somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

অনলাইনে আউটসোর্সিং তরুণ প্রজন্মের কর্মক্ষেত্র হতে পারে

২৯ শে নভেম্বর, ২০১০ বিকাল ৪:০৮
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :

লেখাপড়ার পাশাপাশি অনলাইনে অর্থ উপার্জন একদিকে যেমন পেশাদারিত্ব অর্জনে সহায়তা করছে, তেমনি বেকারত্ব ঘুচিয়ে দক্ষ মানবসম্পদে পরিণত করছে দেশের শিক্ষিত জনগোষ্ঠীর একাংশকে৷ মূলত, রাজধানী ঢাকাকেন্দ্রিক গড়ে ওঠা বেশ কিছু তথ্য ও প্রযুক্তিনির্ভর প্রতিষ্ঠান আউটসোর্সিংয়ের মাধ্যমে দেশে বসে বৈদেশিক মুদ্রা উপার্জনের পরিকল্পিত উদ্যোগ নিলেও তার ব্যাপকতা লাভ করতে এখনও অনেক পথ পাড়ি দিতে হবে৷ যারা কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে লেখাপড়া করছে তাদের জন্য আয়ের বিভিন্ন ধরনের উপায় বেছে নেয়ার যথেষ্ট কারণ রয়েছে৷ তবে, আউটসোর্সিং করা বলতে আইটি প্রতিষ্ঠান, প্রোগ্রামার, কোডার আর ইঞ্জিনিয়ারদের ক্যারিয়ার গড়ার অবলম্বন বলে কেউ ধারণা করলে তা হবে একেবারেই ভ্রান্ত৷ আন্তর্জাতিক এই ভার্চুয়াল ওয়ার্ল্ডে যে কেউ শুরু করতে পারে তার পেশাদারি জীবন৷ বিস্তারিত জানিয়েছেন_ আকবর হোসেন

আউটসোর্সিংয়ে বাংলাদেশ

নতুন প্রজন্মের কাছে 'আউটসোর্সিং' শব্দটি এখন আর নতুন নয়৷ শুধু বিশ্ববিদ্যালয় নয়, দেশের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা অনলাইনে আয়ের পথ বেছে নিচ্ছে৷ লেখাপড়ার পাশাপাশি অনলাইনে অর্থ উপার্জন একদিকে যেমন পেশাদারিত্ব অর্জনে সহায়তা করছে, তেমনি বেকারত্ব ঘুচিয়ে দক্ষ মানবসম্পদে পরিণত করছে দেশের শিক্ষিত জনগোষ্ঠীর একাংশকে৷ মূলত, রাজধানী ঢাকাকেন্দ্রিক গড়ে ওঠা বেশ কিছু তথ্য ও প্রযুক্তিনির্ভর প্রতিষ্ঠান আউটসোর্সিংয়ের মাধ্যমে দেশে বসে বৈদেশিক মুদ্রা উপার্জনের পরিকল্পিত উদ্যোগ নিলেও তার ব্যাপকতা লাভ করতে এখনও অনেক পথ পাড়ি দিতে হবে৷ যারা কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে লেখাপড়া করছে তাদের জন্য আয়ের বিভিন্ন ধরনের উপায় বেছে নেয়ার যথেষ্ট রয়েছে৷ তবে, আউটসোর্সিং করা বলতে আইটি প্রতিষ্ঠান, প্রোগ্রামার, কোডার আর ইঞ্জিনিয়ারদের ক্যারিয়ার গড়ার অবলম্বন বলে কেউ ধারণা করলে তা হবে একেবারেই ভ্রান্ত৷ আন্তর্জাতিক এই ভার্চুয়াল ওয়ার্ল্ডে যে কেউ শুরু করতে পারে তার পেশাদারি জীবন৷ আর প্রথমেই এ কাজের জন্য একটি কম্পিউটার আর ইন্টারনেট সংযোগের প্রয়োজন৷ যেসব কাজ সাধারণত সবার জন্য উপযোগী তার মধ্যে ডাটা এন্ট্রি, ফোরাম পোস্টিং, বিভিন্ন বিষয়ভিত্তিক আর্টিকেল লেখা ও ব্লগিং উল্লেযোগ্য৷ এ ধরনের কাজের জন্য সবচেয়ে দরকারি হল ইংরেজি ভাষার ওপর দক্ষতা৷ একজন ফ্রিল্যান্সার হিসেবে কাজ করতে হলে ভাষার বাধা অতিক্রম করা জরুরি৷ এক্ষেত্রে কোডারদের জন্য এটি কোন বাধা নয়৷ বিশ্বের অনেক খ্যাতিমান কোডার রয়েছে যাদের ইংরেজি ভাষা জ্ঞান খুবই সামান্য৷

