somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

ফেসবুকের রিপোর্ট বাটন ও পদ্ধতিগত ত্রুটিঃ অপব্যবহারে পোস্ট রিমুভ !

২১ শে মে, ২০১৩ রাত ৯:২৩
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :

হুট করেই ফেসবুকে আমার বন্ধুরা বললেন , কে বা কারা যেন তাদের পোস্ট রিমুভ করে দিয়েছে । সাধারনভাবেই আমার ধারনা হয়েছিলো ম্যাসিভ রিপোর্টিং-এর কারনে পোস্ট মুছে দেয়া হচ্ছে । বিশাল ফ্রেন্ডলিস্টের মাঝে অনেককেই দেখলাম 'পোস্ট মুছে দেয়া' নিয়ে বেশ সন্দিহান । অর্থাৎ যিনি দাবী করছেন তার পোস্ট মুছে দেয়া হয়েছে, তিনি নিজেই হয়তো প্রাইভেসী চেইঞ্জ করেছেন অথবা নিজেই মুছে দিয়েছেন ।



কিন্তু সমস্যা হলো আরিফ জেবতিকের পোস্ট খুব দ্রুতই মুছে দেয়া নিয়ে । কিছুদিন আগে তার প্রায় ১০-১২টা পোস্ট দেয়ার সাথে সাথে মুছে যাচ্ছিলো । অনেকেই সন্দেহ প্রকাশ করলেন , এত দ্রুত পোস্ট মুছে যাচ্ছে কি করে । কেননা, সাধারনভাবেই আমরা জানতাম , পোস্টে খুব বেশি রিপোর্টিং হলে তা মুছে দেয়া হয় । কিন্তু পোস্ট দেয়ার দুই থেকে তিন মিনিটের মাঝে এত বেশি রিপোর্টিং করা সম্ভব না যে কারো পোস্ট দিলেই মুছে ফেলা যাবে । এবং শুধু আরিফ জেবতিকই নন , ফেসবুকের আরো অনেকেই এইভাবে পোস্ট রিমভের শিকার হয়েছেন বারবার ।

তাহলে কিভাবে ?

এখানেই হচ্ছে রহস্য । যারা সামহোয়ারিন ব্লগের ব্লগার,তাদের অনেকেই হয়তো অটোমডারেশনের সাথে পরিচিত । নির্দিষ্ট সংখ্যক রিপোর্ট জমা হলে সামহোয়ারিন ব্লগ অভিযুক্ত পোস্ট মুছে দেয় । একই উপায় রয়েছে ফেসবুকেও । কোনো ব্যক্তির নামে নির্দিষ্ট রিপোর্ট করা হলে , নির্দিষ্ট সংখ্যার রিপোর্টের কারনে সেই পোস্ট মুছে দেয়া হয় অটোমেটিক্যালি । এইখানে যা উল্লেখ করতে হবে তা হলো , ফেসবুক বুলিইং (bullying ) বা হয়রানীমূলক ( Harassing ) পোস্টের বিষয়ে খুবই কঠোর এবং এইখানে তাদের অটোমেটেড মডারেশনও কঠোর । আর এইখানেই সব পোস্ট রিমুভের খেলা নিহিত ।

সচিত্র দেখাই তাহলে -
১। প্রথমে দূর্যোধন আইডি দিয়ে একটা পরীক্ষামূলক স্ট্যাটাস দেয়া হলো , যা আরেক আইডি দিয়ে রিমুভ করা হবে ।


(হাই রেজোলুশন ইমেজ -বড় করে দেখুন)
দূর্যোধন আইডি একটি পোস্ট দিয়েছে ''স্ট্যাটাস খাওয়াখাওয়ি করে লাভ কি '' ।

২। এখন আপনি একটি আইডি তৈরী করবেন , যার নাম হবে দূর্যোধনের যেই পোস্ট আপনি রিমুভ করতে চান , তার মাঝ থেকে দুইটি শব্দ নিয়ে । খেয়াল করুন , দূর্যোধনের পোস্টে দেয়া আছে ''স্ট্যাটাস'' ও ''খাওয়াখাওয়ি'' দুইটা শব্দ । এই দুইটা শব্দ দিয়ে আমি একটি আইডি বানালাম । নাম দিলাম ''স্ট্যাটাস খাওয়াখাওয়ি'' ।



ইমেইল হিসাবে যা খুশি তাই লিখে সাইন-আপ ফর্ম ফিল আপ করেন । আমি এখানে statuskhaoya@yahoo.com নামে একটি মেইল আইডি দিয়েছি । এই নামে কোনো ইমেল একাউন্ট নেই । এবং ফেসবুকের সিকিউরিটি দূর্বলতার আরেকটি অংশ হলো এইটা , সঠিক ইমেইল ভেরিফাই না করেও আপনি একাউন্ট চালাতে পারবেন, কাউকে ইনবক্স করে হুমকিও দিতে পারবেন এমনকি রিপোর্ট বাটনের অপব্যবহার করে যে কারো পোস্ট মুছে দিতে পারবেন !

