somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

অন্তরঙ্গ আলাপনঃ- আপনাদের সাথে আছেন শ্রদ্ধেয় ব্লগার মাঈনউদ্দিন মইনুল

০৮ ই জানুয়ারি, ২০১৫ রাত ৯:০২
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
পাঠক লেখক ব্লগবন্ধুকে ‘আওয়াজ’ শুনায় স্বাগতম!



আমি একজন পাঠক লেখক। বন্ধু এবং আড্ডা আমার দু’টি প্রিয় বিষয়। স্বদেশ, মুক্তিযুদ্ধ, বাংলা আমার তিনটি অবসেশন। ব্লগিং-এর নামে শুধু আওয়াজ রেখে যাচ্ছি, লিখিত আওয়াজ। মহাকালের সুবিশাল কর্ণে একটি ক্ষীণ চিৎকার।

কবিতা, প্রবন্ধ, গল্প, ছড়া আর মন্তব্যের মাঝে ফুটে ওঠে আমার আমি। ভুল হোক শুদ্ধ হোক, এটিই আমার সর্বশ্রেষ্ঠ সংস্করণ। বিনম্র কণ্ঠে মহাকালের সুহৃদ পাঠক সমীপে তারই আওয়াজ দিয়ে যাই...



প্রিয় ব্লগার আপনারা ইতিমধ্যে জানেন “ অন্তরঙ্গ আলাপন” সাক্ষাতকার ভিত্তিক একটি নিয়মিত লাইভ আয়োজন। আমি আপনাদেরকে স্বাগত জানাই বিশেষ ব্লগারদের নিয়ে লাইভ ধারাবাহিক “অন্তরঙ্গ আলাপনে”। আপনারা হয়তো পোষ্টের উপরের ছবি ও কথাগুলো দেখে চিনে গেছেন আজকের অতিথি ব্লগারকে। আর হ্যাঁ যারা চিনেছেন এবং যারা এখনো চিনতে পারেন নাই তাদেরকে পোষ্টের স্বার্থে জানিয়ে দিচ্ছি অন্তরঙ্গ আলাপনের এ পর্বের অতিথি শ্রদ্ধেয় ও আমার অতি পছন্দের প্রিয় ব্লগার মাঈনউদ্দিন মইনুল । তার সাথে আমাদের খোলামেলা আলোচনা হবে যার মাধ্যমে আমরা অন্বেষণ করবো তার একান্ত ব্যক্তিগত কিছু অনুভতি – ব্লগিং নিয়ে, দেশ নিয়ে, মানুষ নিয়ে, তার ব্যাক্তিগত জীবন নিয়ে এবং এ পর্যন্ত তার বিভিন্ন লেখালেখি সম্বন্ধে। আলোচনার ভাষা হতে হবে সংযত এবং অপ্রাসাংগিক বিষয়কে এড়িয়ে যেতে হবে সযত্নে। তবে কোন অনধিকার চর্চা বিষয়ক প্রশ্ন এখানে গ্রহণযোগ্য হবে না।



প্রথমে প্রিয় ব্লগার মাইনউদ্দিন মইনুল ভাই এর সাথে আমার আলাপনের কিছু অংশ তুলে ধরছি। তার আগে জানিয়ে দিচ্ছি ব্লগে অনেকে যারা মনে করেন মাইনউদ্দিন মইনুল ভাইকে খুব গুরু-গম্ভীর মানুষ তারা এখনো অজানার স্বর্গেই বসবাস করছেন। অসম্ভব চমৎকার রসিক এবং প্রাণবন্ত একজন মানুষ।

১) মাঈনউদ্দিন মইনুল ভাই কেমন আছেন?

মাঈনউদ্দিন মইনুলঃ- ভালো আছি, ভাই। শীতের দিনের উষ্ণপোশাকের উমের মধ্যেও অস্বস্তিতে থাকি ছিন্নবস্ত্রের শিশুদেরকে দেখলে।


২) অন্তরঙ্গ আলাপনের এই আয়োজনে এসে কেমন লাগছে?

মাঈনউদ্দিন মইনুলঃ- আমার প্রোফাইলে চোখ বুলালেই বুঝতে পারবেন, আড্ডা আমার কত প্রিয় একটি বিষয়।


৩) আপনি বর্তমান কর্মজীবনে কী করছেন?

