somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

পোস্টটি যিনি লিখেছেন

সৈয়দ মেহেদী হাসান
পেশায় সাংবাদিক। ‘জল পরীর ডানায় ঝাপটা লাগা বাতাস’ (২০১৩), ‘সাদা হাওয়ায় পর্দাপন’ (২০১৫) দুটি কবিতার বই প্রকাশিত। তার লেখা নাটকের মধ্যে ফেরা, তৎকালীন, আদমের সন্তানেরা উল্লেখযোগ্য। লেখালেখির জন্য ২০১৫ সালে হত্যার হুমকি প্রাপ্ত হন।

কুয়াকাটায় পর্যটক হয়রানি বন্ধ হোক, ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান অব্যাহত থাকুক

১৭ ই আগস্ট, ২০২২ দুপুর ১২:৪৫
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :


ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানের প্রতিবাদে খাবার হোটেল বন্ধ করেছে কুয়াকাটার হোটেল ব্যবসায়ীরা। এটি চমৎকার একটি সুসংবাদ। আন্দোলন সংগ্রাম না করলে আসলে ব্যবসায় শঠতামির ফায়দা লোটা অসম্ভব। যেহেতু কুয়াকাটা বরিশাল বিভাগের পটুয়াখালী জেলার কলাপাড়া উপজেলায়। সুতরাং এখানে আমি জীবনে সবচেয়ে বেশিবার গিয়েছি। যতবার গিয়েছি ততবার থাকার ও খাবার হোটেলে প্রতারিত হয়েছি। এজন্য এখন গেলে লেম্বুর চর নয়তো আলীপুরে এসে খাই। শতভাগ ব্যবসায়ি যে টাউট তা কিন্তু নয়। তবে অধিকাংশরা টাউট। কিভাব একটি নমুনা দেই, সর্বশেষ ১৩ ও ১৪ জুলাই কুয়াকাটা অবস্থান করেছি। ওই সময়ে সম্ভবত কোন সরকারি ছুটি চলছিল। কোন হোটেলেই থাকার জন্য রুম খালি ছিল না। কিছু কিছু হোটেলে ছিল। যেসব হোটেলে থাকার জন্য রুম ছিল সেগুলোর ধারণা এমন দু’ মাস আগে যে রুমের ভাড়া দরকষাকষি করে ৪ শ থেকে ৫ শ টাকায় থাকা গেছে সেই রুম একদাম ২ হাজার। এই রুমে একটি পুরানো চৌকি/খাট, তেল চিটচিট বালিশ, গন্ধযুক্ত মশারি আর শরীর দুর্বল একটি ফ্যান পাবেন। আর তুলনামূলক ভালো হোটেলের রুমের ভাড়া নূন্যতম ৪ হাজার টাকা। হোটেল ভেদে এর বেশিও আছে। ১৩ জুলাই রাতে পৌঁছে দেখি হোটেলের বারান্দাও কেউ কেউ জনপ্রতি সাড়ে ৩ শ টাকা করে ভাড়া দিয়েছেন। যে ট্যুরিস্ট স্পটে পর্যটক পেলে ৪ শ টাকার ২ হাজার টাকা হয়ে যায়, যেখানে হোটেলের বারান্দাও ভাড়া দেওয়া হয় সেখানে ব্যবসায়ীরা কেমন হতে পারে আন্দাজ করুন।

আসি খাবারের প্রসঙ্গে। আপনি যদি দরদাম করে না খান তাহলে পকেটের সব টাকা দিয়ে আসতে হবে। পর্যটক কম থাকাকালীন সময়ে এক পিরিচ লাউ ৫০ টাকা। পর্যটক বাড়লে সেই লাউয়ের দাম ৭০ থেকে ১শ টাকায় বিক্রি হয়। ভাবুনতো, ঢাকা শহরে একটি আস্ত লাউ ১০০ টাকার বেশি দিয়ে কেউ হয়তো কিনবেন না। সেখানে এক পিরিচ লাউ সবজি কিনতে হচ্ছে ৫০ টাকায়। শুটকি ভর্তা বা ভাজি এক প্লেট কিনবেন ১২০ থেকে ১৫০ টাকায়। অথচ শুটকি কিন্তু কুয়াকাটায় তৈরী হয়। আর মাছ, মুরগি বা অন্যান্য তরকারি খেতে বসবেন, এক এক হোটেলে এক এক দাম। কেন রে ভাই? এটাই কি কুয়াকাটার ব্যবসায়ীদের পুঁজি? মানুষের পকেট কাটা? আবারো বলছি, দরাদাম করে না খেতে বসলে বিল যা হবে তা আপনি দিতে পারবেন না। দরদাম করে বসলে যে আপনি জিতবেন তাও কিন্তু নয়। তখন আবার খাবারে পরিমান কম পাবেন। উপকার হচ্ছে, কত টাকা বিল হচ্ছে তার একটি প্রাথমিক ধারণা আপনার মাথায় থাকবে। আর যেসব হোটেল ব্যবসায়ীরা আন্দোলন করছেন তাদের সকলের হোটেলে মাশাল্লাহ বলে পঁচা, বাসী, বালুযুক্ত খাবার পাবেনই। যতবার গিয়েছি ততবার একই অভিজ্ঞতা নিয়ে ফিরেছি।

