somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

বাংলাদেশ: ফিরে দেখা ১২ আগস্ট

১২ ই আগস্ট, ২০১৮ দুপুর ১:২৭
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :


সহজলভ্য রেফারেন্সের অভাবে বাংলাদেশের ইতিহাসের অনেক ঘটনা বিভিন্ন ব্যক্তি বিভিন্নভাবে বিশ্লেষণ করেন। এতে ইচ্ছায় বা অনিচ্ছায় বাংলাদেশের ইতিহাস বিকৃত হচ্ছে, সৃষ্টি হচ্ছে অসংখ্য বিতর্কের। তাই ইতিহাসের উল্লেখযোগ্য ঘটনার তথ্য সহজলভ্য করার উদ্দেশ্যে 'ফিরে দেখা বাংলাদেশ' সিরিজ। প্রায় সব তথ্য যাচাই-বাচাই করে দেশের প্রধান সংবাদপত্রসমূহ থেকে নেয়া হয়েছে। বাংলাদেশের ইতিহাসে ১২ আগস্ট ঘটে যাওয়া উল্লেখযোগ্য রাজনৈতিক ও সামাজিক ঘটনাবলি:

১৯৭৫
====
প্রধানমন্ত্রী মনসুর আলী যশোর ক্যান্টনমেন্টে দ্বিতীয় বিপ্লবের (বাকশাল) কর্মসূচি বাস্তবায়নে সামরিক বাহিনীকে অংশগ্রহণের আহবান জানান।

১৯৭৬
====
চিকিৎসার জন্য মাওলানা ভাসানীর লন্ডন যাত্রা।

১৯৭৯
====
সৈয়দপুরে অবাঙালি কর্তৃক থানা আক্রমণ। ১১২ জন গ্রেফতার।

১৯৮৩
====
পাকিস্তানের সাথে ভিসা চুক্তি।

১৯৮৪
====
ত্রিপুরায় চরমপন্থিদের সাহায্যদানের কথা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অস্বীকার।

১৯৮৫
====
১। পতেঙ্গা বিমান বন্দরে ৪০ লক্ষ টাকার স্বর্ণ আটক।
- - - - - - - -
২। বাংলাদেশ-বর্মার সীমান্ত মানচিত্র অনুমোদিত।

১৯৮৬
=====
ঢাকায় সার্ক পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের বৈঠক।

১৯৮৭
=====
শ্রমিক-কর্মচারী ঐক্য পরিষদের ২৫ ঘন্টায় ধর্মঘট। ঢাকায় হাঙ্গামা।

১৯৮৯
=====
১। মওদুদ আহমদ ভাইস প্রেসিডেন্ট, কাজী জাফর প্রধানমন্ত্রী।
- - - - - - - -
২। চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে গুলিতে জাতীয় পার্টির ২ জন স্থানীয় নেতা নিহত।

১৯৯০
=====
স্বাস্থ্যনীতি বাতিলের দাবীতে বিএমএ'র মিছিল সমাবেশ।

১৯৯১
=====
সংবিধান সংশোধনী প্রশ্নে ১৫ সেপ্টেম্বর নির্বাচন কমিশন গণভোটের তারিখ নির্বাচিত করে।

১৯৯২
=====
১। বিএনপি সরকারের বিরুদ্ধে উত্থাপিত অনাস্থা প্রস্তাবের প্রতিক্রিয়ায় প্রধানমন্ত্রী সংসদনেত্রী বেগম জিয়া বলেন, 'স্বৈরাচারের সহযোগিতায় আজ আপনারা অনাস্থা প্রস্তাব এনেছেন।
বিরোধীদলীয় নেত্রী শেখ হাসিনা বলেন, 'বিএনপি সরকারের পতন মানে গণতন্ত্রের পতন নয়।'
- - - - - - - -
২। গোলাম আযমের নাগরিকত্ব প্রশ্নে হাইকোর্টের অনাস্থা বাতিল। দুই বিচারপতির দুইমত। নির্দেশের জন্য বিষয়টি প্রধান বিচারপতির নিকট প্রেরণ।

১৯৯৪
=====
খুলনায় যুবলীগের সমাবেশ। যুব কমান্ডের সশস্ত্র হামলা, পুলিশের লাঠিচার্জ, আহত শতাঢিক।

১৯৯৮
=====
১। আইনশাস্ত্রজ্ঞ গাজী শামছুর রহমান (৭০)-এর মৃত্যু।
- - - - - - - -
২। অধ্যাপক তালুকদার মনিরুজ্জামানসহ সাতজনের বিবৃতি, 'সোফা চুক্তি মেনে নিয়ে স্বাধীনতা নিশ্চিত করুন।'
উল্লেখ্য, এ বছরের মাঝামাঝি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশের অভ্যন্তরে আমেরিকান সৈন্যদের অবাধ চলাচলের অধিকার চেয়ে ‘সোফা’ (স্টেটাস অব ফোর্সেস অ্যাগ্রিমেন্ট) চুক্তি সম্পাদনের প্রস্তাব দিলে সরকারের অভ্যন্তরে একটি অংশের আপত্তি এবং প্রবল গণবিরোধিতার জন্য শেষ পর্যন্ত তা স্বাক্ষরিত হয় নি।

১৯৯৯
=====
চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে শিবির-ছাত্রলীগ বন্দুকযুদ্ধ, ৪ পুলিশ গুলিবিদ্ধ। আহত ৩০, গ্রেফতার ৭। ।বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা

২০০১
=====
১। সোনাগাজির গ্রামে ৩ বিএনপি কর্মী রাজনৈতিক সন্ত্রাসে নিহত।
- - - - - - - -
২। একাধিক মামলার আসামী পিচ্চি কামাল কুমিল্লায় গ্রফতার।
- - - - - - - -
৩। ১৯৭৩ সালের ১ জানুয়ারি ঢাকায় ভিয়াতনাম সংহতি দিবস উদযাপনের সময় নিহত দুই শহীদ মতিউল ইসলাম ও মীর্জা আবদুল কাদেরকে ভিয়েতনামের বীরশ্রেষ্ট ঘোষণা।

২০০২
=====
নিউইয়র্কে স্পেনীয় দুবৃত্তদের হাতে ফটোসাংবাদিক মিজানুর রহমান খুন।

২০০৩
=====
কাগজপত্র চেকিংয়ের কারণে দেশব্যাপী লঞ্চ মালিকদের অনির্দিষ্টকালের জন্য ধর্মঘট আহবান।

২০০৬
=====
শীর্ষ ঋণখেলাপী ১১টি প্রতিষ্ঠান দীর্গদিন ধরে বন্ধ, ব্যাংকের পাওনা ৮,৮৩৬ কোটি টাকা।

