somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

বাংলাদেশ: ফিরে দেখা ১৪ আগস্ট

১৪ ই আগস্ট, ২০১৮ রাত ১০:০৩
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :


সহজলভ্য রেফারেন্সের অভাবে বাংলাদেশের ইতিহাসের অনেক ঘটনা বিভিন্ন ব্যক্তি বিভিন্নভাবে বিশ্লেষণ করেন। এতে ইচ্ছায় বা অনিচ্ছায় বাংলাদেশের ইতিহাস বিকৃত হচ্ছে, সৃষ্টি হচ্ছে অসংখ্য বিতর্কের। তাই ইতিহাসের উল্লেখযোগ্য ঘটনার তথ্য সহজলভ্য করার উদ্দেশ্যে 'ফিরে দেখা বাংলাদেশ' সিরিজ। প্রায় সব তথ্য যাচাই-বাচাই করে দেশের প্রধান সংবাদপত্রসমূহ থেকে নেয়া হয়েছে। বাংলাদেশের ইতিহাসে ১৪ আগস্ট ঘটে যাওয়া উল্লেখযোগ্য রাজনৈতিক ও সামাজিক ঘটনাবলি:

১৯৭৪
====
যুক্তরাষ্ট্র কর্তৃক বাংলাদেশকে ৪ মিলিয়ন ডলার এককালীন বরাদ্দ।

১৯৭৫
====
আগামীকাল অনুষ্ঠিতব্য প্রেসিডেন্টের সংবর্ধনা উপলক্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ব্যাপক প্রস্তুতি। বাংলাদেশে নিযুক্ত ব্রিটিশ হাইকমিশনারের সঙ্গে বাণিজ্যমন্ত্রী খন্দকার মুশতাক আহমেদের বৈঠক।

১৯৭৬
====
রাঙ্গামাটিতে বিধিবদ্ধ রেশনিং চালু।

১৯৭৮
====
হলিফ্যামিলি হাসপাতালে ডাক্তার ধর্মঘট।

১৯৭৯
====
সৈয়দপুর থেকে অবাঙালিদের লংমার্চ ব্যর্থ। পুলিশের সাথে সংঘর্ষ।

১৯৮৯
====
১। প্রেসিডেন্ট এরশাদের ইরাক সফর।
- - - - - - - -
২। বেতন কমিশন গঠিত।
- - - - - - - -
৩। ডাঃ মতিনের পদত্যাগপত্র গৃরহীত।

১৯৯০
====
ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভাঙচুর, পুলিশ মোতায়েন।

১৯৯১
====
১। জাতীয় সংসদের বাজেট অধিবেশন শেষ।
- - - - - - - -
২। কাউন্সিলের মাধ্যমে বাকশাল আওয়ামী লীগে যোগ দেয়।

১৯৯২
=====
খুলনায় ছাত্রলীগ কর্মী শিপুল নিহত।

১৯৯৪
=====
উত্তরাঞ্চলে খরা।

১৯৯৫
=====
ঢাকা বিশ্ববিদয়ালয়ে ডিন নির্বাচনে সাদা দলের জয়।

১৯৯৬
=====
রাষ্ট্রীয় পর্যায়ে প্রথম জাতীয় শোকদিবস পালন।

১৯৯৮
=====
১। বঙ্গোপসাগরে ২১টি ট্রলার ও নৌকা নিখোঁজ।
- - - - - - - -
২। ঢাকাস্থ মার্কিন দুতাবাসে বোমা হামলার হুমকি।
- - - - - - - -
৩। বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার বন্ধ করার জন্য মার্কিন দূতাবাসকে হস্তক্ষেপের অনুরোধ, গ্রেপ্তার ১।
- - - - - - - -
৪। পঞ্চগড়ে ৯ তরুণীকে গণধর্ষণ, ১১ দিন পরে পুলিশ মামলা নিয়েছে।

১৯৯৯
=====
৯টি বেসরকারি ব্যাংকের খেলাপি ঋণ ২৫০০ কোটি টাকা।

২০০০
=====
বঙ্গবন্ধু হত্যার সঙ্গে জড়িত ১১ জন বিদেশে পলাতক। ।

২০০১
=====
১। 'এবার বিদায় নিলে আগামী চল্লিশ বছরেও আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসতে পারবে না।'—কৃষক লীগের গিয়াসউদ্দিন চৌধুরী ও জাতীয় পার্টির আবু লেইস মুবিন চৌধুরীর বিএনপিতে যোগদান উপলক্ষে খালেদা জিয়া।
- - - - - - - -
২। তারেক জিয়া, সাঈদ ইস্কান্দার, মীর্জা আব্বাস, আমানুল্লাহ আমান, জিয়াউল হক জিয়া, নাজিম উদ্দীন আলম, মুজিবুর রহমান সারোয়ার, আবুল খায়ের ভুইঁয়া, আলমগীর কবীর, ইলিয়াস আলী, পিন্টু, লাল্টুকে অবিলম্বে গ্রপ্তার করার দাবি জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, 'সন্ত্রসীদের লালন-পালনকারী এই সকল ব্যক্তিদের বাইরে রেখে নির্বাচন অবাধ, নিরপেক্ষ ও সুষ্ঠু হতে পারে না।'
- - - - - - - -
৩। লক্ষীপুর আওয়ামী লীগের নেতা আবু তাহেরসহ ৭ জনকে ইতোপূর্বে মঞ্জুরকৃত আগাম জামিন হাইকোর্ট বাতিল করেছে।

২০০২
=====
বিদ্যুতের দাম ইউনিট প্রতি পাঁচ শতাংশ বৃদ্ধি।

২০০৩
=====
যমুনা সেতুর ওপর দিয়ে রাজশাহী জয়দেবপুরে ট্রেন চলাচল শুরু।

২০০৪
=====
রাঙামাটিতে সন্ত্রসীদের গুলিতে মৌজাপ্রধান অংকাছা নিহত।

২০০৫
=====
১। বিএনপি নেতা ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী জামালউদ্দিনকে হত্যা করা হয় : গ্রেফতারকৃত শহীদ চেয়ারম্যানের স্বীকারোক্তি
- - - - - - - -
২। প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর একটি ওষুধনীতির কপি উপহার। দেশে চাহিদার ৯৬ ভাগ ওষুধ প্রস্তুত এবং বিশ্বের ৬২ দেশে ওষুধ রপ্তানি।
- - - - - - - -
৩। বাংলার গণ আদালতেই জোট সরকারের বিচার হবে : শেখ হাসিনা
- - - - - - - -
৪। ব্রাহ্মণবাড়িয়া আহমদিয়াদের ওপর বোমাহামলা। খতমে নবুয়তের দুই সদস্য গ্রেফতার।
- - - - - - - -
৫। রাজধানীতে মরণনেশা ইয়াবা চালু।
- - - - - - - -
৬। পাবনার চরমপন্থী ফিরোজ মল্লিক ও বাবুল খাঁ ক্রসফায়ারে নিহত।

২০০৬
=====
১। বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘরে বড় ধরনের নাশকতার চেষ্টা ব্যর্থ


