somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

ভাট ফুলের সুবাস

১২ ই মার্চ, ২০১৬ সকাল ১০:১৭
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :

শিরনামটাই অর্থহীন হল আমার জন্য!! কারণ আমি আজও এই ভাট ফুলের সুবাস পাইনি। ভাট ফুল দেখেছি অনেক,‌ কিছু ছবিও তুলেছি তবে সুবাস নেয়ার সৌভাগ্য হয়নি। অবশ্য এর একটি কারণও আছে। ভাট একটি বুনো ফুল, পথের ধারে জংলা যায়গায়, গায়ের মাঠের ধারে অযত্নে ফুটে থাকে এই ফুল। আদর করে কেউ বাগানে রোপণ করে না। আর ফুলটি সুবাস ছাড়ে রাতে, তাই কখনো এর সুবাস নেয়া হয়নি আমার।


(ভাট ফুল)



(ভাট ফুলের কলি)



(কলি আর ফুলের সমারহ)

ভাট আসলে গুল্ম জাতিয় দেশি বুনো ফুল। ভাটের গাছ খুব একটা বড় হয়না, ১-২ মিটার উচ্চতার ছোট ছোট গাছে তোড়ার মত ফুটে থাকতে দেখা যায় ভাট ফুল। মার্চ-এপ্রিল মাসে ফুল ফুটে। ভাট ফুলের রং ধবধবে সাদা। প্রতিটি ফুলে ৫টি করে পাপড়ি থাকে। পাপড়ির গোড়াতে থাকে সামান্য বেগুনী রঙের পোঁছ। ফুলের কেন্দ্র থেকে ৪টি করে ৩ সেন্টিমিটারের মত লম্বা মঞ্জুরি (পুংকেশর) ফুলের সামনের দিকে বেরিয়ে আসে, সামনের অংশে থাকে কালো দানার মত।


(ভাট ফুল ফুটে এভাবেই তোড়ার মত করে)







এই ফুলের অনেকগুলি বাংলা প্রচলিত নাম রয়েছে যেমন - ভাট ফুল, ভাইটা ফুল, ভাত ফুল, ঘেঁটু ফুল, ঘণ্টাকর্ণ ইত্যাদি। এছাড়াও আরো কিছু কমন নাম এর আছে, যেমন – Hill Glory Bower, নেপালি – রাজবেলি, সংস্কৃতি – ভান্ডিরা ইত্যাদি।



(স্বর্ণলতায় জড়িয়ে আছে ভাট ফুল)

বৈজ্ঞানিক নাম: Clerodendrum viscosum, গোত্র: Verbenaceae, রাজ্য: Plantae, পরিবার: Lamiaceae, গোত্র: Clerodendrum, প্রজাতি: infortunatum










যাইহোক কদিন আগে ৬/৩/২০১৬ইং তারিখে জয়দেবপুরের পরে ট্রেনের রাস্তার ধারে দেখলাম অজস্র ভাট ফুল ফুটে আছে। সঙ্গে থাকা Nikon D80 ক্যামেরা দিয়ে অনেকগুলি ছবি তুলে ছিলাম ভাট ফলের। আমার বৃদ্ধ-দুর্বল হয়ে যাওয়া ক্যামেরায় নিজের অপারগতার কারণে কোনরকমে চলনসই ছবি দিয়েই আজকের এই ছবি পোস্ট।


(ভাটের ঝোপ)

