somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

" ডলার (Dollar) " - বিশ্ব বাণিজ্য ও বিশ্ব ব্যবস্থায় এত গুরুত্বপূর্ণ কেন ? বিশ্বের সবচেয়ে দামী মুদ্রা না হয়েও তাকে নিয়েই কেন সারা দুনিয়ায় এত কাড়াকাড়ি ? আন্তর্জাতিক লেনদেনে ডলারের বিকল্পই বা কি ? ( ডলার নামা - ১)

১৫ ই সেপ্টেম্বর, ২০২২ দুপুর ২:২৫
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :


ছবি - unsplash.com

বর্তমানে সারা দুনিয়াতে নানা কারনে ও ঘটনা প্রবাহে যে নাম সবচেয়ে বেশী আলোচিত হচছে এবং গরীব থেকে ধনী সব মানুষের জীবনকে প্রভাবিত করছে, তা হলো ডলার (Dollar)। এই ডলারের তেলেসমাতিতে আমাদের মত গরীব দেশ ও মানুষের যেমন জীবন-যাপন দিনকে দিন যেমন জটিল থেকে জটিলতর হচছে ঠিক তেমনি তার গরমী থেকে রেহাই পাচছেনা উন্নত দেশ ও জাতিও। এই ডলারের মূল্যবৃদ্ধি ও সরবরাহজনিত জটিলতায় সারা দুনিয়ার আম জনতার সাথে সাথে অনেক দেশও দৈনন্দিন ব্যয় নির্বাহে হিমশিম খাচছে । যার ফলে আমরা দেখেছি ডলারের সমস্যায় রাষ্ট্র হিসাবে লেবানন ও শ্রীলংকার দেউলিয়া হয়ে যাওয়া। আবার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র কর্তৃক ডলার ব্যবহার করতে না দেয়ার (অর্থনৈতিক অবরোধ) ফলে ইরান এবং ভেনিজুয়েলার অর্থনীতির কি করুণ অবস্থা তাও আমাদের সবার সামনে দৃশ্যমান। এই ডলারের সমস্যায় আমাদের দেশেও প্রতিটি জিনিষের মূল্য বৃদ্ধির ফলে দেশের বেশীরভাগ মানুষ নিত্যপণ্যের জোগানে হিমশিম খেয়ে মানবেতর জীবন যাপনে বাধ্য হচছে অথচ ডলার প্রতিদিনই শক্তিশালী হচছে আর আমাদের জাতীয় মুদ্রা টাকা তার মান হারিয়ে দিন দিন দূর্বল হচছে। প্রতিদিনই নিত্যপণ্যের দাম বাড়ছে আর তার সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে জনগনের দূর্ভোগ ও দেশ মুখোমুখি হচছে গভীর সমস্যা ও সংকটের মাঝে। সরকারের নানা রকম প্রতিরক্ষামূলক ব্যবস্থা ও ব্যয় সংকোচন মূলক পদক্ষেপ গ্রহণের পরও ডলার সমস্যা থেকে দ্রুত নিষ্কৃতির কোন পথ দেখা যাচছেনা।

" ডলার (Dollar) " - এ নামটি শুনলেই বর্তমানে সারা দুনিয়া বাসীর সামনে যে ছবি ভেসে উঠে তা হলো আমেরিকা বা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় মুদ্রা "মার্কিন ডলার বা (USD)"। সারা দুনিয়ায় শুধু আমেরিকা বা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় মুদ্রার নামই ডলার নয় । দুনিয়ার অনেক দেশের মুদ্রার নামই ডলার। যেমন - অস্ট্রেলিয়ার মুদ্রা (Australian Dollar) , নিউজিল্যান্ড মুদ্রা (New Zealand Dollar) , কানাডীয় মুদ্রা (Canadian Dollar), সিঙ্গাপুরী মুদ্রা (Singapore Dollar) , হংকং মুদ্রা (Hong Kong Dollar) সহ অনেক দেশের মুদ্রার নাম ডলার হলেও সারা দুনিয়ার প্রায় সবাই ডলার বলতে মূলতঃ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মুদ্রা ডলারকেই বোঝে ও জেনে থাকে।

