somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

আমার পরিচয়

সময়ের ব্যবধানে বেজে বেজে চলে, সূর্য চাঁদ সবচেয়ে- দূরতম শব্দের মাস্তল, যেন কোন অজ্ঞাত নিবাস থেকে ছুটে আসি।পরিচিত শ্টেশন এলেই তুৃমি দেখাও নিশান- আমি উঠে পড়ি...

আমার পরিসংখ্যান

আমার সকল পোস্ট (ক্রমানুসারে)

অসমাপ্ত চিৎকার এবং আমাদের স্বাধীনতা....

লিখেছেন কিরমানী লিটন, ২১ শে জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ২:৩১



১৭ ডিসেম্বর-১৯৭১।
তখনও বাতাসে বারুদের কাঁচা গন্ধ। মুহূর্তের শরীরের দগদগে ঘাঁ-য়ের চুইয়ে পড়া কসে- ফোটা ফোটা মৃত্যুর গুঙানী, হাহাকারে হাঁটছিল। বাতাসের কানে গলগলে রক্তক্ষরণের আর্তনাদ। মৃত্তিকার দীর্ঘ-নিঃশ্বাসের পোড়া ধোঁয়া। ঝলসিত আত্নার আহাজারির উপর দিয়ে ছুটে যাওয়া পিচাসী- খুড়ের, জীবন্ত ধূলায় - মৃত্যুরা তখনও উড়ছিল। হঠাৎ, জয় বাংলা স্লোগানের... বাকিটুকু পড়ুন

৪ টি মন্তব্য      ৪২ বার পঠিত     like!

বিমূর্ত বসবাস...

লিখেছেন কিরমানী লিটন, ২০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ১০:১৬




গৃহহীন হয়ে পড়ি, ক্রমে- ক্রমে,
ক্রমে ক্রমে, গৃহের নিবাস ছেড়ে ছুটে আসি,
একটি নিঃষ্পাপ গোধূলীর কলিজার ন্যায়
একা একা, কোথা হেঁটে-যাই,
যাচ্ছি কোথায়- অবেলায়?

চৈতন্যের জঠরে এখন- বৃষ্টিপাত, পাতা পতনের দৃশ্য
বিপন্ন ইচ্ছারা, পুড়ায় যৌবন- ফসল আর শস্যের মাঠ,
আগাম সন্ধ্যারা, গিলে খায় উপোসী বিকাল,
রাক্ষুসী রাতের হিমশীতল পথ ধরে একা একা হেঁটে চলি,
কোথা হেঁটে যাই,... বাকিটুকু পড়ুন

১৬ টি মন্তব্য      ৬৮ বার পঠিত     like!

ভুল চাষাবাদে, খুঁজি-বিজয়ের স্বাদ...

লিখেছেন কিরমানী লিটন, ১৯ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ৭:৪৪



কেউ কেউ ঝরে যায়- শুকনো পাতায়,
পড়ে থাকে আড়ালের- শুন্য খাতায়।
কারো কারো মরে- বাঁচা- একা নির্জনে,
চির দুঃখি নিরালায়, ঈদ- পার্বনে।

কারো কারো ঘর নেই, কেউ ঘর হারা,
যাতায়াতে পথ নেই- ফিরবার তাড়া।
কারো দিন শুরু হয়, আহাজারি- শোকে,
উল্লাস আয়োজনে- বধিরের মুকে।

কেউ কেউ ভোর খুঁজে, সারারাত- জেগে,
স্বপ্নের ছায়া হয়ে- বিনাশী আবেগে।
কারো রাত শেষ হয়-... বাকিটুকু পড়ুন

১৮ টি মন্তব্য      ৯৮ বার পঠিত     like!

অনুদিত অলিন্দে- মৃত হাহাকার...