৩। ভুয়া একাউন্টের সব গুলো স্টেপ SKIP করে যান । যখন আপনাকে ফোন ভেরিফিকেশনের কথা বলা হবে , তখন আপনি ফোন ভেরিফিকেশনে যাবেন না । এটাও ফেসবুকের সিকিউরিটিতে আরেকটা দূর্বলতা, যেখানে আপনি নতুন একটি একাউন্টের কোনো ভেরিফিকেশন ছাড়াই অন্য যে কারো একাউন্টে লাইক কমেন্ট শেয়ার বা রিপোর্ট করতে পারেন । ছবিতে বর্নিত স্টেপ পর্যন্ত এসেই আরেকটি ট্যাব খুলুন এবং যেই স্ট্যাটাস বা পোস্ট রিমুভ করতে চান, সেখানে সরাসরি লিংক পেস্ট করুন ।


(হাই রেজোলুশন ইমেজ -বড় করে দেখুন)

৪ । এবার আপনি যেই পোস্ট রিমুভ করতে চান , সেখানে যান । ডান দিকের X (Cross) বাটন খেয়াল করুন । সেটা ক্লিক করলে দেখবেন রিপোর্টের অপশন এসেছে কয়েকটি ।
Is this post about you or your friend ?
yes, this post is about me or a friend
* i don't like this post
*it's harassing me
*it's harassing a friend .

আপনি It's harassing me বাটনে ক্লিক করবেন ।


(হাই রেজোলুশন ইমেজ -বড় করে দেখুন)

৫। এবার আপনি রিপোর্ট বাটন পাবেন । সেখানে রিপোর্ট কমপ্লিট করে বের হয়ে আসুন ।


(হাই রেজোলুশন ইমেজ -বড় করে দেখুন)

৬।

Voila !
পোস্ট রিমুভড হয়ে গেলো !


(হাই রেজোলুশন ইমেজ -বড় করে দেখুন)


হ্যাঁ পাঠক । এতই সহজভাবে ফেসবুকের অটোমডারেশন ব্যবহার করে আপনি যেকারো পোস্ট খেয়ে দিতে পারেন । ফেসবুকের অটোমডারেশনে কেউ যদি দাবী করে It's harassing me এবং ফেসবুক অটোমডারেশন যদি দেখে অভিযোগ/রিপোর্টকারীর আইডির সাথে পোস্টের কন্টেন্টে মিল আছে ,তবে সাথে সাথে তা রিমুভ হয়ে যায় - কোনো অভিযোগ খতিয়ে দেখার সময়ও নেয় না কর্তৃপক্ষ ! এইজন্যই যে কেউ ইছা করলে যে কারো পোস্ট রিমুভ করে দিতে পারে , ফেসবুকের রুলস এন্ড রেগুলেশন ও অটোমডারেশনের এই ত্রুটিকে কাজে লাগিয়ে । এমনকি ইচ্ছেমত বারবার আপনি আইডির নাম পরিবর্তন করে একের পর একজনকে ভিকটিম বানাতে পারেন, নতুন আইডি খোলার লাগবে না !


সুতরাং ,ফেসবুকে আমরা দেখছি মোটামুটি তিনটি সিকিউরিটি ফ্ল বা দূর্বলতা রয়েছে যা দিয়ে আপনি অন্যের পোস্ট সরিয়ে দিতে পারেন বা অনধিকার চর্চা করতে পারেন -
১। ভেরিফাইড ঈমেইল একাউন্ট ছাড়াই একাউন্ট খুলে তা দিয়ে ইনবক্স (inbox threat) করা,কমেন্ট করে গালিবাজি অথবা ঘৃনা ছড়ানো ( hate speech) করা ।

