে-১০১

লিখেছেন রাজীব নুর, ১৮ ই জুলাই, ২০১৯ রাত ৯:৫১



১। বাংলাদেশ গর্ব করতে পারে এমন একজন লেখক হচ্ছেন- হুমায়ূন আহমেদ। হুমায়ুন আহমেদ এর মৃত্যুর কথা মনে পড়লেই কোত্থেকে যেন এতগুলো কষ্ট এসে জমে বুকে। আমার সবচেয়ে প্রিয়... ...বাকিটুকু পড়ুন

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বর্ণবাদকে উসকে দিচ্ছেন আমেরিকায়

লিখেছেন চাঁদগাজী, ১৮ ই জুলাই, ২০১৯ রাত ১০:৪৫



বহুবর্ণের মানুষের দেশ হিসেবে, বর্তমান বিশ্বে, আমেরিকা সবচেয়ে কম বর্ণবাদী সমাজ; ১৯৬০ সালের পর, এই দেশে বর্ণবাদ দ্রুত সহনশীলতার মাঝে আসে, এবং গত ৪০ বছর বর্ণবাদ... ...বাকিটুকু পড়ুন

ফ্রেমবন্দির গল্প-২

লিখেছেন কাজী ফাতেমা ছবি, ১৯ শে জুলাই, ২০১৯ রাত ১২:১০

©কাজী ফাতেমা ছবি
=ফ্রেমবন্দির গল্প=
গত এপ্রিল মাসে আম্মাকে নিয়ে গিয়েছিলাম ইসলামিয়া ইস্পাহানী চক্ষু হাসপাতাল চোখ দেখাতে। সেখানে চোখ দেখাতে অনেক ঘুরাঘুরি করতে হয়। ফাইল কাগজপত্র এখান থেকে সেখানে, সেখান থেকে ওখানে... ...বাকিটুকু পড়ুন

দ্বিজেন্দ্রলাল রায়ের সাহিত্যকর্ম

লিখেছেন এমজেডএফ, ১৯ শে জুলাই, ২০১৯ ভোর ৫:৩৮


দ্বিজেন্দ্রলাল রায় (১৯ জুলাই, ১৮৬৩ - ১৭ মে, ১৯১৩) ছিলেন একজন বিশিষ্ট বাঙালি কবি, নাট্যকার ও সংগীতস্রষ্টা। তিনি ডি. এল. রায় নামেও পরিচিত ছিলেন। আজ দ্বিজেন্দ্রলাল রায়ের ১৫৬তম জন্মবার্ষিকী।... ...বাকিটুকু পড়ুন

×