২০০৭
=====
১। বাজার নিয়ন্ত্রণে নেমেছে যৌথবাহিনী মিরপুরে ৯ খুচরা বিক্রেতা গ্রেফতার
দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে আবার বাজারে নেমেছে যৌথ বাহিনী। পাইকারি এবং খুচরা বাজারের সঙ্গে দামের পার্থক্য কমিয়ে আনতে মীরপুরের কাঁচাবাজারগুলোতে এ অভিযান পরিচালিত হয়। পাইকারি বাজারের চেয়ে বেশী দামে জিনিসপত্র বিক্রির অভিযোগে ৯ জন খুচরা বিক্রেতাকে গ্রেফতার করেছে যৌথ বাহিনী।
- - - - - - - -
২। নির্বাচন ২০০৮ সালের ডিসেম্বরের মধ্যেই হবে
প্রধান উপদেষ্টা ড. ফখরুদ্দীন আহমদ রবিবার বর্তমান বন্যা পরিস্থিতির কারণে সৃষ্ট ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে সম্মিলিতভাবে বন্যা-উত্তর পুনর্বাসন কর্মসূচি শুরু করতে সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি আহবান জানিয়েছেন। আসন্ন সাধারণ নির্বাচনের উল্লেখ করে ড. ফখরুদ্দীন আহমদ বলেন, সরকার ২০০৮ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে একটি সুষ্ঠু, শান্তিপূর্ণ ও গ্রহণযোগ্য সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠানে অঙ্গীকারাবদ্ধ।
তিনি বলেন, ‘আমি দ্ব্যর্থহীনভাবে বলতে চাই যে, নির্বাচন ২০০৮ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে অনুষ্ঠিত হবে।’ তিনি আরো বলেন, নির্বাচন কমিশন সে লক্ষ্যে কাজ করছে।

২০০৮
=====
১। থেমে গেছে জনপ্রশাসন ও পুলিশ বিভাগের সংস্কার।
প্রায় ১৯ মাস আগে বর্তমান নির্দলীয় তত্ত্বাবধায়ক সরকার রাষ্ট্র ব্যবস্থার বিভিন্ন ক্ষেত্রে সংস্কার কার্যক্রমের প্রত্যাশা নিয়ে দায়িত্ব গ্রহণ করলেও এই দীর্ঘ সময়ে পুলিশ ও জনপ্রশাসনের কোন সংস্কার হয়নি। রোডম্যাপ অনুযায়ী ডিসেম্বরের মধ্যে জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রস্তুতি এবং বিরূপ ও জটিল রাজনৈতিক পরিস্থিতি মোকাবেলা করতেই সরকারকে সর্বাধিক মনোযোগ দিতে হচ্ছে। তাই অবশিষ্ট সময়ে এ দুটি গুরুত্বপূর্ণ সংস্কার কার্যক্রম আর অগ্রাধিকার পাচ্ছে না। যদিও পুলিশ ও জনপ্রশাসনের মতো সরকারের গুরুত্বপূর্ণ দুটি বিভাগের সংস্কার করা জনগণের দীর্ঘদিনের প্রত্যাশা। ঔপনিবেশিক আমলের পুলিশ ও প্রশাসন ব্যবস্থা পরিবর্তন করে যুগোপযোগী, আধুনিক, সেবাধর্মী ও জবাবদিহিমূলক ব্যবস্থা সৃষ্টির লক্ষ্যে বিগত দুই দশকে বিভিন্ন সরকার উদ্যোগ নিলেও সেগুলো বাস্তবে আলোর মুখ দেখেনি। বেসরকারি খাত, উন্নয়ন সহযোগী, সেবাগ্রহণকারী জনগণসহ সবাই দীর্ঘদিন ধরে জবাবদিহিমূলক ব্যবস্থা সৃষ্টির কথা বলে আসছে।
- - - - - - - -
২। রমজানে বাজারে মনিটরিং-এ থাকবে যৌথ বাহিনী
- - - - - - - -
৩। ব'র্তমান ইসির অধীনে অবাধ ও সুষ্টু নির্বাচন হবে না।'—খালেদা জিয়া

২০০৯
=====


১। যুক্তরাষ্ট্রের ফ্রিডম পদক গ্রহণ করলেন মুহাম্মদ ইউনূস
যুক্তরাষ্ট্রের সর্বোচ্চ বেসামরিক নাগরিক সম্মাননা পদক গ্রহণ করলেন গ্রামীণ ব্যাংকের প্রধান মুহাম্মদ ইউনূস। আজ বিকেলে হোয়াইট হাউসে আড়ম্বরপূর্ণ এক অনুষ্ঠানে তাঁকে এ পদক পরিয়ে দেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা।
প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রের সর্বোচ্চ নাগরিক সম্মান মেডেল অব ফ্রিডম অ্যাওয়ার্ড লাভের পর মুহাম্মদ ইউনূস তাত্ক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় বলেন, ‘এ সম্মানপ্রাপ্তি শুধু আমার নিজের জন্য নয়, এটা দেশের জন্য সম্মানজনক বলে মনে করছি।’
পদক প্রদান অনুষ্ঠানে ওবামা বলেন, মানুষের আত্মবিশ্বাসের ওপর আস্থা রেখে ইউনূস অর্থ-বাণিজ্যের চেহারা পাল্টে দিয়েছেন। বাংলাদেশি এ অধ্যাপক দারিদ্র্য দূরীকরণের নতুন পথ দেখিয়েছেন। ক্ষুদ্রঋণের মাধ্যমে বিশ্বের দরিদ্রতম দেশের অনগ্রসর জনগণকে লাভজনক ব্যবসা পরিচালনা ও পরিবারের ভরণ-পোষণের পথ দেখিয়েছেন। প্রেসিডেন্ট ওবামা বলেন, মুহাম্মদ ইউনূস পৃথিবীর লাখো-কোটি জনগণকে নতুন ধারণায় উদ্বুদ্ধ করেছেন।

