somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

আমার পরিচয়

লিখতে ভালো লাগে তাই লিখি।

আমার পরিসংখ্যান

সুদীপ কুমার
quote icon
ধূসর পথের যাত্রী
আমার সকল পোস্ট (ক্রমানুসারে)

শিরোনামহীন-৭

লিখেছেন সুদীপ কুমার, ১২ ই জুন, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:০৩

এখানে কোন তীর্থস্থান নেই যা আমাকে টানবে
তবুও আমি এসেছি।
কোন প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি নয়
তবু কোনও এক মায়াজালে আমি আটকে যাই।
কোন গন্ধরাজ বা হাস্নাহেনার ফুলে ফুলে শোভিত বাগান নয়
তবুও পাগল করা গন্ধে আমি বুঁদ হয়ে রয়েছি।

কোন ঈশ্বরী ছিলনা সেই স্থানে
ছিলে শুধু তুমি।

১২/০৬/২০১৯
বাকিটুকু পড়ুন

৪ টি মন্তব্য      ৪৬ বার পঠিত     like!

শিরোনামহীন-৬

লিখেছেন সুদীপ কুমার, ১২ ই জুন, ২০১৯ রাত ১:৪০

আমার প্রেম,আমার ভালোবাসা
কতদিন দেখা হয়নি তোমার সাথে?
আর দেখো এর মধ্যে চাঁপা গাছটি সেজেছে ফুলে ফুলে
আমি কিছু ফুল কুড়িয়েছি তোমার জন্যে,অবশ্য শুকনো।
তোমার নিশ্চয়ই মনে আছে ওই ঘড়ির কথা
একসাথে কিনতে গিয়েছিলাম, হারুর দোকানে
দোকান থেকে বেরিয়ে তোমার সে কি হাসি,হাসতে হাসতে বললে-
মানুষের নাম হারু?-হয়?
প্রতিদিন সকালে ঘড়িটি আমাকে মনে করিয়ে দেয় তোমার সেই উচ্ছল... বাকিটুকু পড়ুন

৩ টি মন্তব্য      ৩১ বার পঠিত     like!

শিরোনামহীন-২

লিখেছেন সুদীপ কুমার, ১০ ই জুন, ২০১৯ রাত ১১:২০

হয়তো একটু স্পর্শ।সামণ্যই,তবে কিনা তোমার স্পর্শ বলে দেয় হাজারো কথা-
আর একটু থাকো আমার পাশে -
ভালোবাস কি আমাকে?

হয়তো একটু স্পর্শ আমাকে বলে দেয় ভালোবাসার কথা
সম্পর্কের দৃঢ়তার কথা

আমি বসে আছি তোমার পাশে অনন্তকাল,-হাতে হাত।

১০/০৬/২০১৯
বাকিটুকু পড়ুন

১ টি মন্তব্য      ৪৪ বার পঠিত     like!

শিরোনামহীন-১

লিখেছেন সুদীপ কুমার, ১০ ই জুন, ২০১৯ রাত ১২:৩৭

বাতাসে বৃষ্টির কান্নার সুর,-অপেক্ষামান
বাড়িগুলি সব নতুন,-পুরানো হওয়ার অপেক্ষায়

হৃদয় অপেক্ষা করে,-চিরকাল
ভালোবাসার জন্যে,-চিরটিকাল

চির তরুণ হৃদয়
বয়স শুধু –শরীরে।

যে রাস্তা দিয়ে আমি হাঁটছি তা বেশ ভেজা,বৃষ্টি হয়েছে কিছু আগে।

০৯/০৬/২০১৯
বাকিটুকু পড়ুন

৯ টি মন্তব্য      ৭৪ বার পঠিত     like!

বিতর্ক

লিখেছেন সুদীপ কুমার, ০৯ ই জুন, ২০১৯ দুপুর ১:০১

কালুরঘাট বেতার কেন্দ্র বলে কিছু নেই।

একজন মেজর হেটে হেটে বেতার কেন্দ্রে আসলেন
দাঁড়ালেন
আকাশের দিকে চেয়ে ঈশ্বরকে বললেন-
আজ হতে বাংলাদেশ স্বাধীন।স্বাধীন।

এ দেশে ছয় দফা বলে কিছু ছিলো না
৭০ এর নির্বাচন বলে কিছুই ছিলো না
সাত ই মার্চের ভাষণ ছিলো না।

সব কিছু সত্য
সব কিছু মিথ্যা।

কালুরঘাট বেতার কেন্দ্র বলে কিছু নেই

আমি ধর্মপুত্র যুধিষ্টির হতে চাইবো... বাকিটুকু পড়ুন

১০ টি মন্তব্য      ১২৬ বার পঠিত     like!

