somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

জানা-অজানার মহাবিশ্ব ৭

২৩ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ৯:৪৩
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :


শীতকালে অনেক দেশেই তুষারপাত ঘটতে দেখা যায়। এই তুষার কণাগুলোর অাবার রয়েছে অদ্ভূত সুন্দর অাকৃতি। দেখে মনে হয় যেন কোন দক্ষ শিল্পী তার নিখুঁত হাতে তুষার কণাগুলোকে বিভিন্ন কারুকাজে সাজিয়েছে। সর্বপ্রথম Wilson Bentley নামক এক ব্যক্তি তুষারকণার ছবি তোলেন। তিনি মাইক্রোস্কোপ যুক্ত একটি ক্যামেরার সাহায্যে তুষারকণার ছবি তুলতে সক্ষম হন। তার সংগ্রহে তুষারকণার প্রায় ৫ হাজার ছবি ছিল। এই ছবিগুলো থেকে মানুষের মাঝে তুষারকণার অাকৃতি নিয়ে ব্যাপক কৌতুহল সৃষ্টি হয়। বিজ্ঞানীদের মতে তুষারকণাগুলো ৩৫ টি ভিন্ন অাকৃতির হতে পারে। ১৯৫১ সালে International Association of Cyrospheric Sciences (IACS) তুষার কণার অাকৃতিকে ১০টি মৌলিক শ্রেণীতে ভাগ করে।



Professor Kenneth Libbrecht তুষারকণার অাকৃতি নিয়ে বিস্তর গবেষণা করেন। তিনি পরীক্ষাগারে কৃত্রিমভাবে তুষারকণা তৈরী করেন। তার গবেষণা থেকে জানা যায় তুষারকণার ভিন্ন ভিন্ন অাকৃতি মূলত তাপমাত্রা ও বাতাসের অার্দ্রতার উপর নির্ভর করে। -২২°C এর চেয়ে কম তাপমাত্রায় তুষার কণাগুলোর অাকৃতি বেশ সরল হয়। অন্যদিকে অপেক্ষাকৃত বেশি তাপমাত্রায় তুষারকণা গুলো বিভিন্ন জটিল অাকৃতি লাভ করে। অাবার বাতাসে অার্দ্রতা যখন বেশি থাকে তখন তুষারকণা গুলো জটিল অাকৃতি লাভ করে। পক্ষান্তরে কম অার্দ্রতায় তুষারকণাগুলো সাধারণত সরল অাকৃতির হয়ে থাকে।



তুষারকণা গুলোর সর্বোচ্চ অাকার ৩ থেকে ৪ ইঞ্চি পর্যন্ত হতে পারে। ১৮৮৭ সালের জানুয়ারী মাসে Montana'র Fort Keogh এর এক ব্যক্তি Matt Coleman এক বিশাল তুষারকণা দেখার দাবী করেন যেটি ছিল চওড়ায় প্রায় ১২ ইঞ্চি এবং প্রায় ৮ ইঞ্চি পুরুত্ব বিশিষ্ট।

তথ্যসূত্র ও ছবি কৃতজ্ঞতা: Earthsky, Wikipedia, Snowcrystal
সর্বশেষ এডিট : ০৮ ই মার্চ, ২০১৯ সকাল ৮:২১
৪টি মন্তব্য ৪টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

শীতের সন্ধ্যায় সুপার মার্কেটে কিছুক্ষণ

লিখেছেন চাঁদগাজী, ২৩ শে জানুয়ারি, ২০২০ বিকাল ৫:৩১



বেশী শীত পড়ছে, সারাদিন ঘরে, বের হওয়ার দরকার, সুপার মার্কেটে গেলাম; লোকজন কম, ভালো। শপিংকার্ট নিতে গেলাম, এক চাইনীজ মেয়ে কার্টগুলোকে সাজিয়ে রাখছে, আমি ধন্যবাদ দিয়ে, একটা... ...বাকিটুকু পড়ুন

কুড়ানো ৫৭ (চেরনোবিল-শেষ)

লিখেছেন তানজীর আহমেদ সিয়াম, ২৩ শে জানুয়ারি, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:০৯



চেরনোবিল নিয়ে লেখা দেয়ার পর থেকে প্রচুর ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট আর ইনবক্স মেসেজ পাচ্ছি। আমার খুব ভাল লাগছে, আমি কৃতজ্ঞ সবার প্রতি। তবে বিনীতভাবে বলছি - ব্যক্তিগতভাবে আমার গন্ডী খুব... ...বাকিটুকু পড়ুন

যাই মধু আহরণে…….

লিখেছেন সাদা মনের মানুষ, ২৩ শে জানুয়ারি, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:৪১


মধু হচ্ছে ওষুধ এবং খাদ্য উভয়ই। বিভিন্ন সময় আমরা নানা জায়গা থেকে মধু খেয়ে থাকি। প্রঠম বার যখন সুন্দর বনে গিয়েছিলাম তখনো দুই রঙ্গের মধু এনেছিলাম। একটার কালার ছিল লালচে... ...বাকিটুকু পড়ুন

আজ সকালে পোষ্ট দিয়ে ৫০ ডলার লস।

লিখেছেন চাঁদগাজী, ২৪ শে জানুয়ারি, ২০২০ রাত ১:৫৩



গতকাল সন্ধ্যায়, সুপরমার্কেট থেকে ফিরে, পার্কিং করার জন্য বাসার আশেপাশে কয়েক রাুউন্ড দিলাম, কোন পার্কিং নেই; শেষে মিটারে রেখে দিলাম; মিটারে, সন্ধ্যা ৭:০০ থেকে সকাল ৮:০০ অবধি ফ্রি;... ...বাকিটুকু পড়ুন

রাস্তায় পাওয়া ডায়েরী থেকে-১২৮

লিখেছেন রাজীব নুর, ২৪ শে জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ৯:৪৯



১। পৃথিবীতে মাত্র দুইটি দেশ সীমান্তে গুলি করে মানুষ হত্যা করে।
এক, ভারত,
দুই, ইসরায়ীল।
পৃথিবীর আর কোন দেশ সীমান্তে অনুপ্রবেশ করার অজুহাতে পার্শ্ববর্তী দেশের সাধারন মানুষ হত্যা করে না।

২।... ...বাকিটুকু পড়ুন

×