somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

আমার পরিচয়

বিদ্রোহ হৃদয়জুড়ে থাকুক আমৃত্যু

আমার পরিসংখ্যান

আমার সকল পোস্ট (ক্রমানুসারে)

চন্দ্রবিন্দুর সম্মান

লিখেছেন আল - বিরুনী প্রমিথ, ১৫ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২০ রাত ২:২৭

আমি দিনটির জন্য অপেক্ষা করে ছিলাম। অবশেষে আগামীকাল তার মুখোমুখি হবো।

সমাজের সাথে আমার সাংঘর্ষিক সম্পর্ক। বহুদিন ধরে। দিনতারিখ গুনে বলতে পারবোনা। কেবল এটুকু বলতে পারি, আমি মনেপ্রাণে একটি চূড়ান্ত পরিণতি চাইছি। দম আটকে যাওয়া যাপনে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছি।

আব্বার ঘরের বড় ঘড়িটা সবসময়েই জোরে বেজে উঠে। আমি বেশ অন্যমনস্ক... বাকিটুকু পড়ুন

৫ টি মন্তব্য      ১১৩ বার পঠিত     like!

হেডোনিজম সমীপে

লিখেছেন আল - বিরুনী প্রমিথ, ২৪ শে জানুয়ারি, ২০২০ ভোর ৫:০৭

১.
সেই কথোপকথন স্মৃতিতে আজও জাগরূক। গতোকাল গাছগাছালি দিয়ে ঘেরা প্রিয় রাস্তাটায় হাঁটতে হাঁটতে ফের সেটা উপলব্ধি করলাম। সেদিন তুমি উচ্ছ্বল ছিলে। তাও মনে করতে পারি, প্রেক্ষাপটসমেত। স্মরণীয় কথোপকথনের স্মৃতি মাত্রই কি ডিটেইলড দৃশ্যকল্পের পুনরাবির্ভাব? নয়তো তোমার হালকা সবুজ জামার কথাও স্পষ্ট মনে আছে কীভাবে?

২.
বুদ্ধিদীপ্ত কনভারসেশনে নাকি ভার্বের চাইতে নাউনের ব্যবহার... বাকিটুকু পড়ুন

১ টি মন্তব্য      ১০২ বার পঠিত     like!

উন্মূল মুহূর্ত

লিখেছেন আল - বিরুনী প্রমিথ, ২২ শে ডিসেম্বর, ২০১৯ রাত ২:২১

সন্ধ্যাব্যাপী ট্রাফিক জ্যাম ঠেলে, এসে খালি চেয়ারটিতে বসতেই আমার চোখ ধাঁধিয়ে গেলো। আপাত কারণ হিসাবে আলোর কথা বলা যেতে পারে; তা অসঙ্গতিপূর্ণ এমনও নয়, কিন্তু জানি এটাই একমাত্র কারণ নয়। এমন একটা দিন আমার জীবনে অনিবার্য ছিলো। অনেকসময় অতিক্রান্ত হবার পরে তা বুঝেছি এবং, যতোটা সম্ভব নিরাসক্ত মনে, সেই অবশ্যম্ভাবীতার... বাকিটুকু পড়ুন

১ টি মন্তব্য      ১০০ বার পঠিত     like!

ইন পারসুইট অব ডেভেলপমেন্ট

লিখেছেন আল - বিরুনী প্রমিথ, ০৪ ঠা মার্চ, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:৫৭

কতো রকমের অভিব্যক্তি থাকতে পারে মানুষের; পারেনা, বলো তুমি? প্রেমিক ভিন্ননারীতে নিজের গন্তব্য স্থির করেছে; কথাটা তার মুখ থেকে শুনবার পর, রবীন্দ্র সরোবরে এসে একা একা মুখ ঢেকে কাঁদোনাই তুমি? তাও কিনা আবার নিজের জন্মদিনের দিনে। তোমার বন্ধুবান্ধবেরা তোমার জন্য সারপ্রাইজ পার্টি রাখছিলো; অফিসে ব্যস্ততার অজুহাত দেখায়ে তাদের রিফিউজ করে... বাকিটুকু পড়ুন

৩ টি মন্তব্য      ৫২ বার পঠিত     like!

আবরণের ম্যাজিক

লিখেছেন আল - বিরুনী প্রমিথ, ৩১ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ৯:৫৪

নাজিয়া সেদিন বাসা থেকে যখন বেরিয়েছিলো, তার মাথায় কোন ধরণের চিন্তা এসে দানা বাঁধেনি। ভয়, আশঙ্কা, অস্বস্তি- কিছুই নয়। সে কেবল জানতো, বিয়ে হবার পরে টানা দুই সপ্তাহ বাইরে বেরিয়ে এক চিলতে আকাশ পর্যন্ত দেখতে না পারবার ভার সে আর নিতে পারছিলোনা। আগের রাতে; শাহেদ তাকে যতোটা অন্তরঙ্গ, নিরাবরণ (শারীরিক... বাকিটুকু পড়ুন

২ টি মন্তব্য      ৯৫ বার পঠিত     like!

