somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

আমার পরিচয়

লিখতে ভালো লাগে তাই লিখি।

আমার পরিসংখ্যান

সুদীপ কুমার
quote icon
মন যা চায়।
আমার সকল পোস্ট (ক্রমানুসারে)

স্পন্দন ( তৃতীয় পর্ব)

লিখেছেন সুদীপ কুমার, ২৬ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ১০:০১



করিডরে ইলোরার সাথে জয়ন্তর দেখা হয়।ইলোরা দ্রুত গতিতে এগিয়ে আসছে।ক্লাসে যেতে লেট হয়েছে তার।শিক্ষকদের ডরমেটরি হতে ওদের ফ্যাকাল্টি অনেক দূর হয়ে যায়।আর ইলোরা যে সময় বেরোয় সেই সময় রিক্সা পাওয়া খুব কঠিন।রোদে হেঁটে এসেছে,তাই ইলোরার ফর্সা পানপাতা মুখটি লাল হয়ে আছে।জয়ন্ত মুগ্ধ হয়ে ইলোরাকে দেখতে থাকে।দু’জনের চোখাচোখি হয়।কেউ কোন... বাকিটুকু পড়ুন

১ টি মন্তব্য      ৪৫ বার পঠিত     like!

স্পন্দন (দ্বিতীয় পর্ব)

লিখেছেন সুদীপ কুমার, ২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ১০:২৯




জগদীশ বাবুর বাড়িতে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।রাত্রি এগারোটা বেজে গিয়েছে।কেউ এখনও রাতের খাবার খায়নি। অজন্তা একটি পুতুল সাথে নিয়ে দিদির ঘরে প্রবেশ করে।
-গঙ্গা মাসি,গঙ্গা মাসি আমার খুব খিদে পেয়েছে।সকাল থেকে কিছু খাইনি।তুমি খেলেই আমি খাবো।মা খাবে।
ইলোরা শুয়ে ছিল।উঠে বসে।অজন্তার হাত থেকে পুতুল কেড়ে নিয়ে ছুঁড়ে ফেলে। তারপর ঠাস করে অজন্তার... বাকিটুকু পড়ুন

৩ টি মন্তব্য      ৯২ বার পঠিত     like!

স্পন্দন (প্রথম পর্ব)

লিখেছেন সুদীপ কুমার, ২১ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ৮:৩৭


যত দেখছে ততই মুগ্ধ হচ্ছে জয়ন্ত।ক্রাবি শহর থেকে বোটে চেপেছে ওরা।গ্রোট্টোতে দুপুরের খাওয়া সারবে।তারপর হোটেলে ফিরবে।সেমিনারে জয়ন্তর প্রেজেন্টেশান আগামীকাল।আজ মেলায় না গিয়ে তাই ঘুরতে বেরিয়েছে।
-ড. জয়ন্ত, ডিড য়্যু কাম হিয়ার আরলিয়ার?
ডা. স্টিফেন জানতে চায়।
-না। ভিভ এশিয়াতে এবারই প্রথম।
জয়ন্ত উত্তর দেয়।
-ওকে।দেন য়্যু উইল সি দ্যা রিয়েল বিউটি।একচ্যুয়েলি দ্যা রেস্ট্যুরেন্ট এস্টাবলিসমেন্ট... বাকিটুকু পড়ুন

২ টি মন্তব্য      ৬২ বার পঠিত     like!

তিন

লিখেছেন সুদীপ কুমার, ১৯ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ১০:৩১

এখনও কী তোমার মন খারাপ
এখনও কি তুমি বেঁচে আছো ফেলে আসা স্মৃতি আঁকড়ে ধরে
এখনও কি জল ঝরে তোমার দু’নয়ন বেয়ে
এখনও কী তুমি ভালোবাস তাকে?

একটু আগে আকাশ জুড়ে মেঘ জমেছিল
আঁধার ছিল তোমার চারপাশে
দেখো বৃষ্টির পরে?-সব কেমন বদলে গিয়েছে,জলের স্রোতে।
আবার সেজেছে চারপাশ নতুন করে।

রুহীগাঁও
১৮/০২/২০২১
বাকিটুকু পড়ুন

২ টি মন্তব্য      ৪০ বার পঠিত     like!

দুই

লিখেছেন সুদীপ কুমার, ১০ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২১ বিকাল ৪:৪৬



কত বসন্ত চলে গিয়েছে, সময়ের রথে চেপে
কত ভালোবাসা জন্মেছে প্রতি বসন্তে।
ভালোবাসা যেন ফসলের মাঠের ভেজা বীজ, সামাণ্য যত্নে
অংকুরিত হয় হেসে খেলে।

আমাদের মন?-সে তো পেশাদার
শরীরের মত নয়,-চল্লিশ বসন্ত পার করে আয়নায় সাদা চুল তার।
এই দু’নয়ন হেসেছে যতবার,ঠিক ততবার কেঁদেছে হারানোর বেদনায়
যত স্মৃতি জমিয়েছে এ সময়, তত স্মৃতি... বাকিটুকু পড়ুন

১ টি মন্তব্য      ৫৩ বার পঠিত     like!

