somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

আপনি যে ব্লগটি খুঁজছেন,এই ব্লগটি পাওয়া যায়নি...

আলোচিত ব্লগ

যার যত কাজ তার তত অবসর!

লিখেছেন হাসান মাহবুব, ২২ শে জুলাই, ২০১৭ বিকাল ৪:৩৬



শাফায়েত সাহেব একটি বেসরকারী প্রতিষ্ঠানের উচ্চপদে চাকুরি করেন। কাজের চাপ প্রচণ্ড। পরিবারের বড় ছেলে হওয়াতে সাংসারিক দায়িত্বও কম না। আরো খুঁটিনাটি ব্যস্ততার কথা বলে শেষ করা যাবে না।... ...বাকিটুকু পড়ুন

তোমায় হৃদ মাঝারে রাখিবো...

লিখেছেন মৌমুমু, ২২ শে জুলাই, ২০১৭ সন্ধ্যা ৭:৫৮



ছেড়ে যাবার মূহুর্ত গুলো কেন এত ভয়ংকর হয়!
চাপা কান্না আটকে রেখে হাসি মুখে ভালো থেকো বলতে হয়!
টপটপ করে মোবাইল স্ক্রীনে পানি পড়সে,
অথচ ইমো যাচ্ছে হাসির।
মেনে নিতে খুব কষ্ট হলেও... ...বাকিটুকু পড়ুন

সুরা মূলকের ফজিলত

লিখেছেন নাবিক সিনবাদ, ২২ শে জুলাই, ২০১৭ রাত ৯:২৩



সুরা মূলক পবিত্র কোরানের ৬৭ নম্বর সুরা এর আয়াত সংখ্যা ৩০ এটা মক্কায় অবতীর্ণ হয়।

এই সুরা তেলাওয়াতের অনেক ফজিলত রয়েছে,

হজরত আবু হুরাইরা রা. থেকে বর্ণিত আছে যে, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু... ...বাকিটুকু পড়ুন

জৈ/চি : এক শ' চার

লিখেছেন শ্মশান ঠাকুর, ২৩ শে জুলাই, ২০১৭ রাত ১:০৬

মাতা!
আমার প্রথম গুরু
যিনি পরবর্তী জ্ঞানগুরুর পথ দিয়েছেন। ...বাকিটুকু পড়ুন

শুভ জন্মদিন দ্য নটোরিয়াস ওয়ান! শুভ জন্মদিন তাজউদ্দিন আহমেদ!

লিখেছেন তালপাতারসেপাই, ২৩ শে জুলাই, ২০১৭ রাত ১:১৯


১৯৭২ সাল, বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট রবার্ট ম্যাকনামারার সাথে মিটিং এ বসেছেন তাজউদ্দীন আহমেদ। প্রাথমিক আলোচনার পর বিস্তারিত আলোচনার জন্য ম্যাকনামারা, তাজউদ্দীন আহমদ এবং সিরাজুদ্দিন সাহেব যখন বসলেন, তখন ম্যাকনামারা জানতে চাইলেন... ...বাকিটুকু পড়ুন

নির্বাচিত ব্লগ

হারানো মাটির প্রেম !

লিখেছেন জে আর সিকদার, ২০ শে জুলাই, ২০১৭ সকাল ১১:৫৪


সর্বনাশা যমুনা নদী !

মাটি হারিয়ে যায় প্রকৃতির অবিচারে । বেঁচে থাকাই যুদ্ধ মেনে নিয়ে নিরীহ মানুষ তবুও পরে থাকে মাটিতেই মাটির প্রেমে। মা-মাটি অতুলনীয় প্রেমের সেরা দৃষ্টান্ত । সেই মা হারিয়ে যায় একটা সময়। নিয়তি মেনে নিতে হয়। শোকাহত জীবন ধীরে ধীরে শোক ভুলে যায়। সবকিছু মেনে নিয়ে জীবন স্বাভাবিক হয়ে যায়। খুব কম সংখ্যক মানুষই মাটিকে হারায়। মাটি হারানোর কষ্ট মা হারানোর চেয়ে একটুও কম নয়। যারা জন্ম মাত্রই মাটির স্পর্শ পায় নাই তাদের মনে এই অনুভুতির জায়গা নেই হয়ত। আমি তাদের অনুভূতি অনুভব করছি যাদের বাংলাদেশের সাধারন গ্রামেগুলি জন্মস্থান। যারা মাটির স্পর্শ নিয়ে... ...বাকিটুকু পড়ুন

অচল ঢাকা! সচল ঢাকা

লিখেছেন বিদ্রোহী ভৃগু, ২০ শে জুলাই, ২০১৭ সকাল ১১:০৬

স্বপ্ন আর বাস্তবতার মাঝে যদি আকাশ সমান ব্যবধান হয় তা অসমই বলতে হবে। অথবা দিবা স্বপ্ন বা আকাশ কুসুম!
আমরা স্বপ্ন দেখছি উন্নয়নের মহাসড়কের!
মধ্যম আয়ের দেশের।
স্বপ্নগুলো ভাল। কোন সন্দেহ নেই। এরচে উত্তম স্বপ্ন দেখাতেও কোন বাঁধা নেই।

কিন্তু বাস্তবতা! অথবা আমাদের চলমান নীতি, পলিসি, পথ চলায় তা কি এচিভ করতে পারব?
স্বপ্ন আর বাস্তবতার সমন্বয়ে গৃহিত পদক্ষেপগুলো কি? কেমন?

