somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

আমার পরিচয়

ছন্দহীন

আমার পরিসংখ্যান

সুদীপ কুমার
quote icon
আমি কৃষিবিদ।বেসরকারি চাকুরী করি।থাকি ঢাকায়।
আমার সকল পোস্ট (ক্রমানুসারে)

রাত কেটে যায়

লিখেছেন সুদীপ কুমার, ১৩ ই নভেম্বর, ২০১৮ রাত ১:৫৮



জমাট বেঁধে থাকা নিকষ আঁধার গড়াতে শুরু করে
একটি ইঁদুর
আর একটি মোরগ জানিয়ে দেয় তারা জীবিত
তবে গলা কেটে ফেলার আগ পর্যন্ত
মোরগটি বেশ স্টাইলিশ ভাবে চলা ফেরা করে।

গর্ত থেকে মাথা বের করি
(আমি অবশ্য ইঁদুর নই)
উফঃ
চারপাশে জঙ্গল তবে গাছ-গাছালির নয়,ইট-কাঠ,সুড়কির,
খোলা আকাশকে জড়িয়ে আছে রাতের নিরব আঁধার

ফ্লাইওভার দিয়ে গাড়ি শিস দিয়ে বেড়িয়ে যায়
প্রহরীর হুইসেল
আর... বাকিটুকু পড়ুন

১ টি মন্তব্য      ৩৪ বার পঠিত     like!

নাগরদোলা

লিখেছেন সুদীপ কুমার, ১২ ই নভেম্বর, ২০১৮ রাত ১২:৩৭



ফাঁকা একটি স্থান।শূণ্য সবই

কর্কশ শব্দ।মশা মারা বিষ ছড়িয়ে পড়ে
ধোঁয়া…….
মশার আর্তনাদে স্বস্তির উল্লাস।।

সৃষ্টি বড়ই জটিল
ধীরে ধীরে জট খুলে তার

দৃস্টির প্রখরতা বাড়তে বাড়তেই
সব শেষ।।

আমি গুনছি-সময়……….

১১/১১/২০১৮ বাকিটুকু পড়ুন

৪ টি মন্তব্য      ৩৮ বার পঠিত     like!

তিনশ ষাট ডিগ্রী

লিখেছেন সুদীপ কুমার, ০৯ ই নভেম্বর, ২০১৮ রাত ৯:২৯




শহুরে ইঁদুর
ঘুর ঘুর করে
ফাঁদে দেয়না পা

চলে যায়
পড়ে থাকে কল।


একজন প্রেমিক,শূণ্য হৃদয় তার

কিসের... বাকিটুকু পড়ুন

২ টি মন্তব্য      ২৪ বার পঠিত     like!

মন আমার উড়ে ফুলে ফুলে

লিখেছেন সুদীপ কুমার, ০৬ ই নভেম্বর, ২০১৮ রাত ১০:১৭






আমি চলে যেতে চেয়েছিলাম,-তোমাকে ফেলে
আমি চলে যাই
যাই-

মনটা যেন এক ভ্রমর
শুধু উড়ে
ফুলে
ফুলে।

সেই বালক বেলায়,-পা দুটি ছিল বেশ লম্বা আমার
লজ্জা সবে ঘর বেঁধেছিল মনে
বেশ লম্বা বেণী ছিল তোমার,-দুলতো হাওয়ায় হাওয়ায়
শুধু থাকতাম তোমার পাশে পাশে-খেলার ছলে
নাম?-অবশ্যই কঙ্কাবতী নয়।

শুধু উড়ে মন
ফুলে ফুলে-

গভীর দু’নয়নে হারিয়ে যাবার শুরু,-অতলে তলিয়ে যেতাম
কি টান?-দেখার সাথে সাথে হৃদয়ে বাজতো তান
কি... বাকিটুকু পড়ুন

৬ টি মন্তব্য      ২৪ বার পঠিত     like!

