somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

ইসলামের শুরু

২৬ শে মার্চ, ২০২০ বিকাল ৩:৩৮
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :

সুরা তওবার ৪৫ নম্বর আয়াতে মহান আল্লাহ পাক বলেন - "তোমার নিকট অব্যাহতি প্রার্থনা করে শুধু তাহারাই , যাহারা আল্লাহ ও শেষ দিবসে ঈমান আনয়ন করে না এবং যাহাদের হৃদয় সংশয়যুক্ত , আর উহারা তো আপন সংশয়ে দ্বিধাগ্রস্ত" ।



প্রিয় বিশ্ববাসী , তোমরা যাহাদেরকে দেশের সর্বশ্রেষ্ঠ পীর বা আলেম মানছো , প্রকৃতপক্ষে তাহাদের কোনো ঈমানই নাই । কারণ তাহাদের হৃদয় তীব্র সংশয়যুক্ত এবং তীব্র সংশয়ে দ্বিধাগ্রস্ত । আহমদ শফী , মামনুল হক , চরমোনাই , যাদেরকেই দেখো , আসলে তাদের হৃদয় তীব্র সংশয়ে দ্বিধাগ্রস্ত । কারণ মৌখিক ঈমান দ্বারা হত্যা থেকে বাঁচা যায় , কিন্তু পীর , আলেম বা নেতা হওয়া যায় না । কিভাবে তারা পীর , আলেম বা নেতা হবে , যদিও তারা ভূল ইসলামকে সর্বোচ্চ কঠোরভাবে নিজের এবং সবার উপর চাপিয়ে দেয় । আর তারা একনিষ্ঠ ইবাদতের আদিষ্ট হয়েছিল ।



প্রিয় বিশ্ববাসী , এভাবে চরম পথভ্রষ্ট হলো - জামাত শিবির , আহলে হাদিস , এনায়েতুল্লাহ আব্বাসীসহ সকলেই । কারণ তারা ধমকের সাথে সংশয়কে দূর করতে চায় , আসলে তারা তীব্র সংশয়ে দ্বিধাগ্রস্ত । এক কথায় বলতে গেলে তারা সকলে শিরক করছে । কারণ তারা হৃদয় থেকে সামান্য ইবাদতও করে না এবং তারা ধর্মকে মানুষের উপর চাপিয়ে দেয় । আল্লাহ এবং সকল সৃষ্টির লানত তাহাদের উপর ।



প্রিয় বিশ্ববাসী , এভাবে ঈমান ছাড়া হলো সমস্ত জঙ্গি সংগঠন এবং শয়তানের দোসর তালেবান । মুসলিম ব্রাদারহুডসহ সমগ্র উগ্রবাদী দল । অবশ্যই এদের হৃদয় তীব্র সংশয়ে দ্বিধাগ্রস্ত এবং তারা পরিপূর্ণ শিরকে লিপ্ত ।



প্রিয় বিশ্ববাসী , রাসুলে পাক সাঃ বলেছেন - "এমন এক সময় আসবে , যখন ইসলামের এক-দশমাংশ আমল করলেই পরকাল মুক্তি" । [ মেশকাত , তিরমিজি ] । বহু পূর্বেই এই সময় এসে গেছে । অতএব ২৪ ঘন্টাকে ১০০ ঘন্টা তৈরি করে সবসময় ইসলাম ইসলাম করা যাবে না । শুইতে বসতে দাঁড়াইতে ইসলাম ইসলাম করা যাবে না । বরং তীব্রভাবে ইসলাম বিরোধী নয় , এমন কাজসমূহ করার সময় ইসলামকে স্মরণ করা যাবে না । কারণ হাদিসে আছে , রাসুলে পাক সাঃ বলেছেন - "দুনিয়ার কাজ করার সময় পরকালকে স্মরণ করবে না এবং পরকালের কাজ করার সময় দুনিয়াকে স্মরণ করবে না । [ ইমাম গাজ্জালী ]



প্রিয় বিশ্ববাসী , আল্লাহর কসম করে বলছি , খিযির আঃ আমাকে গান দেখার অনুমতি দিয়েছেন এবং সূক্ষ্ম চিন্তার উৎসাহ দিয়েছেন । তবে তোমরা খেয়াল করবে , গান দেখার সময় পরিবেশ যেনো অশ্লীল না হয় এবং খারাপ সংঘটিত না হয় । অবশ্যই খিযির আঃ আমাকে লিখতে আদেশ করেছেন , আর এতে বিন্দুমাত্র সন্দেহ নাই ।



প্রিয় বিশ্ববাসী , মহান ইকবাল বলেছেন যে, যে নামাজ তোমাকে পথ দেখায় না , সে নামাজ কোনো নামাজই নয় । হে নামধারী মুসলিম তোমার পীর , তোমার দলের প্রধান , তোমার প্রিয় আলেমসহ কেউই সামান্যতম নামাজ শিখতে পারে নাই । কারণ নামাজ শিখলে পৃথিবীতে কোনো অশান্তি থাকতো না । যদি পৃথিবীর অধিকাংশ মুসলিম নামাজ শিখতে পারে , তবেই পৃথিবীতে শান্তি ।