২।ভেরিফাইড ইমেইল একাউন্ট ছাড়াও ফোন ভেরিফিকেশন ছাড়া আপনি যে কোনো উদ্দেশ্যে ফেসবুক আইডি ব্যবহার করতে পারেন । এবং একইসাথে বারবার নাম পরিবর্তন করে তা অসৎ উদ্দেশ্যে কাজে লাগাতে পারেন ।

৩ । অটোমেটেড মডারেশনের জন্য স্পেসিফিক কি ওয়ার্ড কে কাজে লাগিয়ে তা ব্যবহার করে রিপোর্ট করে যে কোনো ব্যক্তির স্ট্যাটাস / ছবি / পোস্ট রিমুভ করতে পারেন ।



সাম্প্রতিক সময়ে ফেসবুকে আমার কয়েকটি স্ট্যাটাস সরিয়ে দেয়া হয় একই উপায়ে । আমি বাংলাদেশে ইন্টারনেট প্যাকেজের দাম কমানো নিয়ে একটি লেখা পোস্ট করেছিলাম । আড়াইহাজার 'লাইক' ও তিনশত 'শেয়ারের' পরপরই যখন পোস্ট সরিয়ে দেয়া হলো , তখন ভেবেছিলাম বিটিআরসি বা অন্য কোনো ইনফ্লুয়েনশিয়াল কোনো অর্গানাইজেশনের কারনে পোস্ট সরিয়ে দেয়া হয়েছে । কেননা এত এত রিপোর্ট করে সরিয়ে দেয়ার মতন সামর্থ্য বা সময় ফেসবুকে কারও আছে বলে মনে হয় নাই । পরবর্তীতে ফেসবুকের একজন সুহৃদ আমাকে ইনবক্স করে জানালেন , অনেকের এইভাবে স্ট্যাটাস সরিয়ে দেয়া হয়েছে এবং তা কোনো রিপোর্টিং করে না । তখনই বিষয়টা খোলাসা হয় এবং একইসাথে ফেসবুকের আরো কয়েকটি দূর্বলতা চোখে পড়ে ।

এর মাঝে আমি বিবদমান বেশ কয়েকটি গ্রুপসহ অনেককেই বলেছিলাম , যদি তারা এইভাবে সবার স্ট্যাটাস রিমুভ করে দিতে থাকে , তবে অবশ্যই অবশ্যই আমি সবার কাছে এই ''ক্ষমতা'' (!)র খবর জানিয়ে দেব । দুয়েকজন এই ত্রুটিকে ব্যবহার করে অন্যদের জিম্মি করে রাখবে , অন্যরা তটস্থ থাকবে , তা হওয়া উচিত নয় । ফেসবুকের আরিফ আর হোসেইন ভাই একইসাথে চেষ্টা করেছিলেন , ফেসবুকে হানাহানি এবং স্ট্যাটাস রিমুভের অপংসস্কৃতি বন্ধের । তাতেও কাজ হয় নি ।

এখানে স্পষ্টতই জানিয়ে দেয়া যাক , দূর্যোধন সিপি গ্যাং , বেঙ্গল এনোনিমাস বা পাগলা গ্রুপের সাথে যুক্ত নয় । এইভাবে একের পর এক পোস্ট রিমুভের খেলা বন্ধ করার জন্য আমি আহবান জানালেও তারা ( আমি জানি তারা কে ) আমার পোস্ট সরিয়ে দিয়েছে বারবার । কিন্তু এইভাবে কতদিন ? এই বিষয়টা ফেসবুক কর্তৃপক্ষের নজরে আনার জন্য অনেকেই চেষ্টা করছেন , রিপোর্টের এই ত্রুটির সমাধান না হলে কয়েকজনের কাছে ফেসবুক জিম্মি হয়ে থাকতে পারে না , সুতরাং খেলাটা সমান হোক । সবাই জানুক । ফেসবুকে হানাহানি বন্ধ করার জন্য এই পোস্ট রিমুভকারীদের অনেককেই আমি বারবার আহবান জানিয়েছি , তাদের বলেছি- তারা এই কাজ চালিয়ে গেলে ''সুপ্ত জ্ঞান'' প্রকাশ করে দেয়া হবে । আমি নিরুপায় । এই পোস্ট রিমুভের খেলা আর চলতে পারে না । সাধারন শত্রুতার কারনেও অনেকেই যখন এই 'জ্ঞান' কাজে লাগিয়ে অন্যদের পোস্ট 'খেয়ে' দিচ্ছে , তখন তা থামাতে ''জ্ঞানের'' গুরুত্ব কমিয়ে দেয়াটা উচিত বলেই এইমূহুর্তে মনে হচ্ছে ।