তোমাদের মাঝে

লিখেছেন সুদীপ কুমার, ০২ রা জুন, ২০১৯ রাত ১২:০৩

অনেকটা পথ বুঝি শেষ হলো,-তোমার-আমার
পীচ ঢালা কিম্বা মেঠো পথ,-আমাদের।

এইবার যদি বলি,-অনেক তো হেঁটেছি একসাথে,এইবার না হয় আসি
বিদায় দাও,ঠোঁটে রেখো না হয় মিষ্টি হাসি।

খুব ছোট্ট এ জীবন?
জন্ম আর মৃত্যুই যেখানে সত্যি।

হেসো না হয় বিদায় বেলায়,যেমন হাসি হেসেছিলে
আমাদের প্রথম দেখায়।
০১/০৬/২০১৯

বাকিটুকু পড়ুন

১ টি মন্তব্য      ৪৬ বার পঠিত     like!

কান্তা

লিখেছেন সুদীপ কুমার, ৩১ শে মে, ২০১৯ রাত ১০:২৪



চুপচাপ বসেছিল তার কক্ষে।বাহিরে আমবস্যার ঘোর আঁধার।বাহিরের আঁধার চেপে বসেছে কংসের মনে।মৃত্যু চিন্তা আচ্ছন্ন করেছে তাকে।দ্বার রক্ষী গুপ্তচরের আগমন বার্তা দেয়।কক্ষে গুপ্তচর প্রবেশ করে।
-কংস মহারাজের জয় হোক।জয় হোক কংস মহারাজের।
কংস হাত তুলে ইঙ্গিত করে।গুপ্তচর থেমে যায়।
-কি খবর?
-মহারাজ,নন্দরাজ আর তার প্রজারা মিলে পুতনার দেহ কেটে ছোট ছোট টুকরায় পরিণত করেছে।তারপর যমুনার... বাকিটুকু পড়ুন

২ টি মন্তব্য      ৬২ বার পঠিত     like!

পরিপক্ক ফসলে ভরা মাঠ

লিখেছেন সুদীপ কুমার, ২৪ শে মে, ২০১৯ রাত ১১:২৩


সেইসব ফসলের ক্ষেত যখন ডাক দেয় আমাকে,
নুয়ে থাকা পরিপক্ক ধানের শীষ-মাঠের পর মাঠ,
আমি ছুটে যাই-নিঃসঙ্গ পথিক এক।
নিঃসঙ্গ বলছি কেন নিজেকে?-এক জোড়া শালিক
কিম্বা বাদামী ঘাস ফড়িং,কিম্বা দিগন্তে নেমে আসা আকাশ তো সাথে আছে আমার।

সেই সমস্ত উপচে পড়া ফসলের ক্ষেত, যারা জানেনা ধানের দাম,
জানেনা- যারা সরব দামের বিষয়ে-তাদের পাতে বিদেশী চাউলের... বাকিটুকু পড়ুন

১ টি মন্তব্য      ২১ বার পঠিত     like!

স্বপ্ন ও গল্প

লিখেছেন সুদীপ কুমার, ২০ শে মে, ২০১৯ রাত ১১:০৫


চায়ের কাপের দিকে একভাবে তাকিয়ে আছে রুপক।দীপ্ত চায়ের কাপে চুমুক দেয়।
-কি হবে বলতো,যদি সব কৃষক ধান উৎপাদন বন্ধ করে দেয় একসাথে?
দীপ্তর কথায় রুপক চোখ তুলে তাকায়।
-সব কৃষক একসাথে? সম্ভব?
-ধর এমন ঘটনা যদি ঘটে।
-তা কিভাবে সম্ভব?

রুপক চায়ের কাপে চুমুক দেয়।আলো-আঁধারীর ঘর।সিগারেটের ধোঁয়া ঘুরছে সর্বত্র।রুপক একটি কাজের সুপারিশ নিয়ে এসেছে দীপ্তর কাছে।দীপ্ত... বাকিটুকু পড়ুন

৪ টি মন্তব্য      ৫৮ বার পঠিত     like!

উত্তপ্ত দুপুর ও জীবনের গল্প

লিখেছেন সুদীপ কুমার, ২০ শে মে, ২০১৯ দুপুর ২:১২



গনগনে চুল্লীর আঁচের মত তাপ ঝুলে আছে
গাছের পাতায়
যেভাবে হুজুক ঝুলে থাকে সবজান্তা বাঙালিদের মাথায়।
বৃক্ষরাজির কাছে চেয়েছিলাম নির্মল বাতাস
বৃথা আাশা
যেমন আশা করা বৃথা উঠতি ধনী নেতার কাছে-সমাজ উন্নয়ন,
নেই কোন হিন্দোল-নিথর পাতা
আর হিন্দোল নেই চোরের উর্বর মাথায়।

সেইসব দুপুরে তাল পাখা আর বাঁশের মাচা
আর পূর্বপুরুষের কাছে শোনা সকল কিচ্ছা- ছুটি জানাতো গরমকে।
ধূ ধূ... বাকিটুকু পড়ুন

৫ টি মন্তব্য      ৪৪ বার পঠিত     like!