আমি সাধুবাদ জানাই পটুয়াখালী জেলা প্রশাসনকে, পঁচা-বাসী খাবার পরিবেশেন ঠেকাতে, হোটেল ব্যবসায়ীদের শঠতামি ঠেকাতে অভিযান চালিয়েছে। এই অভিযান অব্যাহত থাকুক। কুয়াকাটা পর্যটকদের উপযোগী হোক। সৎ ব্যবসায়ীরা স্বচ্ছন্দ্যে ব্যবসা করুক। অসৎরা বারবার জরিমানা গুনুক। এই প্রত্যাশা রইলো।
সর্বশেষ এডিট : ১৭ ই আগস্ট, ২০২২ দুপুর ১২:৪৫
৭টি মন্তব্য ০টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

কাউকে ব্লাডের জন্য কল দেওয়ার আগে কয়েকটা জিনিস মাথায় রাখবেন।

লিখেছেন মোগল, ২৮ শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ দুপুর ২:২৫

১- ডোনারের যাতায়াত খরর

২- যে বেলায় ব্লাড দিবে ঐ বেলার খাওয়ার খরচ

৩- ডাব, স্যালাইন পানি, কিছু ফলমূল কিনে দেওয়ার খরচ দেয়াটা কমনসেন্সের ব্যাপার এবং পরবর্তী ২৪ ঘন্টা ডোনারের... ...বাকিটুকু পড়ুন

গাছ-গাছালি; লতা-পাতা - ১২

লিখেছেন মরুভূমির জলদস্যু, ২৮ শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ সন্ধ্যা ৭:৫০

প্রকৃতির প্রতি আলাদা একটা টান রয়েছে আমার। ভিন্ন সময় বিভিন্ন যায়গায় বেড়াতে গিয়ে নানান হাবিজাবি ছবি আমি তুলি। তাদের মধ্যে থেকে ৫টি গাছ-গাছালি লতা-পাতার ছবি রইলো এখানে।

১ : পিটুলি


অন্যান্য ও... ...বাকিটুকু পড়ুন

সামহো্য়ারইন ব্লগ কত টাকা কামায়?

লিখেছেন নাহল তরকারি, ২৮ শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ সন্ধ্যা ৭:৫৩



আমার মাজে মাজে প্রশ্ন জাগে আমাদের প্রাণ প্রিয় ব্লগ কত টাকা ইনকাম করে? আমি জানি আমেরিকা থেকে কোন বিজ্ঞাপন আসলে ওয়েবসাইডের ভালো মুনাফা দেয় গুগল। আমি পআরয় ১০ দিন... ...বাকিটুকু পড়ুন

কোন সাইকো আপনার নামে কাকে কি বলছে তা ভেবে সময় নষ্ট করবেন না।

লিখেছেন মোহাম্মদ গোফরান, ২৮ শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ রাত ৮:৩৫


২০০৯ সালে আমি প্রথম ফেসবুক একাউন্ট ওপেন করি। তখন ফেসবুকে যত খুশি ততো ফ্রেন্ড রিকুয়েষ্ট পাঠানো যেতো। ফেক আই ডির ছড়াছড়ি। ছেলেরা মেয়েদের আই ডি চালাতো। তখন তো এতো... ...বাকিটুকু পড়ুন

বেতন ছাড়া চাকরি

লিখেছেন রূপক বিধৌত সাধু, ২৮ শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ রাত ৯:০০


দেড় মাস হয়ে গেছে। বেতন পাইনি একবারও। বেতন চাইলে তারিখ দেয় শুধু। আজ কাল পরশু। কোচিং ছেড়ে এ চাকরিতে এসেছিলাম মোটামুটি একটা অ্যামাউন্ট পাব। খেয়ে-পরে চলে যাবে। সে... ...বাকিটুকু পড়ুন

×