ধানমন্ডি ৩২ নম্বর বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘরে বড় ধরনের নাশকতামূলক ঘটনার চেষ্টা ব্যর্থ হয়ে যায়। ঘটনার মূল পরিকল্পনাকারীদের অন্যতম এক সদস্যসহ ৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃত জঙ্গী সদস্য নূরুন্নবী স্বীকার করে যে, সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিরোধী দলীয় নেতা শেখ হাসিনা এবং তার ছোট বোন শেখ রেহেনাকে হত্যা করার উদ্দেশ্যে সেখানে নাশকতামূলক ঘটনার পরিকল্পনা করা হয়। এই ঘটনার পর ১৫ আগস্ট উদযাপন উপলক্ষে সকল এলাকার কাঙ্গালীভোজসহ সকল কার্যক্রমের কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা আরো জোরদার করা হয়েছে।
সকাল ১০টায় দর্শনার্থী টিকেট নিয়ে নূরুন্নবীসহ তিন যুবক বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘরে প্রবেশ করে এবং পিছনের নির্মাণাধীন ভবনের বৈদ্যুতিক তার কাটার সময় কর্তব্যরত কর্মচারীরা তা দেখে ফেলেন। তারা প্লাসসহ নূরুন্নবীকে আটক করে। অপর ২ জন পালিয়ে যায়। নিরাপত্তাকর্মীরা নূরুন্নবীকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করে। জিজ্ঞাসাবাদে নূরুন্নবী জানায়, সে মাদ্রাসার ছাত্র ছিল এবং পরে তাবলীগে যোগদান করে।
- - - - - - - -
২। বকেয়া বেতনের দাবীতে কুড়িলে গার্মেন্টস শ্রমিক-পুলিশ সংগর্ষ, শতাধিক গাড়ি ভাঙচুর, আহত ৫০।
বাড্ডা প্রগতি সরণি ও এয়ারপোর্ট রোড মোড়ে দু’টি গার্মেন্টসের ৫ শতাধিক শ্রমিকের সড়ক অবরোধ নিয়ে প্রায় তিন ঘন্টা সংঘর্ষ হয়। পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে ডিসি (উত্তর) ওবায়দুর রহমান ও ৭ পুলিশসহ অর্ধ শতাধিক শ্রমিক আহত হয়। ১০/১২টি যানবাহন ভাংচুরের ঘটনা ঘটে। এর ফলে এয়ারপোর্ট ও প্রগতি সরণিতে অসহনীয় যানজটের সৃষ্টি হয়। উত্তরা, বিমানবন্দর, দক্ষিণখান, খিলক্ষেত, ক্যান্টনমেন্ট, গুলশান, বাড্ডা ও তেজগাঁয় সকল ধরনের যানবাহন চলাচল দুপুর পর্যন্ত বন্ধ থাকে। জোয়ারসাহারা এলাকায় টিআরএফ ও লিমন গার্মেন্টসের শ্রমিকদের দুই মাস যাবৎ বেতন-ভাতা বন্ধ থাকে। তাদের বেতন-ভাতার দাবিতে সকাল পৌনে ৯টায় ২টি গার্মেন্টসের শ্রমিকরা প্রগতি সরণির মোড়ে এসে সড়কে অবস্থান নেয়। প্রগতি সরণি ও এয়ারপোর্ট রোডে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।
- - - - - - - -
৩। ঠাকুরগাঁওয়ের বৈরচুনা সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে দু'জন বাংলাদেশি নিহত।
- - - - - - - -
৩৪ নিরাপত্তাজনিত কারণে ঢাকায় জিয়া এয়ারপোর্টে তরল দ্রব্য, হাতব্যাগ বহন নিষিদ্ধ।

২০০৭
=====
১। আমদানী ব্যাংক ঋণের সুদের হার কমিয়ে ১২ শতাংশ।
- - - - - - - -
২। খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে দুদকের অনুসন্ধান শুরু।
- - - - - - - -
৩। রাজশাহীতে প্রধান উপদেষ্টার ভোটার তালিকার উদ্বোধন : নির্বাচন নিয়ে দ্বিধার কোনো অবকাশ নেই।
- - - - - - - -
৪। ভোটকেন্দ্রে ত্রাস ও চাঁদাবাজির জন্য সাবেক বিএনপি সাংসদ নাদিম মোস্তফাসহ ১৫ জনের ১০ বছর করে জেল।

২০০৮
=====
১। দুর্নীতি মামলায় দণ্ডিত ৯৮ ব্যক্তির মধ্যে বিএনপির ৪১ জন আওয়ামী লীগের ২৫
দুর্নীতির অভিযোগে এ পর্যন্ত ১১৩৯ জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়। এর মধ্যে দুদকের ৪২৯টি মামলা। অন্যান্য সংস্থার ৭১০টি। বর্তমানে তদন্ত চলছে ৬৭৮টি।
দুর্নীতির মামলায় এ পর্যন্ত সাজাপ্রাপ্ত ৯৮ ব্যক্তির মধ্যে ৪১ জনই বিএনপির সাবেক মন্ত্রী, এমপি ও বিভিন্নস্তরের নেতা এবং তাদের পরিবারের সদস্য। বাকি ৫৭ জনের মধ্যে আওয়ামী লীগের সাবেক মন্ত্রী, এমপি ও বিভিন্নস্তরের নেতা এবং তাদের পরিবারের সদস্য মিলিয়ে রয়েছেন ২৫ জন। এ পর্যন্ত সর্বাধিক ৬টি মামলায় সর্বোচ্চ ৪৮ বছর কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে দৈনিক জনকণ্ঠের সম্পাদক আতিকউল্লাহ খান মাসুদকে। গত বছর ২০০৭সালের ১১ জানুয়ারি (ওয়ান ইলেভেন নামে পরিচিত) থেকে চলতি বছর ২০০৮ সালের ১০ আগস্ট পর্যন্ত নিষ্পন্ন হওয়া দুর্নীতির মামলাসমূহ পর্যালোচনা করে এই তথ্য পাওয়া গেছে।
এদিকে দুদকের একটি সূত্র ইত্তেফাককে জানিয়েছে, ওয়ান ইলেভেনের পর থেকে এ পর্যন্ত ১ হাজার ১৩৯ ব্যক্তির বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগে মামলা হয়েছে। এর মধ্যে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) দায়ের করেছে ৪২৯টি মামলা এবং বাকি ৭১০টি মামলা করেছে সংশ্লিষ্ট অন্যান্য সংস্থা। দুর্নীতির মামলাগুলোর মধ্যে বর্তমানে তদন্ত চলছে ৬৭৮টির। অন্যদিকে গত বছরের ১১ জানুয়ারির পর দুদক এ পর্যন্ত ৩৭০ ব্যক্তির কাছে সম্পদের হিসাব চেয়েছে। এর মধ্যে গত ১০ আগস্ট পর্যন্ত সম্পদের হিসাব দিয়েছেন ২৯৪ ব্যক্তি। হিসাব না দেয়া বাকি ৭৬ ব্যক্তির মধ্যে ১১ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছে দুদক এবং এর মধ্যে ৬ জন ইতিমধ্যেই বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ডে দণ্ডিত হয়েছেন। এছাড়া দুর্নীতির মামলায় গত ১০ আগস্ট পর্যন্ত সর্বমোট ৯৮ ব্যক্তির বিরুদ্ধে দণ্ডাদেশ দিয়েছে আদালত। এর মধ্যে বেশ কয়েকজন একাধিক মামলায় সাজাপ্রাপ্ত হয়েছেন।
- - - - - - - -
২। পরীক্ষা চলাকালে ছাত্র বহিষ্কারের জের : ঢাকা ও বাংলা কলেজের ছাত্রদের সংঘর্ষে আহ্ত ১০, গাড়ি ভাংচুর।
- - - - - - - -
৩। খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের মুক্তির ব্যাপারে অগ্রগতি হচ্ছে : তিন উপদেষ্টা

২০০৯
=====
১। বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত জঙ্গি যুক্তরাষ্ট্রে দোষী সাব্যস্ত
সন্ত্রাসবাদে সহযোগিতার দায়ে এহসানুল হক সাদেকী (২৩) নামের বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত এক মার্কিন নাগরিককে দোষী সাব্যস্ত করেছেন সে দেশের আদালত। তাঁর বিরুদ্ধে গুরুত্বপূর্ণ মার্কিন স্থাপনার ভিডিওচিত্র বিদেশে পাঠানো এবং ইউরোপে ‘সহিংস জিহাদি’ ষড়যন্ত্রের অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় আটলান্টার ফেডারেল আদালত এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআই সাদেকীকে ২০০৬ সালের এপ্রিলে ঢাকা থেকে নিয়ে যায়। তখন দেশি-বিদেশি গণমাধ্যমে এই সংবাদ প্রকাশও হয়।