সুদীপের স্মৃতিতে

লিখেছেন সুদীপ কুমার, ০৯ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২১ সন্ধ্যা ৬:৫০


বন্ধু,আমি এখন তোমার বাড়ির দরজায় দাঁড়িয়ে
একদম ফাঁকা তোমার বারান্দা
কোন পরিবর্তন? প্রশ্ন করোনা।
শুধু রঙ বদলিয়েছে বাড়ির দেয়াল
জীবন কি রং বদলায়নি?
বদলিয়েছে বন্ধু ,বদলিয়েছে
আগে আমি আসতাম এই বাড়িতে, এখন?
আমার মেয়ে আসে এই বাড়িতে,-
শুনলাম জোর গলায় ডাক দেয়,-শেখর সান্ন্যাল।শেখর দাদু
দরজা খোল।কেমন আছো?
আমি হেসেছিলাম জেঠুর এই কথা শুনে।তবে আমার মুখমন্ডল ছিল অপরিবর্তিত।
কত পরিবর্তন না?

ঘরে... বাকিটুকু পড়ুন

৪ টি মন্তব্য      ৪৮ বার পঠিত     like!

এক

লিখেছেন সুদীপ কুমার, ০৯ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ১২:৫২

এই পৃথিবী বসে থাকবেনা তোমার জন্যে
তোমাকেই যেতে হবে তার কাছে,
তোমাকেই মেনে নিতে হবে পৃথিবীর আবদার
অনুযোগ আছে যত তোমার
কি মূল্য আছে তার-

তুমি হয়তো খুঁজে পাবে নুড়ি পাথর
যেন নিও সেও ছিল প্রিয় কোন একদিন,- সাগরের।

তুমি যেও পৃথিবীর কাছে
তুমি খুঁজে নিও আলো, আঁধারের বুকে
তুমি কুড়িয়ে নিও নুড়ি পাথর,- যত্ন করে।
একদিন... বাকিটুকু পড়ুন

১ টি মন্তব্য      ৩০ বার পঠিত     like!

অবদানের স্বীকৃতি

লিখেছেন সুদীপ কুমার, ০৫ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ৮:৪৬

পৃথ্বি হল রুমে এসে কাউকে পায় না। বেশ অবাক হয়।নিমন্ত্রণ পত্রে সময় দেওয়া আছে বিকাল পাঁচ ঘটিকা।আর এখন চারটা পঁয়তাল্লিশ।হল রুমে কেউ নেই।সে হল রুম থেকে বেরিয়ে আসে।করিডরে এক যুবককে পেয়ে যায়।
-ভাই,আজ এখানে রেনেসাঁ সংগঠনের প্রোগ্রাম আছে না?
-জ্বী ভাই।আমি সংগঠনের লিয়াঁজো কর্মকর্তা।প্রোগ্রামের সময় এক ঘন্টা পিছিয়েছে।ও হ্যাঁ,আমি হাবিব। আপনি?
-আমি পৃথ্বি,এস... বাকিটুকু পড়ুন

৬ টি মন্তব্য      ৭০ বার পঠিত     like!

স্মরণে

লিখেছেন সুদীপ কুমার, ০৫ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ১:০৪



ভাল থেকো-
তোমার বর্তমানকে নিয়ে-
প্রিয়জনের ভালোবাসায়-
বসন্তের আগমনে-
প্রতি বছরের মত!

ভাল আছি-
অতীতকে নিয়ে-
স্মৃতির মাদকতার স্পর্শে-
দুরন্ত কৈশরের কথা ভেবে ভেবে।

তুমি আছ জানি-
পৃথিবীর কোন প্রান্তে।

রুহীগাঁও
০৪/০২/২০২১

বাকিটুকু পড়ুন

৫ টি মন্তব্য      ৭১ বার পঠিত     like!

উল্টো রথ

লিখেছেন সুদীপ কুমার, ০১ লা নভেম্বর, ২০২০ রাত ১:১৯

আমি হয়তো অন্ধ, তাই দেখি না-
নেকড়ের হাসি।

আমি হয়তো বধির,তাই¬-
ভুলে গিয়েছি অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ।

সকল অবতার নীরব বসে থাকে, শুধু-
ইবলিশ নয়,-মানুষ চিল্লায়।

৩১/১০/২০২০
বাকিটুকু পড়ুন

২ টি মন্তব্য      ৪৬ বার পঠিত     like!