মাঈনউদ্দিন মইনুলঃ- একটি আন্তর্জাতিক শিশু অধিকার সংস্থায় কাজ করছি। পেশায় উন্নয়নকর্মী। বিগত কর্মজীবনের অধিকাংশ সময়ই মাঠে ছিলাম, খেটেখাওয়া প্রান্তিক মানুষের পাশাপাশি।


৪) সামু অথবা ব্লগের সাথে আপনার পরিচয় কিভাবে?

মাঈনউদ্দিন মইনুলঃ- ব্লগ বলতে সামহোয়্যারইন ব্লগের সাথেই আমার প্রথম পরিচয়, মন্তব্য পাঠক হিসেবে। গ্রামে যেখানে ইন্টারনেটের স্পিড ছিল খুবই কম, সেখান থেকে ব্লগ ও মন্তব্য পড়েছি এই ব্লগের প্রায় শুরু থেকেই। তখন ব্লগারদের মধ্যে মন্তব্যে-মন্তব্যে এমন ঘনিষ্ট সম্পর্ক দেখেছি যে, আমার মনেই হয় নি আমিও তাদের মধ্যে যুক্ত হতে পারবো। শহরে ফিরে এসে সক্রিয় ব্লগার হিসেবে প্রথমে নিবন্ধিত হই প্রথম আলো ব্লগে। তারপর একই সক্রিয়তায় সামুতে এসে যুক্ত হই।


৫) সামুর সাথে পথচলাতে আপনার অনুভূতি কেমন ?


মাঈনউদ্দিন মইনুলঃ- ‘চমৎকার’ বললে তো গড়পরতা মন্তব্য হিসেবে দেখবেন, কিন্তু সামু’র প্রতি আমার অনুভূতি আসলেই চমৎকার। ঐতিহ্যবাহী ব্লগালয়টি ক্রমেই সংকুচিত হয়ে যাচ্ছে, অথবা একটিভ ব্লগারের সংখ্যা কমে যাচ্ছে দেখে ব্যথিত হই। এর পেছনে অনেক কারণের মধ্যে দু’টি কারণ আমার কাছে উল্লেখযোগ্য মনে হচ্ছে:
ক) যেকোন কারণে নবীন ব্লগাররা তত মিথস্ক্রিয়া সৃষ্টি করতে পারছেন না;
খ) পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে (দেশের আইন, অগণিত বাংলা ব্লগ, রাজনৈতিক মেরুকরণ ইত্যাদি) সামহোয়্যারইন পর্যাপ্তভাবে খাপখাওয়াতে পারছে না।


৬) প্রত্যেকটা মানুষের জীবনের দর্শনবোধ আলাদা , আপনার জীবনের দর্শন কি?

মাঈনউদ্দিন মইনুলঃ- কঠিন প্রশ্ন! এর যথাযথ উত্তর বের করার জন্য আরও গভীরভাবে ব্লগিং করে যেতে চাই!


৭) ব্লগিং করতে এসে আপনার জীবনের কোন কিছুর কি পরিবর্তন ঘটেছে ?

মাঈনউদ্দিন মইনুলঃ- ব্লগিং করতে এসে আমার পেশাগত জীবনে কোন পরিবর্তন নেই। তবে ব্যক্তিগত জীবনাচরণে বেশকিছু পরিবর্তন এসেছে। তারমধ্যে গুরুত্বপূর্ণটি হলো: আগের চেয়ে আমি আরও বেশি পর্যবেক্ষণশীল; আরও সংবেদনশীল। (এবং আগের চেয়ে আমি শারীরিকভাবে অনেক ওজনধার হয়েছি। ভারিক্কি বেড়েছে আরকি! এসবই হলো শারীরিক।)


৮) অবসর সময়ে কি করতে পছন্দ করেন?

মাঈনউদ্দিন মইনুলঃ- আগে অবসরে খবর পড়তাম অথবা খবর দেখতাম। এখন ব্লগ পড়ি ও ব্লগ লেখি। বই পড়ার অভ্যাস আগের মতোই আছে। ওটি আমি ব্যস্ততার সময়ও করি।


৯) আপনার প্রিয় ব্যক্তিত্ব কে?