২০১০
=====
১। বঙ্গবন্ধুর ছাত্রত্ব বাতিলের আদেশ প্রত্যাহার


ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বঙ্গবন্ধুর ছাত্রত্ব বাতিলের আদেশ আজ প্রত্যাহার করা হয়েছে। দুপুর ১২টা ২০ মিনিটে বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিতে বিশেষ সভায় বসে। এক ঘণ্টা ২০ মিনিট এ বিষয়ে আলোচনা হয়। পরে বেলা একটা ৪০ মিনিটে বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহারের বিষয়টি সাংবাদিকদের জানান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক।
উপাচার্য জানান, সভায় সিন্ডিকেটের ১৪ জন সদস্য উপস্থিত ছিলেন। তাঁরা সবাই বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহারের পক্ষে মত দেন। তিনি আরও জানান, ১৯৪৯ সালে চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারীদের আন্দোলন যৌক্তিক থাকার পরও কারণ দর্শানোর নোটিশ ছাড়াই শেখ মুজিবুর রহমানকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কার করা হয়। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সেই ভুল সংশোধন করতে এ উদ্যোগ নিয়েছে।
প্রসঙ্গত, ১৯৪৯ সালে চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারীদের জন্য আন্দোলন করতে গিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রত্ব হারিয়েছিলেন শেখ মুজিবুর রহমান। সে সময় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তাঁকে ও অন্য চারজনকে শর্ত সাপেক্ষে ছাত্রত্ব রাখার সুযোগ দিয়েছিল। তবে আজীবন বিদ্রোহী বঙ্গবন্ধু এমন শর্ত মানেননি। এ কারণে বিশ্ববিদ্যালয় তাঁকে বহিষ্কার করে। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে দীর্ঘ ৬১ বছর পর তাঁর বহিষ্কারাদেশ তুলে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় ।
- - - - - - -
২। রাজধানীতে সাংসদের পিস্তলের গুলিতে আওয়ামী লীগ কর্মী নিহত
ভোলা-৩ আসনের সরকারি দলের সাংসদ নুরুন্নবী চৌধুরী শাওনের পিস্তলের গুলিতে ইব্রাহিম আহমেদ (৩৫) নামের সেগুনবাগিচার একজন আওয়ামী লীগ কর্মী নিহত হয়েছেন। গতকাল রাতে সংসদ ভবন চত্বরে সাংসদের গাড়ির ভেতরে এ ঘটনা ঘটেছে। সাংসদের গাড়িচালক কামাল হোসেন পুলিশের কাছে দেওয়া লিখিত অভিযোগে এসব তথ্য জানান।
শেরেবাংলা নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রিয়াজ হোসেন প্রথম আলোকে বলেন, ইব্রাহিমের মৃত্যুর ঘটনায় সাংসদ নুরুন্নবী চৌধুরীর গাড়িচালক কামাল হোসেনের দেওয়া অভিযোগের ভিত্তিতে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। তিনি আরও জানান, থানায় দেওয়া বাদীর বক্তব্য মতে সাংসদের লাইসেন্স করা পিস্তল নাড়াচাড়া করার সময় গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা গেছেন ইব্রাহিম।
- - - - - - -
৪। ছয় মাসে ৪৫২ ছাত্র হল ছেড়েছেন
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন আবাসিক হল থেকে গত ছয় মাসে ৪৫২ জন সাধারণ ছাত্র হল ছেড়েছেন। ছাত্রলীগের চাঁদাবাজি ও ভয়ভীতি প্রদর্শনে অতিষ্ঠ হয়ে এই শিক্ষার্থীরা তাঁদের নামে বরাদ্দ সিট বাতিল করে চলে যান বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। শূন্য হওয়া এসব সিট বরাদ্দ দেওয়ার জন্য দরখাস্ত আহ্বান করা হলেও এর বিপরীতে আবেদনপত্র জমা পড়ছে কম।
এ ব্যাপারে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য এম আবদুস সোবহান বলেন, শিক্ষার্থীরা কী কারণে হল ছাড়ছে, তা খতিয়ে দেখতে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের নির্দেশ দেওয়া হবে। সাধারণ শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হলগুলোতে পুলিশ মোতায়েনের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

২০১১
=====
১। তারেক মাসুদ ও মিশুক মুনীরের প্রতি সর্বস্তরের শ্রদ্ধা : শোক ছাপিয়ে নিরাপদ সড়কের দাবি
খ্যাতিমান চলচ্চিত্রনির্মাতা তারেক মাসুদ এবং বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল এটিএন নিউজের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ও প্রধান সম্পাদক মিশুক মুনীরের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে আজ রোববার শহীদ মিনারে সমবেত হয়েছিল সমাজের সর্বস্তরের মানুষ।
সকাল সাড়ে ১০টার দিকে এই দুই কৃতীর মরদেহ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে নেওয়া হলে সেখানে মানুষের ঢল নামে। সরকারের মন্ত্রী, বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতা, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব থেকে সাধারণ মানুষ, শিক্ষার্থী থেকে শুরু করে সব মতের হাজারো মানুষ হাজির হয়ে তাঁদের প্রতি শেষ শ্রদ্ধা জানায়।
পাশাপাশি শহীদ মিনার থেকেই নিরাপদ সড়কের দাবি জানিয়েছেন বুদ্ধিজীবী, পেশাজীবী ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্বরা। সেই সঙ্গে বিভিন্ন সময় ঘটে যাওয়া সড়ক দুর্ঘটনাগুলোর দায় দেশের জনগণের নয়, এর সব দায় প্রশাসনের বলে অভিযোগ করেছেন তাঁরা। তাঁরা বলেন, প্রায় প্রতিদিনই দুর্ঘটনায় আহত এবং নিহত হচ্ছেন আমাদেরই কোনো না-কোনো প্রিয়জন। সড়ক ব্যবস্থাপনার ক্ষত কোনোভাবেই যেন সারিয়ে তোলা যাচ্ছে না। তাঁরা আরও বলেন, চালকের অদক্ষতা ও ফিটনেসহীন যানবাহনের অবাধ চলাচল, অতিরিক্ত যাত্রীবহন, ত্রুটিপূর্ণ সড়ক, অপরিকল্পিত সেতু-কালভার্ট নির্মাণ, ট্রাফিক ব্যবস্থায় অদক্ষতা সড়ক দুর্ঘটনার মূল কারণ। আর এর জন্য দায়ী প্রশাসন। দক্ষ চালক তৈরি এবং আধুনিক সড়কব্যবস্থা গড়ে তোলার পাশাপাশি জনসচেতনতা সৃষ্টিরও দাবি জানান তাঁরা।
- - - - - - -
২। দুর্ঘটনার জন্য চালকেরা দায়ী নন: শাজাহান খান
সড়ক দুর্ঘটনার জন্য চালকেরা দায়ী নন বলে মন্তব্য করলেন নৌপরিবহনমন্ত্রী ও পরিবহন শ্রমিকনেতা শাজাহান খান। অবৈধভাবে লাইসেন্স নেওয়া অদক্ষ চালকদের কারণে একের পর এক সড়ক দুর্ঘটনায় বহু হতাহতের বিষয় নিয়ে যখন দেশবাসী ক্ষুব্ধ, তখন মন্ত্রী এমন মন্তব্য করলেন। বেসরকারি একটি টেলিভিশন চ্যানেলে প্রচারিত ওই খবরে মন্ত্রী আরও বলেন, যোগাযোগ মন্ত্রণালয় যোগ্য চালকদেরই লাইসেন্স দিয়েছে। পরীক্ষার মাধ্যমেই তাঁরা লাইসেন্স পেয়েছেন। তবে দুর্ঘটনা কার হাতে ঘটবে, এটা বলা যায় না বলেও মন্তব্য করেন তিনি। মন্ত্রী সড়ক দুর্ঘটনার জন্য ভিন্ন ভিন্ন কারণ অনুসন্ধানের সুপারিশ করেন।
- - - - - - -
৩। আরেকটি হারের লজ্জা