উন্নয়নের মূল বলা যেতে পারে গতি। আপনার চলার নূন্যতম বাঁধাহীন গতি। সঠিক সময়ে গন্তব্যে পৌঁছার নিশ্চয়তা। তা ব্যক্তিক অফিস হোক বা আমদানী রফতানির পণ্য হোক বা জরুরী মুমুর্ষ রোগী।
অথচ ঢাকায় যা কল্পনাও করা যায় না। মিরপুর/ উত্তরা থেকে মতিঝিলের দূরত্ব মাত্র ২০-২৫ কিলো। ঈদের... ...বাকিটুকু পড়ুন

অস্তাচলের ভাবনা....

লিখেছেন খায়রুল আহসান, ২০ শে জুলাই, ২০১৭ সকাল ১০:৪১


সন্ধ্যা ঘনায়ে এলো,পাখি খোঁজে নীড়,
মেঘ তুমি ভেসে যাবে ছড়িয়ে আবির।
আমি হেথা দেখে যাবো রঙের খেলায়
তোমার হারিয়ে যাওয়া আঁধার বেলায়।


মেঘ তুমি ভেসে যাবে কোন দেশেতে?
অনুপম এ রঙে তোমায় কে এঁকেছে?
সোনালী আভায় মোড়া নীল ধুপছায়া
প্রেয়সীর কপোল সম কোমল কায়া!


ওপারে ওড়ো তুমি আপন দলবলে,
এপারে বন্দী আমি জানালার গ্রীলে।
অস্তাচলে ভাসো তুমি কত অনুরাগে,
আমি থাকি সংসারে সোহাগে বিরাগে।


পাদটীকাঃ মাগরিব এর আযান শুনে জায়নামাযটা বিছালাম। কী মনে করে পশ্চিমের পর্দাটা সরিয়ে দিলাম। হঠাৎ দেখি এ অপরূপ দৃশ্য!... ...বাকিটুকু পড়ুন

ধরা যাবে না, ছোঁয়া যাবে না !! আঁকা তো যাবেই না

লিখেছেন জুয়েল তাজিম, ২০ শে জুলাই, ২০১৭ সকাল ১০:২৪




আমি অনেকবার স্কেচটি দেখেছি, বড় করে দেখেছি; আমার চোখে কোনো বিকৃতি ধরা পড়েনি। কারণ আমি জানি এটা কাইয়ুম চৌধুরীর অাঁকা নয়, বঙ্গবন্ধুর ছবিটি এঁকেছে ক্লাশ ফাইভে পড়ুয়া একজন।

আমি বরং মুগ্ধ হয়েছি, একটি শিশু বঙ্গবন্ধুকে হৃদয়ে ধারণ করে তা আবার রংতুলিতে ফুটিয়ে তুলেছে। বঙ্গবন্ধুর স্কেচের ব্যাকগ্রাউন্ডে জাতীয় পতাকার ব্যবহারও আমার চমৎকার লেগেছে।

এই ছবিটি ব্যবহার করে গত ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবসে বরিশালের অাগৈলঝারার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা গাজী সালমান তারেক আমন্ত্রণপত্র তৈরি করেন। আগে জানলে শিশুটিকে উৎসাহ দেয়ায় আমি সালমান তারেককে ধন্যবাদ জানাতাম। দেরিতে হলেও এখন তাকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। তবে এখন বেচারার ধন্যবাদ নেয়ার মত মানসিক অবস্থা... ...বাকিটুকু পড়ুন

পরিবর্তন চাই স্বার্থসিদ্ধির বিকৃত মানসিকতার

লিখেছেন ...নিপুণ কথন..., ২০ শে জুলাই, ২০১৭ রাত ২:১২

ক্লাস ফাইভের বাচ্চাটা বঙ্গবন্ধুর যে ছবিটা এঁকেছে, সেখানে বিকৃতির কী আছে আমাকে কেউ প্লিজ দেখাবেন? আমি অতটা জ্ঞানী নই, আমার অনুভূতিও হয়তো সামান্যই আছে, তাই বুঝতে পারছি না। কেউ জানালে কৃতজ্ঞ থাকবো।
.
আমার কাছে বঙ্গবন্ধু একজন আদর্শ, একজন অদ্ভুত সম্মোহনী শক্তিসম্পন্ন নেতা, একটি জাতির পিতা তিনি, বাঙালির অবিসংবাদিত নেতা। নতুন প্রজন্ম তাঁকে জানবে, তাঁর সম্পর্কে পড়বে, তাঁকে হৃদয়ে ধারণ করবে এটাই তো আমরা দল-মত-ধর্ম নির্বিশেষে মুক্তিযুদ্ধের চেতনার মানুষেরা চাই, তাই না? নতুন প্রজন্মের প্রতিনিধি একটা ক্লাস ফাইভের বাচ্চা যদি তাঁর ছবি আঁকার চেষ্টা করে, তাঁর ছবি তো নিশ্চয়ই বাচ্চাদের মতোই হবে, শিল্পাচার্য বা পাবলো পিকাসোর মতো হবে না, তাই না?... ...বাকিটুকু পড়ুন