যেসব ক্ষেত্রে সেবা প্রদান করা যেতে পারে শুধু দেশের বাইরেই নয়, স্থানীয়ভাবে তৈরি হয়েছে ওয়েবভিত্তিক প্রযুক্তি সেবার চাহিদা৷ এবার পর্যায়ক্রমে দেখা যাক কোন কোন ক্ষেত্রে ওয়েব সেবার প্রয়োজনীয়তা রয়েছে৷ উল্লেখযোগ্য সেবাগুলোর মধ্যে রয়েছে_ ডোমেইন ও হোস্টিং, ইমেইল, ওয়েব সাইট ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট এবং কাস্টম সলু্যশন৷

ডোমেইন ও হোস্টিং

বাস্তব জগতে আপনি যেখানেই থাকুন না কেন, আপনার রয়েছে একটি বাড়ির নাম অথবা নম্বর, সড়কের নাম ও নম্বর৷ ওয়েবসাইট আপনাকে ভার্চুয়াল ওয়ার্ল্ডে তেমনি একটি ঠিকানা সৃষ্টি করে দিচ্ছে৷ ডোমেইন হচ্ছে আপনার একটি সুনির্দিষ্ট ঠিকানা৷ তাই ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন সেবা একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়৷ ডোমেইনের পাশাপাশি হোস্টিং নেয়া হল আরেকটি অংশ৷ একজন ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের ডোমেইন ক্রয় করার সঙ্গে সঙ্গে হোস্টিং নিশ্চিত করতে হয়৷ একটি ওয়েবসাইটে কি পরিমাণ তথ্য জমা থাকবে তার ওপর নির্ভর করেই হোস্টিং ক্রয় করতে হয়৷ সাধারণত, ইনফরমেশনভিত্তিক সাইটের জন্য ৫০ মেগাবাইটের হোস্টিং যথেষ্ট৷ তবে ভিডিও অথবা বিভিন্ন অ্যাপ্লিকেশন মডিউল, একাউন্টস, অফিস ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম, ই-কমার্স নির্ভর ওয়েবসাইটের জন্য প্রয়োজন অনুযায়ী হোস্টিং নির্ধারণ করতে হবে৷

ইমেইল

শুধু ইমেইল সলু্যশন হতে পারে আপনার সার্ভিস প্রোডাক্ট৷ প্রায় ক্ষেত্রে দেখা যায় যে, ডোমেইন হোস্টিং ছাড়াই ইমেইল সলু্যশন চাহিদা রয়েছে৷ অনেক ব্যবসার ক্ষেত্রে দেখা যায় যে, কোম্পানির ডোমেইনের মাধ্যমে ইমেইল আদান-প্রদানের কাজ করে থাকেন৷ এক্ষেত্রে ইমেইল সেবা পেতে একটি ডোমেইন ক্রয় করতে হবে৷ কি পরিমাণ ইমেইল ঠিকানা দরকার তা আপনার বাজেটের ওপর নির্ভর করে আপনাকে ঠিক করতে হবে৷ ইমেইল ঠিকানা সেট-আপ করতে গুগল অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করা যেতে পারে৷