ভাঙ্গা বাড়ি

লিখেছেন সুদীপ কুমার, ০৩ রা নভেম্বর, ২০১৮ রাত ১১:৫৭





ভেঙ্গে গেলে, জোড়া লাগে?
এই যেমন ওই বাড়িটি-
ভেঙ্গে গিয়েছিল,
একাত্তরে পাকিস্থানী সেনাবাহিনীর শেল এসে পড়েছিল,
সেই ছোট্ট বেলায়,বাবার কোলে চড়ে প্রথম গিয়েছিলাম ওই বাড়িটিতে-
ভাঙ্গা বাড়ি।কি অদ্ভুদ নাম
একাত্তরে কত কিছুই না ভেঙ্গেছিল
ঘর-বাড়ি,রাস্তা-ঘাট
আর ভেঙ্গেছিল হৃদয়-প্রিয়জন হারানোর তীব্র বেদনায়
সম্ভ্রম হারানোর তীব্র বেদনায়।


এখনও নাকে লেগে আছে ওই ভাঙ্গা বাড়ির অজানা গন্ধ
হয়তো কোন বুনো লতার,
ছোট্ট বেলার স্মৃতি আটকে... বাকিটুকু পড়ুন

৩ টি মন্তব্য      ৩১ বার পঠিত     like!

তুমি ভালোবাসার কথা বল এবং আরও কিছু

লিখেছেন সুদীপ কুমার, ০২ রা নভেম্বর, ২০১৮ রাত ১১:০৫





“ঠিক সময়েই তোমাকে পেয়েছিলাম
কোন যোগ-বিয়োগ অংক কষে নয়,আচমকাই
তুমি এলে আমার জীবনে”

কঙ্কাবতী হাসে
কমলেশ বলে যায়।

“মনে আছে,যেদিন তোমাকে প্রথম দেখেছিলাম
আমি হয়তো নার্ভাস ছিলাম একটু
আর নার্ভাস হবোনা কেন বল
ওমন শান্ত দীঘল নয়ন জোড়ায় হারিয়ে যাচ্ছিলাম যে”।

কমলেশের কথায় হেসে উঠে কঙ্কাবতী
কমলেশ চেয়ে দেখে
কেমন শরীর দুলিয়ে হাসছে,কঙ্কাবতী।
ফাঁকা স্থান জুড়ে ছবি হয়ে উঠে কঙ্কাবতীর শরীর
সময়কে গ্রাস... বাকিটুকু পড়ুন

৩ টি মন্তব্য      ৫২ বার পঠিত     like!

একদিন নতুন শুরুতে

লিখেছেন সুদীপ কুমার, ০১ লা নভেম্বর, ২০১৮ রাত ১২:১৩






“তুমি কি ভেবে দেখেছো,আমাদের ভালোবাসা ক্রমশঃ ক্ষীণ হয়ে আসছে”?

“তাই কি?আকাশ কি ছুঁয়েছে দিগন্ত রেখা”?

“আমরা হয়তো অনেকদিন অলিঙ্গন করিনি
একে অপরকে।যেভাবে অলিঙ্গন করে রয়েছে
সুনীল আকাশ পৃথিবীকে।
অথবা ওই ঘড়ির কাঁটা সময়কে”।

কমলেশ সিগারেট ধরায়।বাতাসে ধোঁয়া ছাড়ে
কঙ্কাবতী ধোঁয়ার গতি পথে নিয়ে যায় নিজেকে।

“আমাদের হয়তো আর দেখা হওয়া ঠিক নয়”।

“চলে যাবো দেশ ছেড়ে।আর তো কয়েকদিন”

“সঙ্গম কালে... বাকিটুকু পড়ুন

৫ টি মন্তব্য      ৭৪ বার পঠিত     like!

চিতায় যে ফুল ফুটে রয়

লিখেছেন সুদীপ কুমার, ৩০ শে অক্টোবর, ২০১৮ রাত ১২:৩১





ভালোবাসার মানুষ এতো কাছে,তবুও তাকে পাইনা কাছে
মৃত্যুর মত গভীর ফাটল,গিলে ফেলে হৃদয়

শেষ শিউলি ঝরে গিয়েছে বুঝি
শেষ শিশির বিন্দু পরিণত হয়েছে বাষ্পে

পুড়ে ছাই হয়ে গিয়েছে এই হৃদয়।

তারপর শুরু হলো দৌড়
উল্টো মুখে
সময়ের চেয়েও দ্রুত গতির দৌড় বুঝি
সময়কে পিছনে ফেলে কে দৌড় দেবে
তবু দৌড় দেয়
পোড়া হৃদয় তাদের সাথে বুঝি
তাই আবার শিউলি ফোটে
আবার প্রাণ... বাকিটুকু পড়ুন

৪ টি মন্তব্য      ৩৬ বার পঠিত     like!

