somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

বাংলাদেশ: ফিরে দেখা ১৯ আগস্ট

১৯ শে আগস্ট, ২০১৮ বিকাল ৩:৪০
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :


সহজলভ্য রেফারেন্সের অভাবে বাংলাদেশের ইতিহাসের অনেক ঘটনা বিভিন্ন ব্যক্তি বিভিন্নভাবে বিশ্লেষণ করেন। এতে ইচ্ছায় বা অনিচ্ছায় বাংলাদেশের ইতিহাস বিকৃত হচ্ছে, সৃষ্টি হচ্ছে অসংখ্য বিতর্কের। তাই ইতিহাসের উল্লেখযোগ্য ঘটনার তথ্য সহজলভ্য করার উদ্দেশ্যে 'ফিরে দেখা বাংলাদেশ' সিরিজ। প্রায় সব তথ্য যাচাই-বাচাই করে দেশের প্রধান সংবাদপত্রসমূহ থেকে নেয়া হয়েছে।
বাংলাদেশের ইতিহাসে ১৯ আগস্ট ঘটে যাওয়া উল্লেখযোগ্য রাজনৈতিক ও সামাজিক ঘটনাবলি:

১৯৭২
====
বি আর টি সি'র কোচ-সার্ভিস চালু।

১৯৭৩
====
বঙ্গবন্ধু কর্তৃক বাংলাদেশ ছাত্রলীগের জাতীয় সন্মেলন উদ্বোধন।

১৯৭৬
====
কলম্বো জোটনিরপেক্ষ সন্মেলন শেষে প্রেসিডেন্ট সায়েম ও প্রধান সামরিক আইন প্রশাসক মেজর জেনারেল জিয়ার ঢাকা প্রত্যাবর্তন।

১৯৭৭
====
কমিউনিস্ট নেতা জ্ঞান চক্রবর্তীর জীবনাবসান।

১৯৭৮
====
চাপাইনবাবগঞ্জে বন্যায় ৮ জনের প্রাণহানি।

১৯৮০
====
নোয়াখালির বাবুরহাটে বিক্ষুদ্ধ জনতার প্রহারে ৭ জনের মৃত্যু।

১৯৮৭
====
জাতীয় ছাত্র সমাজ ও ছাত্র পরিষদ বিলুপ্ত ঘোষণা।

১৯৯২
====
ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ও পাঁচদল নেতা সংসদ সদস্য রাশেদ খান মেননকে হত্যা চেষ্টার প্রতিবাদে বায়তুল মোকাররমের দক্ষিণ গেটে সমাবেশে বক্তারা, 'মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও গণতন্ত্র রক্ষায় বিবেকবান মানুষকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। '

১৯৯৪
====
ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে দুর্ঘটনায় নিহত ৯, আহত ৬২।

১৯৯৯
====
'সর্বোচ্চ আদালত প্রাঙ্গন বস্তিবাসীদের দখলে চলে যাওয়া নজিরবিহীন ও বিব্রতকর।'—রেজিষ্টার, সুপ্রিম কোর্ট।
- - - - - - -
ফরিদপুরের সংসদ সদস্য মোশাররফ হোসেন (৬৭)-এর মৃত্যু।
- - - - - - -
'বিচার বিভাগ ও সংবাদপত্রেরও জবাবদিহিতা থাকা প্রয়োজন। ... পতিতালয়ের প্রবেশপথে ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরা বসানো হবে।'—সংবাদসংস্থা ও পত্রিকার সম্পাদকদের বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

২০০০
====
১। জাপানী প্রধানমন্ত্রী ইয়োশিরো মোরি'র এক দিনের সফরে ঢাকায়। গঙ্গাব্যারেজ, পদ্মাসেতু ও পূর্বাঞ্চলীয় বাইপাসে জাপানি সহায়তার সম্ভাবনা।
- - - - - - - -
২। নওগাঁর আদিবাসী পল্লীতে জোতদারদের নৃশংস তান্ডব।
- - - - - - - -
৩। পুরানো ঢাকায় সন্ত্রাসী ঘটনায় পুলিশের এএসআইসহ গুলিবিদ্ধ ৫ জন।

২০০১
====
১। অষ্টম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফশীল ঘোষণা: ২৯ আগস্ট মনোনয়নপত্র পেশের শেষ দিন, ৩০-৩১ আগস্ট বাছাই এবং ৬ সেপ্টেম্বর মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের দিন। ১ অক্টোবর নির্বাচন।
- - - - - - - -
২। ফেনীতে হর‌তাল, বিডিআর আর হাজারী বাহিনীর সঙ্গে গুলি বিনিময়। ঢাকায় হাজারী বাহিনীর ৮ সন্ত্রাসী গ্রেফতার।
- - - - - - - -
৩। কুষ্টিয়ায় ৪ চরমপন্থী খুন।
- - - - - - - -
৪। ফটিকছড়িতে ছাত্রলীগের দুই দলের মধ্যে বন্দুকযুদ্ধে নিহত ৪।

২০০২
====
১। ভারতীয় সশস্ত্র খাসিয়াদের গুলিতে সিলেটের গোয়াইনঘাট সীমান্তে দুজন বাংলাদেশি নিহত।
- - - - - - - -
২। বাসে ও ট্রেনে করে এডিশ মশা ছড়িয়ে যাচ্ছে সারা দেশে।
- - - - - - - -
৩। চট্টগ্রাম ও সিলেটের ৯ জেলায় ম্যালেরিয়ার প্রকোপ, ছয় মাসে সোয়া লাখ রোগী ভর্তি, ৪৩৩ জনের মৃত্যু।

২০০৫
====
১। ৬৫ ঘন্টা পর সফর সংক্ষিপ্ত করে চীন থেকে প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার প্রত্যাবর্তন।
- - - - - - - -
২। শায়খ আবদুর রহমান ও বাংলা ভাইয়ের খোঁজে পুলিশ। মাদ্রাসাগুলো ফাঁকা।
- - - - - - - -
৩। পুলিশি হেফাজতে ঢাকার লালবাগের স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা সুমন হোসেন (২৪)-এর মৃত্যু।
- - - - - - - -
৪। বায়তুল মোকাররমে ইসলামী দলগুলোর প্রতিবাদ সভা। বোমা হামলার জন্য ১৪ দল, 'র' ও সিআইএ দায়ী বলে অভিমত।
- - - - - - - -
৫। চাঁপাই নবাবগঞ্জে বিডিআর-বিএসএফ দিনভর গোলাগুলি।
- - - - - - - -
৬। সরকারের সাথে আলোচনার সম্ভাবনা নাকচ করলেন শেখ হাসিনা।
- - - - - - - -
৭। মহিলা এমপি-র মনোনয়ন চুড়ান্ত করতে বিএনপির আয় প্রায় এক কোটি টাকা।

২০০৬
====
১। কওমী মাদ্রাসার সনদের স্বীকৃতি নিয়ে ৪ মাদ্রাসা বোর্ডে বিতর্ক।
- - - - - - - -
২। রাজশাহী পলিটেকনিকে ছাত্রদল ক্যাডার কতৃক ছাত্রলীগের এক নেতার আঙ্গুল কর্তন।
- - - - - - - -
৩। সাতক্ষীরার সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে গরু ব্যবসায়ী নিহত।'
- - - - - - - -
৪। গাইবান্ধায় চাঁদাবাজ-সন্ত্রাসীদের গ্রেফতারের দাবিতে সড়ক অবরোধ।

২০০৭
====
১। হাসিনা-খালেদার বিরুদ্ধে মামলায় লড়বে দুদক : আইনজীবী নিয়োগ
সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপি’র চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে বিলুপ্ত দুর্নীতি ব্যুরোর দায়ের করা মামলা খারিজের আদেশ এবং সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে দুর্নীতির মামলাগুলোর ওপর স্থগিতাদেশের বিরুদ্ধে সুপ্রিমকোর্টে লিভ পিটিশন ও আপিল করার জন্য দুদক এডভোকেট অন রেকর্ড (এওআর) হিসেবে দুইজন আইনজীবীকে নিয়োগ করেছে। খালেদা জিয়ার মামলাগুলো নিষ্পতির জন্য এডভোকেট বখতিয়ার হোসেন এবং শেখ হাসিনার মামলাগুলো নিষ্পতির জন্য এডভোকেট এএসএম খালেকুজ্জামানকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।
- - - - - - - -
২। প্রশাসনিক পুনর্বিন্যাস সংক্রান্ত জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটি (নিকার) নির্বাহী বিভাগ থেকে বিচার বিভাগ পৃথকীকরণের উদ্দেশ্যে প্রায় সাড়ে চার হাজার বিচার বিভাগীয় পদের অনুমোদন দিয়েছে।