বিশ্বে বর্তমানে ১৯৫ টি দেশ রয়েছে এবং এর মাঝে প্রায় সবগুলি দেশের প্রত্যেকেরই রয়েছে আলাদা আলাদা মুদ্রা অথচ কেবল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ডলারকেই আন্তর্জাতিক মুদ্রা হিসাবে সবাই চিনে-জানে। যদিও সারা বিশ্বেই ডলার ছাড়াও আরো ৪ টি বিভিন্ন ধরনের মুদ্রা আন্তর্জাতিক লেনদেনে সবচেয়ে বেশী ব্যবহার করা হয় যেগুলি আন্তর্জাতিক মুদ্রা হিসাবে গৃহীত এবং IMF (International Monetary Fund ) কর্তৃক স্বীকৃত। এগুলো হল -

১। ইউরোপীয় মুদ্রা বা ইউরো (EUR) ,
২। জাপানি মুদ্রা বা ইয়েন (JPY),
৩। ব্রিটিশ মুদ্রা বা পাউন্ড স্টার্লিং (GBP)
৪। চাইনিজ মুদ্রা বা (Renminbi)।

উপরের ৫ টি মুদ্রা ব্যাপকভাবে ব্যবহার হলেও আরও ৫ টি মুদ্রাও আন্তর্জাতিক বাণিজ্যে মোটামুটি ব্যবহার করা হয়ে থাকে। এগুলি হলো -

১। অস্ট্রেলিয়ান ডলার বা (AUD)
২। কানাডিয়ান ডলার বা (CAD)
৩। সুইস ফ্রাঙ্ক বা (CHF)
৪। হংকং ডলার বা (HKD)
৫। নিউজিল্যান্ড ডলার বা (NZD)

অন্যদিকে, আমরা যদি বিশ্বের সবচেয়ে দামী মুদ্রা গুলির দিকে তাকাই তাহলে যা দেখি , তা হলো -


ছবি - alamy.com

১। কুয়েতি দিনার বা (KWD) - কুয়েতি দিনার হল কুয়েতের সরকারি মুদ্রা এবং বর্তমানে এটি বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী মুদ্রা। কুয়েত পারস্য উপসাগরে সৌদি আরব এবং ইরাকের মধ্যে অবস্থিত একটি ছোট দেশ। কুয়েতকে পৃথিবীর অন্যতম ধনী দেশ হিসেবে বিবেচনা করা হয়। মার্কিন ডলারের সাথে এর বিনিময় হার 1 KWD = 3.243849 USD


ছবি - sportshour24.com

২। বাহরাইন দিনার বা (BHD) - বাহরাইন দিনার বাহরাইনের সরকারী মুদ্রা। কুয়েতের মতো, বাহরাইনও পারস্য উপসাগরে অবস্থিত এবং এর অর্থনীতি তেল ও গ্যাসের উপর ব্যাপকভাবে নির্ভরশীল। মার্কিন ডলারের সাথে এর বিনিময় হার 1 BHD = 2.6595 USD ।


ছবি - alamy.com

৩। ওমানি রিয়াল বা (OMR) - ওমানি রিয়াল হল আরব উপদ্বীপের দক্ষিণ-পূর্ব উপকূলে অবস্থিত ওমানের সালতানাতের সরকারী মুদ্রা। ওমান আরব উপদ্বীপের দক্ষিণ-পূর্ব উপকূলে অবস্থিত এবং পারস্য উপসাগরের মুখ পর্যন্ত বিস্তৃত একটি আরব দেশ। এটি একটি মরুময় দেশ, যেখানে সুউচ্চ পর্বতমালার ঠিক পাশেই রয়েছে উজ্জ্বল শুভ্র বালুর সমুদ্র সৈকত এবং প্রাকৃতিক সম্পদ তথা তেল ও গ্যাসের উপর নির্ভরশীল একটি ছোট দেশ।মার্কিন ডলারের সাথে এর বিনিময় হার 1 OMR= 2.59661 USD।