ব্যাটসম্যান আর বোলাররা সাধ্যমতো চেষ্টা করে বাংলাদেশকে ‘উপহার’ দিয়েছেন আরেকটা হারের লজ্জা।
তিন দিনের প্রস্তুতি ম্যাচ, সফরের একমাত্র টেস্ট, সিরিজের প্রথম ওয়ানডের পর আজ দ্বিতীয়টিতে বাংলাদেশের হার ৭ উইকেটে। পরাজয়ের বৃত্তেই ঘুরপাক খাচ্ছেন ক্রিকেটাররা।
- - - - - - -
৪। ‘হে আল্লাহ, জালিম সরকারের হাত থেকে দেশকে রক্ষা করো।’—খালেদা জিয়া
বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া বলেছেন, ‘আমরা ইফতারের পূর্বমুহূর্তে আল্লাহর কাছে দোয়া করব, আল্লাহ যেন দেশকে জালিম, অত্যাচারী, দুর্নীতিবাজ সরকারের হাত থেকে রক্ষা করেন।’
আজ রোববার সংসদ ভবনের এলডি হলে ঢাকা মহানগর বিএনপি আয়োজিত ইফতার মাহফিলে খালেদা জিয়া এ কথা বলেন।
- - - - - - -
৫। ১০ আইনজীবীর জামিন নামঞ্জুর করে জেলে পাঠানোর নির্দেশ
এজলাস কক্ষে বিশৃঙ্খলা, হট্টগোল ও পুলিশের কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগে করা দুটি মামলায় আত্মসমর্পণকারী বিএনপি সমর্থক ১০ আইনজীবীর জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে তাঁদের জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।
আজ বেলা একটার দিকে ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম মো. শাহাদৎ হোসেন এ আদেশ দেন। এই আদেশের পরপরই বিএনপি সমর্থক আইনজীবীরা আদালত প্রাঙ্গণে বিক্ষোভ শুরু করেন। আত্মসমর্পণকারী ১০ আইনজীবী হলেন, মোহাম্মদ আলী, মির্জা আল মাহমুদ, মো. আশরাফুজ্জামান খান, কামরুল ইসলাম সজল, আবদুল্লাহ আল মাহমুদ, এনামুল হোসেন গাফফার, মাহমুদ আরেফিন স্বপন, শরীফ উদ্দীন আহম্মেদ, গোলাম নবী ও সহিদুজ্জামান।
- - - - - - -
৬। ১১ আইনজীবীকে ক্ষমা, পেশা পরিচালনায়ও বাধা নেই
হাইকোর্টের এজলাসকক্ষে বিশৃঙ্খলার ঘটনায় আদালত অবমাননার বিষয়ে ১১ জন আইনজীবীকে নিঃশর্ত ক্ষমা করে দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাঁদের আইন পেশা পরিচালনাসংক্রান্ত বিধিনিষেধও প্রত্যাহার করা হয়েছে বলে প্রথম আলোকে জানান ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ বি এম আলতাফ হোসেন।
আইনজীবীরা হলেন সাংসদ সৈয়দা আশিফা আশরাফী পাপিয়া, কামরুল ইসলাম সজল, সহিদুজ্জামান, মির্জা আল মাহমুদ, শরীফ উদ্দীন আহম্মেদ, আবদুল্লাহ আল মাহমুদ, এনামুল হোসেন গাফফার, মোহাম্মদ আলী, মো. আশরাফুজ্জামান খান, তৌহিদুল ইসলাম ও গোলাম নবী।


২০১২
=====
১। বসবাসের সবচেয়ে অযোগ্য শহর ঢাকা!


চলতি বছর বিশ্বের সবচেয়ে বসবাসের অযোগ্য শহর নির্বাচিত হয়েছে রাজধানী ঢাকা। যুক্তরাজ্যভিত্তিক আন্তর্জাতিক বাজার গবেষণাপ্রতিষ্ঠান ইকোনমিস্ট ইনটেলিজেন্স ইউনিটের ‘বৈশ্বিক বসবাস উপযোগিতা’ শীর্ষক এক জরিপের ফলাফলে এ তথ্য উঠে এসেছে।
আজ মঙ্গলবার ওই প্রতিষ্ঠানের জরিপের ফলাফলের বরাত দিয়ে ব্রিসবেন টাইমস অনলাইনে প্রকাশিত খবরে এ তথ্য জানানো হয়।
অপরদিকে বিশ্বের সবচেয়ে বসবাসযোগ্য শহর নির্বাচিত হয়েছে অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্ন। দ্বিতীয় অবস্থানে আছে অস্ট্রিয়ার ভিয়েনা এবং তৃতীয় কানাডার ভ্যানকুভার শহর।
২০১২ সালে ১৪০টি দেশকে এ জরিপে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। স্থিতিশীলতা, স্বাস্থ্যসুবিধা, সংস্কৃতি ও পরিবেশ, শিক্ষা ও অবকাঠামোর মানদণ্ডের ভিত্তিতে এ সূচক তৈরি করা হয়েছে।
- - - - - - -
২। ছয় মুঠোফোন কোম্পানিকে সাড়ে ছয় কোটি টাকা জরিমানা
দেশের ছয় মুঠোফোন কোম্পানিকে প্রায় আট লাখ মার্কিন ডলার (ছয় কোটি ২৫ লাখ টাকা) জরিমানা করেছে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)। অনিবন্ধিত সংযোগ ও সেসব দিয়ে অবৈধ উপায়ে ভিওআইপি ব্যবসা করার অপরাধে এ জরিমানা করা হয়েছে। কোম্পানিগুলোকে চিঠি পাওয়ার ৩০ দিনের মধ্যে জরিমানার অর্থ পরিশোধ করতে বলা হয়েছে। অপারেটর কোম্পানিগুলো হচ্ছে—গ্রামীণফোন, বাংলালিংক, রবি, সিটিসেল, এয়ারটেল ও টেলিটক।
আজ সন্ধ্যায় দেশের ছয় অপারেটর কোম্পানিকে এ চিঠি পাঠানো হয়। বিটিআরসির সিস্টেম ও সার্ভিস বিভাগের পরিচালক মো. রাকিবুল হাসানের সই করা চিঠিতে মুঠোফোনের ছয় কোম্পানিকে এ কথা জানানো হয়েছে।
- - - - - - -
৩। গ্রামীণ ব্যাংকের এমডি নিয়োগ : বিদেশিরাও আগ্রহী, তাই ‘আন্তর্জাতিক আগ্রহপত্র’
গ্রামীণ ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) হওয়ার জন্য বিদেশিরাও আগ্রহ দেখাচ্ছেন বলে মন্তব্য করেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। তিনি বলেন, ব্যাংকটির এমডি হওয়ার জন্য দেশে-বিদেশে উপযুক্ত লোক রয়েছে এবং এ ব্যাংকের জন্য উপযুক্ত এমডিই নিয়োগ করা হবে। আর, সেজন্যই ‘আন্তর্জাতিক আগ্রহপত্র’ আহ্বানের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। সচিবালয়ের নিজ কার্যালয়ে আজ মঙ্গলবার দুপুরে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে অর্থমন্ত্রী এসব কথা বলেন।
অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘মার্কিন রাষ্ট্রদূতকে আমি বলেছি, গ্রামীণ ব্যাংক সরকার দখল করেছে বলে ড. ইউনূস যা বলে বেড়াচ্ছেন, তা পুরোপুরিই ভুয়া। তবে এটা ঠিক যে, গত দেড় বছরে ব্যাংকটির এমডি নিয়োগ দেওয়া সম্ভব হয়নি।’
ঋণ গ্রহীতারা ড. ইউনূসের নাম প্রস্তাব করায় নির্বাচন প্রক্রিয়ায় কেবল এই নামই চলে আসে বলে জানান মুহিত। তিনি বলেন, ‘কিন্তু ইউনূস তো আর এমডি হতে পারবেন না। পরিচালনা পর্ষদ ব্যাংকটির এমডি মনোনয়ন দেবে। এটি গ্রামীণ ব্যাংকেরই বিধান। তবে এক্ষেত্রে চেয়ারম্যানের সুপারিশ লাগবে।’
- - - - - - -
৪। লোকমান হত্যা মামলা : অভিযুক্ত সব আসামি জামিনে মুক্ত
নরসিংদীর পৌর মেয়র লোকমান হোসেন হত্যা মামলায় অভিযুক্ত আসামি আশরাফুল ইসলাম সরকার জামিন পেয়েছেন। আজ আসামিপক্ষের আইনজীবীরা জেলা ও দায়রা জজ আদালতে তাঁর জামিনের আবেদন করেন। দুপুর দুইটায় বিচারিক হাকিম মোহাম্মদ শাহজাহান তাঁর জামিন মঞ্জুর করেন। মামলার ১২ নম্বর আসামি আশরাফ সরকার নরসিংদী শহর যুবলীগের সভাপতি আবদুল মতিন সরকারের ছোট ভাই। সাবেক পৌর চেয়ারম্যান আবদুল মতিন লোকমান হত্যা মামলার দুই নম্বর আসামি। লোকমান হত্যার অভিযোগে যাঁদের গ্রেপ্তার করা হয়েছিল, তাঁদের মধ্যে আশরাফ ছাড়া বাকি সবাই আগেই জামিনে মুক্ত হয়েছেন।

