somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

নিষিদ্ধ আমি তোমার শহরে

১৬ ই জুন, ২০১৯ দুপুর ১:৫৪
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :


চিঠিনং ১৭
তারিখ: ৩ আষাঢ় ১৪২৬ বাংলা
প্রিয় নির্বাকপরী
আষাঢ় মাসের ঝিরিঝিরি বৃষ্টিতে বিমুগ্ধতায় সদ্য ফোটা গোলাপের পাপড়িতে মোহময় ঘ্রাণ জড়ানো শুভেচ্ছা নিও পত্রারম্ভে।
কেমন আছো নিয়মিত লিখা ১৭ নং চিরকুটের প্রাপক।
আমি ভালো আছি, আবার ভালো নেই!
ভালো থাকা না থাকার সময়ের স্রোতে ভাসে ডোবে আমার তরী।
শহরটা যখন ঘুমিয়ে একবারে নিশ্চপ,ঠিক সেই সময়টাকে সাক্ষী করে তোমায় লিখছি।
শুধু কি আজ লিখছি! না তোমার ঠিকানায় চিঠি লিখা অনেক আগে থেকেই। তবে কেন জানি তোমার ঠিকানায় আমার চিরকুট নোঙর ফেলতে সক্ষম হয়নি। থাকুক আজ অভিমান জড়ানো আবেগের কথা। আজ আবার একটু প্রেমিক হই।

আমি ভালবাসা চেয়েছিলাম দু আঙ্গুল চিমটি পরিমাণ।
কিন্তু তোমার ভালবাসার শহরে আমার ভালবাসা তপ্তরোদে
তৃষ্ণাতুর হয়ে তোমার দরজায় কড়া নাড়ছে। বিড়ম্বনার প্রত্যাশিত বিদ্রাবণ এ মনঃবধে সাধুবাদ তোমায় প্রিয়। দ্বিপ্রহরের ব্যস্ত কোলাহলপূর্ণ শহরের আকাশে আমি মেঘ হয়ে তোমায় জন্য অপেক্ষা করছি,তোমার হাতের ইশারাতেই আমি ঝুম বৃষ্টির মত প্রেম হয়ে বর্ষিত হবো তোমার হৃদয়পটে।
প্রেমময় ভেজা শরীরে তুমি ঘরে ফিরবে।
ঘুড়ির কাটাগুলো ঘুরতে ঘুরতে সূর্যাস্তের স্তিমিত মৃদ্যু আলোর স্ফুরণে হারিয়ে যাবো আমি তোমার শহরে।
অতঃপর একটি নরম সন্ধ্যে নামবে জাদুর শহরে।
পাখিদের নীড়ে ফেরার তড়িৎ গতি আমি দেখেছি।তোমাকে নিয়ে আমার কিছু অনূভূতি গগন ডিঙিয়ে হাস্যজ্বল ফুটফুটে বিমোহিত চাঁদের হাসিকেও হার মানায়। কিছু ভাল লাগার ক্ষত চির হয়ে দাগ কাটে নরম কলিজায়। তোমার কল্পনারা ঘিরে ধরে আমার অস্তিত্ব। ইচ্ছে করছে এই রাতের জ্যোৎস্নার আলোর টগবগে নির্যাস তোমার নাকের নোলকে মাখিয়ে দেই,নিষ্পলক চেয়ে থাকি তোমার উড়ন্ত চুলে,আবেগী আবেদনময়ী চোখের ইশারায় খুন হতে।
যদি আকাশ মেঘে ঢাকে ধরে নিবে আমার আছি তোমার সাথে,মেঘেরা হাসি হয়ে ঝরে পড়বে তোমার মনের উঠোনে।

এই শহরে ভালবাসারা অভাব অভিযোগের মিছিল ডেকেছে,ডেকেছে লংমার্চ,আমি মিছিলে,লংমার্চে শামিল হয়েছিলাম। যদিও আমি ভালবাসা অত ভাল বুঝিনে,
তবুও সুস্নিগ্ধ ভালবাসার মুখোমুখি বসে তোমার গল্প শুনবো ভাবছি বসন্তীরাতে।
কি শোনাবে তো তোমার গল্প?
নির্বাকপরীর অভিনয় থেকে বেরিয়ে আসো,এই শহরের ঘামে ভেজা রোদ্দুর অবহিত, কতটা বিষন্নমুখে চেয়ে থাকি আকাশের পানে। মনের মসনদে কবে তুমি জাল বিছাবে?ঘোর চক্রান্তে ষড়যন্ত্রে আমায় হরণ করবে।
এই কোলাহলময় দিনগুলো আমার যে আর ভালো লাগেনা।
জলঢাকা চাঁদকে আমি ধরতে গেলে সেও তোমার ভালবাসার শহরে লুকিয়ে পড়ে। একাকীত্বেই বুঝি আমি ভালবাসার পূর্ণতা দারুন উপলব্ধি করছি। কবিতায় তোমাকে বহুবার রূপ দিয়েও আমি রূপকার হতে পারিনি।