২০০৮
====
ঢাবিতে ডিন নির্বাচনে ৮ অনুষদে সাদা দল জয়ী।

২০০৯
====
১। সবার নিরাপত্তা নিশ্চিত করেই তিন পার্বত্য জেলার ক্যাম্প স্থানান্তর হচ্ছে
বাঙালি ও পাহাড়ি—সবার নিরাপত্তা নিশ্চিত করেই তিন পার্বত্য জেলা থেকে নিরাপত্তা ক্যাম্প স্থানান্তর করা হচ্ছে। ১৯৯৮ সালে ১০টি ক্যাম্প সরানোর মধ্য দিয়ে এটি শুরু হয় এবং ২০০৪ সালে সর্বোচ্চ ৬৩টি ক্যাম্প সরানো হয়েছে। এ বছর ৩৫টি ক্যাম্প সরানো হচ্ছে। প্রয়োজন দেখা দিলে সরিয়ে নেওয়া জায়গায় আবারও ক্যাম্প স্থাপন করা হবে। বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর চট্টগ্রামের ২৪ পদাতিক ডিভিশনের জিওসি মেজর জেনারেল মোহাম্মদ শামীম চৌধুরী আজ বুধবার এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন।
- - - - - - - -
২। যুদ্ধাপরাধ বিচারে দেশি-বিদেশি বাধা আসছে
স্থানীয় সরকারমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বলেছেন, যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের ব্যাপারে দেশ-বিদেশ থেকে নানা রকম বাধা আসছে। তবে কোত্থেকে কীভাবে বাধা সৃষ্টি করা হচ্ছে, সে ব্যাপারে তিনি কিছু বলেননি। সরকার এসব বাধার ব্যাপারে ওয়াকিবহাল বলে জানিয়ে তিনি বলেন, ব্যাপক জনমত সৃষ্টির মাধ্যমে সেই বাধা অতিক্রম করতে হবে। সরকার যুদ্ধাপরাধীদের বিচারে পিছপা হবে না। বিচারের ক্ষেত্রে সময় কিংবা বয়স কোনো বাধা হবে না।
সৈয়দ আশরাফ আজ বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাবে ‘সাম্প্রদায়িকতা ও জঙ্গিবাদবিরোধী মঞ্চ’ আয়োজিত ‘জঙ্গিবাদ ও বর্তমান বাংলাদেশ: আমাদের করণীয়’ শীর্ষক এক আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের ব্যাপারে বাধা দূর করতে সরকার সর্বাত্মক প্রয়াস চালিয়ে যাচ্ছে। নবম সংসদের মেয়াদেই সরকার যুদ্ধাপরাধীদের বিচার করবে। মন্ত্রী বলেন, বিশ্বের বড় বড় দেশের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে। তারা সহায়তা করতে চায়। সরকার এখন এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের দিকে যাচ্ছে। যুগোস্লাভিয়া, কম্বোডিয়া, বসনিয়া-হার্জেগোভিনা, সুদান, লাইবেরিয়াসহ বিভিন্ন দেশে যুদ্ধাপরাধের বিচার শুরু হওয়ায় বর্তমান সরকার এ কাজটি শুরু করতে সাহস ও উত্সাহ পেয়েছে বলে মন্তব্য করেন সৈয়দ আশরাফ। এ জন্য শক্তিশালী জনমত গঠন করতে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের সব শক্তি, গণমাধ্যম ও পেশাজীবীদের বলিষ্ঠ ভূমিকা রাখার আহ্বান জানান তিনি।

২০১০
====
১। আদালত অবমাননার মামলায় মাহমুদুরের ৬ মাস কারাদণ্ড


দৈনিক আমার দেশের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মাহমুদুর রহমানসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে করা আদালত অবমাননার মামলায় আদেশ দিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ। আজ বৃহস্পতিবার দেওয়া আদেশে মাহমুদুর রহমানকে ছয় মাস কারাদণ্ড ও এক লাখ টাকা জরিমানা, পত্রিকাটির বিশেষ প্রতিবেদক অলিউল্লাহ নোমানকে এক মাস কারাদণ্ড ও ১০ হাজার টাকা জরিমানা, প্রকাশক হাশমত আলীকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে সাত দিনের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। তবে পত্রিকাটির বার্তা সম্পাদক মুজতাহিদ ফারুকী ও উপসম্পাদক সৈয়দ আবদাল আহমেদকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। প্রধান বিচারপতি মোহাম্মদ ফজলুল করিমের নেতৃত্বে ছয়জন বিচারপতির পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চ উভয়পক্ষের শুনানি গ্রহণ শেষে এ আদেশ দেন।
জানা যায়, গত ২১ এপ্রিল দৈনিক আমার দেশে ‘চেম্বার মানেই সরকার পক্ষে স্টে’ শিরোনামে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। এটি আদালত অবমাননার শামিল দাবি করে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মো. রিয়াজউদ্দিন খান ও কাজী মাইনুল হাসান মে মাসের প্রথম সপ্তাহে মাহমুদুর রহমানসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার মামলা করেন।
- - - - - - - -
২। বাংলাদেশে সংঘাতময় রাজনীতির অবসান হয়নি: স্টিফেন ফ্রোয়েইন
বাংলাদেশের রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে বৈরিতামূলক সম্পর্কের যে সংস্কৃতি রয়েছে, গত পাঁচ বছরে তার অবসান হয়নি। গতবারের তুলনায় এবারের সংসদ অনেক কার্যকর হলেও প্রতিষ্ঠানটি পুরোপুরি অর্থবহ হয়ে ওঠেনি। কারণ জাতীয় গুরুত্বপূর্ণ ইস্যুতে সংসদ অধিবেশনে অংশ নিচ্ছে না প্রধান বিরোধী দল। তবে ভবিষ্যতে বাংলাদেশের রাজনীতিতে অগণতান্ত্রিক শক্তির আবির্ভাব হবে না। বাংলাদেশে দায়িত্ব পালনের অভিজ্ঞতার কথা বলতে গিয়ে এমন ছবিই তুলে ধরলেন ঢাকায় ইউরোপীয় ইউনিয়নের রাষ্ট্রদূত স্টিফেন ফ্রোয়েইন। আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে ঢাকা শেরাটন হোটেলে বাংলাদেশ কূটনৈতিক সংবাদদাতা সমিতি (ডিকাব) আয়োজিত অনুষ্ঠানে তিনি সাংবাদিকদের সঙ্গে বিভিন্ন বিষয়ে কথা বলেন।
- - - - - - - -
৩। শর্ত ভঙ্গ, কোকোর প্যারোল বাতিল, দেশে ফিরতে হবে