লিখেছেন কিরমানী লিটন, ১৮ ই জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১:৫৮



এখন আর খুঁজি না কিছুই, তবু-
ঘাঙুরের জলে বেহুলার অপেক্ষার পুঁজি,
সাইফুল মুলুকের কংক্রিট আত্নায়
আলগোছে জেগে উঠে- শাহজাদির প্রেম,
লক্ষীন্দরের চিতায় আয়েশি উত্তাপ-
কার্তিকের রাতে- সবুজ ঘাসের উন্মুখ বেড়ে উঠা,
শারদীয় আকাশের মিটিমিটি তারাদের আতর্নাদ হয়ে
খসে পড়ে- সাদা চাদরের ফানুসে প্রান্তর।
সন্ধ্যার কুয়াশায় লেপ্টে থাকা বিরুদ্ধ আবীর
বুকের হীম ঘরে পুষে রাখা- নিষ্পাপ... বাকিটুকু পড়ুন

১২ টি মন্তব্য      ৫২ বার পঠিত     like!

এসো মিলি একতায়, হাত রেখে- হাতে ...

লিখেছেন কিরমানী লিটন, ১৭ ই জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১:৪৭



এইখানে নদীদের মৃত কোলাহল
চৈত্রেও থৈ থৈ বর্ষা- সজল,
তার জলে জড়াজড়ি আবাদী পলল
তবু তার দুই তীর মরু চলাচল।

এইখানে দিন আসে- অলখের সুর
কান্নায় শুরু তাই- জীবনের ভোর।
লালসার তাপে পুড়ে- ক্রোধের দুপুর
ইচ্ছের পায়ে মল- শিকল- নুপুর।

ফ্যাকাশে বিকেলজুড়ে- এই জনপদ
সন্ধ্যের অমানিশা ভয়াল শ্বাপদ,
রাতগুলো জেগে রয় ভীতু হাহাকারে,
প্রভাতের ঘুম ভাঙে ভীত-... বাকিটুকু পড়ুন

২২ টি মন্তব্য      ৯৫ বার পঠিত     like!

আবার ফিরে- জঙ্গলে....

লিখেছেন কিরমানী লিটন, ১৪ ই জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১২:৫০



আমার ছিল হাজারটা ভুল, তোমার ছিল ক্ষমা,
আমার চলায় ছন্নছাড়া, তোমার দাঁড়ি- কমা।
তোমার পথে উদয় রবি, অস্তে পানে নামা,
সবক'টা পথ মাড়িয়ে শেষে আমার পথে থামা।

অল্প চাওয়ার আমার আকাশ- উল্টো করে বাঁধা,
এক টুকরো পথ চলতে- এক ফালি চাঁদ সাধা।
তোমার চাওয়া পূর্ণীমা চাঁদ, আকাশজুড়ে থাকে,
জোনাক মালা জোছনা হয়ে আলোর ভিড়ে ডাকে।

আজ... বাকিটুকু পড়ুন

৩৪ টি মন্তব্য      ১৬৫ বার পঠিত     like!

বেঁচে থেকো কবিতা, বিমূর্ত প্রাণের উৎসব-আয়োজনে.....

লিখেছেন কিরমানী লিটন, ১১ ই জানুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৫:২৬



আমার কাছে কবিতা মানে অনেক বৃষ্টি ঝরে- এক মুঠো রোদ্দুর। বিমূর্ত স্মৃতীর একঝাক তৃষ্ণা। আমার মায়ের ঘামে ভেজা শরীরের- ছেড়া আঁচলের হলুদের গন্ধ। পিতার কোমল জায়নামাজের উদার জমিন। সব দূয়ার হতে প্রত্যাখাত হয়ে তাই কবিতার জীর্ণ বুকেই মুখ গুজি- পরম মমতায়। রাজনীতি সমাজ আর মূখোশে মানুষের উৎসব থেকে নতমুখে... বাকিটুকু পড়ুন

১৬ টি মন্তব্য      ৮২ বার পঠিত     like!

তৃষিত- আর্তনাদ...