২। পদ্মা সেতুর কাজ তদারকে মশিউরের নেতৃত্বে কমিটি
পদ্মা সেতু বাস্তবায়নের তদারকি কাজের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে প্রধানমন্ত্রীর অর্থনীতি-সংক্রান্ত উপদেষ্টা মশিউর রহমানকে। তাঁকে প্রধান করে আট সদস্যের একটি কমিটিও গঠন করা হয়েছে। কমিটিতে যোগাযোগমন্ত্রী সৈয়দ আবুল হোসেনের নাম নেই। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের বক্তব্য হচ্ছে, ২০১৩ সালের মধ্যে পদ্মা সেতুর কাজ শেষ করতে চায় সরকার। যথাসময়ে কাজটি শেষ করার জন্যই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে মশিউর রহমানের নেতৃত্বে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে কমিটি গঠন করা হয়েছে।
এ ব্যাপারে জানতে চাওয়া হলে মশিউর রহমান বলেন, ২০১৩ সালের মধ্যে সরকার কাজটি শেষ করতে চায়। এ কাজের সঙ্গে অর্থনৈতিক সম্পর্ক, অর্থ, রাজস্ব, পরিবেশ, যোগাযোগ, সেতু বিভাগসহ সরকারের একাধিক বিভাগ যুক্ত। যেহেতু প্রকল্পটি বাস্তবায়নের সঙ্গে একাধিক বিভাগ ও মন্ত্রণালয় যুক্ত, তাই উপকমিটি, কমিটি ও মন্ত্রণালয় এভাবে সিদ্ধান্ত নিতে গেলে সেটি সময়-সাপেক্ষ এবং প্রক্রিয়াটি জটিল হয়ে যাবে।
তিনি আরও বলেন, প্রকল্পটির সঙ্গে বিশ্বব্যাংক, এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক, জাইকাসহ আরও কয়েকটি উন্নয়ন সহযোগী সংস্থা যুক্ত। তারা আমাদের অর্থ দেবে। তাদের কাছ থেকে কতটা অর্থ নেওয়া হবে এবং কীভাবে নেওয়া হবে, সেসব বিষয়ে দেনদরবার করে দ্রুত সিদ্ধান্ত নেওয়ার বিষয় আছে। তাই পুরো কাজটি সমন্বয়ের জন্য প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে এ কমিটি গঠন করা হয়েছে।
প্রসঙ্গত, পদ্মা সেতু নির্মাণের জন্য জাপান ইন্টারন্যাশনাল কো-অপারেশন এজেন্সির (জাইকা) সুপারিশ মেনে ২০০৪ সালে পদ্মা সেতু নির্মাণের স্থান হিসেবে মাওয়া-জাজিরা নির্ধারণ করা হয়। যোগাযোগ মন্ত্রণালয় মোট আট হাজার ৫৮৮ কোটি টাকা প্রাক্কলিত ব্যয়ে একটি উন্নয়ন প্রকল্প প্রস্তাব (ডিপিপি) একনেকের অনুমোদনের জন্য পেশ করে। কিন্তু বিদেশি অর্থের সংস্থান নিশ্চিত না হওয়া এবং প্রাথমিক তথ্যের ভিত্তিতে ব্যয় ধরা হয়েছে বলে প্রস্তাবটি ফিরিয়ে দেওয়া হয়। ২০০৭ সালের ২০ আগস্ট ১০ হাজার ১৬২ কোটি টাকায় পদ্মা নদীর ওপর ৫ দশমিক ৫৮ কিলোমিটার সেতু স্থাপনের প্রকল্প অনুমোদন করে বিগত তত্ত্বাবধায়ক সরকার। আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর গত এপ্রিলে নিউজিল্যান্ডের পরামর্শক সংস্থা মুনসেল লিমিটেডের সঙ্গে ১৩১ কোটি টাকা ব্যয়ে নকশার কাজ শেষ করার জন্য চুক্তি হয়। চলতি মাসেই এ নকশার প্রাথমিক প্রতিবেদন দেওয়ার কথা রয়েছে। নকশা অনুমোদন পেলে ২০১০ সালে শুরু হবে পদ্মা সেতুর কাজ।
- - - - - - - -
৩। পঞ্চম শ্রেণীতে সারা দেশে একযোগে সমাপনী পরীক্ষা
দেশের সরকারি ও নিবন্ধিত ৭৮ হাজার ৩৬৩টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণীতে এ বছর থেকে একই প্রশ্নে এবং একই দিনে শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। ফলে পঞ্চম শ্রেণীতে আর বৃত্তি পরীক্ষা থাকবে না। সমাপনী পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে বৃত্তি দেওয়া হবে। এটি হবে দেশের সর্ববৃহত্ পাবলিক পরীক্ষা। এত দিন মাধ্যমিক (এসএসসি) পরীক্ষা ছিল সবচেয়ে বড় পাবলিক পরীক্ষা।
এ বছরের ডিসেম্বরে এই সমাপনী পরীক্ষা নেওয়ার প্রস্তুতি শুরু হয়েছে। প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর এর জন্য কেন্দ্রীয়ভাবে প্রশ্নপত্র প্রণয়ন, পরীক্ষা নেওয়া, ফল প্রকাশসহ আনুষঙ্গিক দায়িত্ব পালন করবে। প্রায় ২০ লাখেরও বেশি শিশু-কিশোর এই পাবলিক পরীক্ষায় অংশ নেবে।
- - - - - - - -
৪। খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানকে আদালতে হাজিরা হওয়ার নির্দেশ
জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট-এর টাকা আত্মসাতের মামলায় বিএনপির চেয়ারপারসন ও বিরোধীদলীয় নেত্রী খালেদা জিয়া, তাঁর বড় ছেলে তারেক রহমানসহ ছয় আসামিকে ৩০ আগস্ট আদালতে হাজির হতে হবে। গতকাল বুধবার ঢাকার মহানগর দায়রা জজ এ এন এম বসির উল্লাহ এ আদেশ দেন। ওই দিন আসামিদের উপস্থিতিতে মামলার অভিযোগপত্রের গ্রহণযোগ্যতা শুনানির দিন ধার্য করেন আদালত।
আজ অভিযোগপত্রের গ্রহণযোগ্যতা শুনানির দিন ধার্য ছিল। কিন্তু কোনো আসামি আদালতে হাজির হননি। খালেদা জিয়ার আইনজীবী সানাউল্লাহ মিয়া আদালতে বলেন, নিরাপত্তার কারণে খালেদা জিয়া আদালতে উপস্থিত হননি। তিনি খালেদা জিয়ার নিরাপত্তা চেয়ে আবেদনও করেন। আদালত ৩০ আগস্ট এ বিষয়টিও শুনানি করবেন বলে জানান।
আরেক আইনজীবী মাসুদ আহমেদ তালুকদার বলেন, মামলার আসামি তারেক রহমান প্যারোলে মুক্তি নিয়ে চিকিত্সার জন্য বিদেশে আছেন। এ মামলায় তিনি হাইকোর্ট থেকে জামিনে রয়েছেন। আইনজীবীরা জানান, এ মামলায় খালেদা জিয়া, তারেক রহমান, শরফুদ্দিন আহমেদ ও কাজী সালিমুল হক হাইকোর্ট থেকে জামিনে রয়েছেন। সাবেক মুখ্য সচিব কামাল সিদ্দিকী ও জিয়াউর রহমানের বোনের ছেলে মমিনুর রহমান আইনের দৃষ্টিতে পলাতক বলে আদালত সূত্র জানান।
গতকাল সাবেক সাংসদ কাজী সালিমুল হক আদালতে হাজির ছিলেন না। তাঁর পক্ষে কোনো আইনজীবীও ছিলেন না।

২০১০
=====
১। নারায়ণগঞ্জে বিদ্যুৎ উপকেন্দ্রে হামলা, সংঘর্ষে অর্ধশত আহত


নারায়ণগঞ্জে বিদ্যুতের দাবিতে গত মঙ্গলবার রাতে শহরের মণ্ডলপাড়া বিদ্যুৎ উপকেন্দ্রে হামলা ও ভাঙচুর করে বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী। রাত দেড়টা থেকে ভোররাত চারটা পর্যন্ত এই বিক্ষোভ-সংঘর্ষ চলে। এ সময় পুলিশের সঙ্গে বিক্ষোভকারীদের সংঘর্ষে ১০ পুলিশ সদস্যসহ কমপক্ষে ৫০ জন আহত হন। পুলিশ এ ঘটনায় ১১ জনকে গ্রেপ্তার করেছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে গুলি ও কাঁদানে গ্যাসের শেল নিক্ষেপ করা হয়।
- - - - - - - -
২। দাতারা প্রতিশ্রুতি দেয় বেশি, টাকা দেয় কম
বাংলাদেশের প্রাকৃতিক দুর্যোগের সময় উন্নয়ন-সহযোগীরা পাশে থাকার ঘোষণা দেয়। ত্রাণ ও পুনর্বাসনে সহায়তার আশ্বাস দেয়। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তারা তাদের প্রতিশ্রুতির অনেকটাই পূরণ করে না। ঘূর্ণিঝড় আইলা ও সিডরের উল্লেখ করে সরকারি সূত্রগুলো বলছে, প্রাকৃতিক ওই দুর্যোগে উন্নয়ন-সহযোগীরা প্রতিশ্রুতির অর্ধেকও পূরণ করেনি।
- - - - - - - -
৩। বিমানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ সংসদীয় কমিটির
বেসামরিক বিমান চলাচল ও পর্যটনমন্ত্রী জি এম কাদেরের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ এনেছে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটি। বিমানবন্দরসংলগ্ন ১৩০ একর জমি ইজারা এবং ক্যাবো এয়ারের উড়োজাহাজ উড়তে না দেওয়া নিয়ে সংসদীয় কমিটির সঙ্গে মন্ত্রণালয়ের মতবিরোধ চলছে। এ অবস্থায় কমিটি এমন অভিযোগ তোলে।
- - - - - - - -
৪। জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণে আলাদা মন্ত্রণালয় গঠনে হাইকোর্টের রুল
জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণে আলাদা মন্ত্রণালয় গঠনের কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না, তা জানতে চেয়ে সরকারের প্রতি রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। এ জন্য পর্যাপ্ত বাজেট প্রদানের নির্দেশ কেন দেওয়া হবে না, তাও জানতে চাওয়া হয়েছে। সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণে কেন প্রয়োজনীয় ও কার্যকর ব্যবস্থা নেওয়া হবে না, তার কারণ দর্শানোর কথাও বলা হয়েছে। আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে মুখ্যসচিব, অর্থসচিব, আইনসচিব, পরিকল্পনাসচিবসহ ১৫ জনকে এই রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।
- - - - - - - -
৫.শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে অরাজক পরিস্থিতি সৃষ্টিকারীদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিন : প্রধানমন্ত্রী
শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে অরাজক পরিস্থিতি সৃষ্টিকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে অরাজক পরিস্থিতি সৃষ্টিকারীরা আমার দলের হলেও তাঁকে ছাড় দেওয়া হবে না। এমন ব্যক্তিদের তাত্ক্ষণিকভাবে গ্রেপ্তার করার জন্য পুলিশকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সুষ্ঠু পরিবেশ বজায় রাখার জন্য তিনি শিক্ষক, শিক্ষার্থীসহ সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের সহযোগিতা কামনা করেন।