রাজনীতির রোজনামচা -৫

লিখেছেন সুদীপ কুমার, ২৮ শে অক্টোবর, ২০১৮ রাত ১:২২




আঁধার শেষ হবে অন্য এক আঁধারে

গণতন্ত্র,সমাজতন্ত্র,মৌলবাদ অথবা একনায়কতন্ত্র শুধুমাত্র দোকানে সাজিয়ে রাখা পণ্য

দেশপ্রেমিকের হৃদয়ের রক্তক্ষরণ দেশের মাঠি ঠিক বুঝে নেয়।

এখন আম,কাঁঠাল সারা বছরব্যাপী পাওয়া যায়
মৌসুমে অবশ্য অফুরন্ত।

উনারা বুঝি অপাংক্তেয়,আর এখন ছুটছেন
কি মোহ তাদের?
দৌড়া-দৌড়ি বলে দেয় নির্বাচনী মৌসুম এটা।

টাকা কথা বলে।ন্যাংড়া পাহাড় ডিঙ্গায়
আমি শ্বশুরবাড়ি আছি তবে আমার বউ নেই
বউ ও... বাকিটুকু পড়ুন

৪ টি মন্তব্য      ৫৫ বার পঠিত     like!

ফেরারী সময়

লিখেছেন সুদীপ কুমার, ২১ শে অক্টোবর, ২০১৮ রাত ৯:৪৫



(১)
প্রায় শুকনো বিলের কাদা জলে-
ধ্যানমগ্ন বক
আর মাছেদের দীর্ঘশ্বাস মিশে আছে
আর দূরের বাঁশ বাগানের ওই নিঃসঙ্গ বিদায়ী আলো সেও ঝুলে আছে।
এই স্থানে,কচুরীপানার ফুলগুলি-না ডাকে ভ্রমর
-না মাকড়
তবুও আমার ইচ্ছা করে,খুব ইচ্ছা করে,-ফিরে যেতে
নির্জন বিকেলে,
চলন বিলের মেঠো পথে।
আমি হয়তো পা বিছিয়ে বসতে চাইবো ভেজা ঘাসের বিরহীনরম বুকে
আমি হয়তো খুঁজবো শিববাড়ি
পাল পাড়ার ধূসর মেঠো... বাকিটুকু পড়ুন

৪ টি মন্তব্য      ৬২ বার পঠিত     like!

ফাঁদ(চতুর্থ পর্ব)

লিখেছেন সুদীপ কুমার, ১৫ ই অক্টোবর, ২০১৮ রাত ১১:০৫


আপনার মনে প্রশ্ন জেগেছে নিশ্চই-তারেক আজাদকে পেলো কিভাবে?কিম্বা আজাদ কিভাবে তারেকের কাছে পৌঁছালো?খুব স্বাভাবিক।কাঁহাতক হোঁচট খেতে খেতে পড়া যায়।আসলে লেখক হিসাবে আমি চেয়েছি প্রতিটি পাঠকই একজন লেখক হয়ে উঠুক।নিজেই গল্পটাকে নিজের মত সাজিয়ে নিক।এখন আজাদ আর তারেকের কথায় আসি।আজাদ বুঝে ফেলে সে চুড়ান্তভাবে রিতীকাদের পাতা ফাঁদে আটকে পড়েছে।দু’লক্ষসহ এ পর্যন্ত... বাকিটুকু পড়ুন

৬ টি মন্তব্য      ৬২ বার পঠিত     like!