সরকারের দেওয়া শর্ত ভঙ্গ এবং ভুয়া চিকিত্সা সনদের কারণে আরাফাত রহমান কোকোর প্যারোলে মুক্তি বাতিল করেছে সরকার। বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার ছোট ছেলে কোকোকে ৩১ আগস্টের মধ্যে দেশে ফিরে এসে আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। দুই বছরের অধিক সময় প্যারোলে থাকার পর এ আদেশ বাতিল করা হলো। আজ বিকেলে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কারা-২ শাখা থেকে প্যারোল বাতিলের নির্দেশ জারি করা হয় বলে কারা-২ শাখার উপসচিব কায়কোবাদ প্রথম আলোকে নিশ্চিত করেছেন। জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাহারা খাতুন প্রথম আলোকে বলেন, কোকোকে কিছু শর্ত দিয়ে চিকিত্সার জন্য সাময়িক মুক্তি দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু তিনি শর্ত ভঙ্গ করেছেন, চিকিত্সাধীন থাকা অবস্থায় থাইল্যান্ড দূতাবাসের সঙ্গে কোনো যোগাযোগ করেননি। এ ছাড়া তিনি কোথায় অবস্থান করছেন, তাও জানাননি। যে কারণে তাঁর সাময়িক মুক্তির আদেশ বাতিল করেছে সরকার।
কোকোর উন্নত চিকিত্সার জন্য সরকার তাঁকে ছয় শর্তে সাময়িক মুক্তি দেয়।
ছয় শর্ত: কোকো বিদেশে যেখানে চিকিত্সা নেবেন, সেখানে তিনি বা তাঁর আত্মীয় বাংলাদেশ মিশনকে সময়ে সময়ে অবহিত করবেন; রাজনৈতিক ও ব্যবসায়িক কাজে জড়িত হতে পারবেন না; সংগত বিষয় ছাড়া অন্য কোনো কারণে কোনো ব্যক্তি বা পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারবেন না; সাময়িক মুক্তির মেয়াদ শেষ হওয়ার আগে চিকিত্সা শেষ হলে সরকারকে অবহিত করবেন এবং দেশে ফিরে আদালতে আত্মসমর্পণ করবেন।
মামলা: আরাফাত রহমান কোকোর সিঙ্গাপুরে ব্যাংক হিসাবে জমা থাকা তিন মিলিয়ন ডলার (প্রায় ২১ কোটি টাকা) বাজেয়াপ্ত করে তা যুক্তরাষ্ট্রে নেওয়ার জন্য সে দেশের ফৌজদারি আদালতে মামলা হয়েছে। গত বছরের ৮ জানুয়ারি ওয়াশিংটন ডিসির ডিস্ট্রিক্ট কোর্টে মামলাটি করেন ফৌজদারি বিভাগের ভারপ্রাপ্ত সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল মেথিউ ফ্রেডরিক।
এর আগে সিঙ্গাপুর সরকার সে দেশের একটি ব্যাংকে জমা কোকোর ১১ কোটি ৬৬ লাখ টাকা জব্দ করেছে। যার বিস্তারিত সিঙ্গাপুর সরকার বাংলাদেশকে জানিয়েছে। কোকোর ২১ কোটি টাকা বাজেয়াপ্ত করতে যুক্তরাষ্ট্রের আদালতে মামলা সম্পর্কে মার্কিন ডিপার্টমেন্ট অব জাস্টিজ গত বছরের ৯ জানুয়ারি সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলেছিল, সিমেন্স এজি এবং চায়না হারবার ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানিকে বাংলাদেশ সরকারের বিভিন্ন কাজ (২০০১ সালের মে থেকে ২০০৬ সালের আগস্ট পর্যন্ত) পাইয়ে দেওয়ার বিনিময়ে এই ঘুষ লেনদেন হয়েছে। চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দরে কনটেইনার টার্মিনাল নির্মাণের ঠিকাদার নিযুক্তির জন্য তত্কালীন প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার ছেলে কোকো চায়না হারবার ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানির কাছ থেকে ঘুষ নেন। উল্লেখ্য, চায়না হারবার ইঞ্জিনিয়ারিং ২০০৫ সালে এ কাজটি পেয়েছিল। এ ছাড়া দেশে কোকোর বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগে মামলা রয়েছে।
- - - - - - - -
৪। সরকারের ক্ষমতা ছেড়ে দেওয়া উচিত: খালেদা জিয়া
বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া বলেছেন, সরকার গত ১৯ মাসের শাসনে জনগণকে কিছুই দিতে পারেনি। তারা গ্যাস দিতে পারে না, বিদ্যুৎ দিতে পারে না, যানজট কমাতে পারে না। দেশে এখন শুধু নেই আর নেই। এ সরকারের বোঝা উচিত, তারা ব্যর্থ। ব্যর্থতার দায় স্বীকার করে সরকারের উচিত, ক্ষমতা ছেড়ে দিয়ে নতুন কিছু চিন্তাভাবনা করা। আজ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় মহানগর নাট্যমঞ্চে জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিলে তিনি এ কথা বলেন। সরকারি দলের লোকজন সিন্ডিকেট করে রমজানের সময় দ্রব্যমূল্য বাড়িয়েছে বলেও অভিযোগ করেন বিরোধীদলীয় নেতা।
- - - - - - - -
৫। সাঈদী ও মীর কাসেমের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা
আয় কর ফাঁকির অভিযোগে জামায়াতে ইসলামীর নায়েবে আমির দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদী এবং দলটির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য মীর কাসেম আলীর বিরুদ্ধে দুটি আলাদা মামলা করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার জাতীয় রাজস্ব বোর্ড এনবিআরের পক্ষ থেকে ঢাকার জ্যেষ্ঠ বিশেষ জজ আদালতে মামলা দুটি করা হয়। আদালতের ভারপ্রাপ্ত বিচারক ইসমাইল হোসেন মামলা দুটি গ্রহণ করে সাঈদী ও মীর কাসেমের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছেন।
- - - - - - - -
৬। আরও ১০০ মেগাওয়াট ক্ষমতার কুইক রেন্টাল কেন্দ্র চালু
ঘোড়াশালে আরও ১০০ মেগাওয়াট ক্ষমতার ‘কুইক রেন্টাল’ বিদ্যুৎকেন্দ্র চালু হয়েছে। যুক্তরাজ্যভিত্তিক কোম্পানি এগ্রিকোর নির্মিত এই কেন্দ্রে গত মঙ্গলবার দিবাগত রাতে বিদ্যুৎ উৎপাদন শুরু হয়। এ নিয়ে বর্তমান সরকারের উদ্যোগে ২৫০ মেগাওয়াট নতুন বিদ্যুৎ জাতীয় গ্রিডে যুক্ত হলো। এর মধ্যে ২০০ মেগাওয়াটই এসেছে এগ্রিকোর কুইক রেন্টাল কেন্দ্র থেকে। বাকি ৫০ মেগাওয়াট এসেছে ঠাকুরগাঁওয়ের তিন বছর মেয়াদি ভাড়াভিত্তিক কেন্দ্র থেকে। এগ্রিকো উৎপাদনের জন্য চুক্তি অনুযায়ী চার মাস (১২০ দিন) সময় পেলেও তিন মাসের মধ্যেই কাজ সম্পন্ন করেছে। এ ছাড়া বিগত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে কাজ শুরু হওয়া ১৭টি বিদ্যুৎকেন্দ্র বর্তমান সরকারের আমলে চালু হয়েছে। এগুলোর মোট উৎপাদনক্ষমতা ৮২৬ মেগাওয়াট। সরকারি সূত্র জানায়, প্রধানত জ্বালানি সমস্যার কারণে কেন্দ্রগুলো পূর্ণ ক্ষমতায় উৎপাদনে নেই।

২০১১
====
১। বিরোধী দলের ভূমিকা পালন করছেন প্রবীণ সাংসদেরা: মওদুদ
বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মওদুদ আহমদ বলেছেন, দেশে একটি গণবিস্ফোরণ ঘটতে যাচ্ছে। এ ব্যাপারে সরকারি দল ও বিরোধী দল এখন একমত। বিস্ফোরণের মাধ্যমে এ সরকারের পতন হবে। মওদুদ আহমদ বলেন, সংসদে প্রবীণ ও গুরুত্বপূর্ণ সাংসদেরা সরকারের ব্যর্থতা তুলে ধরেছেন। বিরোধী দল সংসদে নেই তারা বিরোধী দলের ভূমিকা পালন করেছেন সে জন্য তাদের ধন্যবাদ জানাই। তারা চারজন মন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি করেছেন। এর মূল কারণ দুর্নীতি। আজ বিকেলে রাজধানীর একটি হোটেলে বিএনপির প্রয়াত মহাসচিব আবদুস সালাম তালুকদারের দ্বাদশ মৃত্যুবার্ষিকীর আলোচনা সভায় মওদুদ আহমদ এসব কথা বলেন।
- - - - - - - -
২। দেশে রাজস্ব আদায়ের হার বৃদ্ধি পেয়েছে
অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেছেন, ‘গত দুই বছরে দেশে রাজস্ব আদায়ের হার ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। সে কারণেই এ বছর রাজস্ব আদায়ের জন্য উচ্চাভিলাষী টার্গেট নির্ধারণ করে দেওয়া হয়েছে। আশা করি, সঠিকভাবে কাজ করলে সেই লক্ষ্যও পূরণ করা সম্ভব হবে। তবে এবারও যে টার্গেট দেওয়া হয়েছে—তা বিশ্বের অন্যান্য দেশের চেয়ে খুবই কম।’ আজ সকালে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের রাজশাহী কর বিভাগের কর্মকর্তাদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে অর্থমন্ত্রী এসব কথা বলেন।
- - - - - - - -
৩। পূর্ণাঙ্গ অর্পিত সম্পত্তি আইন পাস না হলে প্রতিবাদ: সুরঞ্জিত
আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত বলেছেন, ‘সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের দাবি অনুযায়ী অর্পিত সম্পত্তির প্রত্যর্পণ আইন পাস না হলে আমিও মাঠে নেমে প্রতিবাদ জানাব। সংশোধন নয় আমরা চাই অর্পিত সম্পত্তির পূর্ণাঙ্গ আইন পাস হোক।’
সুরঞ্জিত হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, পশ্চিমবঙ্গে সিপিএম সরকারের পতন হয়েছে। এখানেও সংখ্যালঘু সম্প্রদায় আজীবন কারও ভোটব্যাংক হয়ে থাকবে তা মনে করা ঠিক হবে না। আজ চট্টগ্রাম নগরের জে এম সেন হল প্রাঙ্গণে জন্মাষ্টমীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।
- - - - - - - -
৪। পরীক্ষা ছাড়া লাইসেন্স পেয়েছে ১ লাখ ৯০ হাজার চালক


বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের তালিকা ধরে যোগ্যতার পরীক্ষা ছাড়া গত ১৮ বছরে এক লাখ ৮৯ হাজার লোককে পেশাদার চালকের লাইসেন্স দেওয়া হয়েছে। নৌপরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান এই ফেডারেশনের কার্যকরী সভাপতি। বিএনপি-আওয়ামী লীগ দুই সরকারের আমলেই এই ফেডারেশনের দেওয়া তালিকা ধরে এসব লাইসেন্স দেওয়া হয়। পরীক্ষা ছাড়া লাইসেন্স দেওয়ার ক্ষেত্রে মোটরযান আইনের এ-সংক্রান্ত কোনো নির্দেশনাই মানা হয়নি। এখন আবার ২৮ হাজার লোককে একইভাবে পেশাদার ও ভারী যানবাহন চালকের লাইসেন্স দেওয়ার জন্য চাপ সৃষ্টি করছেন নৌমন্ত্রী শাজাহান খান। এ নিয়ে সরকার ও সরকারি দল আওয়ামী লীগ কঠোর সমালোচনার মুখে পড়লেও নৌমন্ত্রী প্রায় প্রতিদিনই তাঁর অবস্থানের পক্ষে গণমাধ্যমে বক্তব্য দিয়ে আসছেন। সারা দেশে পেশাদার চালকের লাইসেন্স আছে সাড়ে ছয় লাখ। এর মধ্যে এক লাখ ৮৯ হাজার ৫১৬ জন যোগ্যতার পরীক্ষা ছাড়া ফেডারেশনের তালিকায় লাইসেন্স পেয়েছেন। শাজাহান খানের তালিকা অনুযায়ী লাইসেন্স পান বলে বিআরটিএর কর্মীরা রসিকতা করে এঁদের ‘খানসেনা’ বলেন।
একজন মোটরযান পরিদর্শক গত রাতে নাম প্রকাশ না করার শর্তে প্রথম আলোকে বলেন, এঁদের পরীক্ষা নেওয়ার সাহসই পায় না বিআরটিএ। ২০০৯ সালে তালিকাওয়ালাদের একটা ন্যূনতম পরীক্ষা নেওয়ার কথা উঠেছিল। কিন্তু সেটা সম্ভব হয়নি। তখন প্রতিদিন ৭০০ থেকে এক হাজার জনকে পরীক্ষা ছাড়াই উত্তীর্ণ দেখিয়ে লাইসেন্স দেওয়া হয়। আর অপেশাদার চালক আছেন সাড়ে তিন লাখ। সব মিলিয়ে লাইসেন্স আছে প্রায় ১০ লাখ চালকের। সম্প্রতি দেশের বিভিন্ন স্থানে বড় বড় কয়েকটি সড়ক দুর্ঘটনায় বিপুল প্রাণহানির পরিপ্রেক্ষিতে চালকদের যোগ্যতা, দক্ষতা, আইনের শিথিলতা ইত্যাদি বিষয় আলোচনায় উঠে এসেছে।

২০১৩
====
১। তথ্যপ্রযুক্তি অধ্যাদেশ অনুমোদন : কয়েকটি ধারা অজামিনযোগ্য, শাস্তি ১৪ বছর
সর্বোচ্চ শাস্তির মেয়াদ বাড়িয়ে তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি (সংশোধন) অধ্যাদেশের খসড়ায় চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। এতে কয়েকটি অপরাধ জামিন অযোগ্য করা হয়েছে। তথ্যপ্রযুক্তির অপব্যবহার রোধে সংশোধিত আইনে ন্যূনতম সাত বছর ও সর্বোচ্চ ১৪ বছর কারাদণ্ডের বিধান রাখা হয়েছে। ২০০৬ সালে প্রণীত তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি আইনে সর্বোচ্চ ১০ বছর সাজার বিধান ছিল। এ ছাড়া এমএলএম ব্যবসা (নিয়ন্ত্রণ) আইন, ২০১৩ চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। এই ব্যবসায় কাউকে প্রতারিত করলে প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া যাবে। এ ক্ষেত্রে বিনা পরোয়ানায় গ্রেপ্তার করা যাবে। প্রতারণা করলে সরকার কোম্পানির কার্যক্রম স্থগিত করে কোম্পানিটিতে এক বা একাধিক প্রশাসক নিয়োগ করতে পারবে।
আজ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে এসব অনুমোদন দেওয়া হয়। বৈঠকে ফিন্যান্সিয়াল রিপোর্টিং আইনের খসড়াও অনুমোদন করা হয়েছে। বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোশাররাফ হোসাইন ভূইঞা তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি (সংশোধন) অধ্যাদেশ সম্পর্কে সাংবাদিকদের জানান, আগের আইনে শাস্তি অপর্যাপ্ত ও অস্পষ্ট ছিল। সংশোধিত আইনে ন্যূনতম সাত বছর ও সর্বোচ্চ ১৪ বছর কারাদণ্ডের বিধান রাখা হয়েছে। এ ছাড়া কয়েকটি অপরাধ জামিন অযোগ্য করা হয়েছে। আগের আইনে সব অপরাধ জামিনযোগ্য ছিল।
- - - - - - - -
২। শহীদুল্লা কায়সারকে মুঈনুদ্দীনের হাতে তুলে দেন খালেক
পলাতক চৌধুরী মুঈনুদ্দীন ও আশরাফুজ্জামান খানের বিরুদ্ধে মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় গতকাল সোমবার সাক্ষ্য দিয়েছেন রাষ্ট্রপক্ষের ১৩তম সাক্ষী ও শহীদ সাংবাদিক শহীদুল্লা কায়সারের স্ত্রী পান্না কায়সার (৬৩)। জবানবন্দিতে তিনি বলেছেন, একাত্তরের ১৪ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় খালেক মজুমদারসহ কয়েকজন তাঁর স্বামীকে ধরে নিয়ে যায়। খালেক তাঁর স্বামীকে মুঈনুদ্দীন ও আশরাফুজ্জামানের হাতে তুলে দেয়। বিচারপতি ওবায়দুল হাসানের নেতৃত্বে তিন সদস্যের আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-২-এ পান্না কায়সারের জবানবন্দি নেন রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলি সাহিদুর রহমান। জবানবন্দি দেওয়ার সময় সাক্ষী বারবার আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন।
জবানবন্দিতে পান্না কায়সার বলেন, তিনি ১৯৯৬ সালে বাংলা বিভাগের অধ্যাপক হিসেবে রাজধানীর বদরুননেসা কলেজ থেকে অবসর নেন। শহীদুল্লা কায়সার বিভিন্ন প্রগতিশীল ছাত্রসংগঠনের সঙ্গে প্রত্যক্ষভাবে জড়িত ছিলেন। তিনি ১৯৬৩ সালে কারাগার থেকে মুক্তি পেয়ে দৈনিক সংবাদ-এর যুগ্ম সম্পাদক পদে যোগ দেন। সেখানে তিনি পথচারী ও দেশপ্রেমিক ছদ্মনামে কলাম লিখতেন। ১৯৬৯ সালের একদিন কারফিউ চলাকালে তাঁদের বিয়ে হয়। ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধকালে এক কারফিউর দিনেই শহীদুল্লা কায়সার তাঁর জীবন থেকে চলে যান।
রাষ্ট্রপক্ষের এই সাক্ষী বলেন, তাঁর স্বামী গোপনে মুক্তিযোদ্ধাদের কাছে ওষুধ ও অর্থ সরবরাহ করতেন।
- - - - - - - -
৩। আবদুর রহমান বয়াতি আর নেই : থেমে গেল দেহঘড়ি


