somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

আমার পরিচয়

আমার পরিসংখ্যান

আমার সকল পোস্ট (ক্রমানুসারে)

অভ্যাস

লিখেছেন অনন্ত গৌরব, ১৩ ই অক্টোবর, ২০১৯ দুপুর ১২:৩২




তোমাকে ভালোবাসা আমরা অভ্যাস হয়ে গেছে।
না চাইতেও ভালোবাসি তোমাকে, কারনে অকারনে ভালোবাসি।
ঘুমন্ত তোমাকে দেখে যাই, চুলে হাত বোলাই।
মনে করে দেখো কতোবার তুমি বলেছিলে আমার নিশ্বাস হতে চাও,
আমার শরিরে মিশে যেতে চাও।
সেটা কি শুধুই মোহ ছিল ? নাকি শুধুই একটা দেহের প্রতি কামনা?
আজ যখন আমি তোমার ,আমার স্পর্শে তুমি... বাকিটুকু পড়ুন

৪ টি মন্তব্য      ৯৩ বার পঠিত     like!

এই শহর

লিখেছেন অনন্ত গৌরব, ১৩ ই অক্টোবর, ২০১৯ রাত ২:২৪

কিভাবে যেন অনেক দূরে সরে যাচ্ছি ,
এই শত বছরের পুরোনো শহরের আরো কিছু পাওয়ার ছিল।
কিছু পুরোনো প্রেমের চিঠি, বইয়ের ভাজে রাখা শুকনো গোলাপ।
জানো সব প্রেমগুলোই এক , এই শহর জানে
কত বার দেখেছে একজোড়া মন মিলে মিশে একাকার হয়ে যেতে।
হিসাব রাখে নি।
মন ভাঙলে কেন যেন কোনো শব্দ হয় না।
অথচ... বাকিটুকু পড়ুন

৯ টি মন্তব্য      ১১৬ বার পঠিত     like!

শেষ চিঠি

লিখেছেন অনন্ত গৌরব, ০৫ ই অক্টোবর, ২০১৯ দুপুর ২:১৭


হাইওয়ের পাশে টঙ্গের দোকান,একটা মোড়ের ঠিক পরেই। প্রতিদিন একটা না একটা দূর্ঘটনা এখানে হবেই। আশেপাশে জনবসতি তেমন নেই,থাকলে মানুষ এই মোড়ের যে একটা খারাপ দিক আছে এতো দিনে তা সবাই জানতো।এই দোকানে বিক্রিও হয় না তেমন,সারাদিন চুলা জ্বালিয়ে রাখার পয়সাও ওঠে না। তবুও রহমত শাহ এখান থেকে দোকান সরিয়ে গঞ্জে... বাকিটুকু পড়ুন

৬ টি মন্তব্য      ১২৮ বার পঠিত     like!

একটা সন্ধ্যা

লিখেছেন অনন্ত গৌরব, ০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ৮:৫২

সন্ধ্যা প্রায় হয়ে এলো। আজ দুজনের ঘুরতে যাওয়ার কথা।পাঞ্জাবী পরে বসে আছি ।তোমার সময় লাগবে আরো। দরজা বন্ধ করে রেখেছো, দেখতেও দিচ্ছো না। সাজতে আর কত সময় লাগবে ? প্রায় ২০ মিনিট হয়ে গেল। দরজা খুলে বাইরে এলে তুমি। একটা মিষ্টি গন্ধ নাকে লাগলো , চোখ সরাতে ইচ্ছে করছে না... বাকিটুকু পড়ুন

৫ টি মন্তব্য      ১০২ বার পঠিত     like!

চিরচেনা তুমি

লিখেছেন অনন্ত গৌরব, ০১ লা অক্টোবর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:৪৯

স্টেশনে তপু দাঁড়িয়ে আছে । কাধে ব্যাগ , ধবধবে সাদা শার্ট কালো প্যান্ট। অপেক্ষা করছে রুপার জন্য। ট্রেন ছাড়তে এখনো অনেক সময়।প্লাটফর্মে তেমন লোকের ভিড় নেই। কিছু ফেরিওয়ালা , কুলি আর ঘর ছাড়া কিছু মানুষ। সকাল ৭ টা। রোদ উঠে গেছে। তপু সিগারেট ধরালো । রুপা বারন করেছিল , এখন... বাকিটুকু পড়ুন

২ টি মন্তব্য      ৯৫ বার পঠিত     like!

চাওয়া

লিখেছেন অনন্ত গৌরব, ০১ লা অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৫:৩৭

সেবার গাড়ি থেকে পড়ে গিয়ে হাত ভাঙে গেল । সেও অনেক দিন । এখন আর মনে পড়ে না। ছেলে বেলার বন্ধুরাও মনে পড়ে না। কিছু স্মৃতি উকি দেয় মাঝে মাঝে । বিশ্বাস করো কিছু চাইনি আমি ।কোনো দাবি ছিল না । তবুও নীল শাড়ি পরা কেউ পাশ থেকে গেলে মনে... বাকিটুকু পড়ুন

৩ টি মন্তব্য      ৪৫ বার পঠিত     like!

অধিকার

লিখেছেন অনন্ত গৌরব, ০১ লা অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৪:২৯

জেল থেকে ছাড়া পেয়েছি আজ দুপুরে। পকেটে তোমার কাছ থেকে নেয়া ১২৬৩ টাকা ।হাটতে হাটতে তোমার বাসার সামনে যাবো ভেবেছিলাম । কিন্তু কি লাভ । এই ৫ বছর জেলে বসে শুধু তোমার কথাই ভেবেছি। একা একা কথা বলেছি। ছোট জেল সেলে সংসার করেছি ঝগড়া করেছি। তোমার দেয়া শার্টটা ঢিলেঢালা হয়ে... বাকিটুকু পড়ুন

৭ টি মন্তব্য      ১০৯ বার পঠিত     like!

ভয়

লিখেছেন অনন্ত গৌরব, ১৩ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:২৩

অর্নব এবং হিমা একই অফিসে চাকরি করে । বিয়ের আগে থেকেই একই অফিসে আছে । অনেক সময় তাদের শহরের বাইরে যেতে হয় এবং অনেকটা শেষ সময়েই তাদের বলা হয়। তাই প্রস্তুতি নেয়ার সময় থাকে না। তাদের এক সাথে কমই শহরে বাইরে যেতে হয়। তাই ছেলেকে নিয়ে তেমন চিন্তা... বাকিটুকু পড়ুন

৮ টি মন্তব্য      ৫৯ বার পঠিত     like!

পরিনাম

লিখেছেন অনন্ত গৌরব, ১৩ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:১২

আফসার সাহেব এলাকার প্রভাবশালীদের একজন । সাদা পাঞ্জাবী , হাসিখুশি মুখ আর অমায়িক ব্যবহারের জন্য এলাকার সবাই তাকে ভালো জানে । সারাদিন ব্যবসার কাজে ব্যাস্ত থাকেন। গভীর রাতে বাড়ি যান । একমাত্র মেয়ে রুনু যখন বাড়ি থাকে তখন জেগে থাকে । অন্য সময় তিনি ফাকা বাড়িতে একাই থাকেন। মেয়ে... বাকিটুকু পড়ুন

২ টি মন্তব্য      ৪৪ বার পঠিত     like!
আরো পোস্ট লোড করুন
ব্লগটি ৭৯১ বার দেখা হয়েছে

আমার পোস্টে সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার করা সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার প্রিয় পোস্ট

আমার পোস্ট আর্কাইভ