২০১১
=====
১। উত্তরায় র‌্যাবের গুলিতে ৫ জন নিহত
রাজধানীর উত্তরায় মাসকট প্লাজার কাছে আজ শুক্রবার রাত নয়টার দিকে ডাকাত সন্দেহে পাঁচজনকে গুলি করে হত্যা করেছেন র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) সদস্যরা। ঘটনাস্থল থেকে দুজনকে আটক করা হয়েছে। র‌্যাবের মিডিয়া উইংয়ের কমান্ডার সোহায়েল এ তথ্য জানিয়ে প্রথম আলোকে বলেন, নিহত ও আটক হওয়া ব্যক্তিরা একটি গাড়িতে করে ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছিল। র‌্যাব তাদের ধাওয়া করে। এ সময় গোলাগুলিতে ঘটনাস্থলেই চারজন নিহত হয়।
- - - - - - - -
২। দ্য ইকনমিস্টের নতুন প্রতিবেদন : ‘বাংলাদেশের কলুষিত রাজনীতি’
ব্রিটেনের প্রভাবশালী সাময়িকী দ্য ইকনমিস্ট আবারও বাংলাদেশ নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। প্রতিবেদনের শিরোনাম ‘দ্য পয়জনাস পলিটিক্স অব বাংলাদেশ: রিভারশন টু টাইপ’। প্রতিবেদনে বাংলাদেশের রাজনীতির কঠোর সমালোচনা করা হলেও দেশের অর্থনীতি নিয়ে ইতিবাচক মন্তব্য করা হয়েছে। বলা হয়েছে, আগের যেকোনো সময়ের চেয়ে দেশটির অর্থনীতির চাকা এখন সচল। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বাংলাদেশের রাজনীতি এখনো ব্যক্তি-পর্যায়ে এবং কলুষিত রয়ে গেছে।
বিষাক্ত রাজনীতির কথা বলতে গিয়ে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০০৮ সালের নির্বাচনটি ছিল বাংলাদেশের জন্য এক যুগসন্ধিক্ষণ। চার দশকের ইতিহাসে সবচেয়ে সুষ্ঠু ও অবাধ নির্বাচনে শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন আওয়ামী লীগ নিরঙ্কুশ বিজয়ের মাধ্যমে ক্ষমতায় আসে। ওই বিজয়ের পর জাতি আশার আলো দেখেছিল। মানুষের আশা ছিল, শেখ হাসিনা তাঁর দলের জনপ্রিয়তা কাজে লাগিয়ে গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠানগুলো শক্তিশালী করার পাশাপাশি জাতীয় ঐক্য গড়ে তুলবেন। দেশের রাজনীতির প্রধান দুই দল আওয়ামী লীগ ও বিএনপির মধ্যকার এক অপরের প্রতি বিরূপ আচরণেরও অবসান ঘটবে। কিন্তু মানুষের এই আশা অল্প দিনেই ভঙ্গ হয়। নির্বাচনের আড়াই বছরের মধ্যেই ফুটে ওঠে বাংলাদেশের রাজনীতির সেই পুরোনো চিত্র। শুরু হয় অতীতের মতো বিরোধী দলের প্রতি বিরূপ আচরণ।

২০১২
=====
সাঈদীর নাম পরিবর্তনের ঘটনায় তদন্ত কমিটি
মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে অভিযুক্ত ও আটক জামায়াতের নেতা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর নাম ও বয়স পরিবর্তনের ঘটনায় সংসদীয় তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। আজ শিক্ষা মন্ত্রণালয়-সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকে এই কমিটি গঠন করা হয়। দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদী কেন নাম ও বয়স পরিবর্তন করেছেন এবং এই ঘটনার সঙ্গে কারা জড়িত, তা তদন্ত করবে কমিটি।
বৈঠক সূত্র জানায়, সাঈদীর প্রথম সনদ অনুযায়ী, তিনি মাত্র ১০ বছর বয়সে দাখিল পাস করেছেন। বিষয়টি অসম্ভব জেনে তিনি ২০০৮ সালের ১০ নভেম্বর নির্বাচনের আগে দাখিল ও আলিম পাসের সনদে নাম ও বয়স পাল্টান। ১৯৫৭ সালে মাদ্রাসা বোর্ড থেকে দেওয়া দাখিল পাসের সনদ অনুযায়ী সাঈদীর নাম আবু নাইম মোহাম্মদ দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদী। কিন্তু ২০০৮ সালে নাম পরিবর্তন করে হন দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদী।

