somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

আমার পরিচয়

ধূলিচিত্র

আমার পরিসংখ্যান

পাপড়ি রহমান
quote icon
লেখালেখিই প্রধান কাজ। সাহিত্যকাগজ- ধূলিচিত্র। প্রকাশিত গল্পগ্রন্থ- লখিন্দরের অদৃষ্টযাত্রা, হলুদ মেয়ের সীমান্ত, অষ্টরম্ভা। কিশোরউপন্যাস- মহুয়া পাখির পালক। উপন্যাস- পোড়া নদীর স্বপ্নপুরাণ,বয়ন।
আমার সকল পোস্ট (ক্রমানুসারে)

পাপড়ি রহমানের অন্যধারার উপন্যাস 'বয়ন' বিষয়ে দৈনিক সংবাদে প্রকাশিত আলোচনা পড়ুন

লিখেছেন পাপড়ি রহমান, ৩০ শে এপ্রিল, ২০০৯ রাত ৮:৫৯

পাপড়ি রহমানের অন্যধারার উপন্যাস 'বয়ন' বিষয়ে দৈনিক সংবাদে প্রকাশিত আলোচনা পড়ুন





তাতী, জোলা বা তন্তুবায়দের জীবন নিয়ে বয়ন উপন্যাসটি লিখেছেন এ সময়ের কথাকার পাপড়ি রহমান। 'বয়ন' জীবনের প্রান্তিক বাস্তবতার প্রাপ্ত কথন। গ্রামীন কথ্যরীতির সার্থক ব্যবহার এবং ধারাক্রম এ উপন্যাসের উপজীব্য। উপন্যাসের বিন্যাস ও বিকাশে নতুনত্ব, যাদুবাস্তবতা, মনোবৈকল্য, আদিরসের উপগত কিছুটা ভিন্ন... বাকিটুকু পড়ুন

১ টি মন্তব্য      ১৮৪ বার পঠিত     like!

মঙ্গাক্রান্ত আকালুর মাছ সমাচার

লিখেছেন পাপড়ি রহমান, ৩০ শে এপ্রিল, ২০০৯ সন্ধ্যা ৬:১৭

পাপড়ি রহমান/







চাউলের দাম বাড়ল ধাই ধাই করে। শনের চালায় আগুন লাগলে পলকে যেমন আসমানে উঠে যায়- চাউলের দাম ঠিক সেইভাবে নাগালের বাইরে চলে গেল! ২৫ টাকা, ৩৫ টাকা করে যখন ৪০ টাকাও ছাড়িয়ে গেল-আকালু তখন নিজের পেটটাকেই দেখছে। পেট আর পিঠ চিমসে থাকা গতরে আলাদা করে পেট দেখারই বা কি... বাকিটুকু পড়ুন

৪ টি মন্তব্য      ২০৮ বার পঠিত     like!

কোষা

লিখেছেন পাপড়ি রহমান, ৩০ শে এপ্রিল, ২০০৯ সন্ধ্যা ৬:১৪

পাপড়ি রহমান/



আমাদের বাড়িতে অন্ধকার নামতো সূর্য ডোবার ঢের আগে। ছোট-বড়-মাঝারি নানাজাতের গাছপালায় ঘেরা বলে রোদের মুখ দেখা যেতে কি যেত না। মাকড়সার জালের মতো ছড়ানো আলো ইষৎ ঝিলিক মেরেই দ্রুত লুকিয়ে পড়তো ওই ঘিঞ্জি পাতা-লতার আড়ালে। ফলে প্রতিদিনই সন্ধ্যা নামার আগে-ভাগেই বাড়িটা ঝুপ করে কোনো গভীর কুয়ার ভেতর ঢুকে পড়তো।... বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ১৬২ বার পঠিত     like!

বৃক্ষপুরাণ

লিখেছেন পাপড়ি রহমান, ৩০ শে এপ্রিল, ২০০৯ সন্ধ্যা ৬:১১

পাপড়ি রহমান/



পাখির ডানার সিক্ত সবুজ গাছের ছায়া, গভীর ছায়া, একলা মেঘে কুড়োই



পরীবানু তখনো হাঁটু সমান অথচ সে একেবারে ছায়াতরু হয়ে গেল! তার অজস্র ডাল-পাতার নিচে কুতকুতের ঘর কাটতে কাটতে পরীবানু প্রায়ই আপন মনে বলতো-



‘দাদীজানে কইছে আমি আর তুমি হইলাম হমানে-হমান। এইডা এহন আর কে বুঝবো কও? তুমি আমারে ছাড়াইয়া গেলা-আমি... বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ২৩০ বার পঠিত     like!
আরো পোস্ট লোড করুন
ব্লগটি ১১২৫ বার দেখা হয়েছে

আমার পোস্টে সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার করা সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার প্রিয় পোস্ট

আমার পোস্ট আর্কাইভ