ফাঁদ(৩য় পর্ব)

লিখেছেন সুদীপ কুমার, ১৫ ই অক্টোবর, ২০১৮ রাত ১২:৪৫


-তোমাকে ছাড়া আমার থাকতেই ইচ্ছা করেনা
-তবে এই এক মাস কোথায় ছিলে?
রিতীকার কথার প্রতি উত্তর দেয় আজাদ।
-আসলে আমি জরুরী কাজে কুমিল্লায় গিয়েছিলাম।
-কুমিল্লার কোথায় তোমাদের বাড়ি?
-বুড়িচং।
-বুড়িচং হতে ইন্ডিয়ার বর্ডার খুব কাছে।
আজাদ বলে।
-হ্যাঁ।তুমি বুড়িচং গিয়েছো?
-অনেকবার।
-ওসব কথা থাক।অনেকদিন তোমার আদর খাইনা।এসো আদর করো।
রিতীকা উর্ণা ফেলে সরে আসে আজাদের কাছে।
-আজ থাক।মনটা ভালো নেই।
আজাদ বলে।
-আমাকে জড়িয়ে... বাকিটুকু পড়ুন

২ টি মন্তব্য      ৮৪ বার পঠিত     like!

ফাঁদ (২য় পর্ব)

লিখেছেন সুদীপ কুমার, ১৩ ই অক্টোবর, ২০১৮ রাত ৯:৫০


তারেক লক্ষ্য করে বাবর সাহেব চা পিরিচে ঢেলে নেন আর বেশ শব্দ করে চুমুক দেন।বেশ বিরক্তিকর একটা ব্যাপার।
-চা তো বেশ স্বাদের কালুমিঞ।
তারেক বলে।
-সবই আপনাদের দোয়া স্যার।
-কালুমিঞা আপনি অতদূর ওই ঝোপে কি করতে গিয়েছিলেন?
-স্যার কি আর বলবো,সবই কপাল।ওই স্থান হতে আর একটু দূর গেলেই এই গরীবের বাড়ি।আমি স্যার ডায়বেটিকসের রুগী।ডাক্তার পরামর্শ... বাকিটুকু পড়ুন

৩ টি মন্তব্য      ১২০ বার পঠিত     like!

ফাঁদ (প্রথম পর্ব)

লিখেছেন সুদীপ কুমার, ১২ ই অক্টোবর, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:১৩


(১)

আচমকা আজাদের ঘুম ভেঙ্গে যায়।পাশের রুম হতে উত্তেজিত কন্ঠস্বর ভেসে আসে।তারপর ঠাস শব্দ।কিছুক্ষণ নীরবতা তারপর নারী কন্ঠের তীব্র স্বর-না আমি যাবোনা।আমি বাড়ি যাবোনা।তারপর দ্রুতপদে কেউ ফ্লোর দিয়ে হেঁটে যায়।ছাদের দরজায় ধরাম শব্দ হয়।

শুক্রবারে আজাদ একটু আরাম করে ঘুমাতে চায়।কিন্তু কোন শুক্রবারেই সেই আশা পূরণ হয়না তার।কোন দিন মোবাইল তারস্বরে বেজে... বাকিটুকু পড়ুন

৫ টি মন্তব্য      ১২৫ বার পঠিত     like!

কোন এক শরত সন্ধ্যায়

লিখেছেন সুদীপ কুমার, ০৯ ই অক্টোবর, ২০১৮ রাত ৯:২৩




আজকের এই সন্ধ্যা আচমকা ধরা দিল
প্রেমিকার বেশে।

শরতের সাদা মেঘের ভেলা-উড়ছে
-ঘুরছে
নেচে নেচে
আকাশের বুকে।

যেমনটি হয়-এই মন ভালো হয়ে গেলে
রাজা মনে হয়
মনে হয়
এই পৃথিবী আমার।

আর তোমাকে পেতে ইচ্ছে করে খুব করে,-নির্জনে
শুধু তুমি
আর আমি
তোমাকে বুকে নিয়ে পিষে মারবো
আর তুমি বলবে-ছাড়ো।ছাড়তো
কিন্তু আসলে তুমি বলবে-
এমনভাবে ধরে রেখো আমায়
জনম জনম ভর
-অবশ্যই মনে মনে।

আজকের সন্ধ্যাটা চমৎকার……..

০৯/১০/২০১৮ বাকিটুকু পড়ুন

২ টি মন্তব্য      ২৬ বার পঠিত     like!
আরো পোস্ট লোড করুন
ব্লগটি ৪৩২৮০ বার দেখা হয়েছে

আমার পোস্টে সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার করা সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার প্রিয় পোস্ট

আমার পোস্ট আর্কাইভ