‘এই পৃথিবী যেমন আছে তেমনি পড়ে রবে/ সুন্দর এই পৃথিবী ছেড়ে একদিন চলে যেতে হবে’—বিজয় সরকারের এই গানটি বহুশ্রুত হয়েছিল আবদুর রহমান বয়াতির অনুপম কণ্ঠে। সেই কণ্ঠে সুর থেমে গিয়েছিল ১০ বছর আগেই মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ ঘটার কারণে। আজ থেমে গেল হূৎস্পন্দনও। সুন্দর পৃথিবীর মায়া কাটিয়ে চিরবিদায় নিলেন দেশের লোকসংগীতের কিংবদন্তিতুল্য শিল্পী আবদুর রহমান বয়াতি। জীবনের শেষ ১০টি বছর অত্যন্ত কষ্টে, বেদনায় কেটেছে গণমানুষের এই প্রিয় শিল্পীর।
এক দশক ধরে রোগভোগের পর আজ সোমবার সকাল সাড়ে সাতটায় ৭৭ বছর বয়সে রাজধানীর জাপান বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশিপ হাসপাতালে তিনি শেষনিঃশ্বাস ত্যাগ করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। তিনি স্ত্রী, তিন ছেলে, তিন মেয়ে, নাতি-নাতনি ও দেশ-বিদেশে অসংখ্য অনুরাগী রেখে গেছেন। লোকসংগীতশিল্পী আবদুর রহমান বয়াতির মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করে বিবৃতি দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, বিরোধীদলীয় নেতা খালেদা জিয়া, সংস্কৃতিমন্ত্রী আবুল কালাম আজাদ, সংস্কৃতিসচিব রণজিৎ কুমার বিশ্বাস ও বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।
- - - - - - - -
৪। প্রাথমিকে নারী শিক্ষক নিয়োগে যোগ্যতা এইচএসসি
সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক নিয়োগে নারী প্রার্থীদের ন্যূনতম শিক্ষাগত যোগ্যতা উচ্চমাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এইচএসসি) বা সমমানের ডিগ্রি করা হয়েছে। বর্তমানে নারীদের ন্যূনতম শিক্ষাগত যোগ্যতা মাধ্যমিক (এসএসসি)। পুরুষ প্রার্থীদের শিক্ষাগত যোগ্যতা আগের মতোই দ্বিতীয় বিভাগ বা সমমানের জিপিএসহ স্নাতক বা সমমানের ডিগ্রি রাখা হয়েছে।
এসব বিষয় রেখে ‘সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক নিয়োগ বিধিমালা, ২০১৩’ চূড়ান্ত করেছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। গতকাল সোমবার প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী আফছারুল আমীন বিধিমালায় চূড়ান্ত অনুমোদন দেন।
- - - - - - - -
৫। দেশি পাটের জীবন রহস্য উন্মোচন: সংবাদ সম্মেলনে ঘোষণা দিলেন প্রধানমন্ত্রী
পাটের জীবনরহস্য বা জিন নকশা (জিনোম সিকোয়েন্সিং) বের করার গবেষণায় এবার পূর্ণতা পেল বাংলাদেশ। দেশের একদল বিজ্ঞানীর এই কৃতিত্বের ফলে আগামী চার থেকে পাঁচ বছরের মধ্যে কৃষকের হাতে রোগ প্রতিরোধী ও উন্নত পাটের জাত তুলে দেওয়া যাবে। এ গবেষণায় নেতৃত্ব দিয়েছেন বিজ্ঞানী মাকসুদুল আলম।
মাকসুদুলের নেতৃত্বে তোষা পাটের জীবনরহস্য উন্মোচন হয়েছিল ২০১০ সালে। সারা বিশ্বে সবচেয়ে বেশি চাষ হওয়া পাটের দুটি প্রধান জাতের মধ্যে এটি একটি। এবার তাঁরই নেতৃত্বে আরেকটি জাত দেশি বা সাদা পাটের জীবনরহস্য উন্মোচিত হলো। আর তাঁর দল ২০১২ সালে পাটের জন্য ক্ষতিকর একধরনের ছত্রাকের জীবনরহস্য উন্মোচন করায় উন্নত পাটের জাত উদ্ভাবনের দিকে আরেক ধাপ এগিয়ে গেল বাংলাদেশ। আর এসবের স্বত্ব (পেটেন্ট) পেলে বিশ্বের যেকোনো স্থানে পাট নিয়ে গবেষণার জন্য বাংলাদেশ অর্থ পাবে। তখন পাট বললেই বাংলাদেশের কথা আসবে।
- - - - - - - -
৬। সীমান্ত বিল উঠল না তৃণমূলের বিরোধিতায়
সীমান্ত চুক্তি অনুমোদনে সংবিধান (১১৯তম সংশোধন) বিল, ২০১৩ রাজ্যসভায় পেশ করার তৃতীয় চেষ্টাও ব্যর্থ হলো তৃণমূল কংগ্রেসের তুমুল বিরোধিতায়। ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সালমান খুরশিদ এখন তৃণমূলের নেতাদের বোঝাবেন এবং এই অধিবেশনে বিলটি পেশ করতে আবার চেষ্টা করবেন। সেটা কত দিনে সম্ভব হবে, সংসদীয় প্রতিমন্ত্রী রাজীব শুক্লা তা বলতে পারেননি। বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী দীপু মনি অবশ্য আশা করেছিলেন, বিজেপি বাধা না দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়ায় রাজ্যসভায় বিলটি উত্থাপিত হয়ে যাবে। বিজেপির সাংসদেরা অবশ্য বিল উত্থাপনে বাধা দেননি।
কিন্তু বেলা দুইটায় সালমান খুরশিদ বিলটি পেশ করতে উঠে দাঁড়াতেই তৃণমূলের ডেরেক ওব্রায়ান, সৃঞ্জয় বোস, নাদিমুল হক, বিবেক গুপ্তা ও আসাম গণ পরিষদের (আগপ) বীরেন্দ্র বৈশ্য বাধা সৃষ্টি করেন। চেষ্টা চলে মন্ত্রীর হাত থেকে বিলটি ছিনিয়ে নেওয়ারও। সভা পরিচালনার দায়িত্বে থাকা ডেপুটি চেয়ারম্যান পি জে কুরিয়ন সঙ্গে সঙ্গে ১০ মিনিটের জন্য সভা মুলতবি করে দেন। ১০ মিনিট পর সভা শুরু হওয়া মাত্র তৃণমূলের সদস্যরা সালমানকে ঘিরে ধরেন। ডেরেকসহ কেউ কেউ সভার ওয়েলে নেমে আসেন ও বলতে থাকেন, কোনো অবস্থাতেই বিলটি পেশ করতে দেবেন না। প্রবল বিরোধিতার মুখে কুরিয়ন জানান, বিলটি নিয়ে পরে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।
খোঁজ নিয়ে জানা যায়, তৃণমূলের নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় গতকাল সকাল থেকেই সাংসদদের বিলটি উত্থাপনে বিরোধিতার নির্দেশ দিতে থাকেন। এর আগে দুবার বিল উত্থাপনের সময় বিরোধিতা করেছিল বিজেপি ও আগপ। তখন তৃণমূল চুপ ছিল।
কেন হঠাৎ এভাবে বিরোধিতা, জানতে চাইলে প্রথম আলোকে ডেরেক ওব্রায়ান বলেন, ‘আমরা বিরোধিতা করছি। কারণ, আমাদের সঙ্গে এ নিয়ে সরকার কোনো আলোচনাই করেনি। দেশের সীমান্ত নতুনভাবে নির্ধারিত হবে, অথচ আমাদের অন্ধকারে রাখা হচ্ছে। এটা করতে দেওয়া হলে তা খুব খারাপ দৃষ্টান্ত সৃষ্টি করবে।’
- - - - - - - -
৭। ভারতের আদালতে ন্যায়বিচার চাইলেন ফেলানীর বাবা
ভারতের বিশেষ আদালতে মেয়ে ফেলানী হত্যার ন্যায়বিচার চাইলেন বাবা নূর ইসলাম। ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) গুলিতে নিহত বাংলাদেশি কিশোরী ফেলানী হত্যা মামলায় আজ ভারতের পশ্চিমবঙ্গের কোচবিহারে বিশেষ আদালতে সাক্ষ্য দেন তিনি। ফেলানীর মামা আবদুল হানিফও সাক্ষ্য দেন। আজ সকালে কোচবিহার সার্কিট হাউস থেকে কড়া নিরাপত্তার মধ্যে তাঁদের আদালতে নিয়ে যাওয়া হয়। কঠোর গোপনীয়তা ও কড়া নিরাপত্তার মধ্যে গত মঙ্গলবার ১৩ আগস্ট থেকে কোচবিহার শহরের সোনারীতে বিএসএফ ১৮১ ব্যাটালিয়নের সদর দপ্তরের বিশেষ আদালতে এই বিচারকাজ শুরু হয়েছে। আজ বেলা সোয়া ১১টায় শুরু হয় সাক্ষ্য গ্রহণ। আদালতের রুদ্ধদ্বার কক্ষে চলে এই বিচার পর্ব। কোনো সাংবাদিককে ঢুকতে দেওয়া হয়নি।