লিখেছেন কিরমানী লিটন, ১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৪:৪৫



একটি শক্ত সুঁতো দিও
যা দিয়ে বাঁধবো- সকাল
একটা সন্ধ্যা বাতি দিও
দেখবো- মহাকাল।

অথবা-
সম্পর্কের সূতো কেটে মুক্তি দিও,
সহস্র অদেখা বন্ধন....!
শরীর চেয়ো না, অপমানে-
ছিড়ে যায় প্রাণ।

নুয়ে পড়ে প্রিয়মুখ ভালবাসা
কেউ-ই বলেনা কখনো, 'পাশে থেকো'---
দুর্দান্ত কুয়াশা সকাল
তুমি কুয়াশা ভিজিয়ে গাও গান
আমিও খানিক, কথা বলি- সকালের সাথে,
রোদের তৃষ্ণায়
দু’হাত বাড়াই-
এক কাপ চা’য়ের উষ্ণতায়
দু’হাতে কুয়াশা সরাই,... বাকিটুকু পড়ুন

১২ টি মন্তব্য      ৫৯ বার পঠিত     like!

"... .. .আমি ডাকিতাছি, তুমি- ঘুমাইছো না কি "

লিখেছেন কিরমানী লিটন, ০৬ ই জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১:১৮



হ্যাঁ- বিবেকের কথা বলছি। তাকে আর কোথাও খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। সে আজ সত্যের মতো নিখোঁজ, ন্যায়ের মতো অদৃশ্য। কুয়াশার সকালগুলো দুপুর গড়িয়ে সন্ধ্যা, রাত পেড়িয়ে ভোরের তীর ছুঁয়ে যায় বারবার। তবুও বিবেকের সোয়াচান পাখির ঘুম ভাঙ্গেনা। হেরেমের আদর- সোহাগ, বিলাসী আশ্রয়ে অঘোর ঘুমে আচ্ছন্ন সে। বধির সুশীল-... বাকিটুকু পড়ুন

১৮ টি মন্তব্য      ১২২ বার পঠিত     like!

এ যদি তোমার প্রিয় মা- বোন হতো, পারতে কি চেয়ে চেয়ে- দেখতে.... ???

লিখেছেন কিরমানী লিটন, ০৩ রা জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১:৫৩



এইদিকে তাকান। এরাও মানুষ- কারো মা, বোন সন্তান। মানুষের নামেই এদের নাম। দেখুন- নাক, চোখ, চুল, ঠোট পোষাক এমনকি এদের কান্নার অবয়বও অবিকল মানুষের মতো। অথচ মানুষ হতে চেয়ে- মানবিক অধিকার প্রয়োগ করতে চাওয়ার অপরাধে আজ তারা হায়েনার লোলুপ লালসা আর ভয়ঙ্কর জিঘাংসার খোঁড়াক। নিজের চাওয়া... বাকিটুকু পড়ুন

৫০ টি মন্তব্য      ৪৫০ বার পঠিত     like!

মানচিত্রের জবানবন্দী ...

লিখেছেন কিরমানী লিটন, ০১ লা জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১:৪০



হেথায় রাতে চাঁদের আড়ি, দিনের সাথে সূর্যটা
হৃদয় থাকে অনেক দুরে- একটা হতে আরেকটা,
অন্দরে তার বিভেধ কালো, মাথার উপর আকাশটা
সদাই সেথা ঠেলছ কেন, আমার প্রাণের স্বদেশটা ?

হিংসা ক্রোধের আবাদ করো, বছর জুড়ে-সারাটা
ডাকছ কেন সে আঁধারে, বিষাদ কাজল সন্ধ্যাটা ?
তোমার সাথে মিটাওনা কেন, নিজের... বাকিটুকু পড়ুন

১০ টি মন্তব্য      ৪৫ বার পঠিত     like!

" এ কোন সকাল- রাতের চেয়েও অন্ধকার.... ?"