হাওয়া বদল

লিখেছেন সুদীপ কুমার, ২৬ শে অক্টোবর, ২০২০ রাত ১২:৫০

আমরা হয়তো রুপকথার গল্প শুনছি
বহুরুপী শ্বাপদগুলি থমকে আছে

কোথাও অস্ত্রের ক্রদ্ধ গর্জন নেই
নিরবতাকে গ্রাস করেছে,-নিরবতা।

একটি বছর
অবাক নয়ন
দেখে
পৃথিবীর বদলে যাওয়া।

রুহীগাঁও
২৫/১০/২০২০ বাকিটুকু পড়ুন

১০ টি মন্তব্য      ৫৩ বার পঠিত     like!

কনক দ্যুতি (শেষ অংশ)

লিখেছেন সুদীপ কুমার, ১৮ ই অক্টোবর, ২০২০ রাত ১১:৩০



রুপা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেমিষ্ট্রির ছাত্রী।হলে না থেকে পিসীর বাড়িতে থাকে।কংকাও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের তবে ও ম্যানেজম্যান্টে।বাসায় ফিরে দু’জনে পড়তে বসে।রুপার একটুকুও পড়তে ইচ্ছা করছে না। কতদিন পর তীর্থদাকে দেখল।কত লাজুক ছিল আগে।এখন দেখে অবশ্য তেমন মনে হলো না।আগে চোখাচোখি হলেই চোখ নামিয়ে নিত।এখন কেমন ভ্যাবলার মত তাকিয়ে ছিল ওর দিকে।
-কি... বাকিটুকু পড়ুন

১ টি মন্তব্য      ৭৫ বার পঠিত     like!

কনক দ্যুতি (দ্বিতীয় অংশ)

লিখেছেন সুদীপ কুমার, ১৭ ই অক্টোবর, ২০২০ রাত ৯:৫১



কনকের শরীর বেয়ে প্রচন্ড এক ব্যাথার ঝড় বয়ে যায়।তারপর সব অন্ধকার।কতক্ষণ রাস্তায় পড়েছিল কনক তা বলতে পারবে না।যখন উঠে বসে তখন প্রচুর মানুষের ভীড় ওকে ঘিরে।কনক উঠে দাঁড়ায়।আর খুব আশ্চর্য হয়ে যায়।মানুষগুলো ওকে নয়,মাটিতে পড়ে থাকা কিছু একটা দেখছে।সে সবার দৃষ্টি অনুসরণ করে মাটির দিকে চায়।ভীড়ের ভেতর হতে কনক... বাকিটুকু পড়ুন

২ টি মন্তব্য      ৫৪ বার পঠিত     like!

কনক দ্যুতি

লিখেছেন সুদীপ কুমার, ১৬ ই অক্টোবর, ২০২০ রাত ৯:০১


গোধূলী বেলার আকাশের রঙ বরাবরই তীর্থকে মুগ্ধ করে। তন্ময় হয়ে তীর্থ আকাশের দিকেই চেয়েছিল।
-বসতে পারি?
নারী কন্ঠের শব্দে তীর্থের মগ্নতা কেটে যায়।মেয়েটি অনুমতির অপেক্ষায় থাকে না।তীর্থের পাশে বসে পরে।তীর্থ বিরক্ত হয়েই পাশে চেপে বসে।অন্যরকম একটি গন্ধ তীর্থের নাকে আসে।সে ধরে নেয় নাগেশ্বর চাপার গন্ধ হবে হয়তো।
-বিরক্ত হলেন?
মেয়েটি বলে।তীর্থ উত্তর দেয় না।সে... বাকিটুকু পড়ুন

১ টি মন্তব্য      ৬১ বার পঠিত     like!

অপেক্ষা

লিখেছেন সুদীপ কুমার, ২৮ শে আগস্ট, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:২৯

(এক)
আমরা আর কিছু না পারি
একটু হাসতে পারি
পথে দেখা হলে,-একে অপরের সাথে।

আমরা আর কিছু না পারি
ভালোবাসতে পারি, একজন আর একজনকে।

আমরা আর কিছু না পারি
জনারণ্যে দাঁড়িয়ে উচ্চস্বরে বলতে পারি
আমরা ভালোবাসি,-একজন আর একজনকে।

(দুই)
তুমি এতো নিষ্ঠুর কেন,বলতে পারো?
আজ দু’দিন দেখা নেই তোমার সাথে
কিভাবে কাটছে দিন
ভেবেছো একবারও?

তুমি এতো নিষ্ঠুর হলে কিভাবে?
বন্ধ রেখেছো মুঠোফোন, সকাল হতে।
তোমার... বাকিটুকু পড়ুন

৫ টি মন্তব্য      ৭৪ বার পঠিত     like!
আরো পোস্ট লোড করুন
ব্লগটি ৮৫১০৩ বার দেখা হয়েছে

আমার পোস্টে সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার করা সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার প্রিয় পোস্ট

আমার পোস্ট আর্কাইভ