somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

আমার পরিচয়

আমার পুরো নাম শাইয়্যান মোহাম্মদ ফাছিহ-উল ইসলাম। অন্যদের সেভাবেই দেখি, নিজেকে যেভাবে দেখতে চাই। যারা জীবনকে উপভোগ করতে চান, আমি তাঁদের একজন। সহজ-সরল চিন্তা-ভাবনা করার চেষ্টা করি। আর, খুব ভালো আইডিয়া দিতে পারি।

আমার পরিসংখ্যান

সত্যপথিক শাইয়্যান
quote icon
আমার পোস্ট সংখ্যা এক সময়ে ৩০০টিতে গিয়ে ঠেকেছিলো। আগে অনেক বিষয় নিয়ে লিখলেও এখন আমার ভাবনার বিষয় শুধুই চীন। তবে, পোস্টগুলো বেশিরভাগই ভাবানুবাদ হবে।
আমার সকল পোস্ট (ক্রমানুসারে)

চীনের যে রাজা যুদ্ধকে বেআইনি বলে ঘোষণা করেছিলেন

লিখেছেন সত্যপথিক শাইয়্যান, ১৭ ই আগস্ট, ২০১৯ বিকাল ৪:৫৯



চিন শি হুয়াং-এর জীবনকে ঘিরে দুটো রহস্য রয়েছে। একটি চীনের প্রথম সম্রাট হওয়া নিয়ে, আর অপরটি বড় একটি ষড়যন্ত্রকে ঘিরে। এই পারস্পরিক সম্পর্কযুক্ত দুটি ঘটনা চীনের সীমানা ছাড়িয়ে অন্যান্য ভূমিগুলোতেও প্রভাব ফেলেছিলো, এখনো ফেলে যাচ্ছে।

যে তরুণ রাজপুত্রকে একসময়ে চিন রাজ্যের উত্তরসূরি হওয়া থেকে বঞ্চিত করা হয়েছিলো,... বাকিটুকু পড়ুন

৮ টি মন্তব্য      ১০১ বার পঠিত     like!

হুয়ে মুলান: প্রাচীন চীনের এক নারী যোদ্ধার কাহিনী

লিখেছেন সত্যপথিক শাইয়্যান, ১৬ ই আগস্ট, ২০১৯ রাত ১২:২১



হুয়ে মুলান প্রাচীন চীনের কিংবদন্তী’র নারীদের মাঝে অন্যতম। তাঁর বীরত্বের কাহিনী সর্বপ্রথমে প্রাচীন পুঁথিগুলোতে লিপিবদ্ধ করা হয়েছিলো। এরপরে, ‘মুলানের চারণগীতি’-তে আবারো তা বর্ণিত হয় এবং শেষে ওয়াল্ট ডিজনী’র ‘মুলান’ ছায়াছবির মাধ্যমে সারা পৃথিবী’র মানুষের কাছে জনপ্রিয়তা পায়। এখন, তাঁর কাহিনী চীনের স্কুলগুলোতেও পড়ানো হচ্ছে।

চীনা ভাষায় ‘হুয়ে’ কথাটির... বাকিটুকু পড়ুন

১৪ টি মন্তব্য      ২০২ বার পঠিত     like!

চীনে পৃথিবী'র প্রথম বানর-মানব হাইব্রিড সৃষ্টি করা হয়েছে

লিখেছেন সত্যপথিক শাইয়্যান, ১৩ ই আগস্ট, ২০১৯ দুপুর ১:১১



এ যেন ছায়াছবি এক্স-ম্যানের কোন চরিত্র বাস্তবে এসে হাজির! আমেরিকা ও স্পেনের একদল বিজ্ঞানী ইউরোপীয় আইনকে পাশ কাটিয়ে চীনে এমন একটি যুগান্তকারী বৈজ্ঞানিক সাফল্য লাভ করেছেন যা পুরো বিশ্বকে নাড়িয়ে দিয়েছে। এই বিজ্ঞানীদলের হাত ধরে চীনের একটি ল্যাবে পৃথিবী'র প্রথম বানর-মানব ভ্রুনের জন্ম হয়েছে।

এখানে উল্লেখ্য যে, পশুদের উপর... বাকিটুকু পড়ুন

১৪ টি মন্তব্য      ২২৭ বার পঠিত     like!