লিখেছেন কিরমানী লিটন, ২৪ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ২:১৬



খসখসে উন্নয়নের নিকষ ভোর। ঘুম ভেংগে তাকাতেই- ভেসে উঠে অন্য এক সকাল ! আবেগের ঢেউ লঘূ নিম্নচাপ সৃষ্টি করে হৃদয়ের উপকূলে। দেখি- স্রোতের বিপরীতে শেওলাগুলো অবলিলায় ভেসে থাকে। কাপুরুষ কুৎসিত- জৌলুসে বেঁচে থাকে। অনিয়মের খেসারত তখন মনে মগজে বুনে- বুনো অস্বস্তি। চৈতন্যের পাহাড় ঘেঁষে নেমে আসে বিদিশার অন্ধকার।... বাকিটুকু পড়ুন

১৮ টি মন্তব্য      ১১১ বার পঠিত     like!

শপথ- স্বাধীনতার....

লিখেছেন কিরমানী লিটন, ১৫ ই ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১২:৩৭


পা বেঁধেছো শক্ত জালে
পেখম ছিড়ে তুলে নিলে
হয়তো ভাবো- খাঁচার পাখি?
উড়ার আকাশ গেছি- ভুলে?

উড়বো বলেই খাঁচায় থাকি
তোমার চাওয়ায় আঁটকে রাখি,
খাঁচার তারে বন্দি জীবন
হুকুম মানা, আদর- যতন।


উড়বো নাকি- আঁটকে রব?
তোমার চাওয়ায়- পুষ্য হব?
তাই জেগেছি জানতে সকল
জ্ববাব পেতে- ছিড়তে শিকল।

গড়তে আগাম ভাঙবো দেযাল
রুখতে খোয়াব- দানব খেয়াল
শপথ নিলাম সব শহিদের
এই পতাকা, লাল- সবুজের !

ভুলের... বাকিটুকু পড়ুন

৪ টি মন্তব্য      ৫৪ বার পঠিত     like!

মৃত্যু সেজে তাকিয়ে আছি- মুক্তি নিয়ে এসো...।

লিখেছেন কিরমানী লিটন, ১৩ ই ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ২:৪১



মায়ের ভাষা নির্বাসনে
রাষ্ট্রভাষা বুলেট,
রাষ্ট্র নায়ক ফেরিওয়ালা
দেশের গলায় টু-লেট।

মৃত্যু হেথা মুড়কি মোয়া
পুড়ছে জীবন- খরা,
গ্লিসারিনের বৃষ্টি এসে
তৃষ্ণা বাড়ায়- জরা।

দানব শেখায় মানবতা
কাক সেজেছে কোকিল
মানুষ তাদের দাবার ঘুটি
যম সেজেছে উকিল।

এই আকাশে শকুন ছায়া
এই পতাকা ছড়ায় ভয়,
দাসের জীবন এর জনতা
এ নদী জল আমার নয়।

তাল দিয়েছি- তালগাছটা
রাজ্য দিলাম- রাজত্ব,
তার... বাকিটুকু পড়ুন

১৮ টি মন্তব্য      ৭৭ বার পঠিত     like!

গণতান্ত্রিক একনায়কের ইশতেহার ....

লিখেছেন কিরমানী লিটন, ১২ ই ডিসেম্বর, ২০১৮ বিকাল ৩:৫৬



এই নে বুবু সারা বেলা
এই নে সকাল- ভোর,
এই নে বুবু আঁধার রাতে
অমানিশা- ঘোর।

এই নে বুবু দেশ পতাকা
এই নে পাখির গান,
এই নে বুবু মানচিত্র
এই নে সংবিধান।

এই নে বুবু জজের কলম
এই নে ইভিএম,
এই নে বুবু মিথ্যে মূলোর
ভোটার বিহীন গেম।

এই নে বুবু পালের নৌকা
এই নে ধানের শীষ,
এই নে বুবু কাস্তে লাঙ্গল... বাকিটুকু পড়ুন

২৪ টি মন্তব্য      ১২৪ বার পঠিত     like!
আরো পোস্ট লোড করুন
ব্লগটি ২৯৪৮৫ বার দেখা হয়েছে

আমার পোস্টে সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার করা সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার প্রিয় পোস্ট

আমার পোস্ট আর্কাইভ