সকৌতুকে

লিখেছেন আল - বিরুনী প্রমিথ, ০২ রা নভেম্বর, ২০১৮ রাত ১০:১৭

বাস থেকে নামার আগে সে ভুলেই গিয়েছিলো যে আজ দুপুরেও পায়ের ব্যথায় সে জেরবার হয়ে গিয়েছিলো। টনটনে যে ব্যথাটা তাকে কাবু করে ফেলেছিলো সেটা অফিস থেকে বেরোতে বেরোতে একটু কম অনুভূত হলেও বাস থেকে নামার সময়ে বাম পা মাটিতে রাখতে রাতে ফের তীব্র হয়ে উঠলো। কিন্তু তখন সেটা পরখ করে... বাকিটুকু পড়ুন

১ টি মন্তব্য      ১১১ বার পঠিত     like!

অপঘাতের সম্ভাবনা

লিখেছেন আল - বিরুনী প্রমিথ, ১০ ই আগস্ট, ২০১৮ রাত ২:১৬

নয়ন ভাইয়ের বাড়ি থেকে বেরোতে বেরোতে সে লক্ষ্য করলো, রাত অনেক হয়ে গেছে। সে একবার উপরের দিকে মুখ তুলে আকাশের পানে চাইলো। স্বচ্ছ, কালো। পরশু রাতে জোৎস্না ছিলো। সে আকাশের থেকে মুখ নামিয়ে ফের নিজের চামড়ার ব্যাগটায় একবার হাত বোলালো। গতো কিছুদিন হলো এটা তার অভ্যাসে দাঁড়িয়ে গেছে। সেই যে... বাকিটুকু পড়ুন

৩ টি মন্তব্য      ২১১ বার পঠিত     like!

নিরাপদ তন্দ্রার সন্ধানে

লিখেছেন আল - বিরুনী প্রমিথ, ১৩ ই জুন, ২০১৮ বিকাল ৪:২৯

লোকটা হক সাহেবের গ্যারেজে পৌঁছে বাম হাতের কবজি উল্টে সময় দেখে নিলো। রাত বাজে নয়টা বেজে তিপ্পান্ন। বারোটার মধ্যে কাজ সেরে মেসে ফিরতে পারলে খাওয়া পাবে। নয়তো বাদবাকি মেসমেটরা সব খেয়ে নেবে। যদিও আজকে খাওয়াদাওয়া হয়েছে ভরপেট। দুপুরে সে পুরনো বন্ধুর কাছে সূত্রাপুরে গিয়েছিলো। সেই বন্ধু নিজের বাসায় দিব্বি খাইয়েছে।... বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ৮৮ বার পঠিত     like!

শব্দ

লিখেছেন আল - বিরুনী প্রমিথ, ১৭ ই মার্চ, ২০১৮ সন্ধ্যা ৬:৪৭

স্যাঁতস্যাঁতে কালো আন্ডারওয়্যার ছাড়তে ছাড়তে নাহারের দিকে ঘাড় না ঘুরিয়েই রোমেল জিজ্ঞেস করলো, ‘রশীদ বিলের কাগজটা এসে দিয়ে গিয়েছিলো?’

‘না।’ সংক্ষিপ্ত ও সুনির্দিষ্ট উত্তরে নাহার স্বামীর কৌতূহলকে পুরোপুরি নিভিয়ে দিয়ে পাশের ঘরে চলে গেলো। তাদের ছয় বছর বয়সী কন্যা নুশাইবাকে ঘুম পাড়াতে নাহারের মরণপণ যুদ্ধ করতে হয়। তা দেখে রোমেলের... বাকিটুকু পড়ুন

৩ টি মন্তব্য      ১৩৯ বার পঠিত     like!

ডিজায়ার

লিখেছেন আল - বিরুনী প্রমিথ, ২০ শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ রাত ১১:৪৫

আজকে সপ্তদশ দিন, বইমেলার। তবু এ বছরে এই প্রথম মেলায় পা দিলো রাজীব। দিয়ে বুঝতে পারলো আরো অনেকদিন এ সময়ে, এ উপলক্ষ্যে, এদিকে তার আসা হবেনা।

গতো পাঁচ বছরে রাজীব কিছু লেখেনি। লেখেনি বলতে বোঝায় লেখেই নি। একটি শব্দও নয়, বাক্য দূরের কথা। মাঝেমাঝে ডাইরী খুলে বসেছে। নাবিলার সাথে চূড়ান্ত... বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ৬৯ বার পঠিত     like!