প্রিয় মুসলিম , নামাজ শিখতে চাও , তাহলে যাহারা আল্লাহর অলী হয়ে গেছেন , তাহাদেরকে হৃদয়ে ধারণ করে নামাজ পড়ো , কারণ আল্লাহর অলীগন আল্লাহর নূর , তাই তাদেরকে হৃদয়ে ধারণ করাতে কোনো পাপ নেই । খুব শীঘ্রই যখন নামাজ শিখে যাবে , তখন তোমরা সব বুঝতে পারবে ।



প্রিয় বিশ্ববাসী , আমার হৃদয়ে মহান আল্লাহ ওয়ায়েস আল কারনীকে দান করেছেন । কারণ অসীলা ছাড়া আল্লাহকে পাওয়া যায় না । আল্লাহর কসম করে বলছি , আমি অবশ্যই জানি ওয়ায়েস কারনীর চেহারা কেমন , দাড়ি কেমন এবং লম্বা কেমন । যদি তোমাদের চক্ষু থাকতো , তবে তোমরা আমার হৃদয়ে এবং দেহভ্যন্তরের সকল জায়গায় ওয়ায়েস কারনীকে দেখতে পাইতে ।



প্রিয় বিশ্ববাসী , হিন্দুস্থানের বেলায়েতের অধিকারী খাজা মঈনুদ্দিন চিশতি রঃ , তাকেও ভালবাসতে হবে , কারণ তিনিও আমাকে ঘিরে আছেন ।



প্রিয় মুসলিম , যদি নামাজ শিখতে চাও , তবে হৃদয় মাঝে আমাকে ধারণ করো । অতঃপর যখন নামাজ শিখে যাবে , তখন সবকিছু দেখতে ও জানতে পারবে এবং আল্লাহকে হৃদয় মাঝে দেখতে পারবে ও তাঁর থেকে সব আদেশ নিষেধ শুনতে পারবে । নামাজ শিক্ষা হয়ে গেলে , নামাজের মাধ্যমে মহান আল্লাহ তোমাকে আমার নিকট পাঠাবেন , যেনো তুমি আমার নিকট এসে তোমার জান এবং মাল আমার পায়ের নিকট নিক্ষেপ করতে পারো । অতঃপর আমি তোমাকে ইসলাম বলে দেই এবং কোরান হাদিসের অর্থ বলে দেই । আল্লাহর কসম করে বলছি , নামাজ শিখলে এটা ঘটবেই এবং আমার নিকট না আসা পর্যন্ত তোমার নিস্তার নেই ।



প্রিয় মুসলিম , মহান ইকবাল বলেছেন , বিশ্বশান্তি প্রতিষ্ঠায় একটি রুহুই যথেষ্ট । আল্লাহর কসম করে বলছি , মহান আল্লাহ অবশ্যই আমাকে এমন এক ক্ষমতাধর জ্বলন্ত অঙ্গার দান করেছেন , যার দ্বারা সমস্ত অপবিত্রতা পুড়ে ছাই হবেই ইনশাআল্লাহ । এটা এমন অঙ্গার , যা মুসা আঃ যাত্রাপথে দেখেছিলেন । প্রিয় বিশ্ববাসী , আমার হৃদয়ের নিকটবর্তী হও এবং তোমার অপবিত্রতাকে পুড়ে ছাই করো । তবেই মুক্তি । অতঃপর তুমি পৃথিবীর যতবড় পীরই হও না কেনো , আমার নিকটবর্তী হতেই হবে । ইনশাআল্লাহ পৃথিবীতে শান্তি আসন্ন ।



প্রিয় বিশ্ববাসী , বড়পীর হযরত আঃ কাদের জিলানী রঃ ইসলামকে জীর্ণ বার্ধক্যে উপনীত পেয়েছিলেন , অতঃপর তিনি ইসলামকে যৌবনে রেখে গিয়েছেন । আল্লাহর কসম করে বলছি , আমি ইসলামকে উন্মাদ পেয়েছি । আর ইসলাম উন্মাদ হওয়ার কারণ , লোক দেখানো কঠোর ইবাদত এবং তীব্র সংশয়যুক্ত ঈমান । এখন সকল মানুষই লোক দেখানো আমল করছে , যা আল্লাহর নিকট সামান্যতমভাবে গ্রহণযোগ্য হবে না ।



প্রিয় মুসলিম , তুমি ৭ দরজার ভিতরে থেকেও লোকদেখানো ইবাদত করো , আর এজন্যই তুমি হেদায়েত থেকে বঞ্চিত এবং চিরজাহান্নামী । অনেক বড়ো বড়ো পীরসাহেব এবং আলেমরাও এরকম ইবাদত করে থাকে ।