চীনের রহস্যময় চার পৌরাণিক প্রতীক

লিখেছেন সত্যপথিক শাইয়্যান, ১১ ই আগস্ট, ২০১৯ বিকাল ৫:১০



প্রাচীন চীনা জ্যোতির্বিদ্যা অনুযায়ী, সূর্য তার পরিভ্রমন কালে আকাশের যে সব জায়গা ছুয়ে যায় সেগুলো চার ভাগে বিভক্ত। এই চার ভাগের প্রতিটিতে সাতটি সুবৃহৎ অট্টালিকা বা ম্যানশন আছে, এভাবে আকাশে সর্বমোট ২৮টি ম্যানশন অবস্থান করে। এই ২৮টি ম্যানশন পশ্চিমা জ্যোতির্বিদ্যার রাশিচক্রের সাথে সংযুক্ত যে নক্ষত্রমন্ডল রয়েছে সেগুলোর সমতুল্য... বাকিটুকু পড়ুন

৮ টি মন্তব্য      ১২৫ বার পঠিত     like!

বাঘ সম্পর্কে পৌরাণিক শ্রুতিগুলো এই পশুর অস্তিত্বকে হুমকির মুখে ফেলে দিয়েছে (শেষ পর্ব)

লিখেছেন সত্যপথিক শাইয়্যান, ০৯ ই আগস্ট, ২০১৯ বিকাল ৪:০৪



প্রাচীন চীনের অধিবাসীরা মনে করতেন, ৫০০ বছর বাঁচার পর একটি সাধারণ বাঘ ‘সাদা বাঘ’-এ পরিণত হয়। এরপর সেটা ১০০০ বছর ধরে বেঁচে থাকে। তাঁরা এটাও মনে করতেন যে, একটি বাঘের মৃত্যুর পরে সেটার আত্মা মাটির নিচে চলে গিয়ে ‘অম্বর’-এর রুপ ধরে। এই প্রাচীন বিশ্বাস থেকেই আধুনিক চীনে ‘অম্বর’-এর অর্থ... বাকিটুকু পড়ুন

৯ টি মন্তব্য      ১০৫ বার পঠিত     like!

বাঘ সম্পর্কে পৌরাণিক শ্রুতিগুলো এই পশুর অস্তিত্বকে হুমকির মুখে ফেলে দিয়েছে

লিখেছেন সত্যপথিক শাইয়্যান, ০৮ ই আগস্ট, ২০১৯ রাত ১১:০৫



ঐতিহাসিকভাবে, ৭০০০ বছর ধরে বাঘ চৈনিক সংস্কৃতির প্রতীক যা সে দেশের গল্প-কথক, গায়ক, কবি, শিল্পী আর কারিগরদের অনুপ্রাণিত করে আসছে। এর কারণ হিসেবে বলা যায়, এখন পর্যন্ত চীনে সবচেয়ে পুরোনো যে বাঘের মূর্তি পাওয়া গিয়েছে সেটা খ্রিস্টপূর্ব ৫০০০ সালের, নিওথিলিক যুগের। সেই দিন থেকে আজ অবধি বাঘ এশিয়ার... বাকিটুকু পড়ুন

১৪ টি মন্তব্য      ১২৫ বার পঠিত     like!

লঙ্গিউ গুহা - চীনে মাটির নিচে প্রাচীন এক আশ্চর্যজনক পৃথিবী

লিখেছেন সত্যপথিক শাইয়্যান, ০৭ ই আগস্ট, ২০১৯ রাত ৯:৪৬



চীনের ঝেজিয়াং প্রদেশের শিইইয়েন বেইসুয়েন গ্রামের মাটির নিচে আধুনিক বিশ্বের লোকচক্ষুর অন্তরালে লুকিয়ে আছে প্রাচীন পৃথিবীর এক নিদর্শন। আজ থেকে ২৭ বছর আগেও বাইরের দুনিয়া তো দূরে থাক, খোদ চীনের নাগরিকরাও এগুলোর খোঁজ জানতেন না। ১৯৯২ সালের দিকে গ্রামের স্থানীয় বাসিন্দারা হঠাৎ করেই ২০০০ বছরেরও পুরোনো এই কৃত্রিম... বাকিটুকু পড়ুন

৩৩ টি মন্তব্য      ৫১১ বার পঠিত     like!

চীনের বর্তমান সরকার আসলেই কি মুসলমানদের উপর খড়্গহস্ত?

