somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

কমিউনিটি ক্লিনিক কার্যক্রমের অর্জন(2009-2018) এক বিরাট সাফল্য আ্ওয়ামলীগ সরকারের, অবহেলিত সাফল্যর কারিগর সিএইচসিপি কর্মী সকল ।

১১ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১২:০১
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :


বাংলাদেশ আওয়ামলীগ সরকারের সব থেকে বড় সাফল্যজনক খ্যাত কমিউনিটি ক্লিনিক । মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশের এবং আন্তজার্তিক পর্যায় যত ভাষণ প্রদান করেছেন সকল স্থানে এই কমিউনিটি ক্লিনিকের মাধ্যমে বাংলাদেশর তৃণমূল জনগোষ্ঠির দোড় গোড়ায় স্বাস্থ্য সেবা পৌছানোর তথ্য তুলে ধরেছেন। এমডিজি অর্জনে শিশু মৃত্যু রোধ মাতৃমূত্যু রোধ সহ স্বাভাবিক সন্তান প্রসাব কার্যক্রমে কমিউনিটি ক্লিনিক এখন বিশ্বের রোল মডেল ।আর এই সকল কার্যক্রম পরিচালনায় নিরালস ভাবে কাজ করে চলেছেন একদল তরুণ কর্মী বাহিনী ।যারা নিজেদের সার্মথ্যর সব টুকু উজার করে কমিউনিটি ক্লিনিক সেবার মান বৃদ্ধি করে দেশ ও জনগণের সেবায় নিয়োজিত । তাদের দুঃখ ,তাদের পরিশ্রম এর কথা দেশের কোন মিডিয়া কোন নেতা কোন বিশ্ব সংস্থা তুলে ধরেননি । শুধু সাফল্য সকলের নজরে এসেছে বাট সাফল্যর পেছনের চালিকা শক্তির কথা কখনও কেউ তুলে ধরেনি ।দীর্ঘদিন একই বেতনে সরকারী সার্ভিস রুল অনুযায় নিরন্তর কাজে নিমগ্ন দেশের 14878 জন কর্মী যার মধ্যে ৫৪% নারী ।সরকারী সব নিয়ম পালন করেন এই কর্মী সকল কিন্তু সরকারী সুবিধা তারা বঞ্চিত দর্ঘিদিন । চাকুরী রাজস্বের দীর্ঘ আন্দোলন আবেদন করার পর চাকুরী ট্রাস্টের মাধ্যমে স্থায়ী হওয়ার আইন পাশ হয়েছে গত 2018 সালের ৮ ই অক্টোবর কিন্তু এখনও অবধি তার কার্যক্রম তেমন পরিলক্ষিত হয়নি কর্মীরাও পাইনি সরকারী কোন সুবিধা ঘোষণানুযায় ।কর্মীদের দাবী ট্রাস্টের মাধ্যমেই চাকুরীর যোগদান হতে ইনক্রিমেন্ট সহ সরকারী সকল সুবিধা ট্রাস্ট আইনের প্রবিধান দ্বারা বাস্তবায়ন করা হোক।

অর্জন সমূহঃ

 ১৪,৮৭৮ জন কর্মকর্তা সহ সিএইচসিপি নিয়োগ প্রদান করা হয়েছে যার মধ্যে ৫৪% নারী কর্মী।

 ১৩,৮২২ জন সিএইচসিপিকে মৌলিক ও অনলাইন প্রশিক্ষণ এবং ৬৩,২১০ জন স্থানীয় সরকার প্রতিনিধি কে সিসি বিষয়ে প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত করে গড়ে তোলা হয়েছে।

 এ যাবতকালে কমিউনিটি ক্লিনিকে ৮২,২০,৯৭০ জন প্রসবপূর্ব ২৪,১১,৫৩৬ জন মহিলাকে প্রসব পরবর্তী সেবা দেওয়া হয়েছে ।এ ছাড়াও ৬৬,০০০ এর অধিক স্বাভাবিক সন্তান ডেলিভারী সম্পন্ন হয়েছে কমিউনিটি ক্লিনিকের কর্মীর মাধ্যমে।

 গ্রামীন পর্যায় স্বাভাবিক প্রসব করানোর জন্য ১৯৩৫ জন নারী সিএইচসিপি সিএসবিএ প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত।৪,০০০ কমিউনিটি ক্লিনিকের অধিক স্বাভাবিক সন্তান প্রসাব কার্যক্রম চালু আছে।

 এ পর্যন্ত কমিউনিটি ক্লিনিকে মোট রোগী ভিজিটের সংখ্যা ৭৪ কোটির ও অধিক। ২ কোটির অধিক সংখ্যাক জটিল রোগীকে উচ্চতর পর্যায়ে রেফার করা হয়।

 ক্লিনিক পরিচালনার সুবিধার্থে ২,৩৩,০১৯ জন কমিউনিটি গ্রুপ সদস্য এবং ৬,৯৯,০৫৭ জন কমিউনিটি সাপোর্ট গ্রুপ সদস্য ও নির্বাচিত স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি কমিউনিটি ক্লিনিক পরিচালনায় অংশগ্রহণ করেছে।

