somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

পোস্টটি যিনি লিখেছেন

কান্ডারি অথর্ব
আমি আঁধারে তামাশায় ঘেরা জীবন দেখেছি, আমার বুকের ভেতর শূণ্যতা থেকে শূণ্যরা এসে বাসা বেঁধেছে, আমি খুঁজেছি তোমাকে সেই আঁধারে আমার মনের যত রঙ্গলীলা; আজ সাঙ্গ হতেছে এই ভবের বাজারে।

নরক মন্দির

১৯ শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ রাত ২:৪৬
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :





কোথায় স্বর্গ, কোথায় নরক, কে বলে তা বহুদূর ?
মানুষেরি মাঝে স্বর্গ নরক, মানুষেতে সুরাসুর !
রিপুর তাড়নে যখনই মোদের বিবেক পায় গো লয়,
আত্মগ্লানির নরক-অনলে তখনি পুড়িতে হয়।


কবির ভাষায় স্বর্গ-নরক সন্ধান প্রাপ্তি সফলতার মুখ কতটা দেখতে পেরেছে জানিনা। তবে থাইল্যান্ডের Wang Saen Suk Hell Garden সুনিশ্চিত ভাবেই নরকের সাথে মানুষকে পরিচিত করিয়ে তুলছে। ব্যাংকক শহরের অদূরে Bang Saen Beach এর নিকটেই গড়ে তোলা হয়েছে এই নরক মন্দির। থাইল্যান্ডের একটি বৌদ্ধমন্দিরে এই প্রতীকী নরক তৈরি করা হয়েছে। পরকালে কোন পাপের জন্য কী শাস্তি হবে, ভাস্কর্যের মাধ্যমে তা ফুটিয়ে তোলা হয়েছে।



প্রায় প্রতিটি ধর্মেই মানুষের কৃতকর্মের ফলস্বরূপ ভাল কাজের জন্য উপহার স্বরূপ স্বর্গীয় সুখ প্রাপ্তি ও মন্দ কাজের জন্য নরকের শাস্তি ভোগের কথা বলা আছে। কিন্তু সেসব সম্পর্কে আমরা অল্প বিস্তর জানতে পারলেও পুরোটাই আমাদের জ্ঞান বহির্ভূত বিষয়। কিন্তু থাইল্যান্ডের এই বৌদ্ধমন্দিরে প্রার্থণা ও ভ্রমণ করতে আসা মানুষকে পাপের শাস্তি সম্পর্কে জানাতে ভাস্কর্যের মাধ্যমে নরকের চিত্র উপস্থাপন করা হয়েছে। মন্দিরটি নরক মন্দির নামে স্থানীয়দের কাছে পরিচিত। প্রতিটি ভাস্কর্য লাল রঙের ছিটা দিয়ে রাঙানো হয়েছে। মন্দিরের ভেতরে নরকের ভাস্কর্য ও ভয়ানক শব্দ মিলে এক পরাবাস্তব অনুভব জাগিয়ে তোলে।



There are 8 major hells ("MAHA NAROK" - มหานรก) and 128 minor hells. The god Yama (พระยม) is supervising the hells. ยักษ์ or "YAK" are sometimes fearful monsters or half-gods.



বৌদ্ধ ধর্ম মতে নরকে শাস্তি যোগ্য পাপগুলো হলো

-> জীব হত্যা
-> চুরি
-> প্রাকৃতিক নিয়ম বহির্ভূত যৌনকর্ম
-> মিথ্যা
-> ফেতনা-ফ্যাসাদ
-> অপ্রীতিকর বাক্যবিনিময়
-> প্রতিশোধ পরায়ণ
-> শয়তানের বশ্যতা





কতিপয় ভাস্কর্যগুলোর বিবরণ স্বরূপ বলা যেতে পারে; বিবাহের পরেও যারা পরকীয়ায় রত থাকে তাদের জন্য রয়েছে কাঁটা যুক্ত গাছের ভাস্কর্য। যা বেয়ে পাপী মানুষকে উঠতে দেখা যাবে। কিন্তু পাখির তাড়নে নিচে পতিত হতে হবে আর নিচে অপেক্ষা করে আছে কাঁটাযুক্ত মুগুড় হাতে দানব। মদ্যপ মানুষের জন্য রয়েছে জ্বলন্ত তাওয়ার ভাস্কর্য। যেখানে দেখা যাবে দানবরা পাপীদের তুলে নিয়ে ফেলছে সেই জ্বলন্ত তাওয়ার মধ্যে। মিথ্যাবাদীদের জন্য জিহবা কেটে নেয়ার ভাস্কর্য। জীবহত্যাকারীদের জন্য রয়েছে নরকে নিন্দিত হতে থাকার ভাস্কর্য। চুরি, ডাকাতি, ঘুষের শাস্তি স্বরূপ আছে কুকুরে খাওয়া পাপীদের ভাস্কর্য। চুরির অপরাধে হাত কেটে ফেলা হবে। ধর্ষণের অপরাধে যৌনাঙ্গ কেটে ফেলা হবে। পরকালে পাপের জন্য মানুষের মাথা কাটা হবে। একটি ভাস্কর্যে গর্ভপাতের শিকার শিশুদের দেখানো হয়েছে। যা খুবই হৃদয় বিদারক। ভিক্ষু প্রা ক্রু ভিশানজালিকন এর মতে গর্ভপাতের শিকার ভ্রুণদের সমাধিস্থত করলে নারীরা পাপ থেকে মুক্তি পেতে পারে। মন্দিরটিতে গৌতম বুদ্ধের মূর্তির সামনে স্থাপিত স্বর্গ ও নরক দেখার সুযোগ মিলবে।