লিখেছেন সত্যপথিক শাইয়্যান, ০৬ ই আগস্ট, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:৪৪



গত বছর পর্যন্ত চীনে ঘটে যাওয়া কয়েকটি ঘটনা যা সেখানকার হুই ও উইঘুর মুসলমানরা পছন্দ করেনি-

ঘটনা ০১ঃ চীনের 'লিটিল মক্কা'' খ্যাত গুয়ানসু প্রদেশের লিনজিয়া শহরে এখনো সবুজ গম্বুজওয়ালা মসজিদটি টিকে আছে। কিন্তু, মসজিদটির আঙ্গিনায় এখন আর মুসলিম শিশুরা খেলা করে না। তারা সেখানে আসে না আরবী ক্লাস আর... বাকিটুকু পড়ুন

১০ টি মন্তব্য      ১৭০ বার পঠিত     like!

চীনের দুই নারী মালয়েশিয়াকে বুঝিয়ে দিলো মসজিদ পর্যটনের জায়গা নয়

লিখেছেন সত্যপথিক শাইয়্যান, ০৫ ই আগস্ট, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:৩৭

তাঁরা মালয়েশিয়াতে গিয়েছিলেন আমোদ-ফুর্তি করতে। হঠাৎ-ই ভাবনা এলো, আমোদ-ফুর্তি'র সাথে সাথে মাল্যেশিয়য়ার সরকারকে একটু যদি শিক্ষা দেওয়াও হয়, তাতে মন্দ কি! যেই ভাবা সেই কাজ! মসজিদের সীমানা প্রাচীরের উপর উঠে লাগিয়ে দিলেন তা ধিন ধিন নাচ!

মালয়েশিয়া ্পর্যটকদের আকৃষ্ট করে টু-পাইস কামাতে একটি মসজিদকে পর্যটকদের জন্যে খুলে দিয়েছিলো। পর্যটকরা যে যার... বাকিটুকু পড়ুন

১৫ টি মন্তব্য      ২৯৮ বার পঠিত     like!

প্রজেক্ট বিউটিঃ ছবিতে ছবিতে চীনের জিনজিয়াংবাসীদের উপর চাপ প্রয়োগ?

লিখেছেন সত্যপথিক শাইয়্যান, ০৫ ই আগস্ট, ২০১৯ সকাল ১১:৫৫



উপরের ছবিতে বোরখা-পরা মেয়েদের ভীন্ন দৃষ্টিতে উপস্থাপন করা হয়েছে। এতে, বোরখা পরাকে অনুৎসাহিত করা হচ্ছে বলে মনে হয়। কয়েক বছর আগে, চীন সরকার জিনজিয়াং প্রদেশে চালু করা 'প্রজেক্ট বিউটি'-এর অংশ হিসেবে এই পোস্টার সবার দৃষ্টি কাড়ে। এরকম আরেকটি পোস্টারে দেখা যাচ্ছে, চীনের হান ও উইঘুর গোত্র একই সাথে নাচছে।... বাকিটুকু পড়ুন

৬ টি মন্তব্য      ১১২ বার পঠিত     like!

চীনে মুসলমান মাত্রই অত্যাচারিত হচ্ছেন - কথাটা কতটা সত্যি?

লিখেছেন সত্যপথিক শাইয়্যান, ০৪ ঠা আগস্ট, ২০১৯ রাত ৮:২১



বাংলাদেশ ও পশ্চিমা দেশগুলোর পত্রিকাগুলো বেশ কয়েক দিন ধরেই চীনে মুসলমানদের উপর অত্যাচার হচ্ছে বলে ফলাও করে প্রচার করছে। চীনে জিনজিয়াং প্রদেশের রাস্তায় রাস্তায় মুসলমান পুরুষ-মহিলাদের অপমানিত করা হচ্ছে, স্থাণিয় কর্তৃপক্ষ দোকানগুলো থেকে আরবী ব্যানার নামিয়ে ফেলছে, অনেক নারী-পুরুষকে অন্তরীন রেখে বিচারের সম্মুখীন করা হয়েছে। এমন খবর নাড়া দিয়েছে... বাকিটুকু পড়ুন

১৪ টি মন্তব্য      ৩৪৯ বার পঠিত     like!