২০১৩
=====
১। দুদকে বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রতিবেদন : বেসিক ব্যাংকের তিনটি শাখার নানা অনিয়ম
মাত্র দুই বছরে রাষ্ট্রমালিকানাধীন বেসিক ব্যাংকের তিনটি শাখা চার হাজার ২৪৭ কোটি ৮৭ লাখ টাকা ঋণ দিয়েছে। এই ঋণের বড় অংশই দেওয়া হয়েছে কোনো নিয়মকানুন না মেনে। ঋণ দেওয়ার ক্ষেত্রে নানা ধরনের অনিয়ম ও দুর্নীতি করেছে বেসিক ব্যাংক।
শাখাগুলোর মধ্যে গুলশান শাখার দেওয়া ঋণের পরিমাণ এক হাজার ৮০০ কোটি ২৩ লাখ টাকা, শান্তিনগর শাখা এক হাজার ৫২৪ কোটি ৪৩ লাখ টাকা এবং দিলকুশা শাখা দিয়েছে ৯২৩ কোটি ২১ লাখ টাকা।
এই তিন শাখায় অতি দ্রুততার সঙ্গে ঋণ ছাড় করা হয়েছে। ঋণের বিপরীতে কোনো উল্লেখযোগ্য জামানতও রাখেনি কর্তৃপক্ষ। বরং তালিকার বাইরের নিরীক্ষা প্রতিষ্ঠানকে দিয়ে এসব জামানতের অভিহিত মূল্য (ফেস ভ্যালু) বাড়িয়ে দেখানো হয়েছে, যাতে বেশি করে ঋণ পাওয়া যায়। ব্যবস্থা নিতে এই তিন শাখার নানা দুর্নীতি ও অনিয়মের বিস্তারিত প্রতিবেদন গত ২৫ জুলাই দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) কাছে পাঠিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এর আগে ব্যাংকটির ওপর বিস্তারিত পরিদর্শন চালায় কেন্দ্রীয় ব্যাংক।
- - - - - - -
২। বিএনপিকে নির্বাচনে যেতে পরামর্শ দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র
নির্বাচনের মাধ্যমে বাংলাদেশের ক্ষমতা হস্তান্তর দেখতে চায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। এ জন্য প্রধান বিরোধী দল বিএনপিকে আগামী জাতীয় নির্বাচনে অংশ নিতে পরামর্শ দিয়েছেন বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত ড্যান ডব্লিউ মজীনা। একই সঙ্গে তিনি একটি সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য প্রধান দুই দল আওয়ামী লীগ ও বিএনপিকে একটা সমঝোতায় আসার ওপরও গুরুত্বারোপ করেন।
গত সোমবার রাতে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ও দলটির শীর্ষস্থানীয় নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে মার্কিন রাষ্ট্রদূত এই পরামর্শ দিয়েছেন বলে বিএনপির একাধিক নেতা প্রথম আলোকে জানিয়েছেন।

২০১৪
=====
১। সম্প্রচার নীতিমালা সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক: টিআইবি
ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের (টিআইবি) ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারপারসন সুলতানা কামাল বলেছেন, সদ্য প্রণীত জাতীয় সম্প্রচার নীতিমালা দেশের সংবিধান এবং তথ্যঅধিকার আইনের সঙ্গে সাংঘর্ষিক। আজ রাজধানীর একটি হোটেলে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।
জাতীয় সম্প্রচার নীতিমালা-২০১৪ সম্পর্কে টিআইবির অবস্থান তুলে ধরতে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সুলতানা কামাল বলেন, 'এই সম্প্রচার নীতিমালা দেশের সংবিধান, গণতান্ত্রিক আদর্শ, মানবাধিকার এবং তথ্য অধিকার আইনের সঙ্গে সাংঘর্ষিক।' তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক এই উপদেষ্টা মনে করেন, দেশের গণমাধ্যমের ওপর নিয়ন্ত্রণ আরোপের উদ্দেশ্যেই এই নীতি বাস্তবায়ন করা হয়েছে।
- - - - - - -
২। কঠিন শর্তে দেড় বিলিয়ন ডলার ঋণ নিচ্ছে সরকার
দুটি বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপন ও জ্বালানি তেল আমদানির জন্য কঠিন শর্তে দেড় বিলিয়ন বা ১৫০ কোটি ডলার ঋণ নিচ্ছে সরকার। বড়পুকুরিয়ায় একটি তাপ বিদ্যুৎকেন্দ্র ও ঘোড়াশালে একটি কম্বাইন্ড সাইকেল বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপন এবং বিদেশি চারটি কোম্পানি থেকে জ্বালানি তেল আমদানির জন্য এ ঋণ নেওয়া হচ্ছে। বাংলাদেশি মুদ্রায় এর পরিমাণ প্রায় ১২ হাজার কোটি টাকা। বিভিন্ন দাতা সংস্থার কাছ থেকে সহজ শর্তে ঋণ না পেয়ে অনেকটা বাধ্য হয়েই অনেক বেশি সুদে এ ঋণ নেওয়া হচ্ছে। সংশ্লিষ্টরা জানান, এসব ঋণের সুদের হার ৬ শতাংশের বেশি। বিদ্যুৎ খাতের বিভিন্ন প্রকল্পে বিশ্বব্যাংকের যে ঋণ রয়েছে, সেখানে সুদের হার এক শতাংশের কম।
- - - - - - -
৩। বদির অবৈধ সম্পদের প্রমাণ পেয়েছে দুদক
আবদুর রহমান বদি এমপির নামে অবৈধ সম্পদের তথ্য-প্রমাণ পেয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। অনুসন্ধান কর্মকর্তা আবদুস সোবহান এরই মধ্যে বদির সম্পদের অনুসন্ধান শেষ করে সোমবার বিশেষ অনুসন্ধান ও তদন্ত বিভাগের পরিচালক নূর আহম্মদের কাছে অনুসন্ধান প্রতিবেদন পেশ করেছেন।

