somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

কেউ সুন্দরী নারীর লোভে, কেউ ভারতীয় স্বার্থে মুক্তিযুদ্ধে যায়ঃ. কাদের মোল্লা

৩১ শে অক্টোবর, ২০০৭ রাত ১০:০৬
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :

কেউ সুন্দরী নারীর লোভে, কেউ ভারতীয় স্বার্থে মুক্তিযুদ্ধে যায়ঃ. কাদের মোল্লা

ইত্তেফাক রিপোর্ট
জামায়াত ইসলামীর সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল আবদুল কাদের মোল্লা বলেছেন, কেউ সুন্দরী নারীর লোভে, কেউ হিন্দুর সম্পদ লুক্তন, কেউ ভারতীয় স্বার্থ রক্ষায় মুক্তিযুদ্ধে অংশ নেয়। কেউই আন্তরিকতা কিংবা দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ হয়ে মুক্তিযুদ্ধে অংশ নেননি। অনেকেই ভারতের অখণ্ডতার সাথে বাংলাদেশকে সম্পৃক্ত করার চেষ্টা করেছেন। এই ষড়যন্ত্র এখনো চলছে। তিনি বলেন, মুক্তিযুদ্ধের পতাকাতলে বেশ কিছু জাতীয় বেইমান ও বিশ্বাসঘাতক আশ্রয় নিয়েছে। তিনি রাজনৈতিক দলগুলোর প্রতি ইঙ্গিত করে বলেন, “চাচার কবর কৈ আর চাচী কান্দে কৈ!” তিনি বলেন, কতিপয় রাজনৈতিক দল নির্বাচনের বিষয়ে আলোচনা না করে নির্বাচন কমিশনারের কাছে একটি রাজনৈতিক দল বাতিলের দাবি তুলেছে। তারা জানে না বাংলাদেশে ধর্মবিরোধীদের কোন ঠাঁই নেই। যারাই ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করবে তারাই নির্বংশ হয়ে যাবে।
গতকাল মঙ্গলবার খতিব উবায়দুল হকের কর্মময় জীবনের ওপর জাতীয় প্রেসক্লাবে অনুষ্ঠিত এক স্মরণসভায় তিনি এসব কথা বলেন।
যুদ্ধাপরাধীঃ জামায়াতের বক্তব্য
এদিকে জামায়াতে ইসলামীর প্রচার বিভাগের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, যুদ্ধাপরাধী চিহ্নিত হওয়া ও ক্ষমার বিষয়টি রাতারাতি বা গোপনে হয়নি।
ঐ বিবৃতিতে বলা হয়, ‘যুদ্ধাপরাধীদের ক্ষমা ও দেশে ফেরত পাঠানো ছিল দীর্ঘ প্রক্রিয়া ও আলোচনার ফল এবং সব কিছুই ছিল প্রকাশ্য। ক্ষমা ঘোষণার এই দলিলে স্বাক্ষরকারী ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শরণ সিং ও পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রী আজিজ আহমদ বেঁচে না থাকলেও বাংলাদেশের পক্ষে স্বাক্ষরকারী বাংলাদেশের তৎকালীন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. কামাল হোসেন এখনও বেঁচে আছেন।
তৎকালীন সরকারের তদন্তানুসারে যুদ্ধাপরাধীর সংখ্যা ছিল ১৯৫ জন। এর বাইরে আর কোন যুদ্ধাপরাধী নেই। শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭৩ সালে সাধারণ ক্ষমা ঘোষণা করেন। তবে হত্যা, ধর্ষণ, লুটতরাজ, অগ্নিসংযোগের অভিযোগে অভিযুক্তরা এর আওতার বাইরে ছিল। সাধারণ ক্ষমা ঘোষণার পরও মরহুম শেখ মুজিবের নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় ছিল। এ সময় জামায়াত নেতা ও কর্মীদের বিরুদ্ধে হত্যা, ধর্ষণ, লুটতরাজ, অগ্নিসংযোগের কোন মামলা হয়নি, এমনকি জিডিও হয়নি। এর দ্বারা প্রমাণিত হয় যে, জামায়াতের সাথে সংশ্লিষ্ট তদানীন্তন নেতা ও কর্মীবৃন্দ এ ধরনের ঘটনার সাথে জড়িত ছিলেন না। প্রকাশ: ৩১ অক্টোবর ০৭

৭টি মন্তব্য ০টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

হাজিবাবা ৩ পর্ব

লিখেছেন মোহাম্মাদ আব্দুলহাক, ২০ শে জানুয়ারি, ২০২২ দুপুর ১:৫৬



গল্পকার মোহাম্মাদ আব্দুলহাক

আত্মসাধকের সার্থক ভালোবাসার গল্প

হাসার চেষ্টা করে হৃদয় বললো, "তোমাকে দেখার জন্য এসেছি। আমি জানতাম আজ তুমি পলাশতলে আসবে।"
"নিজের অজান্তে যান্ত্রিক পুতুলের মতন এসেছি।"
"স্বেচ্ছায় সব ত্যাগ করে... ...বাকিটুকু পড়ুন

নত ওমিক্রনঃইংল্যান্ড স্বাভাবিকের পথে

লিখেছেন শাহ আজিজ, ২০ শে জানুয়ারি, ২০২২ বিকাল ৪:১২




দুপুরে বিবিসি ঘোষণা দিল ইংল্যান্ড কোভিড কে আর বিপজ্জনক ভাইরাস হিসাবে দেখছে না । ওমিক্রনের পিক আওয়ার চলে গেছে । কাল থেকে বাসায় বসে অফিস নয় এবং আগত বৃহস্পতিবার থেকে... ...বাকিটুকু পড়ুন

বুস্টার ডোজ নেওয়ার পর......

লিখেছেন জুল ভার্ন, ২০ শে জানুয়ারি, ২০২২ সন্ধ্যা ৭:০৬

আজ কোভিড থার্ড ডোজ, মানে- বুস্টার টিকা/ইনজেকশন নিয়েছি। বাসায় ফেরার পর স্ত্রী জিজ্ঞেস করলেন- "টিকা নিতে ব্যথা পেয়েছিলে"?

আমি বীরের মতো উত্তর দিলাম- 'আরে নাহ! আমি টেরই পাইনি'!

স্ত্রীর খেদোক্তিঃ "অন্য মহিলারা... ...বাকিটুকু পড়ুন

গল্প- নিছকপ্রতিবার

লিখেছেন হাসান মাহবুব, ২০ শে জানুয়ারি, ২০২২ রাত ১০:৪৬


অফিস থেকে বের হয়ে বদরুলের মন ফুরফুরা হয়ে গেলো। আজকে সপ্তাহের শেষ দিন। আগামীকাল ছুটি। এখন ভালো দেখে একটা বৃহস্পতিবার খুঁজে বের করতে হবে। সিম্পলের মধ্যে গর্জিয়াস হলে ভালো।... ...বাকিটুকু পড়ুন

বাইডেনের কটূক্তি, নাকি আমাদের দূরত্ব তৈরী (!?)

লিখেছেন প্রতিদিন বাংলা, ২১ শে জানুয়ারি, ২০২২ রাত ১:৩৩

ব্লগের শিরোনামটি দেয়ার ২টি কারন ,একটি হলো -
সাধারণত আমরা জানি বা শিষ্টাচার হলো, কোনো দেশের সরকার প্রধান, এ কোনো বিষয়ে শুভেচ্ছা জানায় অপর দেশের সরকার... ...বাকিটুকু পড়ুন

×