somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

সেটা এক স্বর্গ ছিল~ যা চিরতরে হারিয়ে গেছে # শেষ পর্ব

১৮ ই আগস্ট, ২০২১ বিকাল ৪:৫৩
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :


কটা সময় ছিল যখন সোভিয়েত প্রতিটা নাগরিকই একটি সফল সমাজতান্ত্রিক রাষ্ট্র গড়ার নিমিত্তে সবরকম উন্নয়ন মুলক কর্মকান্ডে যোগ দিয়েছিল সেখানে কিছুটা ছিল নৈতিক আর কিছু ছিল আইনগত বাধ্যবাধকতা। তারা বেড়ে উঠেছিল সোভিয়েত সমাজের একটা গুরুত্বপূর্ণ অংশ হিসেবে যারা মুলত সৈনিক বা কর্মী কিংবা কোন অভিযাত্রী। যাদের ছিল অতি সাধারন আবাস,চাকচিক্যহীন পোষাকাদি .অপ্রতুল বিনোদনের ব্যাবস্থা মোটামুটি সাচ্ছন্দে বেঁচে থাকার জন্য পর্যাপ্ত বা অপর্যাপ্ত আহার। যাদের পড়াশোনার ভার নিয়েছিল সেই সমাজতান্ত্রিক সরকার তারপরে চাকরির নিশ্চয়তা -জীবনের নিরাপত্তার সাথে শেষ কিংবা অবসর জীবনে তাদের বেঁচে থাকার জন্য রাষ্ট্রের সব রকম সুবিধাদি।
এখনো মধ্য এশিয়ার বহু মানুষ থেকে শুরু করে সোভিয়েত যুগের সেইসব নাগরিকেরা সপ্ন দেখে বিলুপ্ত হয়ে যাওয়া সেই সেই রাষ্ট্রীয় ও রাজনৈতিক ব্যাবস্থা ফিরে পাবার।এটা অনেকাংশেই ভাল বর্তমান এই ভোগবাদী রাজনৈতিক সমাজব্যাবস্থা থেকে।
সেইসব দিনের কথা ভেবে বয়স্ক মানুষের চোখের কোল ভিজে ওঠে। তাদের ভীষন গর্বের একটা সময় ছিল- ছিল অহংকার করার মত একটা দেশে। বিশ্বের মানচিত্রে যার ছিল সবল উপস্থিতি-শৌর্যে শক্তিতে আর জ্ঞান বিজ্ঞানে চরম উৎকর্ষতার স্বাক্ষর রেখেছিল তারা। তারা ছিল বিশ্বের অন্যতম পরাশক্তি – অন্যান্য শক্তিধর দেশেরা সম্ভ্রমের সাথে উচ্চারন করত সোভিয়েত ইউনিয়নের নাম। আর আজ ভেঙ্গে টুকরো টুকরো হয়ে যাওয়া বিশাল সেই দেশের অবস্থান কোথায়? শুধু চাকচিক্য ভোগবিলাস আর তথাকতিথ বাকস্বাধীনতাই যে সব নয় তাতো এখন আমরা বেশ ভালভাবেই উপলব্ধি করছি।
------------------------------------------------
কাজাখস্তান থেকে আলমাজ
আলমাজ কাজাখস্তানের দক্ষিণে একটি ছোট শহর থেকে (ফেব্রুয়ারি ২০১২ সালে প্যারিসে দেখা হয়েছিল)। তার বয়স ৫২ বছর,একজন সাবেক প্রকৌশলী এবং এখন ফ্রান্সে থাকেন। তিনি পোল্যান্ডে তার সামরিক পেশা সম্পন্ন করেন। যখন ইউএসএসআর ভেঙে পড়ে,তিনি যে কারখানায় কাজ করতেন তা কাজাখ সরকারের নীতির অংশ হিসাবে বেসরকারিকরণ করা হয়।
তবে সৌভাগ্য ছিল যে তিনি চাকুরি হারাননি। কিন্তু দ্রব্যমুল্যের ভয়াবহ উর্ধ্বগতি ও টাকার অবমুল্যায়নের জন্য তার বেতন পরিবারের
ভরনপোষনের জন্য যথেষ্ট ছিল না;তার স্ত্রী এবং দুই সন্তান নিয়ে বেশ কষ্টেই দিন কাটিয়েছে।। কয়েক বছর পরে,পরিস্থিতি আরও খারাপ হয়ে যায় এবং তিনি ফের রাশিয়ায় যান এবং সেখনে তিনি চার বছর বিল্ডিং নির্মাণ শ্রমিক হিসেবে কাজ করেন। এত খাটুনির কাজ করে তিনি অসুস্থ্য হয়ে পড়লে বাধ্য হয়ে বাড়ি ফিরে আসেন।
কিন্তু বাড়িতে ফিরে এসে তিনি এক ভয়াবহ দুরবস্থার মুখোমুখি হন। দিনের পর দিন চাকুরির জন্য হন্যে হয়ে ঘুরতে থাকেন। এক সময় জমানো অর্থ শেষ হয়ে যায়- মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েন তখন। তাঁর সেই দুর্দিনে পরিবার তাদের একমাত্র সম্বল অ্যাপার্টমেন্টখানা বিক্রি করে তাকে ছেড়ে চলে যায়।