বিবিধ মাধ্যম হতে প্রাপ্ত ভাস্কর্যের ছবি সমূহ





































































বৌদ্ধ ভিক্ষু প্রা ক্রু ভিশানজালিকন এর মতে, মানুষের মধ্যে পাপের ভয় সৃষ্টি করতেই এই প্রতীকী নরক তৈরি করা হয়েছে। মানুষ নরককে ভয় পাক ও পাপের জন্য লজ্জিত হোক।

People who always think of food are likely to become ghosts that have a small mouth and cannot swallow anything ("PRET" - เปรต).
সর্বশেষ এডিট : ১৯ শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ রাত ২:৪৭
৪৮টি মন্তব্য ৪৯টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

রঙ বদলের খেলা

লিখেছেন ইসিয়াক, ২৫ শে অক্টোবর, ২০২০ সকাল ৯:৪৮


কাশ ফুটেছে নরম রোদের আলোয়।
ঘাসের উপর ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র শিশিরকণা।

ঝরা শিউলির অবাক চাহনি,
মিষ্টি রোদে প্রজাপতির মেলা।

মেঘের ওপারে নীলের অসীম দেয়াল।
তার ওপারে কে জানে কে থাকে?

কি... ...বাকিটুকু পড়ুন

শ্রদ্ধেয় ব্লগার সাজি’পুর স্বামী শ্রদ্ধেয় মিঠু মোহাম্মদ আর নেই

লিখেছেন বিদ্রোহী ভৃগু, ২৫ শে অক্টোবর, ২০২০ সকাল ১০:৩৮

সকালে ফেসবুক খুলতেই মনটা খারাপ হয়ে গেল।
ব্লগার জুলভার্ন ভাইয়ের পেইজে মৃত্যু সংবাদটি দেখে -

একটি শোক সংবাদ!
সামহোয়্যারইন ব্লগে সুপরিচিত কানাডা প্রবাসী ব্লগার, আমাদের দীর্ঘ দিনের সহযোগী বিশিষ্ট কবি সুলতানা শিরিন সাজিi... ...বাকিটুকু পড়ুন

এখন আমি কি করব!

লিখেছেন মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন, ২৫ শে অক্টোবর, ২০২০ বিকাল ৩:১৯

মাত্র অল্প কিছুদিন হল আমি ফরাসি ভাষা শিক্ষা শুরু করেছিলাম।



এখন আমি ফরাসি ভাষা অল্প অল্প বুঝতে পারি। হয়তো আগামী দিনগুলিতে আরেকটু বেশি বুঝতে পারব।

ফ্রান্স একটি সুন্দর দেশ।... ...বাকিটুকু পড়ুন

=স্মৃতিগুলো ফিরে আসে বারবার=

লিখেছেন কাজী ফাতেমা ছবি, ২৫ শে অক্টোবর, ২০২০ বিকাল ৪:০৮



©কাজী ফাতেমা ছবি
=স্মৃতিগুলো ফিরে আসে বারবার=

উঠোনের কোণেই ছিল গন্ধরাজের গাছ আর তার পাশে রঙ্গন
তার আশেপাশে কত রকম জবা, ঝুমকো, গোলাপী আর লাল জবা,
আর এক টুকরা আলো এসে পড়তো প্রতিদিন চোখের... ...বাকিটুকু পড়ুন

ঢাকা শহর

লিখেছেন শাহ আজিজ, ২৫ শে অক্টোবর, ২০২০ রাত ৯:১৫










অনেকদিন ধরেই ভাবি বাংলাদেশ নিয়ে লেখা দরকার । লক্ষ ছবি তুলি কিন্তু তা পি সি তেই জমে থাকে ,... ...বাকিটুকু পড়ুন

×