somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

আমার পরিচয়

আমি জাহিদ হাসান শিশির। আপনাদেরকে আমার ব্লগে স্বাগতম।

আমার পরিসংখ্যান

জাহিদ  হাসান
quote icon
বড় বড় স্বপ্ন দেখায় অভ্যস্ত এক ছেলে
আমার সকল পোস্ট (ক্রমানুসারে)

প্লাস্টিক দূষণে হুমকির মুখে পৃথিবীর জীববৈচিত্র !

লিখেছেন জাহিদ হাসান, ১৯ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ৯:৩৮

ওসেন কনজারভেন্সি নামক একটি সংস্থা এক গবেষণাপত্র প্রকাশ করেছে। সেখানে তারা আশংকা জানিয়ে বলেছে- ৬৯০ প্রজাতির সামুদ্রিক প্রাণী মানুষের ব্যবহৃত প্লাস্টিক দূষণের কারণে আজ হুমকির মুখে পড়েছে। যেভাবে প্লাস্টিকের উৎপাদন ও ব্যবহার বাড়ছে তাতে করে ২০৫০ সালে প্লাস্টিকের উৎপাদন গিয়ে দাড়াবে ১২ বিলিয়ন টনে। যা শুধু সমুদ্র নয়,পুরো পৃথিবীর জলে-স্থলে... বাকিটুকু পড়ুন

৬ টি মন্তব্য      ৫৪ বার পঠিত     like!

বাংলাদেশ চুরি হয়ে যাওয়া একটি দেশ

লিখেছেন জাহিদ হাসান, ৩১ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ রাত ১:৫৬

বহুদিন আগে ইউটিউবে একটা ডকুমেন্টারি দেখেছিলাম। আমেরিকার আদিবাসী প্রকৃত আমেরিকানদের মনের কথা নিয়ে সেই প্রামান্য চিত্রটি তৈরি করা হয়েছিল। সেখানে নেটিভ আমেরিকানরা বলেছিলেন- ‘আমেরিকা চুরি হয়ে যাওয়া একটি দেশ!’
এখন বাংলাদেশের মানুষ বলবে ‘বাংলাদেশ চুরি হয়ে যাওয়া একটি দেশ!। কেননা আর কখনই এই দেশের প্রকৃত মালিকানা এদেশের মানুষের হাতে আসবে... বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ৩৫৪ বার পঠিত     like!

আমার কি কোন স্বপ্ন অথবা কঠিন প্রতিজ্ঞা আছে?

লিখেছেন জাহিদ হাসান, ২১ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১:৫১

বাংলায় একটা প্রবাদ আছে-ধনুক ভাঙ্গা পণ। এর অর্থ হচ্ছে- অতি কঠিন সংকল্প। এই কথাটার পিছনে একটা ধর্মীয় ঘটনা লুকিয়ে আছে। হিন্দুদের পবিত্র ধর্মগ্রন্থ মহাভারতে এই ঘটনাটির উল্লেখ্য আছে।রাজপুত্র রাম সীতাকে বিয়ে করতে চেয়েছিল। তবে এজন্য তাকে সীতার পিতার দেয়া শর্ত অনুযায়ী একটি দৈব ধনুক ভাঙ্গতে হতো। যা সাধারন মানুষের জন্য... বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ৩৯ বার পঠিত     like!

দ্বিতীয় বারের মত আহসান মঞ্জিল ভ্রমণ

লিখেছেন জাহিদ হাসান, ১৯ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ সকাল ৮:৪৩


আমাদের ঢাবি অধিভূক্ত সাত কলেজে অনার্স সেকেন্ড ইয়ারের টেষ্ট পরীক্ষা শেষ হয়েছে ১৫ই ডিসেম্বর। পরের দিন বিজয় দিবস। আমাদের কলেজ ছুটি থাকার কথা। তাই ভেবেছিলাম,১৬ ই ডিসেম্বর সকালে অনেক লম্বা একটা ঘুম দিয়ে দুপুরের পরে উঠব। কিন্তু তা আর হওয়ার কোন উপায় রইল না। ম্যাম সবাইকে বলল,১৬ তারিখেও আমাদের... বাকিটুকু পড়ুন

৬ টি মন্তব্য      ৮০ বার পঠিত     like!

পরীক্ষার হলরুমে হাবলু স্যারের নকল উদ্ধার অভিযান

লিখেছেন জাহিদ হাসান, ০৮ ই ডিসেম্বর, ২০১৮ সন্ধ্যা ৬:১৩

তখন ইন্টার ফাস্ট ইয়ারে পড়তাম। আমাদের কলেজের এক স্যার ছিলেন। বেজায় রাগী মানুষ। কিন্তু বোকাসোকা। স্যারের নামটা কি ছিল মনে নেই। ধরা যাক স্যারের নাম হাবলু। তো ইন্টার ফাস্ট ইয়ারের ফাইনাল পরীক্ষায় যুক্তিবিদ্যা পরীক্ষার দিন আমাদের হলে গার্ড পড়ল হাবলু স্যারের। পরীক্ষার এক সময়ে এক ছেলের পকেট থেকে একটি খাতার... বাকিটুকু পড়ুন

১২ টি মন্তব্য      ১৭৩ বার পঠিত     like!