সব শেষে জীবনানন্দ দাশের একটি কবিতা

"কোথাও মঠের কাছে”
"কোথাও মঠের কাছে — যেইখানে ভাঙা মঠ নীল হয়ে আছে
শ্যাওলায় — অনেক গভীর ঘাস জমে গেছে বুকের ভিতর,
পাশে দীঘি মজে আছে — রূপালী মাছের কণ্ঠে কামনার স্বর
যেইখানে পটরানী আর তার রূপসী সখীরা শুনিয়াছে
বহু বহু দিন আগে — যেইখানে শঙ্খমালা কাঁথা বুনিয়াছে
সে কত শতাব্দী আগে মাছরাঙা — ঝিলমিল — কড়ি খেলা ঘর;
কোন যেন কুহকীর ঝাড়ফুঁকে ডুবে গেছে সব তারপর
একদিন আমি যাব দু-প্রহরে সেই দূর প্রান্তরের কাছে,
সেখানে মানুষ কেউ যায় নাকে — দেখা যায় বাঘিনীর ডোরা
বেতের বনের ফাঁকে — জারুল গাছের তলে রৌদ্র পোহায়
রূপসী মৃগীর মুখ দেখা যায়, — শাদা ভাঁট পুষ্পের তোড়া
আলোকতার পাশে গন্ধ ঢালে দ্রোণফু বাসকের গায়;
তবুও সেখানে আমি নিয়ে যাবো একদিন পাটকিলে ঘোড়া
যার রূপ জন্মে — জন্মে কাঁদায়েছে আমি তারে খুঁজিব সেথায়।"


সব্বাইকে ভাট ফুলের শুভেচ্ছা।
সর্বশেষ এডিট : ১২ ই মার্চ, ২০১৬ সকাল ১০:১৯
২০টি মন্তব্য ২০টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

বলদ ও ছাগল চেনার সজজ ১০ উপায়।

লিখেছেন মোহাম্মদ গোফরান, ০৪ ঠা ডিসেম্বর, ২০২২ রাত ৯:১৫

কিছু কিছু মানুষের আচরণে সে মানুষ নাকি বলদ ও ছাগল কনফিউজড হয়ে যাই। দেখা যাক কে মানুষ আর কে বলদ। বলদ চেনার সহজ ১০ উপায়:

১) নিজেকে মুই কি হণুরে... ...বাকিটুকু পড়ুন

রিসেশানের সময় দেশ স্হিতিশীল থাকার দরকার।

লিখেছেন সোনাগাজী, ০৫ ই ডিসেম্বর, ২০২২ রাত ২:২৩



২০২৩/২০২৪ সালে, বিশ্বব্যাপী রিসেশানের সময় বাংলাদেশে সুস্হির সরকার থাকার দরকার আছে। শেখ হাসিনার সরকার এখন বেশীরভাগ মানুষের আস্হাভাজন সরকার নন; কিন্তু উনার সরকার ও প্রশাসন... ...বাকিটুকু পড়ুন

কে চালাচ্ছে বিএনপি?

লিখেছেন হিজ মাস্টার ভয়েস, ০৫ ই ডিসেম্বর, ২০২২ রাত ৩:০৪


মির্জা ফখরুল বা আমির খসরুরা কাউরে টাকা দিয়ে সমাবেশে আনছে না৷ খালেদা জিয়া আসতে পারছেনা, তারেক রহমান দেশে নাই। প্রধান অতিথি কে হবে; এইটাও ম্যাটার করছেনা।

যা ম্যাটার করছে... ...বাকিটুকু পড়ুন

আমি বদলে যাচ্ছি......

লিখেছেন জুল ভার্ন, ০৫ ই ডিসেম্বর, ২০২২ সকাল ৯:৪৬

আমি বদলে যাচ্ছি.....

আমার বন্ধু দেবনাথ সেদিন ৬৫ বছর বয়সে পা দিল।
আমি জিজ্ঞেস করলাম, 'নিজের মধ্যে- এই বয়েসে পৌঁছে, কিছু পরিবর্তন অনুভব করছ কি?'

বন্ধু উত্তর দিল.....

এতবছর নিজের পিতামাতা, ভাইবোন,... ...বাকিটুকু পড়ুন

বিস্ময়বোধক চিহ্নের অসুস্থ সমাচার!

লিখেছেন ভুয়া মফিজ, ০৫ ই ডিসেম্বর, ২০২২ বিকাল ৩:১২



গত সপ্তাহ সোমবার সকাল সাড়ে আটটার সময় ক্রিসের একটা ফোন পেলাম। ক্রিস চি চি করে মোটামুটি করুণ সুরে বললো,
মফিজ, আমি আজকে অফিসে যাইতে পারবো না। তুমি দয়া কইরা বসরে... ...বাকিটুকু পড়ুন

×