সবাই ফেসবুক কর্তৃপক্ষের কাছে মেইলে জানাই (অথবা এখানে ) অথবা মেইল করা যেতে পারে info@facebook.com -এ এই অপব্যবহারের বিষয়ে , তবেই হয়তো রক্ষা পাবে আপনার মত এবং মতপ্রকাশ । নতুবা একেকজন নিজেকে সর্দার বানিয়ে ফেলবে , এবং সর্দারের মর্জিতে চলতে থাকবে গ্যাং-ওয়ার ।

আমরা সেই ফেসবুক চাই না ।


এডুকেশন ফর অল ! ( ;) )
পোস্টে কোনো কমেন্ট অপশন রাখা হলো না ।

@ যেকোন দরকারে দূর্যোধন(ফেসবুক) দূর্যোধন(টুইটার) । সবাইকে ধন্যবাদ ।
সর্বশেষ এডিট : ০৬ ই জুন, ২০১৩ রাত ১০:৫৯
১১৮টি মন্তব্য ১১৬টি উত্তর পূর্বের ৫০টি মন্তব্য দেখুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

সুপ্রিয় কবি নীলপরির "মহিয়সী" কবিতার অনুভবে

লিখেছেন ভ্রমরের ডানা, ১৯ শে অক্টোবর, ২০১৭ রাত ১০:৪৭




ভ্রমরের ডানা

আর তাকেও বলা যায় নক্ষত্র বলাকা পাখা~
হিম হিম বাতাস যার ভালবাসা মধু মাখা..
যে ছুঁয়ে গেছে রহস্যাবৃত উষ্ণসাগর ঘেঁষে
মিহিদানা মিহি প্রেম বালুকা বেলার দেশে...
উত্তর থেকে দক্ষিণ বলয় কোলে..
প্রকাণ্ড সুনামি... ...বাকিটুকু পড়ুন

একরাত থাকা যাক সুইডেনের আরলান্ডা বিমানবন্দরে, হোটেল যখন বিশালাকার বোয়িং ৭৪৭-২০০ জাম্বো জেট

লিখেছেন মাহবুবুল আজাদ, ১৯ শে অক্টোবর, ২০১৭ রাত ১১:২৬




সুইডেনের আরলান্ডা বিমানবন্দর, অন্যরকম একটা অভিজ্ঞতা হতে পারে যে কারো জন্য। এখানে একরাত কাটাতে পারেন ইচ্ছে করলে বিশালাকার বোয়িং ৭৪৭-২০০ বিমানের মধ্যে, আকাশে উড়তে হবেনা্‌ মাটিতেই থাকবে। এটা বিমানবন্দরের... ...বাকিটুকু পড়ুন

অস্তিত্ব

লিখেছেন জাহিদ অনিক, ১৯ শে অক্টোবর, ২০১৭ রাত ১১:৩৯

সন্ধ্যার বেশ কিছু সময় পরের কথা, সারা দিনের খাটাখাটনির পরে বাসে করে বাসায় ফিরছি। সকাল ৭ টায় বের হয়ে বাসায় ফিরছি প্রায় রাত ১০ টার কিছু পরে।

মাঝখানে তিনবার হালকা থেকে... ...বাকিটুকু পড়ুন

একটি ক্ষুদ্র সাফল্যঃ

লিখেছেন খায়রুল আহসান, ২০ শে অক্টোবর, ২০১৭ সকাল ৮:১৪

আমাদের মধ্যে হয়তো এমন অনেকেই আছেন, যারা মাঝে মধ্যে একটু আধটু কিংবা নিয়মিতভাবেই ইংরেজীতেও লেখালেখি করে থাকেন। ইংরেজীতে মাঝে মধ্যে দু’চারটে কবিতাও লিখেছেন, স্রেফ মনের ইচ্ছের কারণেই, এমনও হয়তো... ...বাকিটুকু পড়ুন

প্রকৃতার্থ...

লিখেছেন কথাকথিকেথিকথন, ২০ শে অক্টোবর, ২০১৭ বিকাল ৪:৩৭


আমি কী হারিয়ে যাচ্ছি ? দিনের পর দিন বাড়ছে দেহ ভস্মের ঘ্রাণ। বৃষ্টির জলে আঁকাবাঁকা পথে ভেসে যায় সদ্য ঝরে পড়া ফুল। আমি তার পথ ধরে মিশে যাই জলস্রোতে... ...বাকিটুকু পড়ুন

×