২০১৪
====
১। বিচার বিভাগের স্বাধীনতা ক্ষুণ্ণ হবে
উচ্চ আদালতে বিচারকদের অপসারণের ক্ষমতা সংসদের হাতে দিলে বিচার বিভাগের স্বাধীনতা ক্ষুণ্ণ হবে বলে মনে করছেন দেশের বিশিষ্ট আইনজ্ঞরা। তারা বলেছেন, অভিশংসনের ক্ষমতা সংসদকে দেওয়ার ফলে রাজনৈতিক ইস্যুতে বিচারাধীন মামলা নিষ্পত্তির ক্ষেত্রে বিচারকরা স্বাধীনভাবে দায়িত্ব পালন করতে পারবেন না। বিচার বিভাগ দুর্বল হয়ে পড়বে। বিচার বিভাগের ওপর জনগণের আস্থা কমে যাবে। অনেকেই বলছেন, সবার সঙ্গে আলোচনা করে এটা করা উচিত ছিল। তাদের মতে, এতে সরকার বিচারকদের চাপ প্রয়োগ করার সুযোগ পাবে।
- - - - - -
২। শতাধিক জেলে অপহরণ, কোটি টাকার ইলিশ লুট
উত্তাল বঙ্গোসাগরে জলদস্যুদের তাণ্ডবে আতঙ্কিত জেলেরা। প্রায় ছয় ঘণ্টায় জলদস্যুরা সাতটি ট্রলারসহ শতাধিক জেলেকে মুক্তিপণের দাবিতে অপহরণ ও কোটি টাকার ইলিশ লুট করেছে বলে অভিযোগ করা হয়েছে। সোমবার রাত ১২ টা থেকে মঙ্গলবার সকাল ৬ টা পর্যন্ত পূর্ব সুন্দরবনের শরণখোলা রেঞ্জের দুবলা, নারকেলবাড়িয়া ও বঙ্গোপসাগরের ১নম্বর ফেয়ারওয়ে বয়ার পূর্বপাশে এ ঘটনা ঘটে।
- - - - - -
৩। ৫ বছর আগে নির্বাচন নয় : তোফায়েল
বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, নির্বাচিত সরকার তার পাঁচ বছর পূর্ণ মেয়াদে সরকার পরিচালনা করবে। ২০১৯ সালের ২৯ জানুয়ারির আগের ৯০ দিনের মধ্যে নির্বাচন হবে। আজ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে (জবি) জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৩৯তম শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।
- - - - - -
৪। বাসযোগ্য শহরের তালিকায় তলানিতে ঢাকা
বিশ্বে বাসযোগ্য শহরের তালিকায় ঢাকার অবস্থান একেবারে শেষ দিকে। আজ মঙ্গলবার ইকনোমিস্ট ইন্টেলিজেন্স ইউনিট (ইআইইউ) প্রকাশিত প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে এসেছে। তালিকায় স্থান পাওয়া ১৪০টি শহরের মধ্যে ঢাকার অবস্থান ১৩৯তম। ঢাকার পরে রয়েছে যুদ্ধবিধ্বস্ত সিরিয়ার দামেস্ক শহর। বাসযোগ্য শহরের তালিকায় প্রথম হয়েছে অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্ন। এছাড়া অস্ট্রিয়ার ভিয়েনা দ্বিতীয়, কানাডার ভ্যানকোবার তৃতীয় ও টরন্টো চতুর্থ স্থানে রয়েছে। মেলবোর্ন এ নিয়ে টানা চতুর্থবার তালিকায় শীর্ষস্থান অধিকার করলো।
- - - - - -
৫। শিল্পকারখানায় গ্যাস সংকট উৎপাদন ব্যাহত
শিল্পে আবার গ্যাস সংকট শুরু হয়েছে। প্রয়োজনের অর্ধেক গ্যাসও পাচ্ছে না সাভার, আশুলিয়া, মানিকগঞ্জ, জয়দেবপুর, চন্দ্রাসহ বিভিন্ন এলাকার শিল্পকারখানাগুলো। তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের (তিতাস গ্যাস) ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী মো. নওশাদ ইসলাম বলেন, 'সার কারখানাগুলো সব ঈদের সময় থেকে চালু হয়েছে। প্রায় দুই মাস বন্ধ থাকার পর যমুনা সার কারখানা চালু হয়েছে। সেখানে দৈনিক সাড়ে চার কোটি ঘনফুট গ্যাস দিতে হচ্ছে। সার কারখানায় গ্যাস দেওয়ার ফলে অন্যান্য শিল্পে কিছুটা চাপ কমেছে। দ্রুত এই সমস্যা সমাধান হবে।'
দেশে দৈনিক মোট গ্যাসের চাহিদা দুই হাজার ৭০০ কোটি ঘনফুট। এর বিপরীতে এখন গড়ে সরবরাহ হচ্ছে দুই হাজার ৩০০ কোটি ঘনফুট। এর মধ্যে বিদ্যুৎ উৎপাদনে ৪২ শতাংশ, শিল্প-কারখানায় ২০, ক্যাপটিভ বিদ্যুৎ উৎপাদনে ১৬, বাসাবাড়িতে ১২, সার উৎপাদনে ৭, সিএনজিতে ৫ এবং বাণিজ্যিক কাজে ২ শতাংশ গ্যাস ব্যবহার হচ্ছে।

২০১৫
====
১। ঢাকা-দিল্লি যৌথভাবে বাজার সম্প্রসারণে ঐকমত্য


বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে অর্থনৈতিক উন্নয়ন ত্বরান্বিত করা ও অন্যদের ওপর নির্ভরশীলতা কমাতে এ দুই প্রতিবেশী দেশ যৌথভাবে বাজার অনুসন্ধান ও সম্প্রসারণে একমত হয়েছে। ভারত সফররত বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির মধ্যে এক বৈঠকে এই ঐকমত্য হয়। আজ সকালে ভারতের প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে এ বৈঠক হয়।
- - - - - -
২। শুভ্রা মুখোপাধ্যায়ের প্রতি প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা
ভারতের রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়ের স্ত্রী শুভ্রা মুখোপাধ্যায়ের মরদেহে ফুল দিয়ে তার প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ সকালে প্রণব মুখোপাধ্যায়ের ছেলে অভিজিৎ মুখোপাধ্যায়ের নয়াদিল্লির ১৩ তাল কাটরা রোডের বাসায় শ্রভ্রা মুখোপাধ্যায়ের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন প্রধানমন্ত্রী। পরে তিনি ভারতের রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নয়াদিল্লির লোদী রোডের শ্মশানে শুভ্রা মুখোপাধ্যায়ের শেষকৃত্যে যোগ দেন।
- - - - - -
৩। জঙ্গি অর্থায়ন: সুপ্রিম কোর্টের ৩ আইনজীবী গ্রেফতার


জঙ্গি অর্থায়নের অভিযোগে সুপ্রিম কোর্টের তিন আইনজীবীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৭ এর একটি দল। তারা হলেন- ব্যারিস্টার শাকিলা ফারজানা, অ্যাডভোকেট লিটন ও অ্যাডভোকেট বাপন। ঘতকাল রাত ১১টার দিকে রাজধানীর ধানমণ্ডি এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়েছে বলে র‌্যাবের পক্ষ থেকে জানানো হয়।
আজ দুপুরে চট্টগ্রামের পতেঙ্গায় র‌্যাব-৭ এর সদর দফতরে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, এসএইচবি (শহীদ হামজা ব্রিগেড) নামে একটি জঙ্গি সংগঠনকে এক কোটি আট লাখ টাকা সহায়তা প্রদানের অভিযোগে এই তিন আইনজীবীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।
- - - - - -
৪। জামিন পেলেন সাংবাদিক প্রবীর সিকদার
স্থানীয় সরকারমন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেনের সুনাম ক্ষুণ্ণের অভিযোগে তথ্যপ্রযুক্তি আইনের মামলায় গ্রেফতার সাংবাদিক প্রবীর সিকদারকে জামিন দিয়েছেন আদালত। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৩ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করার একদিন পর বুধবার ফরিদপুরের এক নম্বর আমলি আদালতের বিচারক হামিদুল ইসলাম শুনানি শেষে তার জামিন মঞ্জুর করেন।
মন্ত্রীকে নিয়ে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেওয়ার ঘটনায় গত রোববার রাতে রাজধানীর ইন্দিরা রোডের পত্রিকা কার্যালয় থেকে প্রবীরকে গ্রেফতার করে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। প্রবীর সিকদার 'উত্তরাধিকার ৭১ নিউজ' ও 'দৈনিক বাংলা ৭১' নামের পত্রিকার সম্পাদক ও প্রকাশক। তিনি এর আগে সমকাল ও কালের কণ্ঠে কাজ করেন।
- - - - - -
৫। আন্তর্জাতিক দরপত্রে অংশ নিয়ে কাজ পেল বাপেক্স
প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক দরপত্রে অংশ নিয়ে গ্যাস কূপ খননের কাজ পেল বাপেক্স। কুমিল্লার বাঙ্গুরা গ্যাসক্ষেত্রে দুটি কূপ খননের কাজ পেয়েছে তারা।
বুধবার দরপ্রস্তাব বিবেচনা শেষে সিঙ্গাপুরভিত্তিক তেল গ্যাস কোম্পানি ক্রিস এনার্জি বাপেক্সকে কাজ দিয়েছে। রাশিয়া, চীনসহ কয়েকটি দেশের কোম্পানির সঙ্গে প্রতিযোগিতা করে এ কাজ পেয়েছে বাপেক্স।
ক্রিস এনার্জি বর্তমানে বাঙ্গুরা গ্যাসক্ষেত্রটি পরিচালনা করছে। বাঙ্গুরা-৬ ও ৭ নম্বর কূপ খননের জন্য গত মে মাসে আন্তর্জাতিক দরপত্র আহ্বান করে। গ্যাসের উৎপাদন বাড়ানোর জন্য নতুন করে দুটি কূপ খননের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।
- - - - - -
৬। এম কে আনোয়ার কারাগারে
কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে গত ৩ ফেব্রুয়ারি পেট্রোল বোমা হামলায় ৮ জন নিহতের মামলায় বিএনপি’র স্থায়ী কমিটির সদস্য, সাবেক মন্ত্রী ও জেলার হোমনা-তিতাস সংসদীয় আসনের সাবেক এমপি এম কে আনোয়ারকে কুমিল্লা কেন্দ্রীয় কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১০টার দিকে তিনি উচ্চ আদালতের নির্দেশে কুমিল্লার ৫নং আমলী আদালতে হাজিরা দেন। এ সময় আদালত তার জামিন নামঞ্জুর করে জেলহাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন।
আদালত সূত্রে জানা যায়, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের জেলার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার জগমোহনপুর এলাকায় যাত্রীবাহী আইকন পরিবহনের একটি নৈশকোচে পেট্রোল বোমা হামলায় মোট ৮ জন যাত্রী নিহত হন। এ ঘটনায় চৌদ্দগ্রাম থানায় দায়ের করা মামলায় সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের নির্দেশে গত ৩ আগস্ট কুমিল্লার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির হন বিএনপি’র কেন্দ্রীয় নেতা এম কে আনোয়ার।
- - - - - -
৭। গাজীপুরের মেয়র মান্নান বরখাস্ত
গাড়ি পোড়ানো মামলায় কারাগারে যাওয়ায় গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র অধ্যাপক এমএ মান্নানকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। আজ স্থানীয় সরকার বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত আদেশ জারি করা হয়েছে। স্থানীয় সরকার বিভাগের সহকারী সচিব একেএম আনিছুজ্জামান স্বাক্ষরিত আদেশে বলা হয়েছে, এমএ মান্নানের বিরুদ্ধে জয়দেবপুর থানায় একটি ফৌজদারি মামলায় গত ১২ মে গাজীপুরের আদালত অভিযোগপত্র গ্রহণ করেছে। এ জন্য 'স্থানীয় সরকার (সিটি করপোরেশন) আইন-২০০৯' এর ধারা ১২-এর উপধারা (১)-এর ক্ষমতাবলে তাকে বরখাস্ত করা হয়েছে।
উল্লেখ্য, গত ৪ ফেব্রুয়ারি রাতে গাজীপুরে যাত্রীবাহী বাসে পেট্রোলবোমা হামলার মামলায় গত ১১ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যায় মেয়র মান্নান ঢাকার বারিধারার বাসভবন থেকে গ্রেফতার হন। গাড়ি পোড়ানোসহ ১০টি মামলা রয়েছে তার বিরুদ্ধে। বর্তমানে তিনি কারাগারে। গত ৮ মার্চ প্যানেল মেয়র আসাদুর রহমান কিরণ ভারপ্রাপ্ত মেয়র হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন।
- - - - - -
৮। ‘বিশ্বব্যাপী আর্থিক সংকট সৃষ্টি হলেও বাংলাদেশে হয়নি’
বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ড. আতিউর রহমান বলেছেন, আর্থিক সুবিধা সবার কাছে পৌঁছে দিতেই অর্ন্তভূক্তিমূলক অর্থায়নের উপর গুরুত্ব দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। কতিপয় মানুষের কাছে টাকা থাকলে তাতে ঝুঁকি বৃদ্ধি পায়। তাই সকলের কাছ টাকা পৌঁছাতে টাকা বিকেন্দ্রীকরণের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। বুধবার বিকেলে আগারগাঁওয়ে বঙ্গবন্ধু আর্ন্তজাতিক সম্মেলনে কেন্দ্রে (বিআইসিসি) ইনক্লুসিভ ফাইন্যান্স ইন বাংলাদেশ শীর্ষক দুদিন ব্যাপী জাতীয় সম্মেলনের দ্বিতীয় দিনে দ্বিতীয় অধিবেশনে ‘ফাইনান্সিয়াল লিটারেসি অ্যান্ড ইটস ইমপ্যাক্ট অন ইনক্লুসিভ ফাইন্যান্স’ সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি। ইনস্টিটিউট অব মাইক্রো ফাইন্যান্স এই সম্মেলনের আয়োজন করে।
গভর্নর আরও বলেন, বিশ্বব্যাপী আর্থিক সংকট সৃষ্টি হলেও বাংলাদেশে হয়নি। কারণ আমরা টাকা আকাশে না উড়িয়ে মাটিতে ঢেলেছি। আমাদের কৃষক খাদ্য উৎপাদন করেছে। খাদ্য আমদানি না করায় রিজার্ভ বৃদ্ধিতেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে কৃষক। মাইক্রো ফাইন্যান্স ইনস্টিটিউট ফাইন্যান্সিয়াল ইনক্লুসিভে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে।
- - - - - -
৯। সাংবাদিক শওকত মাহমুদ ৩ দিনের রিমান্ডে
বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) একাংশের সভাপতি শওকত মাহমুদের তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। বুধবার দুপুরে ঢাকা মহানগর হাকিম শাহরিয়ার মাহমুদ আদনান এই আদেশ দেন।
এর আগে বেলা ১২টার দিকে গাড়ি পোড়ানোর অভিযোগে রমনা থানায় দায়ের করা একটি মামলায় শওকত মাহমুদকে আদালতে হাজির করে ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়। শুনানি শেষে আদালত তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে।