কমিউনিটি ক্লিনিক হতে প্রতি বছর প্রায় ২০০ কোটির অধিক টাকার ঔষুধ কমিউনিটি ক্লিনিকের মাধ্যমে সরবরাহ করা হয়।
ডিজিটাল বাংলাদেশের অন্যতম ডিজিটালাইজেশন প্রতিষ্ঠান কমিউনিটি ক্লিনিক সমূহ । যেখানে নিযুক্ত আছে অনলাইন এক্সপার্ট কর্মী বাহিনী ।যাদের অক্লান্ত পরিশ্রমে দেশের ১৩,৭০৭ টি কমিউনিটি ক্লিনিক হতে DHIS2- এ নিয়মিত অনলাইন রিপোর্ট প্রদান করা হয় ।শিশু, গর্ববর্তী, এনসিডি রোগীর সকল তথ্য বায়োডাটা সহ স্বাস্থ্য তথ্য ভান্ডারে সংরক্ষিত এখন।


কমিউনিটি ক্লিনিকের কাজ কে আরো গতিশীল করার লক্ষ্যে ৩,৯৬৯ জন এমএইচভি কর্মী অনলাইন পরীক্ষার মাধ্যমে মনোনীত করা হয়েছে।

কমিউনিটি ক্লিনিকের প্রতি জনগণের আগ্রহ বাড়ানোর লক্ষ্যে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একযোগে ৪ কোটি গ্রামীণ জনগণকে মোবাইল ভয়েস কলে আহ্ববান করেন।

কমিউনিটি ক্লিনিকে আসুন,
সেবা নিন সুস্থ থাকুন।”


সর্বশেষ এডিট : ১১ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১২:১০
১টি মন্তব্য ১টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

ছুটিরদিন বিকেলে বইমেলায়

লিখেছেন তারেক_মাহমুদ, ১৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ সকাল ৮:২৪




গত কয়েকদিন ধরেই বইমেলায় যাওয়ার কথা ভাবছিলাম, অবশেষে ছুটিরদিনে সিদ্ধান্ত নিয়েই ফেললাম মেলায় যাওয়ার। শুক্রবার ছুটির দিন হওয়ায় বইমেলায় উপচে পড়া ভিড়। বিশাল লাইন দেখে বেশ বিরক্তি নিয়েই মেলায়... ...বাকিটুকু পড়ুন

গরুর দুধের চেয়ে মূত্রের দাম বেশি কলকাতায়! দৈনিক আনন্দবাজার

লিখেছেন নতুন নকিব, ১৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ সকাল ১০:২৩



ছবি: দৈনিক যুগান্তরে প্রকাশিত

গরুর দুধের চেয়ে মূত্রের দাম বেশি কলকাতায়! দৈনিক আনন্দবাজার

বহুদিন আগের কথা, ‘পঞ্চগব্য’ নামে একটি পুজো-উপাচারের নাম শুনেছিলুম। হয়তো অনেকেরই ইহা জানা থাকিবে। মুসলিমরা সবাই না জানিলেও... ...বাকিটুকু পড়ুন

আল মাহমুদকে নিয়ে সাধারন মানুষ যা ভাবছেন

লিখেছেন রাজীব নুর, ১৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১২:৩০



১। কবি আল মাহমুদ মারা গেছেন। প্রকাশ্যে শোক করতে লজ্জা লাগলে অন্তত মনে মনে শোক করুন। কেননা তিনি এদেশের বিশুদ্ধতম কাব্য প্রতিভা ছিলেন।

২। আল মাহমুদ সরকার বিরোধী... ...বাকিটুকু পড়ুন

অমর একুশে গ্রন্থমেলা ২০১৯ (বইমেলার ১৫তম দিনে ব্লগারদের উপস্থিতির মনোমুগ্ধকর দৃশ্য।)  

লিখেছেন সৈয়দ তাজুল ইসলাম, ১৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ২:১২


ক্যামেরার সামনে আছেন ভাই কাল্পনিক_ভালবাসা, নজরবন্দির কারিগর অগ্নি সারথি, ব্লগারদের প্রিয় সঙ্গি নীল সাধু সৈয়দ তারেক ভাই



বায়স্কোপে অটোগ্রাফ দিচ্ছেন কাওসার ভাই, পাশে আমাদের... ...বাকিটুকু পড়ুন

আমাদের বই আমাদের বইমেলা

লিখেছেন সামিয়া, ১৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ২:৫১

মেলায় ঢুকেই যে কথাটি মনে হলো সেটা হচ্ছে আরে আমরা আমরাই তো!!!! প্রত্যেক ব্লগারদের মেলায় অংশগ্রহণ চোখে পড়ার মতন, প্রায় প্রত্যেকেরই নতুন বই বের হয়েছে এবং একক বই বের... ...বাকিটুকু পড়ুন

×