২০১৩
=====
১। অধিকারের সম্পাদক রিমান্ডে


মানবাধিকার সংগঠন অধিকারের সাধারণ সম্পাদক আদিলুর রহমান খানকে গ্রেপ্তারের পর পাঁচ দিনের রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে। গত শনিবার রাতে রাজধানীর গুলশান থেকে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ তাঁকে গ্রেপ্তার করে। রাতে পুলিশ অধিকারের কার্যালয়ে তল্লাশি চালায়। চারদলীয় জোট সরকারের আমলে তিনি ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ছিলেন। ঢাকা মহানগর পুলিশের যুগ্ম কমিশনার মনিরুল ইসলাম গতকাল সাংবাদিকদের বলেন, আদিলুর রহমানকে ফৌজদারি কার্যবিধির ৫৪ ধারায় গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তবে তিনি তথ্যপ্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারার ১ ও ২ উপধারায় অপরাধ করেছেন। অপরাধটি হচ্ছে, গত ৫ মে রাতে শাপলা চত্বরে হেফাজতে ইসলামের সমাবেশের ঘটনার ওপর প্রতিবেদন প্রকাশ করে এনজিও হিসেবে নিবন্ধিত তাঁর প্রতিষ্ঠান ‘অধিকার’। এতে কাল্পনিকভাবে ৬১ জন মারা গেছে বলে দাবি করা হয়। প্রতিবেদনের প্রচ্ছদে ফটোশপের মাধ্যমে ছবি বিকৃত করে তা জুড়ে দেওয়া হয়েছে। এতে দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করার চেষ্টা করা হয় এবং মানুষের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানা হয়।
- - - - - - -
২। জামায়াত নিষিদ্ধ ও গোলাম আযমের সর্বোচ্চ শাস্তি চেয়ে আপিল
রাজনৈতিক দল হিসেবে জামায়াতে ইসলামীকে নিষিদ্ধ ও মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে দলটির সাবেক আমির গোলাম আযমের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড চেয়ে আপিল করেছে রাষ্ট্রপক্ষ। মুক্তিযুদ্ধকালে মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে গোলাম আযমকে ৯০ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১। গত ১৫ জুলাই দেওয়া ওই রায়ের পর্যবেক্ষণে জামায়াতকে অপরাধী সংগঠন বলা হয়।
এই রায়ের পরিপ্রেক্ষিতে রাষ্ট্রপক্ষ এই আপিল করেছে। গতকাল সোমবার বেলা তিনটার দিকে সুপ্রিম কোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় রাষ্ট্রপক্ষ আপিলটি দায়ের করে।
রায় ঘোষণার ২১ দিনের মাথায় ওই দণ্ডাদেশ থেকে খালাস চেয়ে আপিল করেছিলেন গোলাম আযম। আর ২৯ দিনের মাথায় রাষ্ট্রপক্ষ আপিল করল। আন্তর্জাতিক অপরাধ (ট্রাইব্যুনালস) আইনে রায়ের ৩০ দিনের মধ্যে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগে আপিল করার বিধান রয়েছে।
- - - - - - -
৩। ‘আনসারুল্লাহ’র প্রধান জসীমসহ গ্রেপ্তার ৩১
দেশে গোপনে সক্রিয় উগ্রপন্থী আরেক গোষ্ঠী ‘আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের’ প্রধান মুফতি জসীমউদ্দিন রাহমানীকে ৩০ জন অনুসারীসহ গ্রেপ্তার করেছে বরগুনার পুলিশ। গতকাল সোমবার দুপুরে বরগুনা শহরের উপকণ্ঠে দক্ষিণ খাজুরতলা এলাকার একটি বাড়িতে বৈঠককালে পুলিশ তাঁদের গ্রেপ্তার করে।
বরগুনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাহাঙ্গীর আলম প্রথম আলোকে বলেন, গোপন বৈঠককালে জঙ্গি সন্দেহে মুফতি জসীমসহ ৩১ জনকে আটক করা হয়। এরপর জানা যায়, জসীমউদ্দিন আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের সঙ্গে সম্পৃক্ত। তবে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তিনি আনসারুল্লাহ-সংক্রান্ত কোনো তথ্য দেননি। এ ব্যাপারে প্রশ্ন করা হলে এড়িয়ে গেছেন, তবে ধর্মীয় উগ্র মতবাদ প্রচারের কথা স্বীকার করেছেন তিনি।
এই সংগঠনের বিষয়ে প্রথম আলোতে গত ১৪ মার্চ ‘দেশে নতুন উগ্রপন্থী গোষ্ঠী আনসারুল্লাহ বাংলা টিম সক্রিয়’ শিরোনামে অনুসন্ধানী খবর প্রকাশ করা হয়। ওই অনুসন্ধানে বেরিয়ে এসেছিল, আনসারুল্লাহ বাংলা টিম জামাআতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশ (জেএমবি) ও হরকাতুল জিহাদের চেয়েও উগ্রপন্থী এবং তারা বিশ্বব্যাপী সন্ত্রাসবাদী সংগঠন হিসেবে পরিচিত আল-কায়েদার মতাদর্শ অনুসরণ করে।
আল্লাহ ও মহানবী (সা.) সম্পর্কে কটূক্তিকারী ‘নাস্তিক’ ও ‘মুরতাদ’ ব্লগারদের এবং তাঁদের সমর্থনকারীদের কতল বা হত্যা করার জন্য মুফতি জসীমউদ্দিন গত ২৩ ফেব্রুয়ারি রাজশাহীতে একটি ‘ইসলামী মহাসমাবেশে’ তাঁর অনুসারীদের প্রতি আহ্বান জানান, যা ‘ইসলামের আলো’ নামে একটি ওয়েবসাইটে প্রচারও করা হয়। পরে তিনি মোহাম্মদপুরের বছিলায় তাঁর প্রতিষ্ঠিত মসজিদে জুমার নামাজের আগে-পরে একাধিক বক্তৃতায় একই ফতোয়া দেন।
- - - - - - -
৪। অক্টোবর মাসজুড়ে হরতাল-অবরোধ
নির্বাচনকালীন নির্দলীয় সরকারের দাবিতে অক্টোবর মাসজুড়ে হরতাল-অবরোধের মতো কর্মসূচি দেওয়ার প্রাথমিক সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিএনপির নেতৃত্বাধীন ১৮-দলীয় জোট। আগস্ট ও সেপ্টেম্বর চূড়ান্ত আন্দোলনের প্রস্তুতির মাস ধরে কর্মসূচি দেবে বিরোধী জোট।

২০১৪
=====
১। মাতারবাড়ি বিদ্যুৎ প্রকল্প একনেকে অনুমোদন
কক্সবাজারের মহেশখালীতে দেশের প্রথম কয়লাভিত্তিক তাপ বিদ্যুৎ নির্মাণ প্রকল্প অনুমোদন দিয়েছে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি (একনেক)। মাতারবাড়ি প্রকল্পের অধীনে মহেশখালির মাতারবাড়ি ও ধলঘাটা ইউনিয়নে ৬শ' মেঘাওয়াট করে ১২শ' মেগাওয়াটের দুটি আলট্রাসুপার ক্রিটিক্যাল কোল ফায়ার্ড পাওয়ার প্লান্ট নির্মাণ হবে। প্রকল্পে ব্যয় ধরা হয়েছে ৩৫ হাজার ৯শ' ৮৪ কোটি ৪৬ লাখ টাকা।
- - - - - - -
২। ৪২ জেলের 'খুনি' বাইশ্যা গ্রেফতার
আবদুল হাকিম ওরফে বাইশ্যা ডাকাত। পেশা সাগরে যাওয়া জেলেদের মাছ লুট করা। আর এই মাছ লুট করতে গিয়ে জেলেদের প্রাণও কেড়ে নিত সে। বঙ্গোপসাগরে মাছ ধরতে যাওয়া কুতুবদিয়ার জাহাজখালী এলাকার ৩১ ও বাঁশখালীর ১১ জেলেকে হত্যা করে সাগরে ভাসিয়ে দেওয়ার নির্মমতা এখনও চোখে ভাসে ওই এলাকার মানুষের।
- - - - - - -
৩। বদির অবৈধ সম্পদের প্রমাণ পেয়েছে দুদক
আবদুর রহমান বদি এমপির নামে অবৈধ সম্পদের তথ্য-প্রমাণ পেয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। অনুসন্ধান কর্মকর্তা আবদুস সোবহান এরই মধ্যে বদির সম্পদের অনুসন্ধান শেষ করে সোমবার বিশেষ অনুসন্ধান ও তদন্ত বিভাগের পরিচালক নূর আহম্মদের কাছে অনুসন্ধান প্রতিবেদন পেশ করেছেন।

২০১৫
=====
১। প্রকৌশলীকে পেটালেন আবদুর রহমান বদি!


