somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

আজও ধর্ষক-খুনিদের শাস্তির দৃষ্টান্ত স্থাপন হয়নি, আদৌ হবে কি?

২১ শে মে, ২০১৯ দুপুর ২:২৭
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :


~ ১৯৯৮ সালে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে বাসরঘর সাজিয়ে প্রতিরাতে একজন ছাত্রীকে ধর্ষন করা হতো, এভাবে একশত ধর্ষন করার পর বিশ্ববিদ্যালয়ে মিষ্টি বিতরণ করে উল্লাস করেছিলো ক্ষমতাসীন
দলের সোনার ছেলে "জসিমউদদীন মানিক" এরও একটা বিচার হয়েছিলো, তবে ফাঁসি হয় নি।

~ ২০১৫ সালে শরীয়তপুরের ৭ম শ্রেনী পড়ুয়া স্কুল ছাত্রী শিশু চাঁদনীকে স্কুলে যাওয়ার পথে অপহরণ করে কিছু মানুষররুপি শিয়াল-কুকুরেরা ধর্ষণ করেও সাধ মিটেনি ওদের যৌনাঙ্গে আঘাত করে নৃশংসভাবে হত্যা করে ফেলে রেখেছিল খোলা মাঠের দ্বারে খালের পারে!
তদন্ত চলেছে কিন্তু, আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী দায়িত্ব নিয়ে তদন্তটি করেনি ফলে অনেককেই আটক করা হয়েছে কিন্তু পরে আবার ছেড়েও দেয়া হয়েছে। প্রভাবশালীরাও কম প্রভাব খাটায়নি, প্রধান প্রধান আসামীদের নিরাপদ করার চেষ্টা করে সফলও হয়েছে।
চাঁদনীর অভাগা মা তার মেয়ের খুনের বিচার আদৌ পাবে কিনা তা নিয়ে সন্দিহান।

~ শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলার রায়ের কান্দির বাসিন্দা ৫ দিন ধরে নিখোঁজ থাকার পর গত ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখে নিজ বাড়ীর পিছনের বাশঁঝাড় থেকে ভয়ঙ্কর অবস্থায় স্কুল শিক্ষিকা রুবিনা আক্তারেরর মরদেহ পাওয়া গিয়েছিল।
জনতার বিক্ষুব্ধ প্রতিবাদের মুখে প্রধান আসামী কামাল মাদবর ওরফে তমি কামাল সহ জড়িত খুনিদের দ্রুত আটক করা হলো। জনতা আশ্বস্ত হলো আইন এই খুনিদের ছাড় দেবে না।
কিন্তু না! ২-৩ মাস পার না হতেই মাননীয় অবসরপ্রাপ্ত জজ সাহেবের দয়ায় প্রধান আসামী জামিনে মুক্তি পেয়ে এখন প্রকাশ্যে চলাফেরা করছে।
রুবিনা আক্তারের খুনিদের বিচার হবে কিনা তা নিয়ে পরিবার সন্দিহান।

~ দিবালোকে রামদা দিয়ে রাস্তায় প্রকাশ্যে খাদিজাকে কুপিয়ে তার মাথা কয়েকভাগ করে সিলেটের বদরুল,
খাজিদার ভাগ্য ভালো মরতে মরতে বেঁচে গেছে।
বদরুলেরও একটা বিচার হয়েছে, তবে খুব বেশি হয় নি।

~ ২০১৮ সালে বরিশালের বানারিপাড়ায় মা-মেয়েকে
একসাথে ধর্ষন করে মাথা নেড়ি করে দেয় প্রভাবশালী তুফান, তুফানেরও একটা বিচার হয়েছে, তবে ফাঁসি
হয় নি।

~ সংরক্ষিত এলাকা কুমিল্লা ক্যান্টনমেন্ট এর ভিতরে তনুকে ধর্ষন করার পর হত্যা করা হয়, কে বা কারা জড়িত তা কিন্তু গোয়েন্দা বাহিনী ভালো করেই জানে, কিন্তু তনুর ধর্ষনকারী কেউ গ্রেফতার হয় নি।