ছবি - dreamstime.com

৪। জর্ডানিয়ান দিনার বা (JOD) - জর্দানিয়ান দিনার জর্ডানের সরকারী মুদ্রা। জর্ডান নদীর পূর্ব তীরে অবস্থিত জর্ডান একটি আরব দেশ। জর্ডানের উত্তরে সিরিয়া,পূর্বে ইরাক ও সৌদি আরব, দক্ষিণে সৌদি আরব ও আকাবা উপসাগর, পশ্চিমে পশ্চিম তীর ও ইসরাইল অবস্থিত। মার্কিন ডলারের সাথে এর বিনিময় হার 1 JOD =1.4087 USD


ছবি - alamy.com

৫। পাউন্ড স্টার্লিং বা (GBP) - পাউন্ড স্টার্লিং হল ইউনাইটেড কিংডম, ব্রিটিশ ওভারসিজ টেরিটরি এবং ইউকে ক্রাউন ডিপেনডেন্সির সরকারী মুদ্রা। GBP হল বিশ্বের প্রাচীনতম মুদ্রা যা আজও প্রচলিত আছে। GBP শুধুমাত্র শক্তিশালী নয় বৈশ্বিক বাণিজ্য ও অর্থের ক্ষেত্রেও অত্যন্ত প্রভাবশালী। এটি বিশ্বব্যাপী ৪র্থ সর্বাধিক ব্যবহৃত মুদ্রা, রিজার্ভ এবং প্রচলন উভয় জায়গাতেই তা যথেষ্ট শক্তিশালী।মার্কিন ডলারের সাথে এর বিনিময় হার 1GBP = 1.16 USD


ছবি - manorfx.com

৬। কেম্যান দ্বীপপুঞ্জ ডলার (KYD) - কেম্যান দ্বীপপুঞ্জ ডলার হল কেম্যান দ্বীপপুঞ্জের সরকারী মুদ্রা, যা গ্র্যান্ড কেম্যান, লিটল কেম্যান এবং কেম্যান ব্র্যাক নিয়ে গঠিত। পশ্চিম ক্যারিবিয়ান সাগরে অবস্থিত, কেম্যান দ্বীপপুঞ্জ হল একটি 'ট্যাক্স হেভেন' যা একটি প্রধান বৈশ্বিক আর্থিক কেন্দ্র হয়ে উঠেছে। মার্কিন ডলারের সাথে এর বিনিময় হার 1KYD = 1.2 USD ।


ছবি - istockphoto.com

৭। ইউরো বা (EUR) - "ইউরো" - ইউরোপীয় ইউনিয়নের ২২ টি দেশের সরকারী মুদ্রা। এটি ১৯৯৯ সালে প্রবর্তিত হয় যার অর্থ হলো ইউরো বিশ্বের অন্যতম কনিষ্ঠ মুদ্রা। তা সত্ত্বেও, ইউরো এখন বিশ্বব্যাপী দ্বিতীয় সর্বাধিক ব্যবহৃত মুদ্রা, রিজার্ভ এবং প্রচলন উভয় ক্ষেত্রেই। একটি একক অঞ্চল হিসাবে, ইউরোপীয় ইউনিয়ন বিশ্বব্যাপী একটি প্রভাবশালী রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক মুদ্রা ও ব্যবস্থা ।মার্কিন ডলারের সাথে এর বিনিময় হার 1EUR = 1 USD ।