এরপর তিনি বিদেশে,বিশেষ করে ইউরোপে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। তিনি প্রথমে কিছুদিন চেক প্রজাতন্ত্রে ছিলেন।
যেখান থেকে তিনি অবৈধভাবে ইতালি এবং অবশেষে ফ্রান্সে আসেন,যেখানে এখনো তিনি অবৈধ অভিবাসী অবস্থায় আছেন। তার প্রজন্মের অনেকের মতো,তিনি সোভিয়েত সময় ভীষণ কষ্টের সাথে স্মরণ করেন।
"সেনাবাহিনীতে,আমরা সবাই ভাই হিসেবে একত্রিত হয়েছিলাম; কমিউনিজম আমাদের জাতিসত্তা ছাড়াও আমাদের একত্রিত করেছিল। ইউএসএসআর থেকে সমস্ত জাতীয়তা ছিল: রাশিয়ান,ককেশীয়,মধ্য এশীয়,বাল্টিক উত্তর কোরিয়ান, পোলিশ ইত্যাদি। আমরা সবাই সোভিয়েত (রাশিয়ান ভাষায়) এটা সত্যিই একটি আন্তর্জাতিক বায়ুমণ্ডল ছিল অনেক দূরে, আপনি সহকর্মী,বিভিন্ন জাতির মানুষ (национальность - রাশিয়ান ভাষায়) থাকতে পারেন, সবাই আমাদের ঐক্যের ভাষায় রাশিয়ান ভাষায় কথা বলছেন।
আমরা বিশ্বের শীর্ষ বৈজ্ঞানিক শক্তি ছিলাম,আমরা ছিলাম প্রথম মহাকাশ রকেটের আবিষ্কারক,বিশ্বের অন্যতম শক্তিশালী সশস্ত্র বাহিনী নিয়ে গর্বিত ছিলাম।
মাসিক ভাতাদি, আর কাজের পরিবেশ বা সময় ঘন্টা কর্মক্ষেত্রে আমাদের কোন পার্থক্য ছিল না-যে প্রজাতন্ত্রগুলিতে আপনি কাজ করেন না কেন,সাইবেরিয়া কিংবা কাজাকে। কাছাকাছি বা দূরে।
কল্পনা করুন,যে সময় আমি একটি কারখানায় ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে কাজ করতাম,একটি ছোট শহর কাজাখস্তানে, কোরিয়ান,পোলস,ইউক্রেনিয়ান,রাশিয়ান ইত্যাদি ছিল। আমার মনে আছে আমাদের কারখানায় একটি ফুটবল দল ছিল যা আমাদের শহরে সেরা।এরা আঞ্চলিক প্রতিযোগিতার বেশ কয়েকবার বিজয়ী হয়েছিল।
সংক্ষেপে,জীবন ভাল এবং সহজ ছিল: আমাদের শিক্ষা ছিল,একটি চাকরি ছিল,একটি পরিবার। আমরা প্রতি মাসের শেষে ঠিক সময়ে বেতনটা বুঝে পেতাম। যা ইউএসএসআর পতনের পরে আর হয় নি;বেসরকারিকরণ,বাজার অর্থনীতি,ব্যবসা: সবকিছুই বাস্তবিক একটি জগাখিচুড়ি হয়ে গেছে।
অর্থের ব্যাপারে,যদি আজ কাজাখস্তানে আপনার চাকুরি থাকে,টাকা থাকে গাড়ি থাকে তবে আপনার বন্ধু থাকবে- পরিবার থাকবে। আর যদি আপনার চাকরি না থাকে, তবে আপনি আমার মতই আমার অবস্থানে থাকবেন- আপনার পরিচয় হবে,ইউরোপে হারিয়ে যাওয়া একজন অভিবাসী মাত্র।
জ,যখন আপনি কাজাখস্তানের কথা জানতে চান,সবাই তখন শুধু বলবে আলমাতি( Алматы), formerly known as Alma-Ata, is the largest city in Kazakhstan,) ও আস্তানায়( It was known between 1998 and 2019 as Astana (Kazakh pronunciation: , Cyrillic: Астана) and before that as Akmola), গ্যাস, তেল এবং ইউরেনিয়াম খনি- একটা দেশের উন্নয়নের জন্য আর কি চাই? মুলত বাস্তবতা হচ্ছে দারিদ্র্যতা সামাজিক বৈষম্য,দুর্নীতি! বহির্বিশ্বের কাছে হয় লুকানো হয়- না হয় উপেক্ষিত থাকে! প্রকৃতপক্ষে এ দেশের ক্ষুদ্র একটি অংশ সমৃদ্ধ ও ধনিক শ্রেণী যাদের আপনি শুধু শহরেই খুঁজে পাবেন। অপরদিকে সংখ্যাগরিষ্ঠ জনগন যারা মুলত গ্রামে বাস করে তারা কঠিনভাবে জীবনযাপন করে। রাজ্য দেশের উন্নয়নের জন্য বাজার অর্থনীতিকে বেছে নিয়েছে এবং দিন দিন সমাজে ধনী -দরিদ্রের মধ্যে বড় পার্থক্য তৈরি করেছে। পুঁজিবাদের নামে যা পশ্চিমে প্রচলিত- তাদের পদাঙ্ক অনুসরন করে আমাদের সরকার সব কিছুকেই বেসরকারীকরণ করেছে।'