২০১৬
====
১। লোহাগড়ায় কৃষকলীগ নেতাকে হত্যা, প্রতিবাদে ৭০ বাড়িতে ভাঙচুর-লুটপাট


নড়াইলের লোহাগড়ায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে মল্লিকপুর ইউনিয়ন কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক নূর ইসলাম মৃধাকে (৪৫) কুপিয়ে হত্যার চারদিন পার হলেও এখনো পর্যন্ত থানায় মামলা দায়ের করা হয়নি। বরং খুনের ঘটনার পর বাদী পক্ষের দলীয় সমর্থকরা সম্ভাব্য আসামিসহ অন্তত ৭০টি বাড়িতে ভাঙচুর ও লুটপাট করেছে বলে অভিযোগ রয়েছে। বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, নিহত নূর ইসলাম মৃধার পরিবার দ্রুত মামলা দিতে চাইলেও গ্রামের কয়েকজন কথিত মাতব্বরদের পারিপার্শ্বিকতার কারণে চাইলেই কিছু একটা করতে পারছেন না। পুলিশ বলছে, থানায় মামলা দিতে আসছে, আর চলে যাচ্ছে, আমরা কি করবো।
গত ১৬ আগস্ট সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার পারমল্লিকপুর গ্রামে মৃত মকসেদ মৃধার ছেলে নূর ইসলামকে গ্রাম্য দলীয় প্রতিপক্ষরা কুপিয়ে হত্যা করে। ওই সময় অন্তত ১৫ জন আহত হয়। ঘটনার পর পুলিশ ছয়জনকে আটক করে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ ১২ রাউন্ড শর্ট গানের এবং গ্যাস গানের ৩ রাউন্ড গুলি বর্ষণ করে।
- - - - - - -
২। শিগগিরই বিটিভি দেখা যাবে ভারতে
রাষ্ট্রায়ত্ত টেলিভিশন চ্যানেল বিটিভি শিগগিরই ভারতে দেখা যাবে বলে জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু। শুক্রবার দিল্লিতে বাংলাদেশ হাইকমিশনে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ তথ্য জানান। এ ছাড়া ভারতে বাংলাদেশি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলগুলোর সম্প্রচারের বিষয়েও ইতিবাচক আলোচনা হয়েছে বলে জানান তিনি।
- - - - - - -
৩। ‘আগামী বছরেই খুলনা-কোলকাতা ট্রেন চলাচল শুরু’
ঢাকায় নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার হর্ষবর্ধন শ্রিংলা বলেছেন, আগামী বছরের শুরুতেই খুলনা-কোলকাতা রুটে যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচল শুরু করবে। সেই লক্ষে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। বেনাপোল পেট্রপোল ব্যবসায়ীদের জন্য একটি উপযুক্ত পয়েন্ট। বেনাপোল বন্দর দিয়ে উভয় দেশের ট্রেডকে সুসংহত করতে উভয় দেশ একসঙ্গে কাজ করছে। বাংলাদেশি ছোট বড় সব ধরনের ব্যবসায়ীদের ৫ বছরের ভিসা প্রদান করা হবে অচিরেই। বেনাপোল সিএন্ডএফ এজেন্টস অ্যাসোশিয়েশন ব্যবসায়ীদের সঙ্গে আজ দুপুরে অ্যাসোশিয়েশন মিলনায়তনে এক মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।
- - - - - - -
৪। নিজামীর স্ত্রীর স্কুল থেকে জামায়াতের ১৮ নেতাকর্মী আটক
নাশকতার পরিকল্পনার অভিযোগে রাজধানীর বাড্ডার ইসলামিক ইন্টারন্যাশনাল স্কুল অ্যান্ড কলেজ থেকে জামায়াত-শিবিরের ১৮ নেতাকর্মীকে আটক করেছে পুলিশ। আজ সকাল সেখানে পুলিশের অভিযানে প্রথমে পাঁচ নারীসহ ২৭ জনকে আটক করা হলেও পরে অন্যদের ছেড়ে দেওয়া হয়। একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে মৃত্যুদণ্ডে দণ্ডিত জামায়াত নেতা মতিউর রহমান নিজামীর স্ত্রী শামসুন্নাহার নিজামী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটির অধ্যক্ষ।
- - - - - - -
৫। বাংলাদেশের ওয়েব পোর্টালের বিরুদ্ধে 'পাখির' অভিযোগ