সৈয়দ সু ফেই-এড়ঃ চীনে মুসলিম জাতির জনক

লিখেছেন সত্যপথিক শাইয়্যান, ০৪ ঠা আগস্ট, ২০১৯ সকাল ১১:৩৬

বর্তমান চীন হয়তো প্রিন্স সু ফেই-এড়কে ভুলে গিয়েছে। এটাও হয়তো একুশ শতকের চীনবাসীদের মনে নেই যে, মুসলমানরা যদি যাযাবরদের বিরুদ্ধে যুদ্ধে চীনের পক্ষ না নিতো, তাহলে হয়তো বর্তমান চীনের ইতিহাস অন্য ভাবে লিখতে হতো।



১০৭০ সাল। চীন তখন যাযাবর জাতি খিতানদের আক্রমনে বিপর্যস্ত। খিতান রাজবংশ লিয়াও চীনের উত্তরাংশ দখল... বাকিটুকু পড়ুন

১৪ টি মন্তব্য      ১৩৫ বার পঠিত     like!

সৈয়দ আজল শামস আল-দীন ওমর (সাই-ডিয়েন-চি) --- চীনে ইসলাম ও কনফুসিয়ান দর্শনের মেলবন্ধনকারী

লিখেছেন সত্যপথিক শাইয়্যান, ০৩ রা আগস্ট, ২০১৯ দুপুর ১২:৩২



তিনি ছিলেন চীনের ইউনান প্রদেশের গভর্নর। যে সময়ে সৈয়দ আজল এই পদে আসীন হোন, তখন ইউনান ছিলো বর্বরতায় পূর্ণ। তিনি যে সময়ে এই অঞ্চলের দায়িত্ব নেন, সেই সময়ে সেই অঞ্চলের মানুষদের ওরাং ওটাং-এর সাথে তুলনা করা হতো। সৈয়দ আজল ইউনানের দায়িত্ব নিয়ে ঝংঝিং চেং নামক এক শহর স্থাপন করেন।... বাকিটুকু পড়ুন

১০ টি মন্তব্য      ১৪৮ বার পঠিত     like!

ইতিহাস প্রমাণ করে ইসলাম প্রতিষ্ঠায় যুদ্ধের প্রয়োজন নেই, ভালোবাসাই যথেষ্ট

লিখেছেন সত্যপথিক শাইয়্যান, ০২ রা আগস্ট, ২০১৯ রাত ৯:৩৬



চীনের লিংশান পর্বতে শুয়ে আছেন ইসলামের শেষ নবী হযরত মুহাম্মদ মুস্তফা (সাঃ)-এর দুই সাহাবী Sa-Ke-Zu এবং
Wu-Ko-Shun...এই নামেই তাঁদের চিনতো স্থানীয় চীনবাসীরা...

এই সাহাবী দু'জন রাসূলুল্লাহ (সাঃ)-এর মামা সা'দ ইবনে আবি ওয়াক্কাস (রাঃ)-এর সাথে সুদূর চীনে গিয়েছিলেন....জন্মভূমির মায়ার টান উপেক্ষা করে থেকে গিয়েছিলেন সেই বিদেশ-বিভূইয়ে...ইসলাম প্রচারের গুরুভার বহনের... বাকিটুকু পড়ুন

৫৭ টি মন্তব্য      ৪৮৩ বার পঠিত     like!

হুয়েইশেং মসজিদ - চীনে মুসলমানদের প্রথম নিদর্শন

লিখেছেন সত্যপথিক শাইয়্যান, ০১ লা আগস্ট, ২০১৯ বিকাল ৪:৩৩



৬৫০ খ্রিষ্টাব্দ। চীনে তখন ট্যাং রাজবংশের তৃতীয় রাজা লি ঝি সিংহাসনে আসীন। ঠিক সেই সময়ে, মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ)-এর মামা হযরত সা'দ ইবনে আবী ওয়াক্কাস (রাঃ) ইসলামের তৃতীয় খলিফা হযরত উসমান (রাঃ)-এর নির্দেশে তৃতীয়বারের মতো চীনে ইসলামের দাওয়াত নিয়ে পৌঁছান। এবারে, চীনের রাজা তাঁকে খুব সমাদরে গ্রহণ করলেন।... বাকিটুকু পড়ুন

১২ টি মন্তব্য      ১৩৪ বার পঠিত     like!
আরো পোস্ট লোড করুন
ব্লগটি ১১২৪৯১ বার দেখা হয়েছে

আমার পোস্টে সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার করা সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার প্রিয় পোস্ট

আমার পোস্ট আর্কাইভ