-------------------------------------------------------
ই তিনটি গল্প তিনটি মধ্য এশীয় প্রজাতন্ত্র, উজবেকিস্তান, কিরগিজস্তান এবং কাজাখস্তান থেকে এসেছে। এবং পরিস্থিতি অন্য দুটি দেশে একই রকম মনে হয়;তুর্কমেনিস্তান এবং তাজিকিস্তান,প্রথমত সবচেয়ে দুর্নীতিপরায়ন দেশ (রাজনৈতিকভাবে) এবং দ্বিতীয়ত এখনও এই অঞ্চলের সবচেয়ে দরিদ্র দেশ (অর্থনৈতিকভাবে) রয়ে গেছে।
তুর্কমেন এবং তাজিক অভিবাসীদের আলোচনার দলগুলি Одноклассники সাইটে, আলবার্ট পোলকভ (জন্ম সেপ্টেম্বর ২৫,১৯৭৫, বর্তমানে লন্ডনে বসবাসরত) দ্বারা ২০০৬ সালে মার্চ মাসে রাশিয়ায় তৈরি বিশ্বের বৃহত্তম সামাজিক নেটওয়ার্ক সাইটগুলির একটি। ইউএসএসআর (২০০-২০১১ সালে পরামর্শ করা হয়েছিল) এর জন্য তাদের নস্টালজিয়ার স্পষ্ট সাক্ষী।
রাশিয়ান ভাষায় অর্থ 'স্কুলের বন্ধু', dnoklassnikoi.ru এর মূল বিষয়বস্তুর সমতুল্য হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রের "সহপাঠী" বা ফ্রান্সের 'অতীতের বন্ধু'। এর উদ্দেশ্য: ব্যবহারকারীদের স্কুল বা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পুরনো বন্ধু খুঁজে পেতে সাহায্য করা। ওয়েবসাইটটিতে আজ বিশ্বজুড়ে ৪৫ মিলিয়নেরও বেশি সদস্য সংযুক্ত হয়েছে।
যদি, প্রাথমিকভাবে, সাইটটি কেবলমাত্র সহপাঠী বা বিশ্ববিদ্যালয়ের বন্ধুদের জন্য তৈরি করা হয়েছিল-কিন্তু আজ এটি এমন অনেক লোককে আকর্ষণ করে যারা মূলত হারিয়ে যাওয়া সোভিয়েতের মানুষগুলোর সাথে দেখা করতে বা নিজেকে খুঁজে ফিরে পেতে চায়। এইভাবে-উদাহরণস্বরূপ,প্রাক্তন সোভিয়েত প্রজাতন্ত্র থেকে প্রবাসীরা তাদের নিজস্ব আলোচনার গোষ্ঠী তৈরি করেছেন যাতে তারা তাদের আদি দেশ বা স্বদেশীদের সাথে সম্পর্ক বজায় থাকে -যারা বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে চলে গেছে।
তুর্কমেনিস্তান এবং তাজিকিস্তান থেকে আসা অভিবাসীদের ব্যাপারে, তাদের আলোচনা গ্রুপ রয়েছে যার উপর আমরা সম্ভবত এমন ফোরাম খুঁজে পেতে পারি যেখানে তারা তাদের দেশ এবং সোভিয়েত যুগের জন্য তাদের নস্টালজিয়া প্রকাশ করে- যেখানে তাদের অধিকাংশই বড় হয়েছে। তারা অভিবাসনের প্রেক্ষাপটে তাদের নিজস্ব অনুভূতি বয়ান করে- যার সাথে তারা ফেলে আসা সেই সোভিয়েত দিনের ছবিগুলোও শেয়ার করে। সদস্যরা তাদের ব্যক্তিগত 'বিষণ্নতা ও কষ্টের' অভিজ্ঞতাগুলি ভাগ করে নেয় এবং অতীতের কল্পনায় ফিরে এসে এই অসন্তোষজনক পরিস্থিতি বিবেচনা করে যেখানে আজকের চেয়ে সবকিছুই ভাল মনে হয়েছিল: "ইউএসএসআর এর অধীনে শিক্ষা আরও ভাল ছিল"-"যখন আমি দেশাত্মবোধক সোভিয়েত সংগীত শুনি তখন আমি ভীষন আপ্লুত ও বিষন্নবোধ করি’ তারা অতীতের রেফারেন্স দিয়ে বর্তমানকে মূল্যায়ন করে, যা তারা কখনোই খুঁজে পায় না।
সেটা এক –স্বর্গ ছিল যা চিরতরে হারিয়ে গেছে" ...