~ ৩১শে ডিসেম্বর ২০১৮ নোয়াখালীর সুবর্ণচরে দিনের বেলা যুবতি মেয়ের সামনে তার মাকে দল বেঁধে ধর্ষণ করার পর প্রহার করা হয়, ১৭ কোটি মানুষ এর সাক্ষী,
ধর্ষক রুহুল আমীনের ফাঁসির দাবি উঠলেও,
ফাঁসি কিন্তু হয় নি।

~ কিছুদিন আগে ঢাকার এক আবাসিক এলাকায়
৭ বছরের শিশুকে ধর্ষণ করার পর শ্বাসরুদ্ধ করে
হত্যা করা হয়, ধর্ষক আটক, তবে তারও কিন্তু ফাঁসি হবে না।

~ গত কয়েকবছর আগে দেখলাম ৩ বছরের শিশুর
যৌনাঙ্গ ব্লেড দিয়ে কেটে ধর্ষন করে হত্যা করা হয়,
সেই ধর্ষকও গ্রেফতার হয়েছে, তবে ফাঁসি কিন্তু হয় নি।

~ এভাবে আরো কতো ধর্ষণ হচ্ছে মা বোনের তার হিসাব রাখে কে? ধর্ষকরা জেলে যায় ঠিকই,
কিন্তু ক্ষমতার দাপট খাটিয়ে আবার বেরিয়ে আসে।

~ আমরা ধর্ষকের ফাঁসি চাই সবাই, কিন্তু দেশে কি সেই আইন আছে?
ধর্ষকের শাস্তি সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদন্ড বিলম্ব না করে অতি দ্রুত মাত্র কয়েকটা দিয়ে দেখুন, ধর্ষনতো দূরের কথা, কোনো মায়ের দিকে চোখ তোলে তাকানোর সাহস পাবে না কোন কুলাঙ্গার।

#বিভিন্ন_দেশে_ধর্ষনের_সাজা→
আমেরিকা: ধর্ষিতার বয়স ও ধর্ষনের মাত্রা দেখে ৩০ বছর পর্যন্ত কারাদন্ড ।
রাশিয়া: ২০ বছর সশ্রম কারাদন্ড।
চীন: কোনো ট্রায়াল নেই, মেডিকেল পরীক্ষার পর মৃত্যুদন্ড ।
পোল্যান্ড: হিংস্র বুনো শুয়োরের খাঁচায় ফেলে মৃত্যুদন্ড ।
মধ্যপ্রাচ্য আরব দুনিয়া: শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করা পর্যন্ত পাথর ছুড়ে মৃত্যু, ফাঁসি, হাত পা কাটা, যৌনাঙ্গ কেটে অতি দ্রুততার সাথে মৃত্যুদন্ড দেওয়া ।
সৌদি আরব: শুক্রবার জুম্মা শেষে জনসম্মক্ষে শিরচ্ছেদ!
দক্ষিন আফ্রিকা: ২০ বছরের কারাদন্ড।
মঙ্গোলিয়া: ধর্ষিতার পরিবারের হাত দিয়ে মৃত্যুদন্ড দিয়ে প্রতিশোধ পুরণ ।
নেদারল্যান্ড: ভিন্ন ভিন্ন সাজা ।
আফগানিস্তান: ৪ দিনের ভিতর গুলি করে হত্যা ।
মালয়শিয়া: মৃত্যুদন্ড।
বাংলাদেশে:
-: প্রতিবাদ
-: ধর্না...
-: তদন্ত....
-: কয়েকসদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন।
-: সমঝোতার চেষ্টা....
-: ঘুষ দেওয়া....
-: প্রভাবশালীদের লোক।
-: ধমক-চমক।
-: মেয়েটির চরিত্র নিয়ে গবেষণা!
-: বোরকা পরে ছিলো কি না?
-: সংবাদমাধ্যমে আলোচনার আসর!
-: রাজনীতি করন।
-: জাতি নির্ধারণ।
-: জামিন।
-ফের ধর্ষন!!
-:মেয়েটির আত্মহত্যা!!!
হুম এটাই আমাদের বাংলাদেশ :( :(