ধারাবাহিক উপন্যাস: নিয়তি-১০ এবং শেষপর্ব

লিখেছেন জাহিদ হাসান, ০৫ ই ডিসেম্বর, ২০১৮ সকাল ১১:০৭

দশ

পরদিন সকালে খুব ভোরে উঠলাম। সকাল সাড়ে আটটায় আমাদের দেশে ফেরার ফ্লাইট। সেলিম গতরাতেই প্রচুর মদপান করে মাতাল হয়ে পড়ে আছে। সাতটা বেজে গেল কিন্তু তাকে ঘুম টেনে তুলতে পারলাম না। আমি তাই অগত্যা তার ব্যাগ গুছিয়ে রাখলাম।আমি তেমন কিছু কেনাকাটা না করলেও সে প্রচুর কেনাকাটা করেছে। নিজের হাতে নগদ... বাকিটুকু পড়ুন

৮ টি মন্তব্য      ৭৮ বার পঠিত     like!

ধারাবাহিক উপন্যাস: নিয়তি- ৯

লিখেছেন জাহিদ হাসান, ০৪ ঠা ডিসেম্বর, ২০১৮ সকাল ১০:০৭

নয়
আমরা রাতে হোটেলে থাকলাম। সকালে আমি আর সেলিম বের হলাম কাজের উদ্দেশ্যে। সব কিছু ঠিকঠাক মতোই হল। কাল আমাদের ফিরে যাওয়ার দিন। তাই আজ বিকেলটা আমি আর ইতি ঘুরে বেড়াবো। ব্যাংককের রাস্তা ভীষণ জনমানবে ভর্তি একটা জায়গা। কোন দেশের লোক নেই এখানে? পৃথিবীর সব দেশের মানুষকেই এখানে ঘুরতে দেখলাম।... বাকিটুকু পড়ুন

৪ টি মন্তব্য      ৮৩ বার পঠিত     like!

ধারাবাহিক উপন্যাস: নিয়তি - ৮

লিখেছেন জাহিদ হাসান, ০৩ রা ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১২:৫১

আট

এক সপ্তাহ পরে ভিসা হয়ে গেল। বিমানের টিকেটও বুক করা হয়ে গেল। বস আমাকে সকল দায়িত্ব বুঝিয়ে দিলেন।
আমি,সেলিম আর ইতি থাই এয়ারলাইন্সের বিমানে উঠে বসলাম। ইতি বসেছে আমার পাশেই। সে এখনও বিশ্বাস করতে পারছে না যে সে বিদেশ যাচ্ছে।
‘ওগো শুনছো? টাকাটা কিভাবে ম্যানেজ করলে কিছুই তো বলছো... বাকিটুকু পড়ুন

৬ টি মন্তব্য      ৯৮ বার পঠিত     like!

ধারাবাহিক উপন্যাস: নিয়তি- ৭

লিখেছেন জাহিদ হাসান, ০২ রা ডিসেম্বর, ২০১৮ বিকাল ৩:১৩

সাত
সেলিমের সাথে পরে ভাল করে পরিচিত হলাম। ছেলেটা খুবই চটপটে আর চালাক-চতুর। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইংরেজিতে পড়াশুনা করে বের হয়েছে।তার চেয়েও বড় কথা,সেলিমের পৃথিবী নিয়ে আছে বিস্ময়কর সব জ্ঞান। যেখানে যাচ্ছি, সেই থাইল্যান্ড নিয়ে সে এমন সব কথা শুনাল তা আগে কখনও জানতামই না।
বলল- ‘ভাই ব্যাংককে আমাদের কাজ শেষ... বাকিটুকু পড়ুন

৮ টি মন্তব্য      ৯৭ বার পঠিত     like!

ধারাবাহিক উপন্যাস: নিয়তি-৬

লিখেছেন জাহিদ হাসান, ২৯ শে নভেম্বর, ২০১৮ সকাল ৯:৫৪

ছয়
বাসায় এসে দেখি ইতি মুখ গোমড়া করে বসে আছে। ইদানীং তার নতুন রোগ হয়েছে। মুখ গোমড়া করে বসে থাকার রোগ।
বললাম- ‘ এই যে গোমড়ামুখী মেয়ে, তোমার জন্য কি এনেছি দেখ।’
সে তেমন কোন আগ্রহ দেখাল না দেখে আমি বলে উঠলাম- ‘আরে দেখছো না যে, আমি মিষ্টি এনেছি তোমার জন্য।... বাকিটুকু পড়ুন

৪ টি মন্তব্য      ৯০ বার পঠিত     like!