প্রথম পর্বের জন্যঃ Click This Link



REFERENCES
সরাসরি অনুবাদ নয় রুপান্তরিত- "unforgettable Soviet period" (незабываемые советские времена - in Russian).
Badalov, Ulugbek. “Search for Identity and National Imaginary among the Kyrgyz expatriates in France”, PhD Thesis at EHESS, Paris, 2011.
Dullin, Sabine. Histoire de l’URSS, La Découverte, Paris, 2003.
Fawn, Rick. Ideology and National Identity in post-communist foreign policies, Routledge, 2003.
Laruelle, Marlène & Peyrouse, Sébastien. L’Asie Centrale à l’aune de la mondialisation, Éditions Armand Colin, Paris, 2010.
Marat, Erica. Labor Migration in Central Asia: Implications of the Global Economic Crises, CACI & SRSP Silk Road PaperMartin. Terry. “The Origins of Soviet Ethnic Cleansing”, The Journal of Modern History, vol. 70, n° 4, 1998, pp. 813-861.
Sharifov, Mehmonsho. “The self between political chaos and the new political “order” in Tajikistan”,
Suleymanov, Muzaffar. “The Role of History in the Creation of National Identities in Central Asia: Uzbekistan and Kyrgyzstan Case Szporluk, Roman. National identity and ethnicity in Russia and the new states of Eurasia, M E Sharpe Inc, 1994.
Zakharova, Larissa. Le gouvernement des langues dans l’empire russe, en URSS et dans les États post-soviétiques, CNRS Éditions, 2010.
ছবিঃ গুগল থেকে