বাংলাদেশের কয়েকটি সংবাদবিষয়ক ওয়েব পোর্টালের বিরুদ্ধে আপত্তিকর মিথ্যা খবর প্রকাশের অভিযোগ করলেন 'পাখি'খ্যাত ভারতের পশ্চিমবঙ্গের জনপ্রিয় অভিনেত্রী মধুমিতা চক্রবর্তী। শুক্রবার সকালে কলকাতায় পুলিশ সদরদফতর লালবাজারের সাইবার ক্রাইম বিভাগে এ অভিযোগ করেন তিনি। শুধু তাই নয়, তার প্রায় শ'খানেক ছবিও বিকৃত করে ওই সব সাইটে তোলা হয়েছে বলে অভিযোগ করেন 'বোঝে না সে বোঝে না' টিভি সিরিয়ালে 'পাখি' চরিত্রে অভিনয় করা মধুমিতা।
অভিযোগে বলা হয়, দেহব্যবসা করতে গিয়ে ভারতের সৈকত নগরী গোয়ার হোটেল থেকে তিনি গ্রেফতার হয়েছেন বলে গত ১৪ আগস্ট আপত্তিকর খবরটি প্রকাশ করে পোর্টালগুলো। খবরের সূত্র হিসেবে পশ্চিমবঙ্গের প্রথম সারির একটি দৈনিকের নাম উল্লেখ করা হয়। সোশ্যাল মিডিয়ায় মুহূর্তেই ভাইরাল হয়ে যায় খবরটির লিঙ্ক। মধুমিতা বলেন, 'প্রথমে যে বাংলাদেশি ওয়েবসাইট এ খবর প্রকাশ করে, সেখানে খবরের সূত্র হিসেবে তারা কলকাতার প্রথম সারির একটি সংবাদপত্রের নাম উল্লেখ করে। কিন্তু ওই সংবাদপত্রে এ ধরনের কোনো খবর প্রকাশ হয়নি।' তিনি আরও বলেন, 'বাংলাদেশের তিনটি ওয়েব পোর্টালে তার নামে ভুয়া খবর ও অশালীন ছবি প্রচার হচ্ছে। সেসব খবরের সূত্র ধরে ফেসবুক ও টুইটারে তার নামে ভুয়া অ্যাকাউন্ট খুলে বিতর্কিত মন্তব্য ও ছবি দেওয়া হচ্ছে।'
- - - - - - -
৬। দুঃসময়ে হাইব্রিড নেতাদের খুঁজে পাওয়া যাবে না: ওবায়দুল কাদের
আওয়ামী লীগে অনুপ্রবেশ করা হাইব্রিড নেতাদের চিনে রাখতে দলের নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। আওয়ামী লীগের সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী ফোরাম সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ওবায়দুল কাদের বলেন, দলের দুঃসময়ে এসব হাইব্রিড নেতাদের খুঁজে পাওয়া যাবে না। আজ রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে যুব মহিলা লীগ আয়োজিত স্মরণসভায় ওবায়দুল কাদের এ কথা বলেন।

২০১৭
====
১। লালমনিরহাটে এলাকাবাসীর উদ্যোগে রেলপথ মেরামত


সাস্প্রতিক বন্যায় তিস্তা ও সানিয়াজান নদীর পানির চাপে লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা হাসপাতালের পিছনে রেলপথ ভেঙে যায়। বন্ধ হয়ে যায় বুড়িমারী স্থলবন্দরের সঙ্গে সারা দেশের রেল যোগাযোগ ব্যবস্থা। ওই রেলপথ ভেঙে তিস্তা ও সানিয়াজান নদীর পানিতে জেলার হাতীবান্ধা ও কালীগঞ্জ উপজেলার সীমান্তঘেঁষা ৭টি ইউনিয়নের হাজার হাজার পরিবার পানিবন্দি হয়ে পড়ে। নষ্ট হয়ে যায় হাজার হাজার হেক্টর জমির রোপা আমন ক্ষেত। ভেসে গেছে শত শত পুকুরের মাছ।
ভেঙে যাওয়া ওই রেলপথটি মেরামত করতে সরকারের অপেক্ষায় না থেকে স্বেচ্ছাশ্রম ভিত্তিতে মেরামতের উদ্যোগ নেয় স্থানীয় লোকজন। ১৯ আগস্ট সকালে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকার শত শত মানুষ নিজ বাড়ি থেকে বস্তা ও ট্রাকে মাটি এনে রেলপথ মেরামতের কাজ শুরু করেন।
- - - - - - -
২। প্রধান বিচারপতির পদত্যাগ দাবি ওলামা লীগের
প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহার পদত্যাগ দাবি করেছে বাংলাদেশ আওয়ামী ওলামা লীগ। পদত্যাগ না করলে আলেমদের নিয়ে সুপ্রিমকোর্ট ঘেরাও কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে বলে উল্লেখ করেছেন ওলামা লীগ সভাপতি মাওলানা মোহাম্মদ আখতার হুসাইন বুখারী। আজ জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে আয়োজিত এক মানববন্ধনে তিনি এ কথা বলেন।
- - - - - - -
৩। রায় কে লিখে দিয়েছেন জানি, তবে বলব না: লতিফ সিদ্দিকী
আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সাবেক সদস্য আবদুল লতিফ সিদ্দিকী দাবি করেছেন, সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের রায় কার মদদে হয়েছে, রায় কে লিখে দিয়েছেন, এসব তিনি জানেন। কিন্তু বলবেন না। তার ভাষায়-আওয়ামী লীগ নেতৃত্ব সঠিকভাবে বিষয়টি মোকাবেলা করতে ব্যর্থ হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী ও আইনমন্ত্রী ছাড়া অন্যরা ষড়যন্ত্রকে উস্কে দেওয়ার সুযোগ করে দিচ্ছেন। শনিবার রাজধানীর সেগুনবাগিচায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে লতিফ সিদ্দিকী এ কথা বলেন।

২০১৮
====


সূচীপত্র:→ বাংলাদেশ: ফিরে দেখা

________________
তথ্য ও ছবিসূত্র:
দৈনিক ইত্তেফাক, দৈনিক প্রথম আলো, দৈনিক সমকাল, দৈনিক যুগান্তর এবং অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ সংবাদ মাধ্যম।
বাংলাদেশের তারিখ : বিচারপতি মুহাম্মদ হাবিবুর রহমান।
বাংলাদেশের ইতিহাস সংক্রান্ত বিভিন্ন বই-পুস্তক ও পত্রপত্রিকা।
ইন্টারনেট, উইকিপিডিয়া, বাংলাপিডিয়া।
সর্বশেষ এডিট : ১৯ শে আগস্ট, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:৪৯
৪টি মন্তব্য ৩টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

সময় আসবে, মুসলিমদের আমেরিকা, অস্ট্রেলিয়া ও ইউরোপে মাইগ্রেশন করতে দেবে না।

লিখেছেন চাঁদগাজী, ১৮ ই মার্চ, ২০১৯ সকাল ৭:৪২

বাংলাদেশের ১ম প্রজন্ম নিজদের বাংগালী হিসেবে গর্ববোধ করতেন; এবং মুসলমান হিসবে বিশ্বের অন্য মুসলমানদের চেয়ে সরলপ্রাণ ছিলেন; বর্তামান প্রজন্মের সদস্যদের কিছু অংশ, কিছুটা নিরীহ পাকিস্তানীদের মতো; এখন যারা কলেজে... ...বাকিটুকু পড়ুন

টুকরো টুকরো সাদা মিথ্যা- ৮৭

লিখেছেন রাজীব নুর, ১৮ ই মার্চ, ২০১৯ সকাল ৭:৪৬

১। ক্যালেন্ডারের পাতা উল্টানো খুবই শখের একটা কাজ ছিল ছোটবেলায়। এ কাজে এত সিরিয়াস ছিলাম যে মাঝে মাঝে মাস শেষের দুই এক দিন আগেই কাজটি সেরে ফেলতাম। এখনও একাজটি অনেক... ...বাকিটুকু পড়ুন

ভয়ে নবজাতককে ট্রাংকে লুকিয়ে রাখেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী

লিখেছেন মৃত্যু হবে একদিন, ১৮ ই মার্চ, ২০১৯ দুপুর ১:৩০

নিউজ লিংক ফেসবুক লিংক

ফেসবুকে কিছু মন্তব্যঃ-
MD Ashraf
আধুনিক বলে কথা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ে এটা তেমন কিছু নয়,,,,একই কাজ যদি কোন মাদ্রাসার মেয়ে করতো তাহলে আজকে নারীবাদীদের চোদনে দেশ কেঁপে উঠতো,... ...বাকিটুকু পড়ুন

ব্র্যান্ডিংঃ বাংলাদেশের খাবার ও পর্যটন

লিখেছেন ভুয়া মফিজ, ১৮ ই মার্চ, ২০১৯ বিকাল ৩:৫৮

গতকাল ইউটিউবে দু’জন খাদ্যরসিক ট্রাভেলারের ভ্লগ দেখছিলাম। একজন বৃটিশ, নাম জ্যাসন বিলাম; অন্যজন ক্যানাডিয়ান, নাম ট্রেভর জেমস। এদের দু’জনেরটা বিশেষভাবে দেখছিলাম এই কারনে যে, দুজনেই সম্প্রতি বাংলাদেশ........তথা ঢাকা থেকে ঘুরে... ...বাকিটুকু পড়ুন

টং মানব

লিখেছেন  ব্লগার_প্রান্ত, ১৮ ই মার্চ, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:১৮

বাবা মার স্বপ্ন ছিলো, বড় ছেলে সাইন্সে পড়বে। এই বিশ্ব বসতির বুকে ছেলের কীর্তি যখন দ্বীপ্তিমান সূর্যের মতো জ্বলবে, তখন বাবা মা- ও বেঁচে থাকবেন শত সহস্র বছর, সেই উজ্জ্বল... ...বাকিটুকু পড়ুন

×