ওয়েবসাইট ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট

অনলাইনে অসংখ্য ফ্রিল্যান্সিং সাইট রয়েছে যেখানে সবসময়ই ওয়েবসাইট তৈরির কাজ পাওয়া যায়৷ তাছাড়া ওয়েব ডিজাইনের কাজও থাকে৷ ওয়েবসাইট তৈরি করতে কতগুলো প্ল্যাটফরম ব্যবহার করা হয়৷ জনপ্রিয় প্ল্যাটফরমগুলোর মধ্যে রয়েছে জুমলা, ওয়ার্ডপ্রেস, দ্রুপাল, ম্যাজেন্টো, জেনকার্ট ইত্যাদি৷ সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল যে কোনো একটি প্ল্যাটফরম নিয়ে কাজ করা৷ আপনি জুমলা দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরির কাজ শিখে থাকেন তাহলে অন্য কোনও প্ল্যাটফরমে সুইচ না করে শুধু জুমলা নিয়ে কাজ করলেই এই পেশায় দক্ষতা ও সুনাম অর্জন করতে সক্ষম হবেন৷ ওপেন সোর্স সিএমএস, এইচটিএমএল টেমপ্লেট এবং অনেক সুবিধাজনক এডিটর রয়েছে যা ওয়েব ডিজাইনের কাজকে করেছে অনেক সহজতর৷ সময় ও শ্রমের লাঘবের কারণে ওয়েব ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্টের জন্য অধিক আয় নিশ্চিত করা করা সম্ভব৷

কাস্টম সলু্যশন

সাধারণত ছোট ব্যবসার ক্ষেত্রে নানা ধরনের সেবা দরকার হয়ে থাকে৷ সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন (এসইও) সংক্রান্ত খুঁটিনাটি সেবা প্রদান করে আয় করা সম্ভব৷ উদাহরণস্বরূপ সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিংয়ের কথা বলা যেতে পারে৷ এটা হতে পারে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বা কোম্পানির জন্য ফেসবুক পেজ তৈরি করে দেয়া৷ এর মাধ্যমে ওই প্রতিষ্ঠান তার নির্দিষ্ট ক্লায়েন্টের কাছে পেঁৗছাতে পারে৷
ভার্চুয়াল এসিস্ট্যান্ট

ফ্রিল্যান্সিং সাইটগুলোর মাধ্যমে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান তাদের প্রয়োজন অনুযায়ী নিয়োগ প্রদান করে থাকে৷ যেমন কোন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ব্লগ পোস্টিং অথবা নিয়মিত আপডেট করার জন্য একজন ভার্চুয়াল এসিস্ট্যান্ট চেয়ে প্রজেক্ট দিতে পারে৷ সেক্ষেত্রে ব্লগ পরিচালনা এবং তার সাইটটি যে প্ল্যাটফরমে তৈরি করা সে বিষয়ে প্রয়োজনীয় ধারণা থাকলেই এ কাজটি করা যায়৷ তবে এ ধরনের কাজ করা খুবই সহজ৷ দরকার শুধু সদিচ্ছা আর নিয়মিত কাজ করার জন্য পেশাদারিত্ব৷

ডাটা এন্ট্রি

ইন্টারনেটের মাধ্যমে আয়ের জন্য যে কাজটি সবচেয়ে সহজ তা হল ডাটা এন্ট্রির কাজ৷ কোন রকমের অভিজ্ঞতা বা প্রযুক্তিবিষয়ক পড়াশোনা ছাড়াই এ কাজ যে কেউ করতে পারেন৷ বাড়িতে বসে গড়ে প্রতিদিন ৬ থেকে ৭ ঘণ্টা নিয়মিত পরিশ্রমের মাধ্যমে ৭-৮ হাজার টাকার আয় করা সম্ভব৷ অনলাইনে আয়ের ক্ষেত্রে অভিজ্ঞতা যত বাড়বে আয়ের পরিমাণও তত বাড়ানো সম্ভব৷চীন, ভারত, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা, রোমানিয়া, নাইজেরিয়া, ভিয়েতনাম, ক্রোশিয়া, ফিলিপাইনসহ বিভিন্ন দেশে ওয়েবভিত্তিক সেবা প্রদানের মাধ্যমে আউটসোর্সিং ইন্ডাস্ট্রি গড়ে উঠেছে৷ বর্তমানে ভারতের ওয়েব সার্ভিস ইন্ডাস্ট্রি ২০ মিলিয়ন ডলার উপার্জন করে যা আগামী ২০১৩ সালের মধ্যে ২.৫ বিলিয়নে পেঁৗছাবে বলে বিশেষজ্ঞরা ধারণা করেন৷ সুত্র দৈনিক যুগানত্মর ২৯ নভেম্বর