উখিয়া উপজেলা প্রকৌশলী (এলজিইডি) মোস্তফা মিনহাজকে তার অফিসে ঢুকে সংসদ সদস্য আবদুর রহমান বদি বেধড়ক মারধর করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। বুধবার বেলা ১১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। প্রত্যক্ষদর্শীর সূত্রে জানা যায়, সকালে উখিয়া উপজেলা পরিষদের মাসিক সমন্বয় সভা ছিল। ১১টার দিকে উখিয়া-টেকনাফ আসনের সংসদ সদস্য আবদুর রহমান বদি সভাকক্ষে ঢুকে প্রকৌশলীকে না দেখে উপজেলা অফিসে কর্মরত পিয়ন সিরাজুল হককে দিয়ে প্রকৌশলীকে ডেকে পাঠান। তিনি আসতে বিলম্ব হওয়ায় সংসদ সদস্য সভাকক্ষ ত্যাগ করে উপজেলা প্রকৌশলীর অফিস কক্ষে ঢুকে প্রকৌশলী মোস্তফা মিনহাজকে এলোপাতাড়ি মারধর করে পাঁচ মিনিটের ব্যবধানে আবার সভাকক্ষে চলে আসেন।
এ সময় প্রকৌশলী মোস্তফা মিনহাজও সভাকক্ষে উপস্থিত হন। এ ব্যাপারে মুঠোফোনে প্রকৌশলী মোস্তফা মিনহাজের নিকট জানতে চাওয়া হলে তাকে এমপি বদি মারধর করার কথা স্বীকার করে বলেন, পাঁচ মিনিট সভায় যোগদান করতে বিলম্ব হওয়ায় ক্রোধের বশবর্তী হয়ে এমপি সাহেব তাকে মারধর করেছে।
- - - - - - -
২। সেন্সরশিপ নয়, ব্লগারদের সুরক্ষা দিন: এইচআরডব্লিউ


বাংলাদেশে ব্লগারদের স্ব-আরোপিত সেন্সরশিপে উদ্বুদ্ধ না করে বাক স্বাধীনতার পরিবেশ নিশ্চিত করতে আহ্বান জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক মানবাধিকার সংগঠন হিউম্যান রাইটস ওয়াচ। বুধবার সংগঠনটির এক বিবৃতিতে এই আহ্বান জানানো হয়। একই সাথে ব্লগারদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে এবং বাক স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ কারীদের বিচারের আওতায় আনারও দাবি জানিয়েছে সংগঠনটি। সম্প্রতি পুলিশের মহাপরিদর্শক বাংলাদেশে ব্লগারদেরকে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত না হানার যে পরামর্শ দেন, তার তীব্র সমালোচনা করা হয়েছে এই বিবৃতিতে।
সংগঠনটির এশিয়া অঞ্চলের পরিচালক ব্রাড অ্যাডামস বলছেন, “এটা খুবই হতাশাজনক। বাংলাদেশের কর্তৃপক্ষ নিরাপত্তার হুমকি থাকা সত্ত্বেও ব্লগারদের নিরাপত্তা দিতে ব্যর্থ হয়েছে শুধু তাই নয়, উল্টো তাদের লেখালেখিতে সেল্ফ সেন্সরশিপ বা আত্ম-নিয়ন্ত্রণের প্রস্তাব দিচ্ছে।” তিনি মন্তব্য করেন, সরকারের মনে রাখা উচিত ধর্মীয় স্বাধীনতার পাশাপাশি সংবিধান সমুন্নত রাখা এবং মানুষের জীবনের নিরাপত্তা দেয়াও তাদের দায়িত্ব।
বাংলাদেশে এবছর এ পর্যন্ত চার জন ব্লগারের হত্যার ঘটনা ঘটেছে। ইসলাম বিরোধী এবং নাস্তিক অভিযোগে চিহ্নিত করে উগ্র মৌলবাদীরা যে ৮৪ জন ব্লগারের তালিকা তৈরি করেছিল তাতে এই চারজনেরই নাম ছিল।
- - - - - - -
৩। ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দিলে প্রচলিত আইনে ব্যবস্থা: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দিয়ে লেখালেখি করলে ব্লগারদের বিরুদ্ধে প্রচলিত আইনে ব্যবস্থা নেয়া হবে। তিনি বলেন, ‘কোনো ধর্ম নিয়েই কটূক্তি করা যাবে না।’ নিলয় হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় মামলার তদন্তের ব্যাপারে তিনি বলেন, আমাদের কাছে যথেষ্ট ক্লু রয়েছে। আমরা অনুমান নির্ভর কিছু করতে চাই না। কাউকে গ্রেফতার করতে চাই না। তথ্য প্রমাণের ওপর ভিত্তি করে আমরা ব্যবস্থা নেব।
ব্লগার নীলাদ্রি যে থানায় জিডি করতে গিয়েছিলেন, সে থানার ওসি জিডি না নিয়ে তাকে বিদেশে চলে যেতে বলেছিলেন বলে পুলিশের তদন্তে প্রমাণিত হয়েছে। তারপরও কোন খুঁটির জোরে তিনি স্বপদে বহাল রয়েছেন— সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, যদি এমন কিছু প্রমাণ হয়ে থাকে, তাহলে আমরা ব্যবস্থা নেব।
- - - - - - -
৪। ছাত্রদল সভাপতি রাজীব ১৬ দিনের রিমান্ডে
পল্টন থানায় দায়েরকৃত আট মামলায় ছাত্রদলের সভাপতি রাজীব আহসানের ১৬ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। এর আগে এসব মামলায় ১০ দিন করে মোট ৮০ দিনের রিমান্ড আবেদন করে পুলিশ। শুনানি শেষে প্রত্যেক মামলায় দুই দিন করে মোট ১৬ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে আদালত।
- - - - - - -
৫। 'রাজনৈতিক কারণে জিএসপি সুবিধা বাতিল হয়নি'
রাজনৈতিক কোনো কারণে বাংলাদেশের জিএসপি সুবিধা বাতিল করা হয়নি জানিয়ে মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্সিয়া স্টিফেন ব্লুম বার্নিকাট বলেছেন, ‘যে ১৬টি শর্ত দেয়া হয়েছে তা পূরণ করতে পারেনি বলেই জিএসপি সুবিধা ফিরিয়ে দেয়া হয়নি।’
- - - - - - -
৬। চার দেশের মধ্যে বিজনেস করিডোর গড়ে তোলার প্রস্তাব মমতার
পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী ভারত, বাংলাদেশ, নেপাল এবং ভুটানের মধ্যে বিজনেস করিডোর গড়ে তোলার প্রস্তাব দিয়েছেন। নয়াদিল্লীতে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সাথে তার কার্যালয়ে বৈঠককালে তিনি এই প্রস্তাব করেন বলে সাংবাদিকদের জানান। তিনি বলেন, এই চারটি দেশের মধ্যে ব্যবসা-বাণিজ্যের প্রসারের জন্যে লুক ইস্ট পলিসি অনুসরণ করে এই বিজনেস করিডোর করা হলে সব’কটি দেশের জন্যেই ভালো হবে। মমতা বলেন, তিনি প্রস্তাব করেছেন এখন প্রধানমন্ত্রী সিদ্ধান্ত নেবেন।
- - - - - - -
৭। বেসিক ব্যাংক কেলেঙ্কারি ; ২০ প্রতিষ্ঠানের নামে ৬শ' কোটি টাকা লোপাট
বেসিক ব্যাংক কেলেঙ্কারিতে ২৪টি ঋণ প্রস্তাবের নামে লোপাট করা হয়েছে ৬০০ কোটি টাকা। ব্যাংকের ঋণ যাচাই কমিটির (ক্রেডিট কমিটি) কোনোরূপ সংশ্লিষ্টতা ছাড়াই ২০১২ সালের এপ্রিল থেকে জুলাই পর্যন্ত চার মাসে পাঁচটি বোর্ড সভায় ওই ৬০০ কোটি টাকার ঋণের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। ব্যাংকের সাবেক চেয়ারম্যান শেখ আবদুল হাই বাচ্চু প্রভাব খাটিয়ে ২৪টি প্রতিষ্ঠানের নামে ঋণের অনুমোদন দিয়ে ওই পরিমাণ টাকা ছাড় করিয়েছেন।
- - - - - - -
৮। গণতন্ত্র খুঁজে পাচ্ছেন না সামরিক শাসকদের পরামর্শকরা : প্রধানমন্ত্রী
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, যারা দেশে গণতন্ত্র নেই বলছেন, তাদের অনেকেই অতীতে উর্দি পরা সামরিক শাসকের পরামর্শক ছিলেন। অবাধ তথ্য প্রবাহের সুযোগ নিয়ে সামরিক শাসনের এসব সুবিধা ভোগীরা এখন দেশে গণতন্ত্রের শিক্ষা দিচ্ছেন। যেসব বিকৃত তথ্য সমাজের ক্ষতি করে, মানুষকে বিভ্রান্ত করে তা বন্ধ করতে তিনি সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি নির্দেশ দেন।
সার্কিট হাউজ রোডে চলচ্চিত্র ও প্রকাশনা অধিদপ্তর প্রাঙ্গণে তথ্য ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন। রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর মধ্যে ক্ষমতার ভারসাম্য আনতে যারা সংবিধান সংশোধনের কথা বলেছেন তাদের প্রতি ইঙ্গিত করে প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, তারা যখন এই কথাগুলো বলেন, তখন তাদের অতীত চেহারাগুলো আমার সামনে চলে আসে। তারাই এক সময় অবৈধভাবে ক্ষমতা দখলকারী মিলিটারি ডিকটেটরদের উপদেষ্টা ছিলেন, কেউ তাদের সাথে চাকরি করেছেন আবার কেউ তাদের একটু করুণা ভিক্ষার জন্য ধরনা দিয়ে পড়ে থেকেছেন, পদলেহন করেছেন। তখন কিন্তু তাদের এই চেতনাগুলো ছিল না।

