somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

আসুন এবার আমরা চেষ্টা করি যাতে করে কিছু মানুষের পাশে দাঁড়াতে পারি

০৭ ই ডিসেম্বর, ২০১৮ রাত ১০:৩৬
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :



ঢাকায় আজ শীতের হাওয়াদের মাতামাতি। মনে হচ্ছে শীত জাঁকিয়ে বসার সব প্রস্তুতি শেষ করেছে। নগরে অবশ্য শীত দুঃখ কষ্টের চেয়ে আনন্দ নিয়েই আসে।
আমরা হাল ফ্যাশনে জামা কাপড় পরি, নতুন ডিজাইনের জ্যাকেট কোট টাই কিনি।
নানা রঙের নতুন শাল, সোয়েটারে নিজেকে সাজাই।
পিঠা খাই।
উৎসব করি।
হৈচৈ আনন্দ আর কি!
আমি অবশ্য এতে দোষ দেখিনা। এসব আমরা করতেই পারি। :) পাশাপাশি আরও কিছু কাজ আমরা করতে পারি। আরও কিছু মানুষের কথা আমরা ভাবতে পারি। এই শীতে গ্রাম বা চর বা যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন কোন জনপদে কি অবস্থা হয়?
একবার ভাবুন!

যদিও আজ ঢাকায় যে ঠাণ্ডা পড়েছে তার চেয়ে বেশী শীত ইতিমধ্যে গ্রামাঞ্চল এবং চরাঞ্চলে পড়েছে - সেটা আরও ১৫/২০ দিন আগেই। এই কনকনে বাতাস সহ্য করা যায় না। গত বছর শৈত্য প্রবাহের কবলে পড়েই বাংলাদেশ প্রায় ৮০ জন মানুষ মারা গিয়েছিল। শীত শেষে এ সংখ্যাটি আরও বেড়েছিল।

আসুন এবার আমরা চেষ্টা করি যাতে করে কিছু মানুষের পাশে দাঁড়াতে পারি।
তাদের কাছে পৌঁছে দেই উষ্ণতা। একটি কম্বল বা পুরনো কাপড় নিয়ে তার পাশে দাঁড়াই। তার শীতকে সহনীয় করে তুলি। সেও শীতের হাওয়াদের মাতামতি দেখুক উষ্ণতায় থেকে।

আপনি চাইলে সরাসরি অর্থ অনুদান পাঠাতে পারেন অথবা কম্বল কিনে আমাদের কাছে পাঠাতে পারবেন।

#Bank_Information:
Acc Name: EK RONGA EK GHURI
Acc no: 0210035776
Janata Bank Limited
Dhanmondi Coporate Branch

#Mobile Banking:
Bkash Personal: 01981236989
Bkash Personal:01739700793
Bkash Personal: 01711310476
DDBL / Rocket Personal: 019148747016

Or Send us the Blankets to our office.
Head Office Address: 32/2 Shukrabad, Dhaka- 1207

Emergency Contact:
+8801711310476
+8801995529654

বিশেষ সংযুক্তি//
= আমরা কোন পুরাতন কাপড় নিচ্ছি না। তাই বিনীত অনুরোধ কেউ পুরাতন কাপড় পাঠাবেন না। ব্যাবহারযোগ্য পুরাতন কম্বল পাঠাতে পারেন।

ধন্যবাদ।



















সর্বশেষ এডিট : ০৭ ই ডিসেম্বর, ২০১৮ রাত ১০:৩৭
৭টি মন্তব্য ০টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

একটি চক্ষু ভূতের গল্প.....

লিখেছেন কাজী ফাতেমা ছবি, ১১ ই ডিসেম্বর, ২০১৮ রাত ১১:০৪



ভূতের চোখ পেত্নির চোখ ওমা!
চোখের ভুতে ধরছে
এই তোমরা কী-জানো বাপু
কান্ডটা কে করছে?

একচোখা এক পেত্নির চোখে
রঙের ডিব্বা ঢেলে
রঙ আকাশে উড়ছে কে রে
রঙীন ডানা মেলে?

আবার দেখি রঙধনু চোখ
রঙ লেগেছে চোখে
এমনতরো পাগলামিতে
বলবে... ...বাকিটুকু পড়ুন

জন্মসূত্রে সৌভাগ্য ও আল্লাহর দায়মুক্তি

লিখেছেন ফরিদ আহমদ চৌধুরী, ১২ ই ডিসেম্বর, ২০১৮ সকাল ৭:৪৫



জন্মসূত্রে কেউ মানুষ, কেউ বড় লোক, কেউ মুসলমান, কেউ সুদর্শন, কেউ নিকৃষ্ট প্রাণী, কেউ গরিব, কেউ অমুসলিম, কেউ কূৎসিৎ, কেউ প্রতি বন্ধী, কেউ নারী, কেউ পুরুষ। সবার প্রাপ্তি সমান... ...বাকিটুকু পড়ুন

তোমার স্পর্শ উল্লাসে!

লিখেছেন হাবিব স্যার, ১২ ই ডিসেম্বর, ২০১৮ সকাল ১০:০০


ছবি:গুগল থেকে....

তোমাকে নিয়ে লিখতে গিয়ে দেখি
চতুর্দশপদী কবিতারাও বেয়াড়া হয়ে যায়,
শব্দেরা আর অষ্টক-ষষ্টকে বাঁধা পড়তে চায় না।
অষ্টক ছাড়িয়ে যায় তার গন্ডি.....
ষষ্টকও মিশে যায় অষ্টকে!
চতুর্দশপদী কবিতা তখন খিলখিল করে হাসে,
আমিও হাসি... ...বাকিটুকু পড়ুন

সরলা পঞ্চানুভব

লিখেছেন বিদ্রোহী ভৃগু, ১২ ই ডিসেম্বর, ২০১৮ সকাল ১১:০৪




একদিন শেষ হবে সকল ব্যস্ততা
মুছে যাবে গোধুলির রং
স্মরণের আঁধারে কেবলই স্মৃতিতে
চোখের জলেই খুঁজো বরং।


না সোনা, সীতা হয়োনাকো- পারবনা হতে রাম
পারবনা নিতে অগ্নি পরীক্ষা- অগ্নিসম
জ্বলবে আমারই বুক-তোমার অগ্নি... ...বাকিটুকু পড়ুন

দলবাজি, তৈলবাজিরে হ্যা বলুন !!! (দলবাজ, তৈলবাজ ব্লগারদের প্রতি উৎসর্গিত !)

লিখেছেন টারজান০০০০৭, ১২ ই ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১:০২



১। সাহেব ও মোসাহেব

---- কাজী নজরুল ইসলাম।


সাহেব কহেন, “চমৎকার! সে চমৎকার!”
মোসাহেব বলে, “চমৎকার সে হতেই হবে যে!
হুজুরের মতে অমত কার?”

সাহেব কহেন, “কী চমৎকার,
বলতেই দাও, আহা হা!”
মোসাহেব... ...বাকিটুকু পড়ুন

×