সর্বশেষ এডিট : ৩১ শে মার্চ, ২০২০ বিকাল ৪:৩০
৩টি মন্তব্য ০টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

করোনার মাঝে ভয়ংকর প্রতিবাদে জ্বলছে আমেরিকার অনেক শহর

লিখেছেন চাঁদগাজী, ৩০ শে মে, ২০২০ সকাল ৯:৪১



*** হোয়াইট হাউজের ২০০ গজের মধ্যে পুলিশ ও প্রতিবাদকারীদের মাঝে ধাক্কাধাক্কি চলছে , মানুষ হোয়াইট হাউসে প্রবেশের চেষ্টা করছে, অনেকেই আহত হয়েছে; এখনো গ্রেফতার করা হচ্ছে না।... ...বাকিটুকু পড়ুন

যেভাবে হত্যা করা হয় প্রেসিডেন্ট জিয়াকে-

লিখেছেন গিয়াস উদ্দিন লিটন, ৩০ শে মে, ২০২০ বিকাল ৩:৫৪

১/



রাতের শেষ প্রহরে তিনটি সামরিক পিকআপ জিপ এসে দাঁড়ালো চট্টগ্রাম সার্কিট হাউসের গেটের সামনের রাস্তায়। একটি পিকআপ থেকে একজন লেফটেন্যান্ট কর্নেলের কাঁধে র রকেট লঞ্চার থেকে... ...বাকিটুকু পড়ুন

আজ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ২৯তম মৃত্যু বার্ষিকী

লিখেছেন রাজীব নুর, ৩০ শে মে, ২০২০ বিকাল ৫:৫৬



আমি জিয়াকে পছন্দ করি।
কারন উনি একজন সৎ লোক ছিলেন। ক্ষমতায় থাকাকালীন সময়ে উনি কোনো দূর্নীতি করেন নি। কিন্তু অনেক ভুল কাজ করেছেন। রাজাকার গোলাম আযমকে দেশে ফিরিয়ে এনেছেন।... ...বাকিটুকু পড়ুন

অশিক্ষা, কুশিক্ষায় নিমজ্জিত, রাজনৈতিক জ্জানহীনরা সামরিক শাসনকে মিস করে।

লিখেছেন চাঁদগাজী, ৩০ শে মে, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:৪৮



১৯৭১ সালে মুক্তিযোদ্ধারা পরাজিত হলে, ২ কোটী বাংগালীর ঘরে জেনারেল ইয়াহিয়ার ছবি ঝুলতো সেদিন; কিছু বাংগালী আছে, মুরগীর মতো, চিলে বাচ্চা নিলে টের পায় না। নাকি আসলে মুসরগী টের... ...বাকিটুকু পড়ুন

পৃথিবী বিখ্যাত ব্যক্তিদের মা'য়েরা .............. এট্টুসখানি রম্য :D

লিখেছেন আহমেদ জী এস, ৩০ শে মে, ২০২০ রাত ৮:০৫



পৃথিবীর সব মা’য়েরাই একদম মা’য়ের মতো ।
সন্তান বিখ্যাত কি অবিখ্যাত, সে জিনিষ তার কাছে কোনও ব্যাপার নয়। তার কাছে সে কোলের শিশুটির মতোই এই টুকুন । যাকে... ...বাকিটুকু পড়ুন

×