ধারাবাহিক উপন্যাস: নিয়তি- ৫

লিখেছেন জাহিদ হাসান, ২৭ শে নভেম্বর, ২০১৮ সকাল ১১:১০

পাঁচ
আশেপাশের দোকানের ধারদেনা শোধ করতেই আমার ছয় মাস চলে গেল।তবে পারলাম অবশেষে। এখন অল্প কিছু ঋণ রয়েছে। সেগুলোও ধীরে-সুস্থে শোধ করবো। তা নিয়ে আমার কোন টেনশন নেই।টেনশন বাঁধিয়েছে ইতি। সে সারাদিন একা থাকে। একা থাকতে তার ভালো লাগে না। তাছাড়া ভয়ও করে। কিসের ভয়? জিজ্ঞাসা করলে কিছু বলে না।
... বাকিটুকু পড়ুন

১৩ টি মন্তব্য      ১৪৫ বার পঠিত     like!

ধারাবাহিক উপন্যাস: নিয়তি- ৪

লিখেছেন জাহিদ হাসান, ২৬ শে নভেম্বর, ২০১৮ সকাল ১০:৫৭

চার
আম্মার মৃত্যুর ছয় মাস পরে আমি একটি ভালো খবর পেলাম। বাড়ির পাশে একটা নতুন গার্মেন্টস হয়েছিল দেখে আমি সেখানে চাকরির আবেদন করে রেখেছিলাম। তিন মাস পরে আমাকে নিয়োগ দেওয়া হল। আমি অর্নাস পাশ। তাই ভাল বেতনের চাকরি মিলে গেল সহজেই। অবশ্য এর জন্য শাওনের অবদানও কম নয়। সে-ই তো এসে... বাকিটুকু পড়ুন

৪ টি মন্তব্য      ১৩৫ বার পঠিত     like!

ধারাবাহিক উপন্যাস: নিয়তি-৩

লিখেছেন জাহিদ হাসান, ২৫ শে নভেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১২:১৩

তিন
বাড়ি ফিরে আম্মার এই অবস্থা দেখে আমি ইতিকে ডাকলাম। সে ছুটে এল।
বললাম- ‘আম্মার শরীরে এত জ্বর। তুমি কি করছিলে?’
সে অবাক হওয়ার ভঙ্গিতে বলল-‘ আম্মার জ্বর এসছে? কই আমিতো টের পেলাম না। ঘন্টাখানেক আগেও তো দেখে গেছি।’
আমি বললাম- ‘যাও। এক্ষুনি গিয়ে ঔষধের বক্সটা নিয়ে আসো।’
সে এক দৌড়ে গিয়ে ঔষধের বক্সটা... বাকিটুকু পড়ুন

৮ টি মন্তব্য      ১৩৪ বার পঠিত     like!

ধারাবাহিক উপন্যাস: নিয়তি-২

লিখেছেন জাহিদ হাসান, ২৪ শে নভেম্বর, ২০১৮ সকাল ৯:৪৬

দুই
বজলুলের কাছ থেকে টাকা ধার করে বাজার করে বাড়ি ফিরছি। পাঁচশ টাকায় ব্যাগভর্তি বাজার করতে পারবো ভাবিনি।এখনও পকেটে কিছু টাকা রয়ে গেছে। তবুও রিকশা করে বাড়ি ফিরতে সাহস করিনি। কারণ আমি নিম্ন-মধ্যবিত্ত মানুষ। আমার কাছে দশটা টাকার দামই আকাশ সমতুল্য। তাই বাজারের ব্যাগটা যতই ভারী হোক হেঁটে হেঁটে বাড়ি ফেরা... বাকিটুকু পড়ুন

১০ টি মন্তব্য      ১৩৫ বার পঠিত     like!

ধারাবাহিক উপন্যাস: নিয়তি -১

লিখেছেন জাহিদ হাসান, ২৩ শে নভেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১২:৩১

এক
সুখ সবার কপালে সয় হয় না। আমার কপালটাও ঠিক তেমনি। নয়তো ঋণের বেড়াজালে পড়ে সারাটা জীবন কষ্ট করলাম। এরপরে সকল ঋণ থেকে মুক্তি পেয়ে যখন একটু সুখের মুখ দেখছিলাম,তখন আবারও সেই ঋণের খপ্পরে পড়লাম। কেন? কপাল আর কাকে বলে। এখন ভাবি হয়তো মৃত্যুই পারে আমাকে প্রকৃত মুক্তি দিতে। কিন্তু মৃত্যু... বাকিটুকু পড়ুন

৭ টি মন্তব্য      ১৪৮ বার পঠিত     like!
আরো পোস্ট লোড করুন
ব্লগটি ৪৭৪৬৬ বার দেখা হয়েছে

আমার পোস্টে সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার করা সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার প্রিয় পোস্ট

আমার পোস্ট আর্কাইভ