#কপিরাইট_এন্ড_সংশোধীত__

#মোঃ_পলাশ_খান
নারী নির্যাতন দমন চাঁদনী মঞ্চ - NNDCM, Bangladesh.
সর্বশেষ এডিট : ২১ শে মে, ২০১৯ দুপুর ২:৩৬
৯টি মন্তব্য ১টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

ব্রাত্য রাইসুঃ এই সময়ের সেরা চিন্তাবিদের একজন

লিখেছেন সাহাদাত উদরাজী, ২৮ শে মে, ২০২০ দুপুর ১২:৪১

ব্রাত্য রাইসুকে আমি কখনো সরাসরি দেখি নাই বা কোন মাধ্যমে কথাও হয় নাই কিন্তু দীর্ঘদিন অনলাইনে থাকার কারনে কোন বা কোনভাবে তার লেখা বা চিন্তা গুলো আমার কাছে আসে এবং... ...বাকিটুকু পড়ুন

দেশের সাধারন মানুষ লকডাউন খুলে দেওয়া নিয়ে যা ভাবছেন

লিখেছেন রাজীব নুর, ২৮ শে মে, ২০২০ দুপুর ২:৫৫



১। সবই যখন খুলে দিচ্ছেন তো সীমিত আকারে বেড়ানোর জায়গাগুলোও খুলে দেন। মরতেই যখন হবেই, ঘরে দম আটকে মরি কেন? টাকাপয়সা এখনো যা আছে তা খরচ করেই মরি। কবরে... ...বাকিটুকু পড়ুন

হুমায়ূন ফরীদি স্মরণে জন্মদিনের একদিন আগে !!!!

লিখেছেন সেলিম আনোয়ার, ২৮ শে মে, ২০২০ রাত ১০:০১

ঘটনাটি এমন। প্রয়াত চলচ্চিত্র পরিচালক শহীদুল ইসলাম খোকন বসে আছেন। পাশের চেয়ারটি ফাঁকা। ফাঁকা চেয়ার পেয়ে আমি যখন বসতে গেলাম। পরিচালক খোকন ঘাবড়ে যাওয়া চেহারা নিয়ে বললেন ওটা ফরীদি ভাইয়ের... ...বাকিটুকু পড়ুন

যা করা উচিত আমাদের

লিখেছেন রাজীব নুর, ২৮ শে মে, ২০২০ রাত ১০:২৫



৩১ তারিখ থেকে সাধারণ ছুটি শেষ।
ট্রেন, বাস, লঞ্চ সবই চলবে। সরকার বলবে স্বাস্থ্যবীধি মেনে, সীমিত আকারে। যদিও দেশের অসভ্য জনগন তা মানবে না। লকডাউন শেষে অমুক জায়গায়... ...বাকিটুকু পড়ুন

শ্বাসযন্ত্র ও হৃদযন্ত্রের ব্যায়াম -ফুসফুস ভালো রাখার জন্য যে ব্যায়ামগুলো করবেন।ভিডিও সহ ।

লিখেছেন রাকু হাসান, ২৮ শে মে, ২০২০ রাত ১১:৪০

বর্তমানে কভিড-১৯ মহামারিতে আমাদের শ্বাসযন্ত্রের উপর দিয়ে খুব দখল যাচ্ছে । এই অদৃশ্য শক্তির বিরোদ্ধে লড়াইয়ে মানব আজ
বুক চিতিয়ে লড়তে হচ্ছে। সে লড়াই অনেকটা আলোকিত পৃথিবী দেখার... ...বাকিটুকু পড়ুন

×