সর্বশেষ এডিট : ১৮ ই আগস্ট, ২০২১ রাত ১১:৩৮
২২টি মন্তব্য ২৩টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

মুরাদ হাসানকে মন্ত্রিত্ব কেড়ে নেওয়া হইছে, মাহিয়া মাহি ওমরাহ করতে গেছেন

লিখেছেন জ্যাকেল , ০৭ ই ডিসেম্বর, ২০২১ সকাল ৮:৩৭

নৈতিক স্খলন জনিত কারন দেখিয়ে তথ্য প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসান ইহার মন্ত্রিত্ব তো গেল। ইমন (দালাল) সাক্ষাৎকারে বলেছে সে রেইপ করার কথা আগে জানতে পারেনি। এইদিকে মাহিয়া মাহি ওমরাহ করতে গিয়ে... ...বাকিটুকু পড়ুন

মুনজির- মুস্তফা.........

লিখেছেন জুল ভার্ন, ০৭ ই ডিসেম্বর, ২০২১ সকাল ১০:৩৭

মুনজির- মুস্তফা.........


বাবার কোলে নিচ্ছেন শিশুকে। অনাবিল হাসি একরত্তির মুখে। আর বাবার চোখে মুখে পরিতৃপ্তির ছাপ। মেহমেত আসলানের তোলা এই ছবি সিয়েনা ইন্টারন্যাশানালে সেরা ছবির স্বীকৃতি পেয়েছে। ছবিটি সিরিয়ার সীমান্তে... ...বাকিটুকু পড়ুন

জীবনের কৌতুক

লিখেছেন মরুভূমির জলদস্যু, ০৭ ই ডিসেম্বর, ২০২১ দুপুর ১২:০১


আলম সাহেবের বয়েস হয়েছে।
সরকারী চাকুরে ছিলেন, অবসর নিয়েছেন অনেক বছর আগেই। চোখের সামনে একমাত্র ছেলেটা ধীরে ধীরে বড় হয়ে উঠেছে। আলম সাহেবের স্ত্রী নিজের স্বাধ্যের মধ্যের সবটুকু দিয়ে মোটামুটি ধুমধাম... ...বাকিটুকু পড়ুন

সম্পত্তি নিয়ে বিরোধ হরে জরুরি ভিত্তিতে যা করণীয়। ভূমি/জমি/বাড়ি বেদখল হলে করণীয়

লিখেছেন এম টি উল্লাহ, ০৭ ই ডিসেম্বর, ২০২১ দুপুর ১২:২৫



জোর করে কেও যদি আপনার সম্পত্তি দখল করে ফেলে, তখন আপনি কি করবেন? প্রতিনিয়ত জমি, বাড়ি, ফ্ল্যাট হতে কেউ না কেউ দখলচ্যূত হচ্ছেন। প্রভাবশালী ব্যক্তিরা প্রায়ই... ...বাকিটুকু পড়ুন

ছোটলোক চেনার উপায় কী?

লিখেছেন রাজীব নুর, ০৭ ই ডিসেম্বর, ২০২১ সন্ধ্যা ৬:৩০



একবার এক ধনী লোক এক জায়গায় অনেক গুলা হীরা রাখে। সেখান থেকে একটা ইঁদুর ভুল করে হীরের টুকরো গিলে ফেলে।
হীরের মালিকের রাতের ঘুম উড়ে যায়। ইঁদুর মারার জন্যে... ...বাকিটুকু পড়ুন

×