২০১৫
=====
১। নিলয় হত্যা: নাহিন ও মাসুদ রিমান্ডে


ব্লগার নীলাদ্রি চট্টোপাধ্যায় নিলয় হত্যাকাণ্ডে জড়িত সন্দেহে গ্রেফতার সাদ আল নাহিন ও মাসুদ রানাকে আটদিন পুলিশ হেফাজতে রেখে জিজ্ঞাসাবাদের অনুমতি দিয়েছে আদালত। নিলয় হত্যা মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক শেখ মাহাবুবুর রহমান শুক্রবার দুই আসামিকে ঢাকার মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করে তাদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১০ দিন করে রিমান্ড আবেদন জানান।
ব্লগার নিলয় হত্যাকাণ্ডে জড়িত সন্দেহে গতকাল সন্ধ্যায় রাজধানীর মিরপুর ও উত্তরা এলাকা থেকে নাহিন ও মাসুদকে গ্রেফতার করে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।
তাদের গ্রেফতারের পর পুলিশ জানায়, নাহিন শ্রম প্রতিমন্ত্রী মুজিবুল হক চুন্নুর ভাতিজা। আর মাসুদ নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন আনসারুল্লাহ বাংলাটিমের 'স্লিপার সেলের' সদস্য।
- - - - - - -
২। বদির শাস্তি চেয়ে প্রকৌশলীদের সমাবেশ
কক্সবাজারের উখিয়ায় প্রকৌশলী মোস্তফা মিনহাজকে মারধরের ঘটনায় সংসদ সদস্য আবদুর রহমান বদির শাস্তির দাবিতে চট্টগ্রামে মানববন্ধন ও সমাবেশ করেছেন প্রকৌশলীরা। 'বঙ্গবন্ধু প্রকৌশলী পরিষদ' নামের একটি সংগঠন চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সামনে এ মানববন্ধনের আয়োজন করে।
এ সময় বক্তারা বলেন, 'সাংসদ বদি স্বভাবগতভাবেই অসংযত। প্রকৌশলীর গায়ে হাত তুলে সাংসদ সব শিষ্টাচারের মাত্রা ছাড়িয়ে গেছেন। এর আগেও তিনি শিক্ষক, চিকিৎসক, সরকারি কর্মকর্তা ও সাংবাদিকদের সঙ্গে একই আচরণ করেছেন। একের পর এক অসংযত আচরণ করলেও সাংসদ তা নিয়ে অনুতপ্ত নন। এর আগেও এক প্রকৌশলীকে লাঞ্ছিত করে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে তিনি ক্ষমা প্রার্থনা করেছিলেন। এবারও তাকে নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনা করতে হবে।'
- - - - - - -
৩। 'খালেদা পেট্রোলবোমা মেরে ২০০ মানুষ হত্যা করেছেন'
আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম বলেছেন, 'খালেদা জিয়া পেট্রোলবোমা মেরে ২০০ মানুষ পুড়িয়ে হত্যা করেছেন। তার বিরুদ্ধে চার্জশিট দেওয়া হবে। এ মামলায় তার সর্বোচ্চ শাস্তি হবে।' দুপুরে গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী উপজেলায় দুটি গ্রামে পল্লী বিদ্যুতের সংযোগের উদ্বোধন করে এ কথা বলেন তিনি।
শেখ সেলিম বলেন, 'বিএনপি-জামায়াত শিশু, নারী-পুরুষ, গাড়ির চালক ও চালকের সহকারীকে পুড়িয়ে হত্যা করেছে। অনেক পরিবারকে নিঃস্ব করা হয়েছে। তিনি মনে করেছিলেন দেশে নাশকতা সৃষ্টি করলে তৃতীয় পক্ষ এসে তাকে ক্ষমতায় বসিয়ে দেবে। কিন্তু তার সে ষড়যন্ত্র ব্যর্থ হয়েছে।'
- - - - - - -
৪। আগামী দুই নির্বাচনের জন্য হাইকোর্টের দুই ফর্মুলা
নির্বাচনকালীন অন্তর্বর্তী সরকার গঠনের ফর্মুলা দিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগের একটি বেঞ্চ। বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচনের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে দায়ের করা একটি রিটের পূর্ণাঙ্গ রায়ে দুটি ফর্মুলা দেওয়া হয়েছে। প্রথম ফর্মুলায় বলা হয়েছে, অন্তর্বর্তীকালীন সরকারের প্রধান হবেন প্রধানমন্ত্রী। নতুন ৫০ জন মন্ত্রী নিয়ে প্রধানমন্ত্রী মন্ত্রিসভা গঠন করবেন। সংসদে প্রতিনিধিত্ব করা দলগুলো থেকে ভোটের হারের অনুপাতে মন্ত্রী নেওয়া হবে। দ্বিতীয় ফর্মুলায় রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা ভাগাভাগির তত্ত্ব দেওয়া হয়েছে। এতে সংখ্যাগরিষ্ঠ দল প্রথম চার বছর ক্ষমতায় থাকবে। আর সংসদের প্রধান বিরোধী দল সর্বশেষ এক বছর ক্ষমতায় থাকবে। প্রথম ফর্মুলার জন্য সংবিধান সংশোধনের প্রয়োজন হবে না। তবে দ্বিতীয় ফর্মুলার জন্য সংবিধান সংশোধন করতে হবে বলে রায়ে বলা হয়েছে।
- - - - - - -
৫। নির্বাচন নিয়ে আদালতের পর্যালোচনা অপ্রাসঙ্গিক: সুরঞ্জিত
আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য এবং আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত এমপি নির্বাচন নিয়ে আদালতের পর্যালোচনাকে অপ্রাসঙ্গিক বলে দাবি করে বলেছেন, সরকারের কাজ সরকার করবে, সুপ্রিম কোট বা হাইকোর্টের কাজ হাইকোর্ট করবে। তাদের কাজ হচ্ছে যদি কোন আইন আমরা পাশ করি তা সংবিধানের সাথে সাংঘর্ষিক কিনা তা নিয়ে কাজ করা। তাই দুঃখের সাথেই বলতে হয় এটি প্রাসঙ্গিক না।
- - - - - - -
৬। খালেদা জিয়ার কথিত জন্মদিন : মামলাটি ঝুলছে ১৮ বছর ধরে
জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শাহাদাতবার্ষিকীতে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার জন্মদিন উদযাপন করার বিষয়টি চ্যালেঞ্জ করে ঢাকার আদালতে করা বহুল আলোচিত মামলাটি ১৮ বছর ধরে ঝুলে রয়েছে; নিষ্পত্তি হচ্ছে না। মামলার বাদী চলতি বছর ৯ ফেব্রুয়ারি হাইকোর্ট বিভাগের বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ পাওয়ায় মামলাটি আর চলতে পারে না বলে দাবি খালেদা জিয়ার আইনজীবীদের। ফলে ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুর শাহাদাতবার্ষিকীর দিনে খালেদা জিয়ার জন্মোৎসব উদযাপন করা নিয়ে বিতর্কেরও সুরাহা হচ্ছে না আদালতে।
খালেদা জিয়ার আইনজীবী রুহুল কুদ্দুস কাজল সমকালকে বলেন, 'মামলার বাদী হাইকোর্ট বিভাগের বিচারপতি (মো. সোহরাওয়ার্দী) হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন। সঙ্গত কারণে নিম্ন আদালতে এ মামলাটি আর চলতে পারে না। তা ছাড়া বিচারপতি হিসেবে শপথ নেওয়ার পর এ বিষয়ে তার আর কোনো আগ্রহও থাকার কথা নয়।'
- - - - - - -
৭। তাড়াশে মসজিদের টাকা নিয়ে সংঘর্ষ: গুলিবিদ্ধ দুই শিশু ও নারীসহ আহত ৭
জেলার তাড়াশ উপজেলার মসজিদের গচ্ছিত টাকা টাকা জমা দেয়াকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে বন্দুকের গুলিতে সাতজন আহত হয়েছেন। তাদের তাড়াশ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও বগুড়া মেডিক্যালে ভর্তি করানো হয়েছে। শুক্রবার জুম্মার নামাজের পর উপজেলার বারুহাস ইউনিয়নের লাউশন গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। উত্তেজনা প্রশমিত করতে এ গ্রামে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পুলিশ লাইন্সেসকৃত বন্দুকটি জব্দ করে হেফাজতে নিয়েছে।

২০১৬
======
১। হিমু হত্যা মামলা: ৫ জনের ফাঁসির আদেশ


চট্টগ্রামে কুকুর লেলিয়ে হিমাদ্রি মজুমদার হিমু হত্যা মামলায় পাঁচজনের মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিয়েছে আদালত। রবিবার চট্টগ্রামের চতুর্থ অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ নূরুল ইসলাম এই রায় ঘোষণা করেন। মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্তরা আসামিরা হলেন-শাহ সেলিম টিপু, তার ছেলে জুনায়েদ আহমেদ রিয়াদ এবং রিয়াদের তিন বন্ধু শাহাদাৎ হোসাইন সাজু, মাহাবুব আলী খান ড্যানি এবং জাহিদুল ইসলাম শাওন। রায় ঘোষণার সময় শাহ সেলিম টিপু, শাহাদাৎ হোসাইন সাজু ও মাহাবুব আলী খান ড্যানি আদালতের কাঠগড়ায় উপস্থিত ছিলেন। বাকি দুইজন পলাতক রয়েছেন।
২০১২ সালের এপ্রিলে নগরীর পাঁচলাইশ এলাকার একটি বাসায় কুকুর লেলিয়ে নিমর্মভাবে নির্যাতন করা হয় হিমাদ্রী মজুমদার হিমুকে। নির্যাতনের এক পর্যায়ে তাকে চারতলার ছাদ থেকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয়া হয়। গুরুতর আহত অবস্থায় ২৬ দিন মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করে ঢাকার একটি হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেন তিনি। এই ঘটনায় বাদী হয়ে নগরীর পাঁচলাইশ থানায় একটি মামলা করেন হিমুর মামা শ্রী প্রকাশ দাশ।
- - - - - - -
২। শোক দিবসে টুঙ্গিপাড়ায় মহিউদ্দিনের মেজবান


জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে সোমবার দুপুরে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় ৩৮ হাজার অতিথিকে আপ্যায়ন করবে চট্টগ্রাম নগর আওয়ামী লীগ। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য চট্টগ্রাম নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর নেতৃত্বে একটি দল ইতোমধ্যে টুঙ্গিপাড়া এসে পৌঁছেছে। এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর এপিএস মো. ওসমান গনি বলেন, 'শোক দিবস উপলক্ষে টুঙ্গিপাড়ায় শেখ মুজিবুর রহমান বিশ্ববিদ্যালয় কলেজমাঠে ৩০ হাজার ও বালাডাঙ্গা এসএম মুছা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ৮ হাজার মানুষের জন্য চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী মেজবানের আয়োজন করা হয়েছে।'
চট্টগ্রাম নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর নেতৃত্বে প্রতিবছরই টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিসৌধের বেদিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ শেষে মেজবানের আয়োজন করা হয়। গত বছরও টুঙ্গিপাড়ায় প্রায় ৩৬ হাজার অতিথিকে আপ্যায়ন করা হয়। ১৫ বছর ধরে এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী এ আয়োজন করে আসছেন।
- - - - - - -
৩। 'জঙ্গিবাদকে উপড়ে জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ব'
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, এ দেশের মাটিতে কোনো জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসবাদের ঠাঁই হবে না। জঙ্গিবাদকে সমূলে উপড়ে ফেলে জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠা করা হবে। জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে রোববার এক বাণীতে তিনি একথা বলেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, 'আমার দৃঢ় বিশ্বাস, এ দেশের মাটিতে কোনো জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসবাদের ঠাঁই হবে না। জঙ্গিবাদকে সমূলে উপড়ে ফেলে আমরা জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠিত করব—এই হোক জাতীয় শোক দিবসে আমাদের অঙ্গীকার।'
- - - - - - -
৪। সেক্টর কমান্ডারস ফোরামের সভায় তোপের মুখে সফিউল্লাহ
জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে সেক্টর কমান্ডারস ফোরামের আলোচনা অনুষ্ঠানে বক্তৃতা দেওয়ার সময় পঁচাত্তরের ভূমিকার জন্য তোপের মুখে পড়তে হলো সংগঠনের চেয়ারম্যান কেএম সফিউল্লাহকে। জাতীয় প্রেস ক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে এ ঘটনা ঘটে। শ্রোতাদের মধ্য থেকে কৃষক লীগের এক নেতা ও মুক্তিযোদ্ধা তাকে সরাসরি বলেন, ‘তখন আপনি মৃত্যুবরণ করেননি কেন?’ ‘বঙ্গবন্ধু, মুক্তিযুদ্ধ ও বাংলাদেশ’ শীর্ষক ওই আলোচনা অনুষ্ঠানে ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের সময় সেনাপ্রধানের দায়িত্ব পালনকারী সফিউল্লাহ সভাপতিত্ব করছিলেন।
অনুষ্ঠানে সফিউল্লাহ পঁচাত্তরের ঘটনাপ্রবাহ বর্ণনা করার সময় বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর মৃত্যু দিবস আমার জন্য কষ্টকর একটি দিন। এই দিন নিজেকে ঠিক রাখতে পারি না। আমি বঙ্গবন্ধুকে রক্ষা করতে পারিনি। আমার হাত-পা বাঁধা ছিল।’ তিনি বলেন, ‘আমিসহ ওই সময়কার বিমানবাহিনী প্রধান ও নৌবাহিনী প্রধানকে বাধ্য হয়ে মোশতাক সরকারকে সমর্থন দিতে হয়।’ এ সময় শ্রোতাদের সারিতে বসে থাকা কৃষক লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হাই কানু উঠে দাঁড়িয়ে তাকে প্রশ্ন করেন, ‘স্যার, যখন আপনার কাছ থেকে সিগনেচার নিচ্ছিল, তখন আপনি মৃত্যুবরণ করেননি কেন?'
- - - - - - -
৫। নিউইয়র্কে বাংলাদেশি ইমাম ও তার সহকারীকে গুলি করে হত্যা
নিউ ইয়র্ক রাজ্যের কুইনস শহরে বাংলাদেশি একজন ইমাম ও তার সহকারীকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। সেখানকার স্থানীয় পুলিশ জানিয়েছে, হামলাকারী তাদের ঠিক পেছন থেকে এসে সরাসরি মাথায় গুলি করেছে। ইমাম মাওলানা আকনজি (৫৫) দুই বছর আগে বাংলাদেশ থেকে নিউ ইয়র্কে আসেন।
- - - - - - -
৬। সুনির্দিষ্ট প্রমাণের ভিত্তিতে হাসনাতকে গ্রেফতার: পুলিশ
সুনির্দিষ্ট তথ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষক হাসনাত রেজাউল করিমকে গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারিতে জঙ্গি হামলার মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন ঢাকা মহানগর পুলিশের (গোয়েন্দা) যুগ্ম কমিশনার আবদুল বাতেন। মহানগর পুলিশের গণমাধ্যম কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এই তথ্য জানান।
আবদুল বাতেন বলেন, গুলশানের হামলার ঘটনায় হাসনাতের করিমের জড়িত থাকার সুনির্দিষ্ট তথ্য-প্রমাণ পাওয়া গিয়েছে। তাই ঐ ঘটনায় করা মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।