ছবি - bloomberg.com

৮। সুইস ফ্রাঙ্ক বা (CHF) - সুইস ফ্রাঙ্ক হল সুইজারল্যান্ডের সরকারী মুদ্রা। এটি ১৮৫০ সালে চালু করা হয়েছিল এবং এটি একটি শক্তিশালী এবং স্থিতিশীল মুদ্রা। সুইজারল্যান্ড একটি রাজনৈতিকভাবে স্থিতিশীল দেশ যেটি ঐতিহাসিকভাবে বড় সামরিক সংঘর্ষে নিরপেক্ষ অবস্থান বজায় রেখেছে এবং বছরের পর বছর ধরেদেশটি স্থিতিশীল অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ধরে রেখেছে। CHF হল বিশ্বব্যাপী ৭ম সবচেয়ে বেশি লেনদেন কারী মুদ্রা।মার্কিন ডলারের সাথে এর বিনিময় হার 1CHF = 1.04 USD ।


ছবি - reuters.com

৯। মার্কিন ডলার বা (USD) - মার্কিন ডলার হল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং এর অঞ্চলগুলির সরকারী মুদ্রা। এটি ১৭৯২ সালে প্রথম চালু হয়েছিল এবং বর্তমানে বিশ্বব্যাপী সবচেয়ে শক্তিশালী মুদ্রায় পরিণত হয়েছে। USD হল বিশ্বের সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত মুদ্রা, রিজার্ভ এবং প্রচলিত উভয় ক্ষেত্রেই। এটি বিশ্বের রিজার্ভ কারেন্সি হিসাবে বিবেচিত এবং বিশ্ব বাণিজ্য ও অর্থায়নে আধিপত্য সবচেয়ে বেশী প্রভাব বিস্তার কারী মুদ্রা। মার্কিন ডলারের সাথে বাংলাদেশের টাকার বিনিময় হার 1 USD = 105 BDT ।


ছবি - alamy.com

10. বাহামিয়ান ডলার (BSD) - বাহামিয়ান ডলার হল বাহামাসের কমনওয়েলথের মুদ্রা । বাহামা ডলার ১৯৬৬ সালে বাহামা পাউন্ডের পরিবর্তে চালু করা হয়েছিল। বিএসডিকে পার-টু-পার ভিত্তিতে USD-এ বিনিময় করা হয়। বাহামাসের অর্থনীতি আন্তর্জাতিক আর্থিক পরিষেবা এবং পর্যটনের উপর ব্যাপকভাবে নির্ভরশীল। দেশটিকে একটি 'ট্যাক্স হেভেন' হিসাবেও বিবেচনা করা হয় কারণ এটি সঞ্চিত এবং অর্জিত আয়ের উপর কোনও কর নেয় না। মার্কিন ডলারের সাথে এর বিনিময় হার 1BSD = 1 USD ।

আমরা যদি মুদ্রার মানের (বিনিময় মূল্য) দিকে তাকাই তাহলে দেখি, বিশ্বে মার্কিন ডলার বা (USD) এর অবস্থান ৯ম স্থানে কিন্তু সারা দুনিয়ায় সবচেয়ে বেশী ব্যবহৃত হয় এই ডলার এবং তাকে দুনিয়ার সবচেয়ে বেশী শক্তিশালী ও প্রভাব বিস্তারকারী মুদ্রা হিসাবেও বিবেচনা করা হয়ে থাকে।

এখন প্রশ্ন হলো, বিশ্বে এত এত দেশ ও তাদের এত এত দামী মুদ্রা থাকার পরও -

১। কেন ও কি করে ডলার তার এই আজকের শক্তিশালী অবস্থানে পৌছল বা কেন ডলার এত শক্তিশালী ?
২। বাকী সব মুদ্রা ছেড়ে ডলার নিয়েই সারা দুনিয়ায় কেন এত কাড়াকাড়ি?
৩। অন্যকোন বা বাকী সব মুদ্রা কেন ডলারের সমকক্ষ হতে পারছেনা ?
৪। আন্তর্জাতিক লেনদেনে ডলারের বিকল্পই বা কি ?