মাঈনউদ্দিন মইনুলঃ- পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াহীন উত্তর দিতে চাইলে: সেটি হলো গিয়া... এহেম... আমি
কিন্তু এজন্য আমাকে হামবড়া না বলে ‘আত্মানুসন্ধানী’ বলতে পারেন।


১০) দেশ নিয়ে আপনার ভাবনা কি?

মাঈনউদ্দিন মইনুলঃ- ভাবনাজুড়ে দেশ। দেশ ও সমাজ ছাড়া আমার অস্তিত্ব কোথায়! আমার বর্তমান পেশাটিতে আজও লেগে থাকার পেছনেও প্রধান কারণ হচ্ছে, দেশ। সকল পরিস্থিতিতে আমি দেশ ও দেশের নেতানেত্রীদেরকে আমি ভালোবাসি। ষোল কোটির অধিক মানুষের ছোট্ট দেশটিকে সামনে এগিয়ে নিয়ে যাবার অনেক কিছু করছেন তারা। তারা না করলে আমরা আর কোথায় যেতাম!

১১) বাংলা ব্লগের জনপ্রিয়তা আরো বাড়ানোর জন্য মডারেশনের কি কি ভূমিকা নেয়া প্রয়োজন?

মাঈনউদ্দিন মইনুলঃ- শুধু জনপ্রিয়তার কারণেই সকলে একটি ব্লগে আসে না। তাই জনপ্রিয়তার চেয়ে মিথস্ক্রিয়তা আমার কাছে বেশি প্রয়োজনীয় মনে হচ্ছে। এর উত্তরটি ব্লগ পরিচালকরা অন্যভাবেও দিতে পারেন। তবে আমার মতে একটি কমিউনিটি ব্লগকে পুরোপুরি মিথস্ক্রিয় করে তোলার জন্য ব্লগ ব্যবস্থানায় এই বিষয়গুলো থাকা চাই-

ক) প্রচলিত আইনের মধ্যে থেকে ব্লগারদেরকে পোস্ট ও মন্তব্যের মাধ্যমে মত প্রকাশে স্বাধীনতা দেওয়া
খ) ব্লগের সম্পাদকীয় নীতিমালা থাকা এবং সেপ্রেক্ষিতে নিয়মিতভাবে পোস্ট নির্বাচন বা স্টিকি করা
গ) বিভিন্ন জেনারের (genre) ব্লগকে শ্রেণীবদ্ধ রাখা এবং নেভিগেশন সুবিধা দেওয়া
ঘ) নিয়মিত, নিবেদিতপ্রাণ এবং বিশেষ অবদানকারী ব্লগারদেরকে একটি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে স্বীকৃতি প্রদানের ব্যবস্থা রাখা
ঙ) ব্লগের আর্থিক স্বাবলম্বিতার প্রচেষ্টা থাকা এবং রুচিমত সব সুযোগ গ্রহণ করা


১২) ব্লগিং মাধ্যম মূল ধারার গণ মাধ্যম হিসাবে অবতীর্ণ হওয়ার সম্ভাবনা কতটুকু?

মাঈনউদ্দিন মইনুলঃ- ‘সম্ভাবনা’ বলার সময় অতিক্রম করে এসেছি সেই কবে! অনলাইন মাধ্যমই এখন মূলধারার গণমাধ্যম। প্রিন্টমিডিয়ার ঔজ্জ্বল্য আজ ম্রিয়মান। পত্রিকাগুলো এখন অ্যাপস বিক্রি শুরু করে দিয়েছে। বিশ্বের খ্যাতিমান সাংবাদিক/কলামিস্ট/লেখকদের রয়েছে ব্যক্তিগত ব্লগ। যা ইন্টারনেটে নেই, তা পৃথিবীতেও নেই – এরকম ধারণা প্রতিষ্ঠিত হতে শুরু করেছে।

১৩) একজন দায়িত্বশীল ব্লগারের কি কি গুন থাকা উচিৎ?