অসুখ

লিখেছেন আল - বিরুনী প্রমিথ, ২৬ শে ডিসেম্বর, ২০১৭ রাত ৩:৩১

অসুখ, অসুখ। এখন শুধু সংগোপনেই নয়, প্রত্যক্ষ মর্মেও অসুখ প্রবেশ করতে শিখে গেছে। এমন একটা উপলব্ধি হৃদয়ে এসে জুড়ে বসেছে, এমনটা বুঝতে পারলে রিভু নিজের উপরে বিরক্ত হলো।

দাওয়াতপ্রাপ্ত হয়ে একটা আস্ত বিয়েবাড়িতে এসে আমন্ত্রিত অন্যান্য অতিথিদের দেখতে দেখতে এমন দার্শনিক ভাবনায় আচ্ছন্ন হওয়ার কি মানে আছে? মানুষের অন্তত এমন... বাকিটুকু পড়ুন

১ টি মন্তব্য      ১৩৩ বার পঠিত     like!

পতন

লিখেছেন আল - বিরুনী প্রমিথ, ১৮ ই অক্টোবর, ২০১৭ সন্ধ্যা ৭:৩৭

তারপরে রকিবুল সন্ধ্যার দিকে নির্ণিমেষ চেয়ে রইলো।

দিনের শেষ আলো বিদায় নিয়েছে ঘন্টা দুয়েক আগেই। তখন কিছুই খেয়াল করেনি। শরৎকালের শেষ বিকাল যে রঙ ধারণ করে; তা থেকে যে বিষণ্ণ অন্তিম আলো বিচ্ছুরিত হয়, সেই আলোর দিকে এক দৃষ্টিতে চেয়ে থাকলে শ্বাসরুদ্ধকর যে হাহাকার জেগে উঠে – এর সবকিছু থেকেই... বাকিটুকু পড়ুন

১ টি মন্তব্য      ৮০ বার পঠিত     like!

প্রমোশন

লিখেছেন আল - বিরুনী প্রমিথ, ৩০ শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ভোর ৫:২১

‘আব্বা, আসবো?’


অফিসে যাবার প্রাক্কালে অবসরপ্রাপ্ত ব্যাংকার আশরাফউদ্দীনের ঘরে এসে রেজওয়ান বিনীত ভঙ্গিতে পিতার ঘরে প্রবেশের অনুমতি প্রার্থনা করে।


‘হ্যা আয়, এতো অনুমতির কি আছে?’ পুত্রের সাথে ঋজুস্বরে কথা বলতে অভ্যস্ত আশরাফউদ্দীনের কন্ঠ কফ জমানো বলে চিরাচরিত জাঁদরেল থাকতে ব্যর্থ হয়।


বুড়ো মনে হয় কফ নিয়ে ভালোই যন্ত্রণায় আছে। গতো... বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ২১১ বার পঠিত     like!

দূরত্ব

লিখেছেন আল - বিরুনী প্রমিথ, ১১ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৭ রাত ২:৫০

সুজন ঘরে এসে ছিটকিনি লাগিয়েছে বুঝতে পেরেই আফসারউদ্দীন চিৎকার করতে শুরু করলেন।

‘শুয়োরের বাচ্চা, তোকে এতোবার করে বললাম পর্দাগুলা ঢেকে দিতে। কোন কথা কানে যায়না? হারামজাদা কোথাকার। খালি খাওয়া আর নবাবের বাচ্চার মতো ঘুমানো। তোদেরকে লাথি মেরে ঘর থেকে বিদায় করে দিবো।’

সতেরো বছরের কাজের লোক কালামকে উদ্দেশ্য করা আফসারউদ্দীনের... বাকিটুকু পড়ুন

১ টি মন্তব্য      ২২১ বার পঠিত     like!

দৃষ্টিভঙ্গী

লিখেছেন আল - বিরুনী প্রমিথ, ০৪ ঠা সেপ্টেম্বর, ২০১৭ রাত ১০:১৪

মার্কিন বংশোদ্ভুত স্ত্রীর সাথে শরতের এক মিষ্টি কোমল বিকালে হাত ধরে হেঁটে যাচ্ছিলো, খুব ভালো লাগছিলো। কিন্তু মাথার নিচ থেকে বালিশ সরে যাওয়াতে কোন এক সময়ে দেওয়ালের প্রায় কাছাকাছি চলে এসেছিলো সেই সম্পর্কে অজ্ঞাত থাকবার কারণে দেওয়ালের সাথে মাথায় বাড়ি খেয়ে স্ত্রীর সাথে প্রেমময় সময় কাটানো থেকে বিরত হতে হয়... বাকিটুকু পড়ুন

১ টি মন্তব্য      ১৪৫ বার পঠিত     like!
আরো পোস্ট লোড করুন
ব্লগটি ২৯৫৪৭ বার দেখা হয়েছে

আমার পোস্টে সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার করা সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার প্রিয় পোস্ট

আমার পোস্ট আর্কাইভ