২০১৭
======
১। পানি বাড়ছে হু হু করে, দিশেহারা মানুষ


ব্রহ্মপুত্র-যমুনা, পদ্মা, সুরমা-কুশিয়ারা ও গঙ্গা অববাহিকায় সমানতালে পানি বাড়ায় বন্যা পরিস্থিতির আরও অবনতি হয়েছে। ঘরবাড়ি ছেড়ে মানুষ বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ ও উঁচু জায়গায় আশ্রয় নিচ্ছে। দুর্ভোগ পিছু ছাড়ছে না সেখানেও। বাঁধেও ভাঙন দেখা দিয়েছে। এ অবস্থায় জীবন ধারণের সব অবলম্বন হারিয়ে লাখ লাখ মানুষের চোখেমুখে এখন কেবলই অন্ধকার।
সব জায়গায় খাবারের জন্য হাহাকার। রয়েছে বিশুদ্ধ পানির তীব্র সংকট। শিশুদের মুখে একবেলা খাবার তুলে দিতে পারছেন না বাবা-মা। বানভাসি মানুষ হাস-মুরগি, গরু-ছাগল নিয়ে পড়েছেন বিপাকে। নিজেদেরই যেখানে থাকা-খাওয়ার জায়গা নেই, সেখানে অবলা এই পশুপাখি কোথায় রাখবে, কী খাওয়াবে- এ চিন্তায় তারা অস্থির। বন্যাকবলিত জেলাগুলোতে অভ্যন্তরীণ যোগাযোগ ব্যবস্থা পুরোপুরি ভেঙে পড়েছে। বিচ্ছিন্ন রয়েছে কয়েকটি জেলার সঙ্গে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের সড়ক ও রেল যোগাযোগ। নীলফামারীর সৈয়দপুর বিমানবন্দরে পানি ঢুকে পড়েছে।
- - - - - - - -
২। বঙ্গবন্ধুর খুনিদের দেশে ফিরিয়ে আনতে কাজ করছে পুলিশ: আইজিপি
বঙ্গবন্ধুর খুনিদের দেশে ফিরিয়ে আনতে পুলিশ কাজ করছে বলে জানিয়েছেন পুলিশ মহাপরিদর্শক (আইজিপি) এ কে এম শহীদুল হক। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন গুলিবিদ্ধ পুলিশের সিনিয়র কমিশনার রাহুল পাটোয়ারীকে দেখতে গিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা বলেন।
- - - - - - - -
৩। সুন্দরবনে মুক্তিপণের দাবিতে ১০ জেলে অপহরণ
সুন্দরবনে আবারও জেলে অপহরণের ঘটনা ঘটেছে। মুক্তিপণের দাবিতে বনদস্যু ভাই ভাই ও সুমন বাহিনী পহৃর্ব বনবিভাগের চাঁদপাই রেঞ্জের ধানসাগর স্টেশনের তাম্বুলবুনিয়া, বগার খাল ও কলামুলা এলাকা থেকে ভোরে একটি নৌকাসহ অন্তত ১০ জেলেকে অপহরণ করে নিয়ে যায়।
- - - - - - - -
৪। গাজীপুরে গণভোজের জন্য ১১৯ গরু দিলেন আ' লীগ নেতা
জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে ১১৯টি গরু কিনে গণভোজের জন্য ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে দিয়েছেন গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. জাহাঙ্গীর আলম। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪২তম শাহাদাৎ বার্ষিকীতে গণভোজের জন্য গরুগুলো বিতরণ করেন তিনি।
- - - - - - - -
৫। দিনাজপুরে স্মরণকালের ভয়াবহ বন্যা, ১৫ জনের মৃত্যু
দিনাজপুরে বন্যা পরিস্থিতি ভয়াবহ রূপ ধারণ করছে। স্মরণকালের এই ভয়াবহ বন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে জেলার প্রায় সব উপজেলা। জেলার সবকটি নদীর পানি বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। ভেঙ্গে গেছে দিনাজপুর শহর রক্ষা বাঁধসহ বেশ কয়েকটি নদীর বাঁধ। বাঁধ রক্ষায় ও বানভাসি মানুষকে উদ্ধারের জন্য মোতায়েন করা হয়েছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী ও বিজিবিকে। বাড়ী-ঘর ডুবে গিয়ে গৃহহীন হয়ে পড়েছে জেলার প্রায় ৫ লাখ মানুষ।​ দিনাজপুরে বিরল উপজেলার ১২ নং রাজারামপুর ইউনিয়নের হাসিলা গ্রামে বন্যার পানিতে ডুবে একই পরিবারের ৩ শিশু সহ ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে দিনাজপুরে বন্যাজনিত কারণে মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ১৫ জন।
- - - - - - - -
৬। 'হেল্পডেস্ক ৯৯৯' স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে হস্তান্তর হচ্ছে
নাগরিকদের জরুরি সেবার জন্য ‘হেল্পডস্ক ৯৯৯’ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে হস্তান্তর করছে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদজানান, এর আগে ২০১৬ সালের পহেলা অক্টোবর পরীক্ষামূলকভাবে ‘হেল্পডেস্ক ৯৯৯’ চালু করা হয় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের তত্ত্বাবধানে। এরপর মানুষ এ হেল্পডেস্ক থেকে কোন ধরনের সেবা বেশি চাচ্ছে তার তথ্য-উপাত্ত বিশ্লেষণ করে এর একটি মডেল চূড়ান্ত করা হয়। প্রায় ৩৬ লাখ মানুষ গত দশ মাসে এ হেল্পডেস্কে ফোন করে। এতে দেখা যায়, পরীক্ষামূলক পর্বে মানুষ সবচেয়ে বেশি সেবা চেয়েছে পুলিশি সাহায্যের জন্য। মোট কলের প্রায় ৬৪ শতাংশই ছিল পুলিশি সাহায্যের প্রয়োজনে।
তিনি জানান, এই হেল্পডেস্ক পরিচালনায় নীতিমালা সহ একটি পৃথক ব্যবস্থাপনারও প্রয়োজন হবে। সবদিক বিবেচনা করে দেশের মানুষের প্রয়োজনে ‘হেল্পডেস্ক ৯৯৯’ এর সর্বোত্তম ব্যবহার নিশ্চিত করতেই এটি হস্তান্তর করা হচ্ছে।

২০১৮
======


সূচীপত্র:→ বাংলাদেশ: ফিরে দেখা

________________
তথ্য ও ছবিসূত্র:
দৈনিক ইত্তেফাক, দৈনিক প্রথম আলো, দৈনিক সমকাল, দৈনিক যুগান্তর এবং অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ সংবাদ মাধ্যম।
বাংলাদেশের তারিখ : বিচারপতি মুহাম্মদ হাবিবুর রহমান।
বাংলাদেশের ইতিহাস সংক্রান্ত বিভিন্ন বই-পুস্তক ও পত্রপত্রিকা।
ইন্টারনেট, উইকিপিডিয়া, বাংলাপিডিয়া।
সর্বশেষ এডিট : ১৫ ই আগস্ট, ২০১৮ ভোর ৪:৪৮
২টি মন্তব্য ১টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

কাজে যোগদান ভুল হচ্ছে, ইউরোপ আমেরিকায় শীপমেন্ট বন্ধ থাকার কথা

লিখেছেন চাঁদগাজী, ০৫ ই এপ্রিল, ২০২০ দুপুর ২:১৭



গত ৪০ বছরে, গার্মেন্টস'এর মালিকরা ও অন্যান্য মধ্যভোগীরা যেই পরিমাণ সম্পদের মালিক হয়েছে, তাতে তাদের কর্মচারীদের বিনা কাজে ২/১ বছর মিনিমাম বেতন দেয়ার ক্ষমতা তারা রাখে। গার্মেন্টস'এর... ...বাকিটুকু পড়ুন

আল্লাহ কেলা?

লিখেছেন মোহাম্মাদ আব্দুলহাক, ০৫ ই এপ্রিল, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:০৮




মানুষ মারার সব আছে, আহত অথবা অসুস্থ মানুষকে সম্পূর্ণ সুস্থ করার কিচ্ছু নেই। কেন জানেন? আঁতেলরা বলেন, মানুষ মানুষকে মারতে পারে, মানুষ মানুষকে বাঁচাতে পারে ন। জন্ম মৃত্যু মুসলমানদের... ...বাকিটুকু পড়ুন

— করোনার সাথে পথে চলতে চলতে———

লিখেছেন ওমেরা, ০৫ ই এপ্রিল, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:২২



সারা পৃথিবী লক-ডাউন হয়ে আছে কভিড- ১৯ করোনা আতংকে। মানুষের প্রতিটা মূহুর্ত কাটছে ভয় আর উৎকন্ঠায়। এই মূহুর্তে সম্ভবত পৃথিবীর একমাত্র ব্যাতিক্রম দেশ,সেই দেশের বাসিন্দা আমি, নাম তার... ...বাকিটুকু পড়ুন

থটস

লিখেছেন জেন রসি, ০৫ ই এপ্রিল, ২০২০ রাত ১১:৪৬





১৮৪৬ সালে মার্কস এবং এঙ্গেলস মিলে “The German Ideology” নামে একটা বইয়ের পান্ডুলিপি লিখেছিলেন। কিন্তু বইটা প্রকাশিত হয় ১৯৩২ সালে। এই বইতে তারা শুধু ভাববাদকেই না ফয়েরবাখের... ...বাকিটুকু পড়ুন

শেখ হাসিনা কমপক্ষে গার্মেন্টস'এর ছুটিটা নিজ হাতে কন্ট্রোল করতে পারতো

লিখেছেন চাঁদগাজী, ০৫ ই এপ্রিল, ২০২০ রাত ১১:৫২



শেখ সাহেব জানতেন যে, উনার মেয়ে বুদ্ধিমতি নন, সেজন্য মেয়েকে রাজনীতিতে আসতে দেননি; কিন্তু রাইফেল জিয়া শেখ হাসিনার জন্য পথ রচনা করে গেছে। কমবুদ্ধিমানরা অনেক সময় খুবই নিবেদিত... ...বাকিটুকু পড়ুন

×