প্রিয় বিশ্ববাসী , হযরত আলী রাঃ রাসুল সাঃ এর পেছনে নামাজ পড়ে এমন নামাজ শিখেছিলেন যে , নামাজের ভিতর পায়ের তীর খোলার সময়ও সে সামন্যটুকু টের পায়নি , অপরদিকে মুনাফিকরা রাসুল সাঃ এর পেছনে নামাজ পড়ে সামান্যতম ঈমানও অর্জন করতে পারেনি এবং এই মুনাফিকরা সবচাইতে নিকৃষ্টতর জাহান্নামে নিক্ষিপ্ত হবে । এমনিভাবে আমাকেও সবাই চিনবে না , যার ভাগ্য ভালো শুধু সেই চিনবে ।



পরিশেষে সুরা তওবার আরেকটি আয়াত বর্ণনা করে লেখা শেষ করছি , আয়াতটি হলো - "তাহারা তাহাদের মুখের ফুৎকারে আল্লাহর জ্যোতি নির্বাপিত করিতে চাহে । কাফিরগন অপ্রীতিকর মনে করিলেও আল্লাহ তাঁহার জ্যোতির পূর্ণ উদ্ভাসন ব্যাতীত অন্য কিছু চাহেন না" । [ সুরা তওবা , আয়াত - ৩২ ]



( ডাঃ আকন্দ ) ।
৩টি মন্তব্য ০টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

কিছুটা আত্মকথন, কিছুটা স্মৃতিচারন আর আমার গানের ভুবন!!!

লিখেছেন ভুয়া মফিজ, ০১ লা জুন, ২০২০ সকাল ১১:৩৩




কোন একটা ক্রাইসিসে একেক মানুষ একেকভাবে প্রতিক্রিয়া দেখায়। কারন, ক্রাইসিস ম্যানেজমেন্ট সবার একরকমের হয় না। মানুষ হিসাবে আমি কেমন….…..দুর্বোধ্য নাকি সহজবোধ্য? প্রশ্নটা আমার নিজের কাছেই।

গত কয়েকদিন ধরে মাথায় ঘুরছে... ...বাকিটুকু পড়ুন

» প্রকৃতির ছবি, দেশের ছবি (ক্যানন ক্যামেরায় তোলা-৭)

লিখেছেন কাজী ফাতেমা ছবি, ০১ লা জুন, ২০২০ বিকাল ৪:০০

বিভিন্ন সময়ের তোলা কিছু ছবি ।
১। পিটুনিয়া



কেমন আছেন সবাই? কেমন ছিলেন? বন্দিত্বের দিনগুলোতে। অনেক দিন গ্যাপ হয়ে গেলো পোস্ট দিচ্ছি না। বন্দি থেকে থেকে হয়রান হইতে হইতে অফিস করছি এখন।... ...বাকিটুকু পড়ুন

খানসাব জানিলো কেমনে !!

লিখেছেন নূর মোহাম্মদ নূরু, ০১ লা জুন, ২০২০ বিকাল ৪:৩৫


খানসাব জানিলো কেমনে!!
নূর মোহাম্মদ নূরু

ও মনু তাইলে তুমিও ছিলা ওদের দলে
বুঝছ এখন ক্যামনে তুমি পড়াছা যাতা কলে!
বারোটা সাঙ্গাত যখন উঠলা রাতের ট্রেনে
মতি গতি ভালোনা তা বুঝলো আামার ব্রেনে।

মজা করে... ...বাকিটুকু পড়ুন

আমেরিকান সৌন্দর্য্য

লিখেছেন শের শায়রী, ০১ লা জুন, ২০২০ বিকাল ৫:০৩



একেই বলে আমেরিকান সৌন্দর্য্য। সব খানে জর্জ ফ্লয়েডের কারনে আমেরিকায় শুধু মারামারি, হানাহানির ছবি খবর দেখে বিরক্ত। কারন এতে আমি নতুনত্ব কিছু খুজে পাই নাই। আমাদের দেশে এসব... ...বাকিটুকু পড়ুন

বাংলাদেশ পৃথিবীর সবচেয়ে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ

লিখেছেন অনল চৌধুরী, ০১ লা জুন, ২০২০ রাত ১০:৪০



ইউরোপ-এ্যামেরিকায় প্রতিদিন মুসলমান-এশিয় ও আফ্রিকানদের উপর জঘন্য বর্ণবাদী আক্রমণ হয়।
এ্যমেরিকাতে এখনো কালোদের প্রায় ক্রীতদাসই ভাবা হয়।

তাদের প্রতি পুলিশের আচরণই তার প্রমাণ।পুলিশ তাদের যেকোনো সময়ে বিনা অপরাধে গ্রেফতার এমনকি হত্যাও... ...বাকিটুকু পড়ুন

×