এক্কা দোক্কা

লিখেছেন সুদীপ কুমার, ১৬ ই মে, ২০১৯ রাত ১২:২২



আমি অনুভব করছি রোদ খেলছে আমার মুখে
রোদ বা অনুভূতি কেউ আঘাত প্রাপ্ত হয়না।অথচ আঘাত পায়-ধর্মানুভূতি।
বাতাস স্পর্শ করে আমাকে আর আমি স্পর্শ করি পুস্তককে-
ধর্মগ্রন্থ।বাতাস প্রচার করে আমার মুখ নিঃসৃত শব্দ-একপেশে।

পান্ডিত্য আমায় ধরে কিম্বা আমি পান্ডিত্যকে
আমাদের দেশের বামপন্থার মত।
বামপন্থা কখন ডানপন্থায় রুপান্তরিত হয় ডারউইনের তত্ত্ব ভুল প্রমাণ করে
বলদ কিছিমের লোক টের... বাকিটুকু পড়ুন

৪ টি মন্তব্য      ৭২ বার পঠিত     like!

অচেনা পাখি এক

লিখেছেন সুদীপ কুমার, ১৪ ই মে, ২০১৯ রাত ১১:৪৫



তারের উপর পাখি ছিল বসে-অচেনা
বাতাস বয়ে যায় তাপদাহের নীচ দিয়ে
আচমকা পাখিটি বোমায় পরিণত হয়,নিক্ষিপ্ত হয় গাজায়-টনে টনে
মরছে মানুষ-কোন মুসলমান নয়,আর ওদের তেল নেই,আছে শুধু ভূমি
যারা মারছে তারাও মানুষ-ইহুদী নয়।অবশ্য অপদার্থের দল মানুষ ভাগ করে
জড় পদার্থ ভেবে নিয়ে-ইট,পাথর কিম্বা মাঠ যেমন।

বিশ্বের স্বঘোষিত বাটপার মাস্তান দেশ শান্তি বিক্রি করে,বিক্রি করে গণতন্ত্র
পেট্রো... বাকিটুকু পড়ুন

১০ টি মন্তব্য      ৫৬ বার পঠিত     like!

ধানের দর

লিখেছেন সুদীপ কুমার, ১৪ ই মে, ২০১৯ রাত ১২:৩২


গতকাল দাঁড়িপাল্লা চিৎকার দিয়ে উঠেছিল-
চল্লিশ সেরে একমণ নয়,এক চল্লিশ সেরে একমণ।

“ধান ফুরালো পান ফুরালো
খাজনা দেবো কিসে,আর কটা দিন সবুর কর
রসুন বুনেছি”

তা বাপু আমাদের ধান এখন আর ফুরায় না।

কয়েকদিন আগে প্রেস ক্লাবের সামনে দাঁড়িয়ে
মানব বন্ধন দেখছিলাম ,আচমকা একজন জানতে চায়-জন পিছু কত দর?

ধানের দর
মানের দর
না বুঝেই বিশেষজ্ঞ হওয়ার দর
বিশেষ... বাকিটুকু পড়ুন

৬ টি মন্তব্য      ৬৪ বার পঠিত     like!

ভাগের বাড়ি

লিখেছেন সুদীপ কুমার, ১৩ ই মে, ২০১৯ রাত ১২:১৯



গরম তার চাবুক মারছিল খোলা মাঠে
আর ঘাসহীন জমিতে দুটি গরু দাঁড়িয়ে ছিল-বিব্রত ভঙ্গিতে

যেখানে বসেছিলাম তার অদূরে ঘুমিয়ে আছে মৃত মানুষের দল
অর্থাৎ বসেছিলাম শ্মশানে-ভাগের বাড়ি
এক একটি কবরে কতজন?

কিছুটা দূরে একটি বটগাছ
কিছুটা দূরে একটি নদী-খুব শান্ত
কিছুটা দূরে মৃত্যু-আমার অপেক্ষায়।

১২/০৫/২০১৯
বাকিটুকু পড়ুন

৪ টি মন্তব্য      ৩৮ বার পঠিত     like!

দুই ভুবন

লিখেছেন সুদীপ কুমার, ১২ ই মে, ২০১৯ রাত ১:১১



জ্যোৎস্নার আলোয় ভেসে যাচ্ছে চারপাশ।ডাবগাছের পাতায় আলো চিক চিক করছে।দীপ্ত বেশ উত্তেজনা নিয়েই ছাদে বসে ছিল।কঙ্কার আসার কথা।দুপুরে কঙ্কা চুপিসারে এক টুকরো কাগজ ফেলে দিয়েছিল ওর সামনে।ফেলে দিয়েই দ্রুত চলে যায়।দীপ্ত কুড়িয়ে নেয়,পড়ে-রাত আটটা।ছাদে।কাগজের টুকরোটি পকেট হতে বের করে দীপ্ত।ঘ্রাণ নেয়।কঙ্কার শরীরের গন্ধ লেগে আছে কাগজে।পূথিবীর প্রতিটি মেয়েরই শরীরের গন্ধ... বাকিটুকু পড়ুন

৪ টি মন্তব্য      ৫৫ বার পঠিত     like!
আরো পোস্ট লোড করুন
ব্লগটি ৬৩৭১২ বার দেখা হয়েছে

আমার পোস্টে সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার করা সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার প্রিয় পোস্ট

আমার পোস্ট আর্কাইভ