তোমায় নিয়ে দু লাইন কবিতারা ভীড় করেছে মগজের রক্তনালীতে,
ভালবাসার অভাবে জল নেমেছে
দু চোখের কোণ জুড়ে,
আমিও কারো মুখের হাসি হবো,
এই কোটি রমণীদের ভীড়ে।
তোমার নয়নে সাক্ষী আমার ভালবাসার প্রহর,
অবরুদ্ধ স্মৃতির স্ফুলিঙ্গটা মাঝে মাঝে,
দাবানলের মত বেরিয়ে পড়ে পুরো শহরজুড়ে।

আজ এখানে থেমে গেলাম,জানি আমি কারো প্রিয় হতে পারিনি,একমাত্র মেঘ আমায় প্রিয় করে নিয়েছে। তবে কাউকে একসময় খুব প্রিয় বানাবো। এই একাকী জীবন থেকে অবকাশে বের হবো তোমার সাথে মেঘের দেশে। তুমি ভালো থেকো এ আমার প্রতিমুহূর্ত প্রার্থনা,সাধুবাদ জানিও ভালবাসার সমরে বিজয়ীদলের সমাজ্ঞী।
ইতি
এক যাযাবর বালক।
সর্বশেষ এডিট : ১৬ ই জুন, ২০১৯ দুপুর ১:৫৪
৪টি মন্তব্য ৪টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

ভোটরঙ্গ (ছড়া)

লিখেছেন নূর মোহাম্মদ নূরু, ২১ শে জানুয়ারি, ২০২০ বিকাল ৫:০৫


ভোটরঙ্গ (ছড়া)
নূর মোহাম্মদ নূরু

বলছে কেউ যেমন করেই ভোটে জেতা চাই,
ভুলে গেছে তারা বুঝি আগের দিন আর নাই।
জেতাটা কী এতই সোজা ভোটা-ভুটির খেলায়,
পিছন কথা স্মরণ করো যা খুয়েছো হেলায়।

মানুষ এখন... ...বাকিটুকু পড়ুন

বনলতা সেন

লিখেছেন রাজীব নুর, ২১ শে জানুয়ারি, ২০২০ বিকাল ৫:৫৪



জীবনানন্দ দাশের 'বনলতা সেন' কবিতাটি পড়েননি এমন পাঠক খুব কমই পাওয়া যাবে। অদ্ভুত একটা কবিতা। বুদ্ধদেব বসু জীবনানন্দকে বলেছিলেন- ‘প্রকৃত কবি এবং প্রকৃতির কবি’। কবিতাটি প্রথম প্রকাশ করেছিলেন কবি... ...বাকিটুকু পড়ুন

হারিয়ে যাওয়া সভ্যতার খোজে

লিখেছেন শের শায়রী, ২২ শে জানুয়ারি, ২০২০ রাত ১:০৩



চলুন কিছু প্রাচীন সভ্যতার খোজ নিয়ে আসি। এগুলো সব হারিয়ে যাওয়া সভ্যতা। হারিয়ে যাওয়া সভ্যতা যখন পড়ি আমি তখন হারিয়ে যাই ইতিহাসের স্বর্নালী দিন গুলোতে ওই সব জাতির... ...বাকিটুকু পড়ুন

বায়না

লিখেছেন ইসিয়াক, ২২ শে জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ৮:২৭



তিড়িং বিড়িং খোকন নাচে,
হরেক তার বায়না।
দিতে হবে কিনে তাকে,
জাদুকরী আয়না।

ভেবে ভেবে মা যে তার,
হলো কুপোকাৎ।
বাবা বলে দেবো দেবো,
পোহাক আগে রাত।

রাত নিশিথে খোকন সোনা,
ঘুমে স্বপ্ন দেখে।
তেপান্তরের মাঠে এক
বক... ...বাকিটুকু পড়ুন

দ্য আনএক্সপেক্টেড ব্রাইড (পর্ব চার)

লিখেছেন অপু তানভীর, ২২ শে জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ১০:৩৭


পর্ব এক পর্ব দুই পর্ব তিন

সাত

অরিন কিছু সময় চোখ বড় বড় করে তাকিয়ে রইলো নোরার দিকে । ওর ঠিক বিশ্বাস হচ্ছে না নোরার কথা । অবশ্য... ...বাকিটুকু পড়ুন

×