এই ৪ টি প্রশ্নের জবাব জানার / খোঁজার জন্যই এ লেখার চেষ্টা ।

চলবে -

জবাবদিহীতা - মুদ্রা বিনিময় হার প্রতিনিয়ত পরিবর্তনশীল। কাজেই আমি যে বিনিময় হার দেখিয়েছি হয়ত তা পরিবর্তনও হতে পারে বা একই নাও থাকতে পারে।
=====================================
তথ্যসূত্র -

১। উইকিপিডিয়া
২। 10 Most Valuable Currencies in the World - লিংক -
Click This Link
সর্বশেষ এডিট : ১৫ ই সেপ্টেম্বর, ২০২২ দুপুর ২:৩২
১৪টি মন্তব্য ১৪টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

কবিতা এবং আবৃত্তি.....

লিখেছেন জুল ভার্ন, ২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ সকাল ১০:৪১

কবিতা এবং আবৃত্তি.....

আমার কাছে লেখালেখির জগতে কবিতা লেখা হচ্ছে সব চাইতে কঠিন, যা লিখতে মেধার বিকল্প নাই। একজন সাহিত্যিক-উপন্যাসিক, প্রবন্ধকার যা লিখতে অনেক পৃষ্ঠা, কিম্বা একটা বইতে প্রকাশ করেন-... ...বাকিটুকু পড়ুন

" বাবা জানে :#( বাবা কে "?

লিখেছেন মোহামমদ কামরুজজামান, ২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ দুপুর ১:১৮


ছবি -india.com

ওপার বাংলার জনপ্রিয় সংসদ সদস্যা, চলচ্চিত্র অভিনেত্রী নুসরাত জাহান মা হওয়ার পরে যে প্রশ্নের মুখোমুখি হয়েছিলেন সবচেয়ে বেশী, তা হলো -"তার সন্তানের বাবা কে"?

সন্তানের পিতৃপরিচয়... ...বাকিটুকু পড়ুন

কমেন্ট ক্ষমতা না'থাকলে, ব্লগিং করা কি সম্ভব?

লিখেছেন সোনাগাজী, ২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ সন্ধ্যা ৬:১৩



মাস দুয়েকের মতো বড় ধরণের জেনারেল পদে আছি, বোনাস হিসেবে কমেন্ট ব্যান; শুরুতে খুব একটা মনে থাকতো না যে, আমি কমেন্ট ব্যানে আছি, ব্লগারদের পোষ্ট পড়ে কমেন্ট করে... ...বাকিটুকু পড়ুন

ইডেনের ছাত্রীদের বিয়ে হপেনা। এখন তাগো কি হপে?

লিখেছেন মোহাম্মদ গোফরান, ২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ রাত ৯:০৯


কতিপয় দুষ্ট ছাত্রলীগ ইডেনের কিছু ছাত্রীকে বিভিন্ন মহলের মনোরঞ্জনের জন্য পাঠিয়েছে। ফোনালাপ বা অন্যন্য ডকুমেন্ট দেখে সে ব্যাপারে নিশ্চিত হওয়া গেসে। এটি অত্যন্ত ঘৃণ্য। এ কাজের সাথে... ...বাকিটুকু পড়ুন

সে কোন বনের হরিণ ছিলো আমার মনে- ৯

লিখেছেন অপ্‌সরা, ২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ রাত ৯:২৪



নৌকা চলতেই খোকাভাই খানিক দূরে গলুই এর উপর বসে হাতের আড়ালে হাওয়া আটকে সিগারেট ধরালো। তারপর পোড়া দিয়াশলাই কাঁঠিটা ছুড়ে ফেললো পানিতে। কাঁঠিটা পানির তালে তালে দোল খেয়ে... ...বাকিটুকু পড়ুন

×