মাঈনউদ্দিন মইনুলঃ- মন্তব্য এবং পোস্টের মাধ্যমে ব্লগিং করে যাওয়া।


.......................................................................................................
প্রিয় ব্লগারের কথোপকথন দেখে আপনারও কিছু জানার ইচ্ছে হচ্ছে নিশ্চয়ই। হওয়াটাই স্বাভাবিক। আপনার প্রিয় ব্লগারের না জানা কথার উত্তর জানাতে আপনাদের সাথে এখন অনলাইনে আছেন আমাদের সকলের প্রিয় ব্লগার মাঈনউদ্দিন মইনুল । পুরো ব্যাপারটাই লাইভ।


ব্লগার মাঈনউদ্দিন মইনুল



আর অবশ্যই ভুলবেন না অনভিপ্রেত শব্দ বা প্রশ্নের উচ্চারণ ঘটলে সেটাকে গলা টিপে মারতে উপস্থিত আছি আমি নিজেও ;)
৭১টি মন্তব্য ৩০টি উত্তর পূর্বের ৫০টি মন্তব্য দেখুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

প্যালেষ্টাইনিয়ান অথরিটির ক্যাবিনেট পদত্যাগ করেছে।

লিখেছেন সোনাগাজী, ২৬ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ রাত ৮:০৬



মনে হয়, আমেরিকা চাপ দিচ্ছে প্যালেষ্টাইনিয়ান অথরিটির নতুন ক্যাবিনেট গঠন করতে। আমেরিকা কি করার চেষ্টা করছে, তা পরিস্কার নয়; পুরো ফিলিস্তিনে কেহ এখন আর প্যালেষ্টাইনিয়ান অথরিটিকে বিশ্বাস... ...বাকিটুকু পড়ুন

কার্ড

লিখেছেন হাসান মাহবুব, ২৬ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ রাত ৯:১৫


তার সাথে আমার যখন দেখা হয়েছিল, তখনও এই শহরে মেট্রোরেল আসে নি। লোকাল বাসে করে যাতায়াত করি মিরপুর-মতিঝিল-মিরপুর। ক্লান্তিকর। সেদিন অনেকক্ষণ দাঁড়িয়ে থেকেও সরাসরি মতিঝিলের বাস পাই নি ।... ...বাকিটুকু পড়ুন

সহজ ভাষায় লিখলে হয় সস্তা-দরের লেখক!

লিখেছেন শেরজা তপন, ২৬ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ রাত ১১:২৭


ওপার বাংলার কথাশিল্পী সমরেশ মজুমজারের সাথে হুমায়ূন আহমেদের বেশ খাতির ছিল।তিনি ব্যক্তিগতভাবে মনে করেন, রবীন্দ্রনাথ ও শরতচন্দ্রের পরে বাংলা ভাষার সবচেয়ে জনপ্রিয় লেখক ‘হুমায়ূন আহমেদ’।
তবে আমার মত ভিন্ন; আমি মনে... ...বাকিটুকু পড়ুন

ঘৃন্য মৌলবাদীরা জয়াদের ঘৃণা করলেও সৃষ্টিকর্তা তাদের ভালোবাসেন।

লিখেছেন মোহাম্মদ গোফরান, ২৭ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ রাত ১২:১৪


ছবি - ব্যক্তিগত।
ব্লগে এক পাগল আমার পোস্টে ব্যবহৃত ছবির প্রাইভেসি নিয়ে হাউকাউ করছে। একটা আস্ত পোস্টও প্রসব করছিল। অথচ এই পর্যন্ত যতো ছবি আমি ইউজ করছি... ...বাকিটুকু পড়ুন

জনতার উচিৎ মেয়েটির কাছে ক্ষমা চাওয়া

লিখেছেন জ্যাক স্মিথ, ২৭ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ রাত ১২:৪৭



কিছু হলেই অনুভূতিতে আঘাত, পান থেকে চুন খসলেই ধর্ম গেলো গেলো; মেরে ফেলো, কেটে ফেলো, পুতে ফেলো এসবই হচ্ছে ধর্মান্ধ জনগোষ্ঠীর মনোভাব। সময় এসেছে এসব সেন্টিমেন্টাল জনগোষ্ঠীর অনুভূতি... ...বাকিটুকু পড়ুন

×