২০১৬
======
১। ৩ মাস পর ঢাকায় তুরস্কের রাষ্ট্রদূত


তিনমাস পর তুরস্কের আঙ্কারা থেকে ফিরেছেন ঢাকায় নিযুক্ত তুর্কি রাষ্ট্রদূত ডেভরিম ওসতুর্ক। যুদ্ধাপরাধী জামায়াত নেতা মতিউর রহমান নিজামীর ফাঁসি কার্যকরের পর ‘পরিস্থিতি পর্যালোচনার জন্য’ তাকে ডেকে নিয়েছিল আঙ্কারা। দু’দিন আগে তুরস্কে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত আল্লামা সিদ্দিকিও আঙ্কারায় ফিরে কাজে যোগ দেন। ওসতুর্ককে তুরস্ক ফিরিয়ে নেওয়ার প্রেক্ষাপটে আল্লামা সিদ্দিকিকেও ঢাকায় ফিরিয়ে আনা হয়েছিল।
- - - - - - -
২। দেশে আইএস নামে কোন জঙ্গি সংগঠন নেই: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, 'দেশে আইএস নামে কোন জঙ্গি সংগঠন নেই।'
আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, 'দেশের এ মাথা থেকে ও মাথা পর্যন্ত আমরা ঘুরে দেখেছি, আইএস'র কোন অস্তিত্ব নেই। রাজধানীর গুলশান ও শোলাকিয়াসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে যে জঙ্গি হামলা করে বিদেশীদের হত্যার ঘটনা ঘটেছে আমাদের আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তা সাহসিকতার সাথে মোকাবেলা করেছে।
- - - - - - -
৩। বিএনপি ছাড়লেন মহিউদ্দিন খান মোহন
বিএনপির সাবেক সহপ্রচার সম্পাদক মহিউদ্দিন খান মোহন দল থেকে পদত্যাগ করেছেন। সদ্য ঘোষিত নতুন কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটিতে তাকে কোনো পদেই রাখা হয়নি। মুন্সীগঞ্জ জেলা বিএনপির কার্যালয়ে ও দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বরাবর পাঠানো চিঠিতে তিনি উল্লেখ করেন, বিএনপিতে মূল্যায়ন ও নিষ্ঠার দাম নেই। তাই প্রায় ৩৮ বছরের সম্পর্ক ছিন্ন করেছেন। তিনি ২০০১-০৬ পর্যন্ত তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার সহকারী প্রেস সচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

২০১৭
======
১। সাজেকে আটকা পড়েছেন কয়েক’শ পর্যটক


বাঘাইছড়ির বাঘাইহাট ও কাচালং এলাকায় বন্যার পানিতে সড়ক তলিয়ে যাওয়ায় সাজেকে ভ্রমণে যাওয়া কয়েক’শ পর্যটক আটকা পড়েছেন
এদিকে সড়ক বন্ধ থাকার কারণে শুক্রবার সাজেক গিয়ে আটকা পরেছে পর্যটবাহী কমপক্ষে ১২০টি গাড়ি। সাজেকের হেডম্যান এল. থাঙা লুসাই জানান, যোগাযোগ সমস্যার কারণে পর্যটকদের খাবার ও ব্যবহার্য পানির সংকটও প্রকট আকার ধারণ করেছে।
- - - - - - - -
২। রায় নিয়ে সরব রাজনীতি
সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের রায় ও আপিল বিভাগের পর্যবেক্ষণ নিয়ে সরব গোটা রাজনৈতিক অঙ্গণ। অরাজনৈতিক অঙ্গণেও চলছে এনিয়ে তুমুল আলোচনা-সমালোচনা। মোটকথা, দেশের প্রায় সর্বত্র এখন আলোচনার কেন্দ্রে এই বিষয়টি-ই। রায়ে সংক্ষুব্ধ ক্ষমতাসীন দলের নেতা-মন্ত্রীরা পর্যবেক্ষণের বিভিন্ন বিষয় ও প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহার প্রকাশ্য সমালোচনা করছেন। অন্যদিকে এই রায় ও পর্যবেক্ষণে উচ্ছ্বাস প্রকাশ পাচ্ছে বিএনপিসহ দলটির সমমনাদের বক্তব্য-মন্তব্যে। এনিয়ে তক্কাতক্কির প্রতিযোগিতায় রাজনীতির মাঠ থেকে উধাও হয়ে গেছে অন্য প্রায় সব ইস্যু।
- - - - - - - -
৩। ‘ষোড়শ সংশোধনী আইন বাতিলের রায়ের বিরুদ্ধে রিভিউ করা হবে’
অ্যার্টনি জেনারেল মাহবুবে আলম বলেছেন, ষোড়শ সংশোধনী আইন বাতিলের রায়ের বিরুদ্ধে রিভিউ অথবা এক্সপানশনের মাধ্যমে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এ ব্যপারে যত দ্রুত সম্ভব আইন মন্ত্রণালয় সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবে।
- - - - - - - -
৪। 'সংসদ অবৈধ হলে প্রধান বিচারপতির নিয়োগ অবৈধ'
প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহাকে উদ্দেশ্য করে শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু বলেছেন, বর্তমান সংসদ অবৈধ হলে প্রধান বিচারপতি হিসেবে আপনার নিয়োগও অবৈধ। তিনি বলেন 'বাংলাদেশ স্বাধীন না হলেও আওয়ামী লীগ এই দেশে মাথা উঁচু করে থাকতো। কিন্তু দেশ স্বাধীন না হলে আপনি প্রধান বিচারপতি হতে পারতেন না।'
- - - - - - - -
৫। যুদ্ধাপরাধ মামলার ফাঁসির আসামি গ্রেফতার
২০১৬ সালের ৩মে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল '৭১ সালে করিমগঞ্জে সংঘটিত হত্যা, অপহরণ ও অগ্নিসংযোগের মামলায় হাফিজউদ্দিনসহ চারজনকে মৃত্যুদণ্ড এবং একজনকে আমৃত্যু কারাদণ্ডাদেশ প্রদান করেন।
- - - - - - - -
৬। আপন জুয়েলার্সের বিরুদ্ধে মুদ্রাপাচার আইনে ৫ মামলা
আপন জুয়েলার্সের প্রায় ১৫ মণ স্বর্ণালঙ্কার ও হীরা আটকের ঘটনায় প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে মুদ্রাপাচার প্রতিরোধ আইনে পাঁচটি মামলা হয়েছে।
গত ২৮ মার্চ রাতে রাজধানীর বনানীর 'দ্য রেইনট্রি' হোটেলে পূর্বপরিচিত সাফাত আহমেদের জন্মদিনের অনুষ্ঠানে গিয়ে রাতভর ধর্ষণের শিকার হন বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই ছাত্রী। ধর্ষণের ঘটনার ভিডিওচিত্র ধারণ করে ঘটনার এক নম্বর আসামি আপন জুয়েলার্সের অন্যতম মালিক দিলদার হোসেনের ছেলে সাফাতের গাড়িচালক বিল্লাল হোসেন। আরেক ধর্ষক নাঈম আশরাফ। দুই ধর্ষকের সহযোগী সাদমান সাকিফ 'রেগনাম গ্রুপের' ব্যবস্থাপনা পরিচালক। অপর আসামি আবুল কালাম আজাদ হলো সাফাতের দেহরক্ষী। ধর্ষক ও তাদের সহযোগীদের অব্যাহত হুমকি ও লোকলজ্জায় এক মাসের বেশি সময় পর ৬ মে দুই ছাত্রী বনানী থানায় মামলা করেন।
ওই ঘটনার পর দেশজুড়ে তোলপাড় শুরু হলে আসামিদের গ্রেফতার করে রিমান্ডে নেওয়া হয়। পরে আপন জুয়েলার্স থেকে জব্দ করা হয় ১৫ দশমিক ৩ মণ সোনা এবং ৭ হাজার ৩৬৯টি হীরার অলঙ্কার। এরপর এগুলো গত জুনে কেন্দ্রীয় ব্যাংকে পাঠায় শুল্ক গোয়েন্দা অধিদফতর। মজুদ এসব সোনা-গহনার বৈধতার কোনো কাগজপত্র দেখাতে না পারায় জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের নির্দেশনায় আপন জুয়েলার্সের বিরুদ্ধে এই মামলাগুলো করা হয়েছে বলে শুল্ক গোয়েন্দা অধিদফতর জানিয়েছে।

২০১৮
======


সূচীপত্র:→ বাংলাদেশ: ফিরে দেখা

________________
তথ্য ও ছবিসূত্র:
দৈনিক ইত্তেফাক, দৈনিক প্রথম আলো, দৈনিক সমকাল, দৈনিক যুগান্তর এবং অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ সংবাদ মাধ্যম।
বাংলাদেশের তারিখ : বিচারপতি মুহাম্মদ হাবিবুর রহমান।
বাংলাদেশের ইতিহাস সংক্রান্ত বিভিন্ন বই-পুস্তক ও পত্রপত্রিকা।
ইন্টারনেট, উইকিপিডিয়া, বাংলাপিডিয়া।
সর্বশেষ এডিট : ১৫ ই আগস্ট, ২০১৮ সকাল ৮:৪৯
৩টি মন্তব্য ৩টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

কাজে যোগদান ভুল হচ্ছে, ইউরোপ আমেরিকায় শীপমেন্ট বন্ধ থাকার কথা

লিখেছেন চাঁদগাজী, ০৫ ই এপ্রিল, ২০২০ দুপুর ২:১৭



গত ৪০ বছরে, গার্মেন্টস'এর মালিকরা ও অন্যান্য মধ্যভোগীরা যেই পরিমাণ সম্পদের মালিক হয়েছে, তাতে তাদের কর্মচারীদের বিনা কাজে ২/১ বছর মিনিমাম বেতন দেয়ার ক্ষমতা তারা রাখে। গার্মেন্টস'এর... ...বাকিটুকু পড়ুন

আল্লাহ কেলা?

লিখেছেন মোহাম্মাদ আব্দুলহাক, ০৫ ই এপ্রিল, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:০৮




মানুষ মারার সব আছে, আহত অথবা অসুস্থ মানুষকে সম্পূর্ণ সুস্থ করার কিচ্ছু নেই। কেন জানেন? আঁতেলরা বলেন, মানুষ মানুষকে মারতে পারে, মানুষ মানুষকে বাঁচাতে পারে ন। জন্ম মৃত্যু মুসলমানদের... ...বাকিটুকু পড়ুন

— করোনার সাথে পথে চলতে চলতে———

লিখেছেন ওমেরা, ০৫ ই এপ্রিল, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:২২



সারা পৃথিবী লক-ডাউন হয়ে আছে কভিড- ১৯ করোনা আতংকে। মানুষের প্রতিটা মূহুর্ত কাটছে ভয় আর উৎকন্ঠায়। এই মূহুর্তে সম্ভবত পৃথিবীর একমাত্র ব্যাতিক্রম দেশ,সেই দেশের বাসিন্দা আমি, নাম তার... ...বাকিটুকু পড়ুন

থটস

লিখেছেন জেন রসি, ০৫ ই এপ্রিল, ২০২০ রাত ১১:৪৬





১৮৪৬ সালে মার্কস এবং এঙ্গেলস মিলে “The German Ideology” নামে একটা বইয়ের পান্ডুলিপি লিখেছিলেন। কিন্তু বইটা প্রকাশিত হয় ১৯৩২ সালে। এই বইতে তারা শুধু ভাববাদকেই না ফয়েরবাখের... ...বাকিটুকু পড়ুন

শেখ হাসিনা কমপক্ষে গার্মেন্টস'এর ছুটিটা নিজ হাতে কন্ট্রোল করতে পারতো

লিখেছেন চাঁদগাজী, ০৫ ই এপ্রিল, ২০২০ রাত ১১:৫২



শেখ সাহেব জানতেন যে, উনার মেয়ে বুদ্ধিমতি নন, সেজন্য মেয়েকে রাজনীতিতে আসতে দেননি; কিন্তু রাইফেল জিয়া শেখ হাসিনার জন্য পথ রচনা করে গেছে। কমবুদ্ধিমানরা অনেক সময় খুবই নিবেদিত... ...বাকিটুকু পড়ুন

×